ফ্রাঙ্ক হার্ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Frank Hearne থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফ্রাঙ্ক হার্ন
Frank Hearne c1895.jpg
আনুমানিক ১৮৯৫ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ফ্রাঙ্ক হার্ন
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৮৫৮-১১-২৩)২৩ নভেম্বর ১৮৫৮
ইলিং, মিডলসেক্স
মৃত্যু১৪ জুলাই ১৯৪৯(1949-07-14) (বয়স ৯০)
কেপ টাউন, দক্ষিণ আফ্রিকা
উচ্চতা৫ ফুট ৫ ইঞ্চি (১.৬৫ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি রাউন্ড-আর্ম ফাস্ট
সম্পর্কজর্জ হার্ন (পিতা)
জর্জ গিবন্স হার্ন (ভ্রাতা)
অ্যালেক হার্ন (ভ্রাতা)
জর্জ আলফ্রেড লরেন্স হার্ন (পুত্র)
পরিবারের অন্যান্য সদস্য
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৬৫/১৯)
১২ মার্চ ১৮৮৯ 
ইংল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট২ এপ্রিল ১৮৯৬ 
দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৮৭৯–১৮৮৯কেন্ট
১৮৮৯/৯০–১৯০৩/০৪ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৬১
রানের সংখ্যা ১৬৮ ৪,৭৬০
ব্যাটিং গড় ১৬.৮০ ১৭.৯৬
১০০/৫০ ০/০ ৪/২১
সর্বোচ্চ রান ৩০ ১৪৪
বল করেছে ৬২ ২,৯০৪
উইকেট ৫৭
বোলিং গড় ২০.০০ ২৩.৬১
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ২/৪০ ৫/৪৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/– ১১১/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফ্রাঙ্ক হার্ন (ইংরেজি: Frank Hearne; জন্ম: ২৩ নভেম্বর, ১৮৫৮ - মৃত্যু: ১৪ জুলাই, ১৯৪৯) মিডলসেক্সের ইলিং এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ইংরেজ বংশোদ্ভূত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। স্বল্প কয়েকজন খেলোয়াড়ের অন্যতম হিসেবে একাধিক দলের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণের সৌভাগ্য হয় তার। ১৮৮৯ থেকে ১৮৯৬ সময়কালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন। ইংল্যান্ড দলের পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণের পর দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে খেলেছেন তিনি।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে কেন্ট ও পরবর্তীতে দক্ষিণ আফ্রিকান ঘরোয়া ক্রিকেটে ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের প্রতিনিধিত্ব করেছেন তিনি। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে রাউন্ড-আর্ম ফাস্ট বোলিংয়ে পারদর্শীতা দেখিয়েছেন তিনি।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

বিখ্যাত হার্ন পরিবারের অন্যতম সদস্য ছিলেন। ২৩ নভেম্বর, ১৮৫৮ তারিখে তৎকালীন মিডলসেক্সের ইলিং এলাকায় ফ্রাঙ্ক হার্নের জন্ম।

বাবা জর্জ হার্ন মিডলসেক্সের পক্ষে খেলেছেন ও ক্যাটফোর্ডে কেন্টের প্রাইভেট ব্যাংকস স্পোর্টস গ্রাউন্ডের মাঠকর্মীর দায়িত্ব পালন করেছেন। সেখানেই ফ্রাঙ্ক হার্ন তরুণ খেলোয়াড় হিসেবে আবির্ভূত হন।[১][২] এছাড়াও, লর্ডসে মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাবের মাঠকর্মীর দায়িত্বে ছিলেন ফ্রাঙ্ক হার্ন।[২] তার দুই ভাই - জর্জ গিবন্স হার্ন ও অ্যালেক হার্ন - প্রত্যেকেই প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে কেন্টের পক্ষে খেলেছেন।[১] তার পুত্র জর্জ আলফ্রেড লরেন্স হার্ন দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন।

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৮৭৯ থেকে ১৯০৪ সময়কালে কেন্ট ও ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

জুন, ১৮৭৯ সালে কেন্টের সদস্যরূপে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে ফ্রাঙ্ক হার্নের। লর্ডসে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় প্রতিপক্ষ ছিল মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)। ১৮৮৫ সালে কাউন্টি ক্যাপ পরিধানের সুযোগ লাভ করেন তিনি। কেন্টের সদস্য থাকাকালে ১৮৮৪ সালে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া একাদশকে পরাজিত করেছিল তার দল। ১৮৮৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ইংল্যান্ড সাউথ দলের সদস্যরূপে ১১১ রান তুলেছিলেন। নিজ ভাই জর্জের সাথে একই বছর মিডলসেক্সের বিপক্ষে গ্রেভসেন্ডের খেলায় দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ২২৬ রান তুলেছিলেন। খেলায় তিনি ১৪২ রান তুলতে পেরেছিলেন।[৩] পরের মৌসুমে ইয়র্কশায়ারের বিপক্ষে ১৪৪ রান তুলেন যা তার খেলোয়াড়ী জীবনের ব্যক্তিগত সেরা সংগ্রহরূপে গণ্য হয়।

