গ্যাভিন হ্যামিলটন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Gavin Hamilton (cricketer) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গ্যাভিন হ্যামিলটন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগ্যাভিন মার্ক হ্যামিলটন
জন্ম (1974-09-16) ১৬ সেপ্টেম্বর ১৯৭৪ (বয়স ৪৫)
ব্রক্সবার্ন, পশ্চিম লোথিয়ান, স্কটল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ  /৫৯৯)
২৫ নভেম্বর ১৯৯৯ 
ইংল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ )
১৬ মে ১৯৯৯ 
স্কটল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই১৭ আগস্ট ২০১০ 
স্কটল্যান্ড বনাম আফগানিস্তান
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯৩-২০১০স্কটল্যান্ড
২০০৪-০৫ডারহাম
১৯৯৪-২০০৩ইয়র্কশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৩৮ ৯৫ ২১১
রানের সংখ্যা ১,২৩১ ২,৯৩৯ ৪,২০৯
ব্যাটিং গড় ০.০০ ৩৫.১৭ ২৬.২৪ ২৮.২৪
১০০/৫০ ০/০ ২/৭ ২/১৮ ৪/২২
সর্বোচ্চ রান ১১৯ ১২৫ ১৩১
বল করেছে ৯০ ২২০ ১২,৩৪৮ ৪,১২৪
উইকেট ২৪৯ ১২৮
বোলিং গড় ৫৩.৩৩ ২৫.৭৬ ২৫.২১
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ০/৬৩ ২/৩৬ ৭/৫০ ৫/১৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/০ ৬/১ ৩৪/০ ৪৩/১
উৎস: CricketArchive, ৩ মে ২০১৫

গ্যাভিন মার্ক হ্যামিল্টন (জন্ম: ১৬ সেপ্টেম্বর, ১৯৭৪) পশ্চিম লোথিয়ানের ব্রক্সবার্ন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক স্কটল্যান্ডীয় ক্রিকেটারইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের পক্ষে টেস্টস্কটল্যান্ডের পক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশ নিয়েছেন। এছাড়াও, গ্যাভিন হ্যামিল্টন স্কটল্যান্ডের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার ছিলেন। কাউন্টি ক্রিকেটে ইয়র্কশায়ার দলের প্রতিনিধিত্ব করেন।

কাউন্টি ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৯৩ সালে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। স্কটল্যান্ডের বার্ষিক খেলা হিসেবে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত প্রথম ইনিংসেই ৫/৬৫ লাভ করেন। ঐ বছরেই ইয়র্কশায়ারের দ্বিতীয় একাদশের পক্ষে কয়েকটি খেলায় অংশ নেন। পরে ১৯৯৪ সালে কাউন্টির প্রথম একাদশে তার অভিষেক হয়। কিন্তু দলে সাফল্যলাভের জন্য তাকে কয়েক বছর অপেক্ষা করতে হয়। ১৯৯৮ সালে দলের অন্যতম সদস্যের মর্যাদা পান তিনি। ঐ গ্রীষ্মে ২০.৫৪ গড়ে ৫৯টি প্রথম-শ্রেণীর উইকেট লাভ করেন। পাশাপাশি ছয়টি অর্ধ-শতক করেন। এছাড়াও, ৩৪টি একদিনের খেলায় ১৮.৯৪ গড়ে উইকেট নেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ড দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। ইংল্যান্ড দলে অংশগ্রহণের সমূহ সম্ভাবনা না থাকায় দলে শেষ মুহুর্তে তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ৫টি একদিনের আন্তর্জাতিকে সর্বমোট ২১৭ রান সংগ্রহ করেন। বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ড দলে থাকা অবস্থায় ইংল্যান্ডের দলনির্বাচকমণ্ডলী তার প্রতি দৃষ্টিপাত করে। ফলে, ১৯৯৯-২০০০ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ইংল্যান্ড দলে তার অন্তর্ভুক্তি ঘটে। জোহানেসবার্গে অনুষ্ঠিত প্রথম টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তার টেস্ট অভিষেক ঘটে। খেলায় তিনি উভয় ইনিংসেই শূন্য রান পান ও ৬৩ রানে কোন উইকেট পাননি। এছাড়াও কোন ক্যাচও পাননি। ঐ টেস্টে ইংল্যান্ড দল ইনিংসের ব্যবধানে পরাজিত হয়। ফলে দ্বিতীয় টেস্ট থেকে বাদ পড়েন ও আর কখনো তিনি ইংল্যান্ড দলে ডাক পাননি।

২০০৮ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি তার প্রথম সেঞ্চুরি করেন।[১] ২০০৯ সালে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে স্কটল্যান্ডের দূর্বল খেলা প্রদর্শনের প্রেক্ষিতে অধিনায়ক হিসেবে রায়ান ওয়াটসনের পদত্যাগ করলে স্কটল্যান্ড দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পান তিনি। জুলাই, ২০০৯ সালে স্কটিশ অধিনায়ক হিসেবে প্রথম খেলায় কানাডার বিপক্ষে মাঠে নামেন। ঐ খেলায় তিনি তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করেন। তা স্বত্ত্বেও তার দল পরাজিত হয়।[২] পরের দিনই তিনি অর্ধ-শতক করেন ও স্কটল্যান্ডের জয়ে ভূমিকা রাখেন। এরফলে সিরিজটি ১-১ ব্যবধানে ড্র হয়।[৩]

অবসর[সম্পাদনা]

আগস্ট, ২০১০ সালে অবসর গ্রহণ করেন।[৪] এরপর ব্রাডফোর্ড ক্রিকেট লীগে ইস্ট বিয়ার্লি সিসি দলের পক্ষে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ও শৌখিন ক্রিকেটার হিসেবে অংশগ্রহণ করছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Gavin Hamilton"। CricInfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০০৯ 
  2. "Jyoti and Bagai steer Canada to victory"। CricInfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০০৯ 
  3. "Scotland level series with five-wicket win"। CricInfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০০৯ 
  4. "Hamilton announces retirement"। cricket.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ৩০ আগস্ট ২০১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]