ফিফা অর্ডার অফ মেরিট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(FIFA Order of Merit থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফিফা অর্ডার অফ মেরিট
প্রদানকারী ফিফা
ধরণ অর্ডার অফ মেরিট
প্রদান করা হয় "এসোসিয়েশন ফুটবলে অসাধারণ অবদানের জন্য"
অবস্থা সক্রিয়
পরিসংখ্যান
প্রতিষ্ঠিত ১৯৮৪
প্রথম প্রবর্তন ১৯৮৪
শেষ প্রবর্তন ২০১২
মোট প্রাপক ১২১
পদমর্যাদার স্তর
পরবর্তী সম্মাননা(উচ্চতর) নাই
পূর্ববর্তী সম্মাননা (নিম্নতর) নাই

অর্ডার অফ মেরিট ফিফা কর্তৃক প্রদত্ত সর্বোচ্চ সম্মাননা। পুরস্কারটি বার্ষিক ফিফা কংগ্রেসে উপস্থাপন করা হয়। এটি সাধারণত ফুটবলের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখা বিবেচিত ব্যক্তিদের প্রদান করা হয়।

ফিফা এর শতবার্ষিক কংগ্রেসে তারা তাদের অস্তিত্বের প্রতি দশকের জন্য একটি পুরস্কার দেয়। এই পুরস্কারগুলি ভক্ত, সংগঠন, ক্লাব এবং একটি আফ্রিকান ফুটবলের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছিল। এটি ফিফা শতবার্ষিক অর্ডার অফ মেরীত হিসাবে উল্লেখ করা হয়।

পুরষ্কার গ্রাহক সরাসরি এটি ফুটবলের সাথে জড়িত হতে হবে না। এমন একটি উল্লেখযোগ্য অ-ফুটবল ব্যক্তিত্ব ছিলেন নেলসন ম্যান্ডেলা যিনি দক্ষিণ আফ্রিকাকে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফিরিয়ে আনায় এটি জিতেছিলেন।

প্রাপক[সম্পাদনা]

প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
এসোসিয়েশন উরুগুয়ে দে ফুতবল ২০০৪  উরুগুয়ে ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
আফ্রিকান ফুটবল ২০০৪ ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
ইন্টারনেশনাল ফুটবল এসোসিয়েশন বোর্ড ২০০৪ ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার

ফুটবল ক্লাব[সম্পাদনা]

গ্রাহক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
রিয়াল মাদ্রিদ ২০০৪  স্পেন ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
শেফিল্ড এফ.সি. ২০০৪  ইংল্যান্ড ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার[১]

ফুটবলার[সম্পাদনা]

পেলে (বামে) ১৯৯৯ সালে ইন্টারনেশনাল অলিম্পিক কমিটি কর্তৃক শতাব্দীর সেরা ক্রীড়াবিদ হিসেবে ঘোষিত হন
ইয়োহান ক্রুইফ ফুটবলার এবং কোচ উভয় ক্ষেত্রে অবদানের জন্য এই পুরষ্কার পান
প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
ফ্রান্ৎ‌স বেকেনবাউয়ার ১৯৮৪, ২০০৪  জার্মানি ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
ববি চার্লটন ১৯৮৪  ইংল্যান্ড
পেলে ১৯৮৪, ২০০৪  ব্রাজিল ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
দিনো জোফ ১৯৮৪  ইতালি
লেভ ইয়াসিন ১৯৮৮  সোভিয়েত ইউনিয়ন
অ্যান্তনিও কার্ভাহাল ১৯৯২  মেক্সিকো
স্ট্যানলি ম্যাথিউজ ১৯৯২  ইংল্যান্ড
ফ্রান্সিসকো ভারায়ো ১৯৯৪  আর্জেন্টিনা
আলফ্রেদো দি স্তিফানো ১৯৯৪  আর্জেন্টিনা
ফ্রিন্ৎ‌স ওয়াল্টার ১৯৯৪  জার্মানি
ফেরেন্তস পুশকাস ১৯৯৪  হাঙ্গেরি
ইউসেবিও ১৯৯৪  পর্তুগাল
জুস্ত ফোঁতেন ১৯৯৪  ফ্রান্স
গান নাইবোর্গ ১৯৯৪  নরওয়ে
অব্দুলিও ভারেয়া ১৯৯৪  উরুগুয়ে
জিকো[২] ১৯৯৬  ব্রাজিল
ববি মুরে ১৯৯৬  ইংল্যান্ড
সালিফ কেইটা ১৯৯৬  মালি
মাইকেল আকেরস ১৯৯৮  যুক্তরাষ্ট্র
লারবি বেনবারেক ১৯৯৮  মরক্কো
গিলমার ১৯৯৮  ব্রাজিল
গের্ড ম্যুলার ১৯৯৮  জার্মানি
ইভান তপলাক ২০০০  স্লোভেনিয়া
ডেবিড কিপিয়ানি ২০০২  জর্জিয়া
প্রদীপ কুমার ব্যানার্জি ২০০৪  ভারত ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
লি র‍্যামন ২০০৪  কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ
পাওলো মালদিনি ২০০৮  ইতালি
ববি রবসন ২০০৯  ইংল্যান্ড
ইয়োহান ক্রুইফ ২০১০  নেদারল্যান্ডস
স্টিভ সামনের ২০১০  নিউজিল্যান্ড ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
আলসিদেস গিজ্ঞিয়া ২০১০  উরুগুয়ে

কোচ[সম্পাদনা]

বিশেষ অবদানের জন্য শেষ কোচ হিসেবে ফিফা অর্ডার অফ মেরিট পাওয়া অস্কার তাবারেজ
প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
হেলমুত শুন ১৯৮৪  জার্মানি
মারিও জাগালো ১৯৯২  ব্রাজিল
কার্ল হেইঞ্জ ওয়েইগ্যন ১৯৯৮  জার্মানি
মিলিয়ান মিলায়ানিচ ২০০২  সার্বিয়া
ভালেরি লোবানোভস্কি ২০০৩  ইউক্রেন
সেইন হিয়াইং ২০০৪  মায়ানমার
কাজিমিয়ের্জ গোরোস্কি ২০০৬  পোল্যান্ড
নোদার আখাল্কাতসি ২০০৮  জর্জিয়া
ইয়োহান ক্রুইফ ২০১০  নেদারল্যান্ডস
উইন্টসন চাং-ফাহ ২০১২  জামাইকা
অস্কার তাবারেজ ২০১২  উরুগুয়ে

রেফারি[সম্পাদনা]

প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
নিকোলেই লাতিশেভ ১৯৮৭  সোভিয়েত ইউনিয়ন
থমাস ওয়ার্টন ১৯৯২  স্কটল্যান্ড
ফারুক বাউজো ১৯৯৬  সিরিয়া
হাভিয়ের আরিয়াগা মুনিজ ১৯৯৬  মেক্সিকো
ফার্নান্দো জি. আলভারেজ ২০০৫  ফিলিপাইন
হারি রাজ নাইকার ২০১২  ফিজি

প্রশাসক[সম্পাদনা]

