ক্লাউদিয়ুস আইলিয়ানুস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ক্লাউদিয়ুস আইলিয়ানুস (গ্রিক: Κλαύδιος Αἰλιανός;[১] c. ১৭৫ – c. ২৩৫), বা আইলিয়ান (/ˈliən/), জন্ম পালেস্ত্রিনা, একজন প্রাচীন রোমান লেখক এবং অলঙ্কারশাস্ত্রের শিক্ষক ছিলেন। তিনি সেপ্টিমিস সেভেরুস-এর শাসনামলে উন্নতি লাভ করেন এবং সম্ভবত এলাগাবালুস-এর থেকে বেশিদিন বেঁচে ছিলেন, যিনি ২২২-এ মারা যান। তিনি গ্রিক ভাষায় এতই সুন্দর করে কথা বলতেন যে তাঁকে "মধু-বর্ষণকারী" (meliglossos) বলা হত; রোমান-বংশোদ্ভত, তিনি নিজেকে গ্রিক লেখক বলে উপস্থাপন করতে পছন্দ করতেন, এবং সামান্য প্রাচীনভাবে গ্রিক লিখতেন।[২]

তাঁর দুটি প্রধান কাজ অসংখ্য উদ্ধৃতি জন্য মূল্যবান, যা তার আগে লেখক কাজ থেকে নেয়া, অন্যথায় যা হারিয়ে যেতো এবং বিস্ময়কর বিদ্যার জন্য, যা গ্রেকো-রোমান বিশ্বের অপ্রত্যাশিত ঝলক দেখায়।

দে নাটুরা আনিমালিয়াম (Περὶ Ζῴων Ἰδιότητος)[সম্পাদনা]

অন দ্যা ন্যাচার অব আনিম্যাল (প্রাণীর বৈশিষ্ট্য), একটি অনুসন্ধিত্সু সংকলন, ১৭টি বইয়ে, প্রাকৃতিক ইতিহাসের সংক্ষিপ্ত গল্প, কখনো রূপকধর্মী নৈতিক পাঠঃ

"The Beaver is an amphibious creature: by day it lives hidden in rivers, but at night it roams the land, feeding itself with anything that it can find. Now it understands the reason why hunters come after it with such eagerness and impetuosity, and it puts down its head and with its teeth cuts off its testicles and throws them in their path, as a prudent man who, falling into the hands of robbers, sacrifices all that he is carrying, to save his life, and forfeits his possessions by way of ransom. If however it has already saved its life by self-castration and is again pursued, then it stands up and reveals that it offers no ground for their eager pursuit, and releases the hunters from all further exertions, for they esteem its flesh less. Often however Beavers with testicles intact, after escaping as far away as possible, have drawn in the coveted part, and with great skill and ingenuity tricked their pursuers, pretending that they no longer possessed what they were keeping in concealment."


ভারিয়া হিস্টোরিয়া (Ποικίλη Ἱστορία)[সম্পাদনা]

অন্যান্য কাজ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Η φυσιογνωμία ενός λαού θεμελιών. Μύθοι για την Ελιά. Retrieved June 5, 2011, from http://www.etwinning.gr/projects/elia/muthoi.htm
  2.  এই নিবন্ধটি একটি প্রকাশন থেকে অন্তর্ভুক্ত পাঠ্য যা বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনেChisholm, হিউ, সম্পাদক (১৯১১)। "Aelian (Claudius Aelinaus)"। এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা 1 (১১তম সংস্করণ)। কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি প্রেস।  This cites:
    • Editio princeps of complete works by Gesner, 1556; Hercher, 1864-1866.
    • English translation of the Various History only by Fleming, 1576, and Stanley, 1665
    • Translation of the Letters by Quillard (French), 1895

আরোও পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

উইকিসোর্স
উইকিসোর্স-এ এই লেখকের লেখা মূল বই রয়েছে: