পিগমি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আফ্রিকার পিগমিদের সঙ্গে ইউরোপীয় অভিযাত্রী

পিগমি মধ্য আফ্রিকার একটি ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী যারা প্রধানত হ্রস্বকায় বলে বিশেষভাবে পরিচিত। বলা হয় এরা আফ্রিকার আদিমতম জাতিগোষ্ঠী। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াতেও এদের অস্তিত্ব ছিল। ফিলিপাইনের ইয়েতা আদিবাসীরা মূলতঃ পিগমি। আন্দামান দ্বীপপুঞ্জেও পিগমিদের অস্তিত্ব আছে। এরা আছে পাপুয়া নিউগিনিতেও। পিগমি বলতে সাধারণভাবে হ্রস্বকায় যে কোন প্রাণী বোঝানো হলেও পিগমি মূলতঃ বামনাকৃতির জঙ্গলবাসী একটি সুপ্রাচীন মানবসম্প্রদায়। খ্রীস্টপূর্ব ২২৫০ সনের একটি চিঠিতে পিগমিদের উল্লেখ পাওয়া যায়। সভ্যতার ক্রমবিকাশের ধারায় বিংশ শতাব্দীরেত এই জাতিগোষ্ঠী বিলুপ্তির পথে। বর্তমানে সারা পৃথিবীতে পিগমিদের সংখ্যা ১ লক্ষের বেশী হবে না। এদের উচ্চতা সব্বোর্চ্চ সাড়ে চার ফুট হয়ে থাকে ; প্রাপ্তবয়স্ক আর শিশুর মধ্যে উচ্চতার তফাৎ করা তাই কঠিন। বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে দেখেছেন, পিগমিদের এ খর্বাকৃতির কারণ হলো, শরীরের উচ্চতা বাড়ানোর জন্য যে ইনসুলিন জাতীয় আইজিএফ নামের উপাদানটি কাজ করে, পিগমিদের ক্ষেত্রে তা ঘটে না। এ কারণেই এরা ক্রস্বকায় হয়ে থাকে। জঙ্গলে পিগমিরা নিজেরাই ঘরবাড়ি তৈরি করে। তাদের ঘরবাড়িগুলোও আকারে-উচ্চতায় ছোট হয়। তারা গাছের ডাল বাঁকিয়ে ছোট ছোট কুঁড়েঘর তৈরি করে তাতেই বসবাস করে। জঙ্গলবা্সী এই আদিমানব শিকার করে জীবন ধারণ করে। আদিম মানুষের মতো দলবেঁধে পিগমিরা শিকারে যায় এবং বন্যপশু শিকার করে।। এরা সবচেয়ে পছন্দ করেন "বল্লু ডুকার" নামে এক ধরনের ছোট হরিণ। পিগমিরা শিকার ধরে জালে আটকে। এই জাল তৈরি করা হয় এনকুসা নামে এক ধরনের দৃঢ় গুল্ম দিয়ে। ফলে জালগুলো হয় খুবই শক্ত। পশু শিকারের সময় তারা কোমর সমান করে জালগুলো পেতে ছোট কাঠের টুকরা দিয়ে নিচগুলো ভালো করে আটকে তারপর শিকারকে তাড়িয়ে জালে এনে আটক করেন। শিকার যদি হাতি বা ওই ধরনের বড় আকৃতির কিছু হয়, তবে জালবন্দি অবস্থায় তীর মেরে দুর্বল করে দেওয়া হয়। শিকার নিয়ে তারা দলবেঁধে গ্রামে ফেরেন। এ সময় পিগমি নারীরা দলবেঁধে নাচে। তাদের বিশ্বাস, গর্ভাবস্থায় কোনো মহিলার সামনে এ শিকার ও শিকার-পরবর্তী উৎসব সৌভাগ্যের প্রতীক। পিগমি জাতিগোষ্ঠীরও দলনেতা থাকে আর এ দলনেতা নির্বাচিত হয় কঠিন পরীক্ষার মধ্য দিয়ে। দলনেতাকে তুখোড় শিকারি হতে হয়। এদের কয়েকটি উপজাতি হলো বাকা, মুবুতি এবং নিগ্রিতো। ক্যামেরুন, কঙ্গো এবং গ্যাবনের জঙ্গলে বাকা উপজাতির বাস। কঙ্গোতে মুবুতি প্রজাতির প্রায় ৩০-৪০ হাজার পিগমি আছে।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]