বিগ বয় (গান)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(বিগ বয়(গান) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
"বিগ বয়"
চিত্র:Big Boy 1995.jpg
জ্যাকসন ৫ এর একক
বি-সাইড"ইউ হ্যাব চেঞ্জেড"
মুক্তিজানুয়ারি ৩০, ১৯৬৮
জুন ১৪, ১৯৯৫ (ইউ.এস.)
রেকর্ডনভেম্বর ১৯৬৭
ধরনআত্মা
সময়৩:০০ (মূল রেকর্ড)
৩:৩৬ (সিডি রিলিজ)
লেবেলস্টীলটাউন রেকর্ড
গীতিকারএড সিলভার
প্রযোজকগর্ডন কিথ, ১৯৬৮
জ্যাকসন ৫, ১৯৯৫
জ্যাকসন ৫ একক কালানুক্রম
বিগ বয়/"ইউ হ্যাভ চেঞ্জ"
(১৯৬৮)
“উই ডোন্ট হ্যাভ টু বি ওভার ২১(টু ফল ইন লাভ)”
(১৯৬৮)

জানুয়ারী ১৯৬৮ সালে, "বিগ বয়" ওরফে "আই এম এ বিগ বয় নাও" জ্যাকসন ৫(জ্যাকসন ফাইভ) কর্তিক স্টীলটাউন রেকর্ডের মাধ্যমে মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম একক অ্যালবাম। স্টীলটাউন বাদ্যযন্ত্রের কম্পোজিশনে দলটি "বিগ বয়" সঙ্গীতে অভিনয় করেছিল। গানটি সমালোচনামূলকভাবে অথবা বাণিজ্যিকভাবে সফল ছিল না কিন্তু জ্যাকসন পরিবার তবুও ফলাফলে আনন্দিত ছিল। 

জ্যাকসন ৫ মোটাউন রেকর্ডের সাথে কাজ করার আগে স্টীলটাউন রেকর্ডের সঙ্গে একটি দ্বিতীয় একক প্রকাশ করেছিল। স্টীলটাউন রেকর্ডস গ্রুপ এর রেকর্ডিংগুলো নষ্ট হয়ে যাবে বলে মনে করা হয়েছিল। কিন্তু তারা আরো ২৫ বছর পরে সেগুলোকে পুনরাবিষ্কার করেছিল। "বিগ বয়" এর প্রচারমূলক নেতৃত্ব একক হিসেবে ১৯৯৫ সালে তারা সেগুলোকে পুনঃআয়ত্ত এবং পুনরায় ইস্যু করেছিল।

প্রথম রেকর্ড চুক্তি এবং একক নেতৃত্ব[সম্পাদনা]

জ্যাকসন ৫ প্রতিভা প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তাদের অভিনয় কর্মজীবনের শুরু করে। ব্যেকম্যান জুনিয়র হাই এর একটি অনুষ্ঠানের সময়, দলটি গ্যারি, ইন্ডিয়ানা গ্রুপ এর হোমটাউন ভিত্তিক কোম্পানি, স্টীলটাউন রেকর্ডস মালিক গর্ডন কিথ এর নজরে আসে। কিথ সীমিত সংখ্যক রেকর্ডিংয়ের জন্য শিশুদের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেন। তাদের যন্ত্র এবং সমর্থিত দল নিয়ে ছুটির দিনে ব্যান্ডটি রেকর্ড করা হয়েছিল। "বিগ বয়" এর ট্র্যাকসহ, মাইকেল জ্যাকসন ট্র্যাকের বেশীর ভাগ অংশ খালি কণ্ঠে গেয়েছিল এবং তার ভাইয়েরা অনেক অংশ যোগ করেছিল, যা রেকর্ডে করতে কয়েক ঘন্টা সময় লেগেছিল এবং এটা লিখেছিল এড সিলভার। [১][২][৩] প্রত্যেকটি রেকর্ড বিক্রির জন্য দলটিকে তিন সেন্ট করে দেওয়া হতো এবং যা পাঁচজন সদস্যদের মাঝে সমানভাবে ভাগ হতো।[৪] দলটি জানুয়ারি ৩০, ১৯৬৮ সালে তাদের প্রথম একক অ্যালবাম "বিগ বয়" মুক্তি দেয়। এটার বি-সাইডে "ইউ হ্যাব চেঞ্জেড" এর সাহায্যে করা হয়েছিল। ব্রাদার্সরা তাদের জীবনের প্রথম জুড়ে অনেক স্ট্রিপ ক্লাবে "বিগ বয়" অভিনয় করতে যেত।[১][৪]

অভ্যর্থনা এবং জ্যাকসন পরিবার[সম্পাদনা]

