এপ্লিকেশন সফটওয়্যার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

এপ্লিকেশন সফটওয়্যার বা কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বলতে বিশেষ ধরনের কম্পিউটার প্রোগ্রামকে বোঝায় যা মানুষকে কোন বিশেষ ধরনের কাজ সম্পাদনে সহায়তা করে। একটি কম্পিউটার সফটওয়্যার যেটা ব্যবহারকারীর প্রয়োজন অনুযায়ী এবং নির্দিষ্ট কাজ সম্পাদনা (এক বা একাধিক) করতে ব্যবহারকারীকে সহায়তা করে থাকে। একে শুধু এপ্লিকেশন বা এপ (app) ডাকা হয়। কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন তাই অপারেটিং সিস্টেম, সিস্টেম ইউটিলিটি, প্রোগ্রামিং ভাষা, ইত্যাদির চেয়ে আলাদা। অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম সাধারণত ব্যবহারকারীকে টেক্স্‌ট, সংখ্যা কিংবা ছবি নিয়ে বিভিন্ন কাজ করার সুযোগ দেয়। উদাহরণ হতে পারে একাউন্টিং সফটওয়্যার, অফিস সফটওয়্যার, গ্রাফিক্স সফটওয়্যার, বিভিন্ন মিডিয়া প্লেয়ার (ভিডিও এবং অডিও)।

ওপেনঅফিস.ওআরজির রাইটার ওয়ার্ড প্রসেসর. ওপেনঅফিস.ওআরজি জনপ্রিয় মুক্ত এপ্লিকেশন সফটওয়্যারের একটি উদাহরণ

অনেকসময় অনেকগুলি অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার একত্র করে প্যাকেজ বা বান্ড্‌ল আকারে বিতরণ করা হয়। এগুলিকে সাধারণত অ্যাপ্লিকেশন সুইট (application suite) নামে ডাকা হয়। মাইক্রোসফট অফিস, ওপেনফিস.অর্গ, ইত্যাদি অ্যাপ্লিকেশন সুইটের উদাহরণ। একটি সুইটের বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনগুলির ব্যবহারকারী ইন্টারফেস বা দৃশ্যমান রূপ সাধারণত একই রকম হয়ে থাকে যাতে ব্যবহারকারী একই পরিবেশে কাজ করার অনুভূতি পান এবং প্রোগ্রামগুলির একটির তথ্য অপরটিতে সহজে স্থানান্তর ও ব্যবহারেরও ব্যবস্থা থাকে। যেমন কোন স্প্রেডশিট অ্যাপ্লিকেশনে প্রস্তুত করা একটি স্প্রেডশিট সহজেই একই অ্যাপ্লিকেশন সুইটের ওয়ার্ড প্রসেসর অ্যাপ্লিকেশনের ডকুমেন্টে "এমবেড" বা গ্রথিত করে দেয়া সম্ভব।

এপ্লিকেশন সফটওয়্যার যে কম্পিউটার প্লাটফর্মে ব্যবহার করে তার উপযোগী করে বানানো হয় যাতে সেটা প্লাটফর্মের সাথে সহজে কাজ করতে পারে। এর অন্য উদ্দেশ্য হল প্লাটফর্মের কাজ করার ক্ষমতা ব্যবহার করে অথবা ঐ প্লাটফর্মের সিস্টেম সফটওয়্যারের ক্ষমতা ব্যবহার করে একটি নির্দিষ্ট উদ্দেশ্য সাধন করা। কিছু কিছু সফটওয়্যার বিভিন্ন প্লাটফর্মে ব্যবহার উপযোগী করে বানানো হয় যেমন মাইক্রোসফটের মাইক্রোসফট অফিস।

পরিভাষা[সম্পাদনা]

