উপশিরোনাম (পরিচয়লিপিকরণ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Subtitle (captioning) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
এলিফেন্টস ড্রিম চলচ্চিত্রে ব্যবহৃত জার্মান ভাষায় লেখা উপশিরোনাম (সাবটাইটেল)

সাবটাইটেল এর বাংলা হলো "বিকল্প নাম" বা "শিরোলিপি"। ছায়াছবি, টেলিভিশন অনুষ্ঠান, ভিডিও গেম, এবং সাধারণত পর্দায় নিচের অংশে প্রদর্শিত, যে ডায়লগ বা ভাষ্য একটি প্রতিলিপি বা চিত্রনাট্য থেকে উদ্ভূত হয় অর্থাৎ মুখের বলা কথা লেখা আকারে প্রকাশ করার জন্য যে অংশ ব্যবহার হয় তা হলো সাবটাইটেল। এই সাবটাইটেল গুলোতে মানুষের বলা সেই ভাষা, কোন শব্দ, বিদেশী ভাষা বা অঙ্গ ভঙ্গির উল্লেখ থাকে। ডিভিডি, Blu-Ray, telitext/DVB ইত্যাদি ভাল মানের দৃশ্যমান জিনিস গুলোর কথা/শব্দের সাবটাইটেল তৈরি করা হয়।

বাংলা সাবটাইটেল[সম্পাদনা]

সাধারণত ভিন্ন একটা ভাষার মুভি দর্শককে মাতৃভাষায় বোঝানোর জন্য মুভির কথা বাংলা ভাষায় ধারাবর্ণনা আকারে মুভির ফ্রেম পরিবর্তনের সাথে নিচে প্রদর্শনের লক্ষ্যে সাবটাইটেল তৈরি করা হয়। বাংলা সাবটাইটেলগুলো অধিকাংশ ক্ষেত্রে মূল ভাষা থেকে না করে বরং বিদেশি ভাষার মুভির জন্য তৈরি ইংরেজি সাবটাইটেল থেকে অনুবাদ করা হয়। অন্যভাষায় সাবটাইটেল তৈরি পেশাদার কাজ হলেও বাংলা ভাষাতে কতিপয় তরুণ নিজের ভালোবাসা আর বাংলা ভাষার প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে বিনেপয়সাতে বাংলা সাবটাইটেল করে থাকে। সাবটাইটেল তৈরি করা বেশ কষ্টের এবং চ্যালেঞ্জের কাজ। সাবটাইটেল তৈরি করতে চাইলে আপনার প্রয়োজন হবে দক্ষতার। যেমনঃ ভাষান্তর, ইন্টারনেট ব্যবহারে পারদর্শিতা, ভাব বোঝার ক্ষমতা, ধৈর্য ইত্যাদি। আপনাকে এই কাজে দক্ষ হতে হলে প্রথমে YouTube থেকে একটা ভিডিয়ো বাছাই করে তার সাবটাইটেল তৈরির চেষ্টা করতে হবে। আর সেটা যতটা সম্ভব সঠিকভাবে করার চেষ্টা করতে হবে। কারণ এখানে কাজের মানের চাহিদা, সংখ্যার থেকে বেশি।

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ আপনার PC তে এই উপকরণগুলো থাকলেই আপনি এই কাজে এগুতে পারবেন।

  • সিয়াম-রুপালি ফন্ট, যেটা হয়ত আপনার কম্পিউটারে আগে থেকেই আছে। না থাকলে "সাবটাইটেল তৈরির টিউটোরিয়াল" Doc থেকে সেটা নিয়ে নিন।
  • নোটপ্যাড বা নোটপ্যাড++, যেখানে আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত সাবটাইটেল ড্রাগ করে সেটা বাংলা করবেন। এটাও "বাংলা সাবটাইটেল তৈরির টিউটোরিয়াল" Doc এ আছে। চাইলে নিয়ে নিতে পারেন।
  • অভ্র কী-বোর্ড, যেটা দিয়ে আপনি লিখবেন।