চীনের ধর্মবিশ্বাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Religion in China, year 2010.png
ছোংশাং মন্দির, চীনের ইউনান প্রদেশের তালি শহরে অবস্থিত একটি বৌদ্ধমন্দির

শানধর্ম-থাওধর্ম বর্তমানে চীনের বৃহত্তম ধর্ম।[১][২] চীনের ২০-৩০% লোক এই ধর্মগুলি পালন করেন। এদের মধ্যে প্রায় ১৬ কোটি লোক, অর্থাৎ চীনের মোট জনসংখ্যার প্রায় ১১% মাৎসু নামের দেবীর পূজা করে।[৩] বৌদ্ধধর্ম ২য় বৃহত্তম ধর্ম (১৮-২০% লোক)।[৪][৫][৬] দেশের ৩-৪% লোক খ্রিস্টান[৭][৮][৯][১০], ১-২% মুসলমান।[১১]

চীনারা সাধারণত তাদের দেবদেবী ও ধর্মীয় নেতাদের বিশালাকার মূর্তি বানিয়ে থাকে। বিশ্বের সর্বোচ্চ ও সর্ববৃহৎ দেবমূর্তিগুলির অনেকগুলিই চীনে অবস্থিত।

চীনের ৪০-৬০% লোক কোন ধর্মের অনুসারী নন। এরা বেশিরভাগই অজ্ঞাবাদের বিশ্বাসী। কট্টর নাস্তিকের সংখ্যা ১৪-১৫%।[৯][১২]

এগুলি ছাড়াও চীনদেশের আনাচেকানাচে ছড়িয়ে আছে বিভিন্ন স্থানীয় লোকধর্ম ও আচার।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Adherents.com
  2. Asia Sentinel - How Now Tao?
  3. China's Leaders Harness Folk Religion For Their Aims
  4. Buddhism in China. By staff reporter ZHANG XUEYING
  5. Pew Forum: Religion in China on the Eve of the 2008 Beijing Olympics
  6. Prof: Christians remain a small minority in China today
  7. "Survey finds 300m China believers"BBC News। 2007-02-07। সংগৃহীত 2010-05-22 
  8. China Survey Reveals Fewer Christians than Some Evangelicals Want to Believe
  9. ৯.০ ৯.১ http://www.purdue.edu/newsroom/research/2010/100726T-YangChina.html
  10. 2008 Pew Forum survey
  11. CIA - The World Factbook - China
  12. Adherents.com

আরও দেখুন[সম্পাদনা]