চিরতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চিরতা
Swertia perennis
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Plantae
(শ্রেণীবিহীন): Angiosperms
(শ্রেণীবিহীন): Eudicots
(শ্রেণীবিহীন): Asterids
বর্গ: Gentianales
পরিবার: Gentianaceae
গণ: Swertia
L.
আদর্শ প্রজাতি
Swertia perennis L.
Species

120-150, See text.

প্রতিশব্দ

Kingdon-Wardia C. Marquand
Ophelia D. Don
Pleurogyne Eschsch. ex Griseb.
Swertopsis Makino
Synallodia Raf.
Tesseranthium Kellogg
Probable synonyms
Anagallidium Griseb.
Possible synonyms
Frasera Walter
Lomatogoniopsis T. N. Ho & S. W. Liu
Sources: GRIN,[১] ING,[২] NHM[৩]

চিরতা একটি ভেষজ উদ্ভিদ বাংলাদেশ সহ ভারতবর্ষের বিভিন্ন স্থানে প্রচুর জন্মে। জেসিএনেসি বর্গের অন্তর্গত এই গাছটির বৈজ্ঞানিক নাম Swertia chirayita (Roxb. ex Fleming) H. Karst.।হিন্দীতে এর নাম “চিরায়াতা”।

বর্ণনা[সম্পাদনা]

চিরতা বর্ষজীবি উদ্ভিদ। গাছটির গড় উচ্চতা প্রায় দেড় মিটার। গাছের পাতা কম-বেশী ১০ সে.মি. দীর্ঘ। পাতার অগ্রভাগ সূঁচালো। ফুল বৃন্তহীন, জোড়ায় জোড়ায় বিপরীতমুখী হয়ে ফোটে। ফুল হালকা সবুজের সঙ্গে গোলাপী মেশানো প্রত্যেক পাপড়ি লতিতে এক জোড়া সবুজ গ্রন্থি থাকে। ফল ৬ মি.মি. কিম্বা তারও বেশী লম্বা এবং ডিম্বাকৃতি।

ঔষধী গুণ[সম্পাদনা]

ফুলন্ত অবস্থায় পুরো গাছ তুলে শুকিয়ে নিয়ে ওষুধের কাজে ব্যবহার করা হয়। অত্যাধিক তিক্ততা, জ্বর ও কৃমিনাশক শক্তি এবং পাচকতার গুণে চিরতা সারা ভারতে সুপ্রসিদ্ধ। ঔষধী গুণে, চিরতা জেণ্টিআনা কুরুর অনুরূপ। জ্বর, অতিসার এবং দুর্বলতায় চিরতা খুব উপকারী। ম্যালেরিয়াতেও দেওয়া হয় কিন্তু চিরতার জ্বর কমানোর শক্তি পরীক্ষায় সম্প্রমাণিত নয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Germplasm Resources Information Network (GRIN) (2004-09-23)। "Genus: Swertia"Taxonomy for PlantsUSDA, ARS, National Genetic Resources Program, National Germplasm Resources Laboratory, Beltsville, Maryland। সংগৃহীত 2008-05-16 
  2. "Index Nominum Genericorum database"International Code of Botanical NomenclatureSmithsonian Institution। 1978। সংগৃহীত 2008-05-16 
  3. "Linnaean Name: Swertia perennis Linnaeus"The Linnaean Plant Name Typification ProjectNatural History Museum। সংগৃহীত 2008-05-16