ইন্দোনেশিয়ার স্বাধীনতা যুদ্ধ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইন্দোনেশিয়ার স্বাধীনতা যুদ্ধ
Perang Kemerdekaan Indonesia
RI Transfer Signing.jpg
নেদারল্যান্ডসের রানী জুলিয়ানা ১৯৪৯ সালের ২৭ ডিসেম্বর হেগ শহরে যুক্তরাষ্ট্রীয় ইন্দোনেশিয়ার নিকটে সার্বভৌমত্ব হস্তান্তরের চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করছেন
তারিখ১৭ আগস্ট ১৯৪৫ – ২৭ ডিসেম্বর ১৯৪৯
অবস্থান
ফলাফল

ইন্দোনেশিয়ার বিজয়

  • ইন্দোনেশিয়া স্বাধীনতা লাভ করে
  • নেদারল্যান্ডস ইন্দোনেশিয়াকে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি প্রদান করে
অধিকৃত
এলাকার
পরিবর্তন
ডাচ ইস্ট ইন্ডিজ স্বাধীন ইন্দোনেশিয়া রাষ্ট্রে পরিণত হয়
বিবাদমান পক্ষ

ইন্দোনেশিয়া ইন্দোনেশিয়া

নেদারল্যান্ডসের রাজত্ব নেদারল্যান্ডস (১৯৪৬ সাল থেকে)

যুক্তরাজ্য যুক্তরাজ্য (১৯৪৬ সাল পর্যন্ত)

জাপানের সাম্রাজ্য জাপানি সাম্রাজ্য (১৯৪৬ সাল পর্যন্ত)
সেনাধিপতি ও নেতৃত্ব প্রদানকারী
সুকার্নো
মোহাম্মাদ হাত্তা
সুদির্মান
শ্রী সুলতান নবম হামেংকুবুওয়ানা
সিয়াফরুদ্দিন প্রাওয়িরানেগারা
সুতোমো
সিমন স্পুর
হুবের্টাস ভ্যান মুক
উইলেম ফ্র্যাঙ্কেন
ক্লিমেন্ট এটলি
স্যার ফিলিপ ক্রিস্টিসন
তোজোকোর্দা সুকাওয়াতী
সুলতান দ্বিতীয় হামিদ
শক্তি
প্রজাতান্ত্রিক সেনাবাহিনী:
১,৯৫,০০০ সৈন্য
পেমুদা:
~১,৬০,০০০ সৈন্য
প্রাক্তন জাপানি রাজকীয় বাহিনীর স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ:
৩,০০০ সৈন্য
ব্রিটিশ ভারতীয় বাহিনীর দলত্যাগী:
৬০০ সৈন্য
ডাচ রাজকীয় সেনাবাহিনী:
২০,০০০ সৈন্য (শুরুতে)
১,৮০,০০০ সৈন্য (সর্বোচ্চ)
ডাচ ইস্ট ইন্ডিজ রাজকীয় সেনাবাহিনী:
৬০,০০০ সৈন্য
ব্রিটিশ সেনাবাহিনী:
৩০,০০০+ সৈন্য (সর্বোচ্চ)[১]
হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতি
ইন্দোনেশিয়া ৪৫,০০০–১,০০,০০০ সশস্ত্র যোদ্ধা নিহত নেদারল্যান্ডস ৬,২২৮ সৈন্য নিহত[২]
যুক্তরাজ্য ১,২০০ সৈন্য নিহত[৩]
২৫,০০০–১,০০,০০০ বেসামরিক মানুষ নিহত[৪]

ইন্দোনেশিয়ার স্বাধীনতা যুদ্ধ অথবা ইন্দোনেশীয় জাতীয় বিপ্লব (ইন্দোনেশীয়: Perang Kemerdekaan Indonesia, ওলন্দাজ: Indonesische Onafhankelijkheidsoorlog) ছিল ইন্দোনেশিয়ানেদারল্যান্ডসের মধ্যে একটি সশস্ত্র সংঘর্ষ ও কূটনৈতিক লড়াই, এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী একটি সামাজিক বিপ্লব। এটি ১৯৪৫ সালে ইন্দোনেশিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণার মাধ্যমে শুরু হয় এবং ১৯৪৯ সালের শেষদিকে নেদারল্যান্ডসের ইন্দোনেশিয়ার স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি প্রদানের মধ্য দিয়ে যুদ্ধটির সমাপ্তি ঘটে।

পটভূমি[সম্পাদনা]

স্বাধীনতা ঘোষণা[সম্পাদনা]

বিপ্লব[সম্পাদনা]

প্রজাতান্ত্রিক সরকার গঠন[সম্পাদনা]

মিত্রপক্ষীয় প্রতিবিপ্লব[সম্পাদনা]

মিত্রপক্ষের দখলদারিত্ব[সম্পাদনা]

সুরাবায়ার যুদ্ধ[সম্পাদনা]

নেদারল্যান্ডস ইন্ডিজ বেসামরিক প্রশাসন প্রতিষ্ঠা[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনীতে দলত্যাগ[সম্পাদনা]

কূটনীতি এবং সামরিক অভিযানসমূহ[সম্পাদনা]

লিঙ্গাডজাটি চুক্তি[সম্পাদনা]

অপারেশন প্রোডাক্ট[সম্পাদনা]

রেনভিল চুক্তি[সম্পাদনা]

অপারেশন ক্রো[সম্পাদনা]

অভ্যন্তরীণ গোলযোগ[সম্পাদনা]

সামাজিক বিপ্লবসমূহ[সম্পাদনা]

কমিউনিস্ট ও ইসলামপন্থী বিদ্রোহ[সম্পাদনা]

সার্বভৌমত্ব হস্তান্তর[সম্পাদনা]

ফলাফল[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The War for Independence: 1945 to 1950"। Gimonca। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  2. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১০ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৭ 
  3. Kirby, Woodburn S (১৯৬৯)। War Against Japan, Volume 5: The Surrender of Japan। HMSO। পৃষ্ঠা 258। 
  4. Friend, Bill personal comment 22 April 2004; Friend, Theodore (১৯৮৮)। Blue Eyed Enemyবিনামূল্যে নিবন্ধন প্রয়োজন। Princeton University Press। পৃষ্ঠা 228 and 237। আইএসবিএন 978-0-691-05524-4 ; Nyoman S. Pendit, Bali Berjuang (2nd edn Jakarta:Gunung Agung, 1979 [original edn 1954]); Reid (1973), page 58,n.25, page 119,n.7, page 120,n.17, page 148,n.25 and n.37; Pramoedya Anwar Toer, Koesalah Soebagyo Toer and Ediati Kamil Kronik Revolusi Indonesia [Jakarta: Kepustakaan Populer Gramedia, vol. I (1945); vol. II (1946) 1999; vol. III (1947); vol. IV (1948) 2003]; Ann Stoler, Capitalism and Confrontation in Sumatra's Plantation Belt, 1870–1979 (New Haven:Yale University Press, 1985), p103.; all cited in Vickers (2005), page 100