ইলেকট্রিক শক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ইলেকট্রিক শক বলতে শরীরের ভিতর দিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হওয়ার ফলে সৃষ্ট অণুভুতিকে বুঝায় । শরীরের ভিতর দিয়ে পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ প্রবাহিত হলেই কেবল শক লাগে । অতি অল্প পরিমাণ প্রবাহ কোন অনুভূতি সৃষ্টি না করতে পারলেও বেশি বিদ্যুৎ প্রবাহ শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ পুড়ে যাওয়া থেকে শুরু করে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটাতে পারে ।

ইলেকট্রিক শক লাগার ফলে পুড়ে যাওয়া দেহ

শক লাগার জন্য প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ[সম্পাদনা]

ইলেকট্রিক শক লাগার জন্য সর্বনিম্ন যে বিদ্যুৎ প্রবাহ প্রয়োজন তা নির্ভর করে বিদ্যুতের ধরন এবং কম্পাঙ্কের উপর । শরীরের ভিতর দিয়ে 6০/50 হার্জ কম্পাঙ্কের এসি বিদ্যুৎ প্রবাহ ১ মিলিএম্পিয়ার (আরএমএস) হলেই একজন ব্যক্তি তা অনুভব করতে পারেন, কিন্তু ডিসি হলে কমপক্ষে ৫ মিলিএম্পিয়ার লাগে অনুভূতি সৃষ্টি করতে । বিদ্যুৎ প্রবাহিত হলে দেহের রোধের জন্য তাপ উৎপন্ন হয় । এই তাপ দেহের বাইরের বা ভিতরের অংশ পুড়ে ফেলতে সক্ষম । ৪ এম্পিয়ারের বেশি প্রবাহ টিস্যু পুড়ে ফেলে, হৃৎপিণ্ড বন্ধ হয়ে যায় এবং মৃত্যু হতে পারে ।

ক্ষতিকর প্রভাব[সম্পাদনা]

  1. পুড়ে যাওয়া
  2. পেশীর নিয়ন্ত্রণ হারানো
  3. স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতি
  4. শ্বাসকষ্ট ইত্যাদি|