 জ্যাকসন পরিবার প্রথমবার গানের সম্প্রচার শুনতে রেডিওর চারপাশে জড়ো হয়েছিল। ৯ বছর বয়সী মাইকেল জ্যাকসন তার অভিজ্ঞতায় বলেন, “পরিবারের সবাই হাসাহাসি করেছিলো এবং অমরা একে অন্যকে জড়িয়ে ধরেছিলাম। আমরা মনে করেছিলাম আমরা করতে পেরেছি।” "বিগ বয়" এককটি বিলবোর্ডের সঙ্গীত চার্টে প্রদর্শিত হয়নি কিন্তু ১০,০০০ কপির বেশি বিক্রি হয়েছিল। [১][৫][৬]

স্টীলটাউন ত্যাগ করা[সম্পাদনা]

জ্যাকসন ৫ স্টীলটাউন রেকর্ডের মাধ্যমে দ্বিতীয় ও চূড়ান্ত একক অ্যালবাম “উই ডোন্ট হ্যাভ টু বি ওভার ২১(টু ফল ইন লাভ)” মুক্তি দিয়েছিল।[১] দুটি একক অ্যালবাম ইলেভেন ট্র্যাক স্টুডিও অ্যালবাম দ্বারা তৈরী হয়েছিল কিন্তু এগুলো মুক্তি পায়নি।[৭] জুলাই ২৬, ১৯৬৮ সালে, দলটি মোটাউন রেকর্ডস সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে।[৮] যাইহোক, যেহেতু দলটির স্টীলটাউনের সাথে চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়নি, তাই নতুন চুক্তি সম্পূর্ণরূপে মার্চ ১১, ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত কার্যকর করা হয়নি। মোটাউন রেকর্ডস দলটিকে স্টীলটাউনের চুক্তির বাইরে পেতে চেষ্টা করেছিল, এবং শেষ পর্যন্ত একটি আর্থিক নিষ্পত্তির মাধ্যমে তারা এটা করতে সফল হয়েছিল।[৯]

পুনরাবিস্কার[সম্পাদনা]

"বিগ বয়" এর মাস্টার টেপ হারিয়ে যাবে বলে মনে করা হয়েছিল; যাইহোক, ১৯৯৪ সালে তাদের পারিবারিক বন্ধু বেন ব্রাউন, তার বাবার 'রান্নার ভাঁড়ারঘরে টেপটি পায়।.[৬] ব্রাউন ১৯৯৫ সালে বিপর্যস্ত রেকর্ডস ট্যাগটির রেকর্ড পুন:প্রকাশ করে - এর এক সপ্তাহ আগেই মাইকেল জ্যাকসনের হিস্টোরি অ্যালবামটি প্রকাশ করা হয়। তিনিও গানটিকে পুনরায় আয়ত্ত করে, যন্ত্রসংগীতটিকে ডাকের মাধ্যমে বিক্রি করতেন, সীমিত সংস্করণের প্যাকেজটির মধ্যে ছিল একটি কম্প্যাক্ট ডিস্ক এবং ক্যাসেট টেপ এবং প্যাকেজটি প্রায় $৩০ খরচ করে কেনা যেত।[৩][৭][১০] "বিগ বয়" এর পুন:প্রকাশটি মিউজিক ভিডিওতে উন্নীত করা হয়েছিল।[১১] ২০০৯ সালে, গর্ডন কিথ স্টীলটাউন কোম্পানির সময়কার, ৪৫ আর.পি.এম ফরম্যাটের 'বিগ বয়' "এর অনেকগুলো প্রাক মালিকানাধীন পণ্যের কপি এবং “উই ডোন্ট হ্যাভ টু বি ওভার ২১(টু ফল ইন লাভ)” এর ১০০ কপি নিলামের জন্য রাখেন। কিথের বিবৃত, “আমি অর্থ ব্যবহার করতে পারি... আমি এইসব ছেলেদের ভূমিতে পেয়েছিলাম... আমি সত্যিই এটার জন্য কোন প্রকৃত অর্থ পাইনি”।[১২]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. Taraborrelli, p. 36–37
  2. Summers, Kim। "Jackie Jackson biography"Allmusic। সংগ্রহের তারিখ January 09, 2008  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  3. "Young Michael Jackson's 1st Record to Be Re-Released"। Chicago Sun-Times। জুন ১৮, ১৯৯৪। 
  4. Mankiewicz, Josh (নভেম্বর ২১, ২০০৩)। "Michael Jackson: Unmasked"MSNBC। ১১ জানুয়ারি ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৯, ২০০৮ 
  5. George, p. 31
  6. "Little-heard Jackson song comes out of the pantry"Deseret News। জুলাই ৯, ১৯৯৪। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৭, ২০০৯ 
  7. "Early Jackson 5 Records Set For Re-release On CD".
  8. Taraborrelli, p. 48
  9. Taraborrelli, p. 51
  10. Warner, p.170
  11. Susan Bickelhaupt and Ellen O'Brien.
  12. Kostanczuk, Bob (এপ্রিল ৩০, ২০০৯)। "Jackson 5 collection for sale"Post Tribune। মে ৩, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩০, ২০০৯ 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]