মানব কঙ্কালে অস্থিসমূহের তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(List of bones of the human skeleton থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের কঙ্কালের পশ্চাৎ দর্শন

একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানব কঙ্কালে ২০৬ থেকে ২০৮ টি অস্থি রয়েছে৷ উরঃফলকের তিনটি অংশ তথা উরঃফলক হাতলদণ্ড (ম্যানুব্রিয়াম), উরঃফলকক্ষেত্র (বডি অব স্টারনাম) এবং উরঃফলক খণ্ডাকে (ক্সাইফয়েড প্রসেস) তিনটি ভিন্ন বা একটি অস্থি গণ্য করার ওপর ভিত্তি করে এই সংখ্যা পরিবর্তন হয়ে থাকে৷[১] তবে একটি শিশু যখন জন্ম নেয় তখন তার দেহে ২৭০ টির মতো অস্থি থাকে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে কতকগুলো অস্থি একসাথে যুক্ত হয়ে নতুন অস্থি গঠন করে এবং ২০৬টি অস্থি নিয়ে প্রাপ্তবয়স্ক পূর্ণাঙ্গ দেহ গঠিত হয়।

অস্থিসমূহ[সম্পাদনা]

মেরুদণ্ড (কশেরুকার স্তম্ভ)[সম্পাদনা]

একজন পূর্ণ বয়স্ক মানুষের মেরুদণ্ডে ২৬ টি কশেরুকা রয়েছে, যদিও কোনো সদ্যজাতের মেরুদণ্ড ৩৩ টি কশেরুকা নিয়ে গঠিত৷

  • গ্রীবাদেশীয় কশেরুকা (সার্ভাইকাল ভার্টিব্রা) - ৭টি অস্থি
  • বক্ষদেশীয় কশেরুকা (থোরাসিক ভার্টিব্রা) - ১২টি অস্থি
  • কটিদেশীয় কশেরুকা (লাম্বার ভার্টিব্রা) - ৫টি অস্থি
  • ত্রিকাস্থি কশেরুকা (স্যাক্রাল ভার্টিব্রা) - জন্মের সময়ে সংখ্যায় ৫টি অস্থি থাকলেও বয়ঃসন্ধিকালে তা পরষ্পর যুক্ত হয়ে ১টি অস্থিতে পরিণত হয়৷
  • অনুত্রিকাস্থি কশেরুকা (কক্সিজিয়াল ভার্টিব্রা) - জন্মের সময়ে ৪টি অস্থি থাকলেও বয়ঃসন্ধিকালে তা পরষ্পর যুক্ত হয়ে ১টি অস্থিতে পরিণত হয়৷ বিদ্বজ্জনের মধ্যে এটি নিয়ে মত বিরোধ হয়েছে, কারো মতে শুরু থেকেই এটি একটি অস্থি, দুটি বা তিনটি অস্থি থাকার মতামতও কেউ কেউ দিয়ে থাকেন৷ নিবন্ধটিতে সর্বাধিকগ্রাহ্য মতামত, একটি অস্থি হিসাবে গণ্য করা হয়েছে৷

বক্ষদেশ[সম্পাদনা]

মানব কঙ্কালতন্ত্রের বিভিন্ন অস্থির চিত্র

সাধারণভাবে মানব কঙ্কালের বক্ষদেশে ২৬টি অস্থি রয়েছে৷ কিছু ক্ষেত্রে মানবদেহে অস্বাভাবিক গ্রীবাদেশীয় পর্শুকা (সার্ভাইকাল রিব) লক্ষ্য করা গেলেও সরীসৃপ সহ একাধিক অন্যপর্বের প্রাণীর ক্ষেত্রে এটি স্বাভাবিক৷ বক্ষদেশীয় অস্থিগুলি হলো,

  • অধোজিহ্বাস্থি (হাইওয়েড বোন) - ১টি
  • উরঃফলক (স্টারনাম) -১টি
  • বক্ষঃপঞ্জর (রিব কেজ) - বারোটি জোড়ায় ২৪টি পর্শুকা বা পঞ্জরাস্থি বক্ষদেশীয় কশেরুকা থেকে সৃৃষ্টি হয়ে দেহের সম্মুখভাগে শেষ হয়৷
    • প্রকৃৃৃত পর্শুকা - সাতটি জোড়ায় ১৪টি পর্শুকা বক্ষদেশীয় কশেরুকা থেকে পঞ্জর তরুণাস্থির মাধ্যমে উরঃফলকে এসে মিলিত হয়৷
    • ছদ্ম পর্শুকা - তিনটি জোড়ায় ৬টি পর্শুকা বক্ষদেশীয় কশেরুকা থেকে সৃৃষ্ট হয়ে পঞ্জর তরুণাস্থির মাধ্যমে সপ্তম পর্শুকাজোড়ে এসে মিলিত হয়৷
    • ভাসমান পর্শুকা - দুইটি জোড়ায় ৪টি পর্শুকা বক্ষদেশীয় কশেরুকা থেকে সৃৃষ্ট হয়ে ভাসমান অবস্থায় রয়েছে৷
    • গ্রীবাদেশীয় পর্শুকা মানবদেহের অস্বাভাবিক অতিরিক্ত পর্শুকা

মস্তক[সম্পাদনা]

মানব খুলিতে ২২ টি অস্থি রয়েছে৷ মধ্যকর্ণাস্থি গুলিকে যুক্ত করতে মাথায় সমগ্র অস্থি সংখ্যা হয় ২৮ টি৷

অগ্রপদ[সম্পাদনা]

উভয় বাহুতে ৩২টি করে সর্বমোট ৬৪টি অস্থি রয়েছে৷

শ্রোণিচক্র[সম্পাদনা]

শ্রোণিচক্রটি নিতম্বাস্থি বা হিপ বোন নিয়ে গঠিত৷ নিতম্বাস্থির তিন অংশ পরষ্পর যুক্ত হয়ে দেহের উভয় পার্শ্বেদুটি অস্থি তৈরী হয়েছে৷ অংশ তিনটি হলো, নিতম্বাস্থিপক্ষ (ইলিয়াম), নিতম্বাস্থিযোজক (ইশ্চিয়াম) এবং বঙ্খননিতম্বাস্থি (পিউবিস)৷

ত্রিকাস্থি ও অনুত্রিকাস্থি উভয় নিতম্বাস্থির সাথে যুকত হয়ে মানব শ্রোণিচক্র গঠন কর৷

পশ্চাৎপদ[সম্পাদনা]

পশ্চাৎপদে ৩০ টি করে উভয় পায়ে মোট ৬০ টি অস্থি রয়েছে৷

৮০ টি অস্থির সমন্বয়ে গঠিত অক্ষীয় কঙ্কালগুলি হলো,

  • আননাস্থি - ১৪ টি অস্থি
  • করোটিকাস্থি - ৮টি অস্থি
  • মধ্যকর্ণাস্থি - ৬টি অস্থি
  • মেরুদন্ড - ২৬টি অস্থি
  • বক্ষঃপঞ্জর - ২৬টি অস্থি

১২৬ টি অস্থির সমন্বয়ে গঠিত উপাঙ্গীয় কঙ্কালগুলি হলো,

  • উরশ্চক্র - ৪টি অস্থি
  • অগ্রপদ - ৬০টি অস্থি
  • শ্রোণিচক্র - ২টি অস্থি
  • পশ্চাৎপদ - ৬০টি অস্থি

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]