এই ব্যবহারকারীর বাংলা উইকিপিডিয়ায় স্বয়ংনিশ্চিতকৃত অধিকার রয়েছে।

ব্যবহারকারী:খোরশেদ আলম হৃদয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

আমার সম্পর্কে: Khorshed Alam Hridoy

এই মুহূর্তে বাংলা উইকিপিডিয়াতে নিবন্ধ আছে ৮৯,৩১৯ টি

মোট পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ৮,০০,২৫৩

মোট ফাইলের সংখ্যাঃ ৯,৪৮৪

মোট ব্যবহারকারীর সংখ্যাঃ ২,৮৪,৪০৪

প্রত্যেক মানুষেরই নিজ নিজ পরিচয় থাকে। ব্যক্তি পরিচয় মানুষের ব্যক্তিস্বত্তাকে জাগিয়ে তোলে। আমি বর্তমান মানব সভ্যতার একটি অংশ। আর তাই আমারও একটি নিজস্ব পরিচয় আছে। সে পরিচয় আপনাদের সামনে তুলে ধরার একটি ক্ষুদ্র প্রয়াস নিচ্ছি।

অনলাইন জগতে কেউ নিজের নামে, কেউ ছদ্মনামে আবার কেউবা পরিচয় দেয় রংবেরং-এর রঙিন নামে। আমি প্রথম দলে, অর্থাৎ নিজের নামে পরিচয় দিতেই ভালোবাসি। আমার ডাকনাম নিয়ে অনেকে কানাঘুষা করলেও তা নিয়ে আমার কোনো ভ্রূক্ষেপ নেই। আমার বসবাস আন্তর্জালের (ইন্টারনেট) অলিগলিতে। বোঝাই যাচ্ছে আমার দিনের বেশিরভাগ সময় কাটে গণকযন্ত্রের (কম্পিউটার) মনিটর আর কীবোর্ড নিয়ে গুতাগুতি করে। মাঝেমধ্যে বাসার বিভিন্ন কক্ষে পদব্রজে অভিযান চালাই আর একটু-আধটু বাইরের হাওয়া খেতে যাই। কিন্তু সেটা স্কুলের কারনে ।

কম্পিউটারের সাথে আমার পরিচয় হয় ২০১১ সালের দিকে। অন্যদের মতো আমারও প্রথম প্রথম এই গণকযন্ত্র ধরতেই হাত কাঁপা শুরু হতো। কিন্তু স্বাভাবিক ভাবেই তা কেটে গেলো এবং কম্পিউটারের সাথে আমার ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকলো। তারপরও আমি বেশি কিছুই করতে পারতাম না, মাইক্রোসফটের খাতা (ওয়ার্ড) খুলে আঁকাআঁকি করতাম, লিখালিখিটাও ভালো লাগতো না। তাইতো, আমি এখনো অন্যদের মতো করে কীবোর্ডে সঠিক নিয়মে হাতটাই বসাতে পারি না। আন্তর্জাল, অর্থাৎ আমাদের ইন্টারনেট আমার কাছে তখন বেশ রহস্যময় মনে হতো। ইন্টারনেটের জন্ম কিভাবে হলো তা নিয়েই সারাক্ষণ ভাবতাম। একদিন গুগলে সার্চ দিয়ে বসলাম, আর পরিচয় হলো টেকটিউন্সের সাথে। টেকটিউন্স, সত্যিই অসাধারণ একটা বাংলা ব্লগ ছিল। কিন্তু স্পামারের সংখ্যা অতিরিক্ত বেড়ে যাওয়ার কারনে এখন আর ভিজিট করতে ইচ্ছা করে না। টেকটিউন্সকে দেখে আমারও ব্লগিং করার আগ্রহ পাই। তারপর একটা ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগ খুলে ব্লগিং শুরু করি। ভিজিটরও হতো, কিন্তু সে ব্লগটা হ্যাকিং এর শিকার হয় । তখন এসব বিষয়ে তেমন জানতাম না বলে আর উদ্ধারও করতে পারিনি।