তথ্য প্রযুক্তিতে, এপ্লিকেশন সফটওয়্যার তৈরী করা হয় ব্যবহারকরীর চাহিদা অনুযায়ী নির্দিষ্ট কাজ করার জন্য। এপ্লিকেশন সফটওয়্যার অপারেটিং সিস্টেম, ইউটিলিটি সফটওয়্যার, এবং একটি প্রোগ্রামিং ভাষা সফটওয়্যার থেকে ভিন্ন। এটি যে কাজের জন্য তৈরী করা হয়েছে তার উপর ভিত্তি করে এটা লেখা, সংখ্যা, ছবি অথবা এই সবগুলোর সমন্বয়ে হতে পারে। কিছু কিছু এপ্লিকেশন প্যাকেজ কম্পিউটারের একটি নির্দিষ্ট কাজের জন্য হতে পারে যা সবাই ব্যবহার করে একই উদ্দেশ্য এবং এটি শুধু একটি সুবিধা বা উদ্দেশ্যের উপর জোর দেয় যেমন ওয়ার্ড প্রসেসিং| অন্যগুলোকে ডাকা হয় ইন্টিগ্রেটেড সফটওয়্যার যেগুলো একই সঙ্গে একাধিক সুবিধার উপর জোর দেয়। ব্যবহারকারী দ্বারা তৈরী বা লিখিত সফটওয়্যার সিস্টেমে ব্যবহার করে ব্যবহারকারীর কাঙ্খিত কাজ করা যায় এগুলো হল স্প্রেডশিট টেমপ্লেট, ওয়ার্ড প্রসেসরের ম্যাক্রো, গ্রাফিক্স অথবা এনিমেশনের স্ক্রিপ্ট ইত্যাদি। এমনকি ইমেইলের ফিল্টারও একধরনের ব্যবহারকারী লিখিত সফটওয়্যার (User-written software)| ব্যবহারকারীরা এটা তৈরী করে এবং বারবার দেখে এটা গুরুত্বপূর্ন কিনা নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যের জন্য।

কোন কোন ক্ষেত্রে বিরোধপূর্ন এইপ্রশ্ন আসতে পারে যে, অপারেটিং সিস্টেমে যে প্রোগ্রামগুলো অর্ন্তগত আছে সেগুলো আলাদা সফটওয়্যার কিনা। যেমন ইউনাইটেড স্টেটস বনাম মাইক্রোসফটের একটি মামলায় প্রশ্ন এসেছিল অপারেটিং সিস্টেমের ইন্টারনেট ইক্সপ্লোরার আলাদা সফটওয়্যার কিনা। অন্য আরেকটি উদাহরন হল জিএনইউ/লিনাক্স নামের দ্বন্ধ। কিছু কিছু সিস্টেমে এপ্লিকেশন সফটওয়্যার এবং অপারেটিং সিস্টেম আলাদা করা কষ্টকর হতে পারে ব্যবহারকারীর কাছে কারন ভিসিআর, ডিভিডি প্লেয়ার অথবা মাইক্রোওভেন চালনাতেও সফটওয়্যার ব্যবহৃত হয়। এই ব্যাখ্যার জন্য বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর কিছু কিছু এপ্লিকশন বাদ দিতে হতে পারে।

এপ্লিকেশন সফটওয়্যারের বিভাজন[সম্পাদনা]

বিভিন্ন এপ্লিকেশন সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্লানিং
  • একাউন্টিং সফটওয়্যার
  • টাস্ক এবং সিডিউলিং
  • ফিল্ড সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট
  • ডেটা ম্যানেজমেন্ট
    • কন্টাক্ট ম্যানেজমেন্ট
    • স্প্রেডশিট
    • পারসোনাল ডেটাবেজ
  • ডকুমেন্ট সম্পর্কিত
    • ডকুমেন্ট আসেম্বলি
    • ওয়ার্ড প্রসেসিং
    • ডেস্কটপ পাবলিশিং সফটওয়্যার
    • ডাইয়াগ্রাম সফটওয়্যার
    • প্রেসেনটেশন সফটওয়্যার
    • এনালিটিক্যাল সফটওয়্যার
    • কম্পিউটার এলজেবরা সিস্টেম
    • নিউমেরিক্যাল সফটওয়্যার
    • নিউমেরিক্যাল সফটওয়্যারের তালিকা
    • ফিজিক্স সফটওয়্যার
    • বিজ্ঞান সফটওয়্যার
    • পরিসংখ্যানের সফটওয়্যারের তালিকা
    • নিউরাল নেটওয়ার্ক সফটওয়্যার
  • সহযোগী সফটওয়্যার
    • ইমেইল
    • ব্লগ
  • রিসার্ভেশন সিস্টেম
  • আর্থিক সফটওয়্যার
    • প্রতিদিনের বানিজ্যের সফটওয়্যার
    • ব্যাংক সফটওয়্যার
    • ক্লিয়ারিং সফটওয়্যার
    • এরিথমেটিক সফটওয়্যার

