গোবেকলি তেপে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গোবেকলিতেপে, শানলিউর্ফা, ২০১১

গোবেকলি তেপে (তুর্কি ভাষায়: Göbekli Tepe, অর্থ: গজন্দর বা ভুড়িওয়ালা পাহাড়[১]) বর্তমান তুরস্কের শানলিউর্ফা (Şanlıurfa) শহর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার (৯ মাইল) উত্তর-পূর্বে অবস্থিত এক পর্বতের চূড়ায় আবিষ্কৃত নব্য প্রস্তর যুগের একটি উপাসনালয়। এটি এখন পর্যন্ত আবিষ্কৃত প্রাচীনতম মনুষ্য-নির্মীত ধর্মীয় স্থাপত্য।[২] ধারণা করা হয় অবকাঠামোটি খ্রিস্টপূর্ব ১০ম সহস্রাব্দে অর্থাৎ প্রায় ১২,০০০ বছর পূর্বে শিকারী-সংগ্রাহক মানব গোষ্ঠী নির্মাণ করেছিল। ১৯৯৫ সালে জার্মান প্রত্নতাত্ত্বিক ক্লাউস শ্মিট জার্মান আর্কিওলজিক্যাল ইনস্টিটিউটের সহায়তায় এর খননকাজ শুরু করেন।[৩] নেভালি চোরি এবং এই গোবেকলি তেপে নব্য প্রস্তর যুগের ইউরেশিয়া সম্পর্কে আমাদের ধারণা আমূল পাল্টে দিয়েছে।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "History in the Remaking"। Newsweek। Feb 18, 2010। 
  2. Göbekli Tepe, Turkey, Unique Early Neolithic Ceremonial Center - Global Heritage Fund
  3. GOBEKLITEPE.INFO
  4. Charles C. Mann, "The Birth of Religion", ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক সাময়িকী, জুন ২০১১