জন্মের পর থেকে সব মানুষেরই আছে অজানাকে জানার প্রবল আগ্রহ। জীবন চলার পথে কারও আগ্রহ শুধুমাত্র পুঁথিগত বিদ্যায় কেন্দ্রীভূত হয়ে যায়, কেউ তার বাইরেও অনেক কিছু শিখতে চায়। এর সবই নির্ভর করে পারিপার্শ্বিক সমাজব্যবস্থা, চাহিদা-যোগান ও প্রাপ্ত সুযোগ-সুবিধার ওপর। টেকটিউন্স থেকেই নানা অজানা বিষয় সম্পর্কে জানতে লাগলাম। ছোট থেকেই বিজ্ঞান নিয়ে আমার ব্যাপক আকর্ষণ ছিল। তাই তাই বিজ্ঞান বইটা আমি খুব ভালো ভাবেই পড়তাম। ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিজ্ঞানের নানা বিষয় সম্পর্কে আমি আরো বিস্তারিত ভাবে জানতে পারলাম। যত জানতে থাকলাম, আগ্রহটাও ততই বেড়ে গেল।

সব কিছুরই একটা শুরুর প্রয়োজন আছে, তেমনই আব্বু ও চাচার সাহায্যে আমার ফ্রিলেন্সিং যাত্রা শুরু হলো। আমার আগ্রহ দেখে আব্বু আর চাচাও এগিয়ে এলেন। উনারা যা জানতেন তা আমায় বুঝিয়ে দিতেন, বাকিটার জন্য গুগল তো আছেই! এভাবেই চলতে থাকে। আমি মনে করি, আমার জীবনে এ পর্যন্ত অর্জন করা ৮০% জ্ঞানই গুগলের কাছ থেকে ধার করা।

জ্ঞান-বিজ্ঞানের প্রায় সকল শাখাতেই আমার প্রবল আগ্রহ (গনিত ছাড়া )। কিছু আগ্রহ সময়ে সময়ে পরিবর্তিত হয়, কিছু আগ্রহ অপরিবর্তিত থেকে যায় এবং সেই সাথে যোগ হয় নতুন নতুন আগ্রহ যার মধ্যে কিছু পরিণত হয় দৈনন্দিন শখে। অনেক আগে আমার শখের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল বইপড়া, যা এখনো আছে। অন্যদের মতো বাগান করাও আমার শখের অন্তর্ভুক্ত হতো, যদি সে সুযোগ থাকতো। তাছাড়া, বিভিন্ন ছোটো ছেলেমেয়েদের মতো স্টিকার সংগ্রহ ছিল আমার অন্যতম একটি শখ, কিন্তু সময়ের ব্যবধানে সে শখ হারিয়ে গেছে। বর্তমান সময়ের আমার বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য শখের মধ্যে রয়েছে ব্লগিং করা, সাইন্সপ্রজেক্ট তৈরি করা (সৃজনশীল, কপি না ) এবং বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রপাতি পুরোপুরি খুলে আবার লাগানো । ভবিষ্যতে হয়তো আরও অনেক আগ্রহ শখে পরিণত হবে এবং সেইসাথে অনেক আগ্রহ অকালে মৃত্যুবরণ করবে সময় এবং সুযোগের অভাবে। এমনই একটি শখ আমারও আছে। সে শখ হারিয়ে গেছে অজানায়। বাংলাদেশে যখন প্রথমবার কোয়াডকপ্টার (লোকমুখে ড্রোন) উড়ানো হয়, তখন আমার ইচ্ছা হয় এমন একটা কোয়াডকপ্টার বানানোর, যা একসাথে সকল কাজ করবে। শুধু মাত্র হালকা একটু পরিবর্তন করলেই হবে। কিন্তু সে শখ পূরন হয়নি। তাই আশাটাও ছেড়ে দিয়েছি।

আমি একটু বেশিই অলস টাইপের হলেও নিয়মিত এ ব্লগে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির বিষয়ে লিখার চেস্টা করব। সেসব পড়ে আপনারা একটু উপকৃত হলেও আমার পরিশ্রম সফল হবে।

