ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
প্রেসিডেন্ট নিক্সন এপ্রিল ২৯, ১৯৭৪ সালে টেপ এর উপর সম্পাদিত প্রতিলিখন মুক্তির ব্যাখ্যা করে একটি টেলিভিশন ভাষণ প্রদান করেন।

ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারি ছিল ১৯৭০-এর দশকের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি রাজনৈতিক কেলেঙ্কারি। নির্বাচন প্রচারাভিযান চলাকালে ১৭ জুন, ১৯৭২ সালে ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান দল ও প্রশাসনের ৫ ব্যক্তি ওয়াশিংটন ডিসির ওয়াটার গেইট ভবনস্থ বিরোধী ডেমোক্র্যাট দলের সদর দফতরে আড়িপাতার যন্ত্র বসায় এবং নিক্সনের প্রশাসন কেলেঙ্কারিটি ধামা-চাপা দেওয়ার চেষ্ঠা করে। এ ঘটনার ফলে তৎকালীন মার্কিন রাষ্ট্রপতি রিচার্ড নিক্সন ৯ই আগস্ট ১৯৭৪ সালে রাষ্ট্রপতির পদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। কেলেঙ্কারির ঘটনায় নিক্সনের যুক্তরাষ্ট্রের কোন রাষ্ট্রপতির এই পদ থেকে পদত্যাগের ঘটনাটি প্রথম। এই ঘটনায় বিচার ও দোষী সাবস্থ হওয়ার পর মোট ৪৩ জন ব্যাক্তিকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়; যাদের মধ্যে কয়েক ডজন ছিলেন নিক্সন প্রশাসনের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা।

এ ঘটনাটি শুরু হয়েছিল ৫ জন ব্যাক্তিকে গ্রেফতারের মাধ্যমে; যারা ১৭ জুন ১৯৭২ সালে ওয়াটার গেইট ভবনস্থ বিরোধী ডেমোক্র্যাট দলের সদর দফতরে চুরি করে প্রবেশ করেছিল। ফেডারেল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) প্রেসিডেন্ট নিক্সন এর প্রচারণার কাজে নিয়োজিত সরকারি প্রতিষ্ঠানের পুনরায় নির্বাচনের জন্য গঠিত কমিটির সংশ্লিষ্ঠতা খুঁজে পায়।[১] ১৯৭৩ সালের জুলাইয়ে সিনেট ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারি তদন্ত কমিটির সাবেক সদস্যরা রাষ্ট্রপতির কর্মকর্তাদের বিরোদ্ধে প্রমানসহ তথ্য উপস্থাপন করেন; এটাতে উল্লেখ করা হয় যে, রাষ্ট্রপতি নিক্সনের অফিসে একটি টেপরেকর্ডার ছিল যা দিয়ে তিনি অনেক কথপোকথন রেকর্ড করে রেখেছিলেন।[২][৩] এই রেকর্ড থেকে জানা গিয়েছিল রাষ্ট্রপতি নিজে এসব কেলেঙ্কারি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্ঠা করেছিলেন।[৪] পরবর্তীতে আদালতের সাথে একটি তিক্ত লড়াইয়ের পর, উচ্চ আদালত রাষ্ট্রপতিকে এসকল টেপ আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন ও নিক্সন তা মেনে নেন।

হাউজ অফ রিপ্রেজেনটিটিভ দ্বারা অভিশংসন ও সিনেট দ্বারা দোষী সাবস্থ হওয়ার মুখমুখী হওয়ার প্রাক্কালে তিনি ৯ই আগস্ট, ১৯৭৪ সালে রাষ্ট্রপতির পদ থেকে পদত্যাগ করেন।[৫][৬] তার উত্তসূরী গ্যারাল ফোর্ড ক্ষমতায় এসে পরবর্তীতে তাকে ক্ষমা করে দেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dickinson, William B.; Mercer Cross, Barry Polsky (1973)। Watergate: chronology of a crisis 1। Washington D. C.: Congressional Quarterly Inc.। পৃ: 8 133 140 180 188। আইএসবিএন 0-87187-059-2ওসিএলসি 20974031  |coauthors= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য) This book is volume one of a two-volume set. Both volumes share the same ISBN and Library of Congress call number, E859 .C62 1973
  2. narrative by R.W. Apple, jr. ; chronology by Linda Amster ; general ed.: Gerald Gold. (1973)। The Watergate hearings: break-in and cover-up; proceedings। New York: Viking Press। আইএসবিএন 0-670-75152-9 
  3. Nixon, Richard (1974)। The White House Transcripts। New York: Viking Press। আইএসবিএন 0-670-76324-1ওসিএলসি 1095702 
  4. The evidence was quite simple: the voice of the President on June 23, 1972 directed the Central Intelligence Agency (CIA) to halt an FBI investigation which would be politically embarrassing to his re-election; this direction was an obstruction of justice. White, Theodore Harold (1975)। Breach of Faith: The Fall of Richard Nixon। New York: Atheneum Publishers। পৃ: 7। আইএসবিএন 0-689-10658-0 
  5. White (1975), Breach of Faith, p. 29. "And the most punishing blow of all was to come in late afternoon when the President received, in his Oval Office, the Congressional leaders of his party -– Barry Goldwater, Hugh Scott and John Rhodes. The accounts of all three coincide… Goldwater averred that there were not more than fifteen votes left in his support in the Senate…."
  6. "Soon Alexander Haig and James St. Clair learned of the existence of this tape and they were convinced that it would guarantee Nixon's impeachment in the House of Representatives and conviction in the Senate." Dash, Samuel (1976)। Chief Counsel: Inside the Ervin Committee – The Untold Story of Watergate। New York: Random House। পৃ: 259–260। আইএসবিএন 0-394-40853-5 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

  1. "A New Explanation of Watergate," by J. Anthony Lukas, New York Times, 11-1-1984.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]