১৮৮৯ সালে দূর্বল স্বাস্থ্যের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকায় অভিবাসিত হবার পূর্বে কেন্টের পক্ষে ১২৫টি খেলায় অংশ নিয়েছিলেন।[২][৩][৪][৫] দক্ষিণ আফ্রিকায় মূলতঃ ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের পক্ষে ১১টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নেন। এ সময়ে ১৮৯০-৯১ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন ব্যাট টুর্নামেন্ট ও ১৮৯২-৯৩ মৌসুম থেকে ১৯০৩-০৪ মৌসুম পর্যন্ত কারি কাপে অংশ নিয়েছিলেন।[৫] সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে সর্বমোট চারটি প্রথম-শ্রেণীর সেঞ্চুরি করেছেন ফ্রাঙ্ক হার্ন।[৩][৫]

টেস্ট ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১২ মার্চ, ১৮৮৯ তারিখে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ৬টি টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছিলেন ফ্রাঙ্ক হার্ন।

১৮৮৮-৮৯ মৌসুমে আরজি ওয়ার্টনের ব্যবস্থাপনায় ইংল্যান্ড দলের সদস্যরূপে দক্ষিণ আফ্রিকা গমন করেছিলেন। এ সফরের উভয় খেলায় অংশ নেন যা পরবর্তীকালে টেস্ট ক্রিকেটের মর্যাদা দেয়া হয়েছিল। সেন্ট এলিজাবেথে তার টেস্ট অভিষেক পর্ব সম্পন্ন হয়।[৩]

দক্ষিণ আফ্রিকায় নাগরিকত্ব লাভের পর ১৮৯১-৯২ মৌসুমে ওয়াল্টার রিডের নেতৃত্ব ইংরেজ দলের বিপক্ষে অংশ নেন। মার্চ, ১৮৯২ সালে এ সফরের একমাত্র টেস্টটি কেপ টাউনে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এরফলে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে তার। তার অন্য দুই ভাই জর্জ হার্ন ও অ্যালেক হার্ন ইংল্যান্ড দলের পক্ষে তাঁদের একমাত্র টেস্টে অংশ নিয়েছিলেন।[৬]

এরপর ফ্রাঙ্ক হার্ন দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আরও তিন টেস্টে অংশ নিয়েছিলেন। ১৮৯৫-৯৬ মৌসুমে লর্ড হকের নেতৃত্বাধীন সফরকারী ইংরেজ দলের বিপক্ষে সবগুলো টেস্টে অংশ নেন।[৫] ১৮৯৪ সালে ইংল্যান্ড সফরে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা দল। এ সফরে তিনিও অন্যতম সদস্য ছিলেন। তবে, কোন খেলাই প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটের মর্যাদা পায়নি।[৩]

খেলার ধরন[সম্পাদনা]

খাঁটিমানের ব্যাটসম্যান হিসেবে ফ্রাঙ্ক হার্নকে গণ্য করা হতো। উইকেটে রক্ষণাত্মক ভঙ্গীমায় খেলতেই তিনি অধিকতর কার্যকারিতা প্রদর্শন করেছেন। তবে, বেশ কিছু আক্রমণাত্মক ঢংয়ে খেলেছেন তিনি। অফ-সাইডের অধিকতর দক্ষতা দেখিয়েছেন।[৭] ১৯০৭ সালে উইজডেনের সংস্করণে কাউন্টি ক্রিকেটে তার ব্যাটিংশৈলী ও চমকপ্রদ ফিল্ডিংয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করা হয়।[৪]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৮৮৪ সালে ফ্রাঙ্ক হার্নের পুত্র জর্জ আলফ্রেড লরেন্স হার্ন জন্মগ্রহণ করে। জর্জ ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের পক্ষে ক্রিকেট খেলেছেন ও দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে তিনটি টেস্টে অংশ নিয়েছিলেন।[৮]

খেলোয়াড়ী জীবন থেকে অবসর নেয়ার পর ক্রীড়া সরঞ্জামাদি বিক্রয় প্রতিষ্ঠান গড়েন ও ক্রিকেটে প্রশিক্ষণ দিতেন।[৬][৮] ১৮৯৯ থেকে ১৯০৬ সালের মধ্যে ছয় টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকায় আম্পায়ারিত্ব করেন।[৫] ১৪ জুলাই, ১৯৪৯ তারিখে ৯০ বছর বয়সে কেপ টাউনের মোব্রে এলাকায় দেহাবসান ঘটে জর্জ হার্নের।[৭] পিতা-পুত্র উভয়েই ৯০ বছর বেঁচেছিলেন। এ ঘটনাটি টেস্ট খেলার ইতিহাসে একমাত্র ঘটনা হিসেবে পরিগণিত হয়ে আসছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Hearne, Alec, Obituaries in 1952, Wisden Cricketers' Almanack, 1953. Retrieved 2016-04-06.
  2. Ambrose D (2003) Brief profile of Frank Hearne, CricketArchive. Retrieved 2017-10-28.
  3. Frank Hearne, Obituaries in 1949, Wisden Cricketers' Almanack, 1950. Retrieved 2017-10-28.
  4. A short history of Kent cricket, Wisden Cricketers' Almanack, 1907. Retrieved 2017-10-28.
  5. Frank Hearne, CricketArchive. Retrieved 2017-10-28.
  6. Williamson M, Miller A (2006) Identity crisis, CricInfo, 2006-10-10. Retrieved 2016-04-05.
  7. Williamson M Frank Hearne, CricInfo. Retrieved 2017-10-28.
  8. Hearne, George Alfred Lawrence, Obituaries before 1979, Wisden Cricketers' Almanack, 1980. Retrieved 2017-10-28.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]