—– ধন্যবাদ

খোরশেদ আলম হৃদয়
ব্যবহারকারী সম্পর্কে
সক্রিয়
— উইকিপিডিয়ান —
নামখোরশেদ আলম হৃদয়
জন্মহৃদয়
(1998-09-01) ১ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮ (বয়স ২১)
গাজীপুর
বাস্তব জীবনে নামখোরশেদ আলম হৃদয়
জাতীয়তাবাংলাদেশী
দেশ বাংলাদেশ
বর্তমান অবস্থানগাজীপুর
ভাষাবাংলা, ইংরেজি
সময় অঞ্চলইউটিসি+০৬:০০
জাতিতত্ত্ববাঙালি
জাতিবাঙালি
উচ্চতা৫ ফুট ৮ ইঞ্চি (১.৭৩ মিটার)
ওজন৭০ কিলোগ্রাম (১৫০ পা)
চুলকালো
চোখশ্যামলা
রক্তের ধরনএ+ (A+)
পরিবার এবং বন্ধু-বান্ধব
বৈবাহিক অবস্থাঅবিবাহিত
শিক্ষা এবং কর্মসংস্থান
পেশাছাত্র
শিক্ষাচলমান
প্রাথমিক বিদ্যালয়কুমুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
উচ্চ বিদ্যালয়খাতিয়া বন্দান ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা।]]
শখ, পছন্দ এবং বিশ্বাস
শখসংগ্রহ করা, তথ্যপ্রযুক্তি, কম্পিউটার বিজ্ঞান
ধর্মইসলাম
আগ্রহ
যোগাযোগের তথ্য
ফেসবুকwebhridoy
গুগল++webhridoy
লিঙ্কডইনwebhridoy
টুইটারwebhridoy
অ্যাকাউন্ট পরিসংখ্যান
যোগদান১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৩
প্রথম সম্পাদনা১০ এপ্রিল ২০১৫
সম্পাদনা সংখ্যা৩৪৪
ব্যবহারকারী বাক্স
Office calendar-bn.svg এই ব্যবহারকারী উইকিপিডিয়ায় আছেন ত্রুটি: বৈধ বছর, মাস, দিন প্রয়োজন
৩৪৪+এই ব্যবহারকারী উইকিপিডিয়ায় ৩৪৪টিরও বেশি সংখ্যক সম্পাদনা করেছেন এবং, ফলস্বরূপ, সামান্য উন্মাদ হতে পারেন।
Map of Bengal.svgএই ব্যবহারকারী বাঙালি হয়ে গর্বিত।
বাংলা.svgবাংলা এই ব্যবহারকারীর মাতৃভাষা
No smoking symbol.svgএই ব্যবহারকারী ধূমপান অত্যন্ত ঘৃণা করে।
Male.svgউইকিপিডিয়ার এই অবদানকারী একজন পুরুষ
Istanbul, Hagia Sophia, Allah.jpgএই ব্যবহারকারী একজন মুসলিম
ব্যবহারকারী কাল রং ভালবাসেন
Flag of Bangladesh (1971).svgএই ব্যবহারকারী
বাংলাদেশের
একজন নাগরিক
Crystal krfb.png ব্যবহারকারী ডেস্কটপ ব্যবহার করে উইকিপিডিয়ায় অবদান রাখেন
১৩+
এই ব্যবহারকারী একজন কিশোর
Wikipedia-logo-v2.svgএই ব্যবহারকারী উইকিপিডিয়ান হিসেবে গর্ববোধ করে।
Mixed-handed-right.png এই ব্যবহারকারী একজন ডান-হাতি
Windows logo - 2012.svg
এই ব্যবহারকারী মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ব্যবহার করে অবদান রাখেন।
ইংরেজি
to
বাংলা
এ ব্যবহারকারী একজন অনুবাদক যিনি অনুবাদ প্রকল্পে ইংরেজি ভাষা থেকে বাংলা ভাষায় অনুবাদ করেন।
Facebook Logo Mini.svgএই ব্যবহারকারীর ফেসবুক প্রোফাইল
|}
আমার উইকিপিডিয়া ব্যবহারকারী পাতায় আপনাদের স্বাগত জানাই।