মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন, ২০০৮

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
বিজয়ী বারাক ওবামা। ডেমোক্র্যাটিক পার্টির হয়ে লড়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম আফ্রিকান-অ্যামেরিকান প্রেসিডেন্ট
পরাজিত জন ম্যাকেইন। রিপাবলিকান পার্টির পক্ষে লড়েছেন। নির্বাচিত হলে যুক্তরাষ্ট্রের প্রবীণতম ফার্স্ট-টার্ম প্রেসিডেন্ট হতেন

প্রতি ৪ বছর পরপর নভেম্বর মাসের প্রথম মঙ্গলবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ২০০৮ সালে নভেম্বর মাসের প্রথম মঙ্গলবার ছিলো ৪ঠা নভেম্বর। এই দিনই ২০০৮ সালের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এটা ছিলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৫৬তম প্রেসিডেন্ট ও ভাইস-প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠান।

এই নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির পক্ষ থেকে মনোনয়ন পান অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের সিনেটর জন ম্যাকেইন। আর ডেমোক্র্যাটিক পার্টি থেকে প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ইলিনয় থেকে নির্বাচিত সিনেটর বারাক ওবামালিবারেশন পার্টি প্রাক্তন কংগ্রেসম্যান বব বার-কে মনোনয়ন দেয়, কনস্টিটিউশন পার্টি থেকে মনোনয়ন পায় রেডিও টক শো'র উপস্থাপক চাক বল্ডউইন এবং গ্রিন পার্ট থেকে প্রসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে কংগ্রেস সদস্য সিনথিয়া ম্যাকিনিরাল্‌ফ ন্যাডার গ্রিন পার্টির মনোনয়ন লাভের চেষ্টা করেছিলেন, ব্যর্থ হয়ে স্বাধীন প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

এই নির্বাচনে বারাক ওবামা ২৭০ এর বেশি ইলেক্টোরাল ভোট অর্জনের মাধ্যমে জয়লাভ করেন। তিনিই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম আফ্রিকান-অ্যামেরিকান প্রেসিডেন্ট।

এই নির্বাচনে অনেক কিছু প্রথম ঘটেছে। এই প্রথম দুজন বর্তমান সিনেটর একে অন্যের বিরুদ্ধে লড়েছেন। এবারই প্রথম কোন আফ্রিকান-মার্কিন প্রার্থী প্রধান রাজনৈতিক দলের পক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। পাশাপাশি এর আগে কোন নারী প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর পক্ষে ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেনি। এবার সারাহ প্যালিন রিপাবলিকান পার্টির পক্ষে ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। জন ম্যাকেইন নির্বাচিত হলে তিনিই হতেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রবীণতম ফার্স্ট-টার্ম প্রেসিডেন্ট। সিনেটর জোসেফ বাইডেন প্রথম রোমান ক্যাথলিক যিনি ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হলেন।

৩৩টি অঙ্গরাজ্যে একইসাথে সিনেট নির্বাচন চলেছে। আর সবগুলো অঙ্গরাজ্যেই একইসাথে হাউজ অফ রিপ্রেজেন্টিটিভ নির্বাচন চলেছে। তাই সিনেট, হাউজ আর প্রেসিডেন্ট নির্বাচন এবার প্রায় একসাথেই চলেছে। পাশাপাশি ১১টি অঙ্গরাজ্যে একইসাথে গাবারন্যাশনাল নির্বাচন চলেছে। ২০০৪ সালে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের ইলেক্টোরাল ভোট নির্ধারিত হয়েছিল ২০০০ সালের আদমশুমারি অনুসারে। এবারও সেভাবে ইলেক্টোরাল ভোট নির্ধারিত হয়েছে। অঙ্গরাজ্যের প্রতিটি ডিস্ট্রিক্টের জন্য একটি করে ইলেক্টোরাল ভোট নির্ধারণ করা হয়, আর বাকি দুইটি ভোট বরাদ্দ করা হয় সে অঙ্গরাজ্য থেকে মার্কিন সিনেটে কর্মরত দুজন সিনেটরের জন্য। অবশ্য ২৩তম সংশোধনের মাধ্যমে ওয়াশিংটন ডিসি-তে সিনেটরদের জন্য ৩টি ইলেক্টোরাল ভোট নির্ধারণ করা হয়েছে।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে বিভিন্ন দলের অবস্থা। নীল মানে ডেমোক্র্যাটরা জিতেছে, আর লাল মানে রিপাবলিকানরা জিতেছে। ধূসর মানে এখনও ফলাফল ঘোষিত হয়নি। মাঝের সংখ্যা দ্বারা সে অঙ্গরাজ্যে ইলেক্টোরাল ভোটের সংখ্যা নির্দেশ করা হচ্ছে।

প্রচারণায় বিভিন্ন অবদান[সম্পাদনা]

সংবাদ মাধ্যম[সম্পাদনা]