ঘুণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ঘুণ
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Animalia
পর্ব: Arthropoda
শ্রেণী: Insecta
বর্গ: Coleoptera
পরিবার: Anobiidae
গণ: Anobium
প্রজাতি: A. punctatum
দ্বিপদী নাম
Anobium punctatum
দ্য গীর, ১৭৭৪

ঘুণ পোকা এক ধরণের কাঠখেকো পতঙ্গলার্ভা দশায় এরা কাঠ গর্ত করে এবং তা খেয়ে বেঁচে থাকে। পূর্ণাঙ্গ ঘুণ পোকা ২.৭ থেকে ৪.৫ মিলিমিটার দীর্ঘ হয়। তাদের শরীর বাদামী বর্ণের এবং দেহের সামনের অংশটুকু (Pronotum) দেখতে পাদ্রির মাথার টুপির মতো[১]

জীবনচক্র[সম্পাদনা]

পূর্ণবয়স্ক ঘুণ পোকা খাদ্য গ্রহণ করে না। এই দশায় এরা কেবল প্রজনন করে থাকে। স্ত্রী ঘুণ পোকা কাঠের খাঁজে বা পুরনো গর্তে ডিম পাড়ে। ৩ সপ্তাহ পর ডিম ফুটে ১ মিলিমিটার দীর্ঘ, দুধ-সাদা বর্ণের, এবং অর্ধচন্দ্রাকার শুয়োপোকা বের হয়। পরের ৩ থেকে ৪ বছর ধরে শুয়োপোকাগুলো কাঠের মধ্যে গর্ত খুঁড়ে, এবং তারপর কাঠের মধ্যকার শর্করাযুক্ত অংশ খেতে থাকে। কাঠ কাটার সময়ে বাইরে থেকেও পরিষ্কার শব্দ শোনা যায়। এসময় এদের আকার বেড়ে ৭ মিলিমিটার পর্যন্ত হয়। শুয়োপোকা দশা থেকে পূর্ণাঙ্গ পোকায় রূপান্তরের সময়ে এরা কাঠের বাইরের তলের দিকে চলে আসে। শুয়োপোকা থেকে পূর্ণ দশায় রূপান্তরে ৮ সপ্তাহ সময় লাগে। এসময় এরা কাঠের উপরিভাগের ঠিক নিচে গর্ত করে রূপান্তরিত হয়। পূর্ণবয়স্ক পোকা কাঠ ছিদ্র করে বেরিয়ে আসে। এসময় এদের বেরোবার গর্তটি প্রায় ১ থেকে ১.৫ মিলিমিটার প্রশস্ত হয়। বেরোবার সময়ে কাঠের বাইরে ঘুণের ধুলো বেরিয়ে পড়ে। তা দেখে কাঠের মধ্যে ঘুণ পোকায় ধরা বোঝা যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Pest Control of Timber Borers"। Fumanest Group। 2006-10-22