নগুগি ওয়া থিয়োঙ্গ’ও

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
নগুগি ওয়া থিয়োঙ্গ'ও
Ngũgĩ wa Thiong'o (signing autographs in London).jpg
নগুগি ওয়া থিয়োঙ্গ'ও
জীবিকা ঔপন্যাসিক, উত্তর-ঔপনেবেশিক তাত্ত্বিক এবং সামজিক আন্দোলনকারী।


নগুগি ওয়া থিয়োঙ্গ'ও (টেমপ্লেট:Pronounced; জন্ম ৫ই জানুয়ারি, ১৯৩৮[১]) একজন ঔপন্যাসিক, উত্তর-ঔপনেবেশিক তাত্ত্বিক এবং সামজিক আন্দোলনকারী। তাঁর জন্ম কেনিয়ায় ১৯৩৮ খ্রিস্টাব্দে, এক কৃষক পরিবারে। তাঁর নাম রাখা হয়েছিল জেমস্‌ নগুগি। ১৯৭৬-এ তিনি নাম পরিবর্তন করেন।[২] সাহিত্যের নানা শাখায় তাঁর বিচরণ তাৎপর্যপূর্ণ। তাঁর উপন্যাস, নাটক, প্রবন্ধ, সমালোচনা, ছোটগল্প এবং শিশুতোষ রচনাবলী সারা বিশ্বে ব্যাপকভাবে পরিচিত ও নন্দিত। তিনি প্রথমে ইংরেজীতে লিখতে শুরু করেছিলেন কিন্তু ১৯৭৭-এ আমি যখন মন চায় বিয়ে করবো গ্রন্থটির কারণে তাঁকে কারাবন্দী করা হলে তিনি মাতৃভাষায় লেখার সিদ্ধান্ত নেন। ক্রুশকাঠের শয়তান গ্রন্থটি তিনি রচনা করেছিলেন বন্দীদশায়, টয়লেট পেপারের ওপর। তাঁর প্রথম উপন্যাস কেঁদোনা, বাছা প্রকাশিত হয় ১৯৬৪ খ্রিস্টাব্দে। এই ঐতিহাসিক উপন্যাসটি একজন শক্তিশালী ও রাজনৈতিক কথাসাহিত্যিকের আত্মপ্রকাশ ঘোষণা করেছিল। তিনি এ উপন্যাসে কেনিয়ার মানুষ ও ব্রিটিশ উপনিবেশের সম্পর্ক উপজীব্য করেছেন।[৩] তিনি ম্যাকারিরি বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইউনিভার্সিটি অব লিডস্‌-এ অধ্যয়ন করেছেন। বর্তমানে তিনি ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (আর্ভিং) ডিস্টিংগুইশড্‌ প্রফেসর হিসাবে শিক্ষকতা করছেন। তাঁর বিষয় তুলনামূলক সাহিত্যতত্ত্ব। তিনি ২০১০ খ্রিস্টাব্দের সাহিত্যের নোবেল পুরস্কারের জন্য শর্টলিস্টেড হয়েছেন।[৪] তাঁর স্মৃতিকথা যুদ্ধে কালের স্বপ্ন উপনিবেশবিরোধী সংগ্রামের একটি শিল্পীত দলিল। তাঁর উইযার্ড অব দ্য ক্রো একটি নিপূর্ণ রচনা হিসাবে স্বীকৃত। তাঁর সাহিত্যকীর্তির স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি ২০০১ খ্রিস্টাব্দে নোনিনো ইন্টারন্যাশনাল প্রাইয ফর লিটেরেচার লাভ করেছেন। এ ছাড়া ২০০৯ পর্যন্ত ৭টি বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে সম্মানসূক ডিগ্রী প্রদান করেছ্

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Ngugi Wa Thiong’o: A Profile of a Literary and Social Activist"। ngugiwathiongo.com। সংগৃহীত 2009-03-20 
  2. নগুগি ওয়া থিয়োঙ্গ'ও বিষয়ে তথ্যতীর্থ
  3. নগুগি ওয়া থিয়োঙ্গ'ও
  4. লন্ডনের গার্ডিয়ান পত্রিকায় ৫ অক্টোবর ২০১০ তারিখে প্রকাশিত নিবন্ধ

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]