কন্টেন্ট এ্যাকসেস সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া সফটওয়্যার
    • ওয়েব ব্রাউজার
    • মিডিয়া প্লেয়ার
    • হাইব্রিড এডিটর প্লেয়ার

বিনোদনের সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • ডিজিটাল প্রাণী
  • স্ক্রিন সেভার
  • ভিডিও গেমস
    • আকেড গেমস
    • কনসোলের জন্য ইমুলেটর
    • পারসোনাল কম্পিউটার গেমস
    • কনসোল গেমস
    • মোবাইল গেমস

শিক্ষামূলক সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • শ্রেণীকক্ষ ব্যবস্থাপনা
  • শিক্ষনীয়/ প্রশিক্ষন ব্যবস্থাপনা
  • তথ্যসূত্র
  • জরিপ ব্যবস্থাপনা

প্রতিষ্ঠানের সাংগঠনিক সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • ব্যবসার কার্যপ্রবাহ
  • ডেটাবেজ ব্যবস্থাপনা
  • ডিজিটাল সম্পদ ব্যবস্থাপনা
  • দলিল পত্র ব্যবস্থাপনা
  • ভৌগোলিক তথ্য ব্যবস্থাপনা সিস্টেম

কৃত্রিম অনুকরন সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • কম্পিউটার কৃত্রিম অনুকরনকারক
    • বৈজ্ঞানিক
    • সামাজিক
    • যুদ্ধক্ষেত্র
    • তাৎক্ষনিক
    • গাড়ি
      • ফ্লাইট
      • ড্রাইভিং
    • গেমস
      • গাড়ির গেমস

মিডিয়া উন্নয়ন সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • ছবি ব্যবস্থাপক
  • মিডিয়া তৈরী অথবা সম্পাদনা
    • ৩য় মাত্রার গ্রাফিক্স সফটওয়্যার
    • এনিমেশন সফটওয়্যার
    • গ্রাফিক আর্ট
    • ছবি সম্পাদনা
      • ভেক্টর ছবি সম্পাদনা
      • রেস্টার ছবি সম্পাদনা
    • ভিডিও সম্পাদনা
    • শব্দ সম্পাদনা
      • ডিজিটাল অডিও সম্পাদনা
    • মিউজিক সিকোয়েন্সার
      • স্কোররাইটার
    • হাইপার মিডিয়া সম্পাদনা
      • ওয়েব উন্নয়ন
    • গেম উন্নয়ন

পন্য প্রকৌশলন সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

  • হার্ডওয়্যার প্রকৌশলন
    • কম্পিউটার-এইডেড প্রকৌশলন
    • সসীম উপাদান বিশ্লেষন
  • সফটওয়্যার প্রকৌশলন
    • কম্পিউটার ভাষা সম্পাদক
    • কম্পিউটার সফটওয়্যার
    • ইন্ট্রিগ্রটেড উন্নয়ন পরিবেশ
    • গেম তৈরী সফটওয়্যার
    • ডিবাগ গুলো
    • প্রোগ্রাম পরীক্ষার হাতিয়ার
    • লাইসেন্স ব্যবস্থাপক

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]


বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]