ফিফার ৬ষ্ঠ সভাপতি স্ট্যানলি রৌস।
রিয়াল মাদ্রিদ ইউরোপস্পেনের সবচেয়ে সফল ক্লাব হওয়ার পিছনে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুয়ের অবদনা সবচেয়ে বেশি।
যুগ্লোসোভিয়া/সার্বিয়া ফুটবল ফেডারেশন সভাপতি এবংং কোচ হিসেবে অসাধারণ অবদানের জন্য মিলিয়ান মিলিয়নিচকে মরণোত্তর পুরষ্কার দেওয়া হয়।
জুলে রিমে ফিফার সবচেয়ে দীর্ঘ সভাপতি এবং ফিফা বিশ্বকাপের প্রবর্তক।
প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
স্ট্যানলি রৌস ১৯৮৪  ইংল্যান্ড
মিহাইলো আন্দ্রেজেভিচ ১৯৮৪  যুগোস্লাভিয়া
পাওলো মাচাদো দে কার্ভালহো ১৯৮৭  ব্রাজিল
ফারদিনান্দ হিদালগো ১৯৮৭  ইকুয়েডর
তেওফিলো সালিনাস ফুলার ১৯৮৭  পেরু
মারাত গ্রমোভ ১৯৮৭  সোভিয়েত ইউনিয়ন
জোয়াও লায়রা ফিলিয়ো ১৯৮৮  ব্রাজিল
পেদ্রো এস্কার্তিন ১৯৮৮  স্পেন
ইদনেকাতসিও তেসেমা ১৯৮৮  ইথিওপিয়া
কে. জিয়াউদ্দিন ১৯৯২  ভারত
শিজৌ ফুজিতা ১৯৯২  জাপান
জুয়ান হোসে রুসো ১৯৯২  আর্জেন্টিনা
আব্দেল আজিজ মোস্তফা ১৯৯২  মিশর
আর্থুর জর্জ ১৯৯৪  অস্ট্রেলিয়া
চেং চেংদা ১৯৯৪  গণচীন
আব্দেল হালিম মুহাম্মাদ ১৯৯৪  সুদান
জেনে এডওয়ার্ডস ১৯৯৪  যুক্তরাষ্ট্র
ভিতালি স্মিরনোভ ১৯৯৫  রাশিয়া
মরিস বার্লাজ ১৯৯৬  ফ্রান্স
হেনরি ফোক ১৯৯৮  হংকং
জুলিপ গ্রোন্দোনা ১৯৯৮  আর্জেন্টিনা
ভায়াচেস্লাভ কোলোস্কোভ ১৯৯৮  রাশিয়া
বার্ট মিলিচিপ ১৯৯৮  ইংল্যান্ড
গুইলের্মো কানেদো দে লা বার্সেনা ১৯৯৮  মেক্সিকো
আবিলিও ডি'আলমেইদা ২০০০  ব্রাজিল
হোসেপ লুইজ নুনেজ ২০০০  স্পেন
নাবন নুর ২০০০  ইন্দোনেশিয়া
আযরিকাম মিলতচান ২০০০  ইসরায়েল
হোরাস বুরেল ২০০০  জামাইকা
ফয়সাল বিন ফাহাদ ২০০০  সৌদি আরব
এতুবোম ওয়ো ওয়ো ২০০০  নাইজেরিয়া
নিকিতা সাইয়মোন্যান ২০০০  রাশিয়া
জোয়াও এন্টোনিও সামারাঞ্চ ২০০১  স্পেন
হোসে এরমিরিও দে মোরায়েস ফিলয়ো ২০০২  ব্রাজিল
জিম ফ্লেমিং ২০০২  কানাডা
মোহামেদ খালিল এল দিব ২০০০২  মিশর
সান্তিয়াগো বার্নাব্যু ২০০২  স্পেন
মিলিয়ান মিলায়ানিচ ২০০২  সার্বিয়া
হান্স আরনেস্ট ব্যাঙ্গার্টার ২০০২  সুইজারল্যান্ড
রেনে হাসি ২০০২  সুইজারল্যান্ড
জনি ওয়ারেন ২০০৪  অস্ট্রেলিয়া ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার[৩]
জোয়াও হ্যাভেলাঞ্জ ২০০৪  ব্রাজিল ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
জুলে রিমে ২০০৪  ফ্রান্স ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
ফাহাদ আল-আহমেদ আল-জাবের আল-শাবাহ ২০০৪  কুয়েত
জেন পিটার্স ২০০৬  বেলজিয়াম
ঈসা হায়তু ২০০৬  ক্যামেরুন
এগিদিউস ব্রাউন ২০০৬  জার্মানি
অস্কার থামার তোরেস ২০০৬  গুয়াতেমালা
সাবুরো কাওয়াবুচি ২০০৬  জাপান
হামজাহ আবু সামাহ ২০০৬  মালয়েশিয়া
গুয়েদ্রে ওয়ামেদজো ২০০৬  নিউ ক্যালিডোনিয়া
পার র‍্যাবন ওমদাল ২০০৬  নরওয়ে
কাজিমিয়ের্জ গোরস্কি ২০০৬  পোল্যান্ড
আলেক্সেই পারামোনোভ ২০০৬  রাশিয়া
এলান রোথেনবার্গ ২০০৬  যুক্তরাষ্ট্র
নিকোলাস আবুমোহোর ২০০৮  চিলি
ঝাং জিলং ২০০৮  গণচীন
আইজ্যাক ডেভিড সাসো সাসো ২০০৮  কোস্টা রিকা
নোদাদ আখাল্কাতসি ২০০৮  জর্জিয়া
হেলেন লুথার্ড-পিটারম্যান ২০০৮  সুইজারল্যান্ড
লিসল অস্টিন ২০১০  বার্বাডোস
হোলগার ওবেরমান ২০১০  জার্মানি
জুনজি ওগুরা ২০১০  জাপান
মোলেফি ওলিফান্ত ২০১০  দক্ষিণ আফ্রিকা
গারহার্ড মায়ের-ভোরফেল্ডার ২০১২  জার্মানি
গেওরগে সেপেসি ২০১২  হাঙ্গেরি
আহমেদ শাহ পাহাং ২০১২  মালয়েশিয়া
গডফ্রেন্ড ফলি একুয়ে ২০১২  টোগো

অন্যান্য ব্যক্তি[সম্পাদনা]

প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
রবের্তো মারিনয়ো ১৯৮৭  ব্রাজিল
এভারউইন ভ্যান স্টিড্যান ১৯৮৭  ইংল্যান্ড
এমিলিপ আজকারাগা মিলমো ১৯৮৭  মেক্সিকো
ডিয়েগো লুসেরো ১৯৮৭  উরুগুয়ে
পেদ্রো র‍্যামিরেজ ভাজকুয়েজ ১৯৮৮  মেক্সিকো
কার্ল-হেইঞ্জ হেইম্যান ১৯৯২  জার্মানি
ওয়াল্টার লুটজ ১৯৯২  সুইজারল্যান্ড
হেনরি কিসিঞ্জার ১৯৯৬  যুক্তরাষ্ট্র
ডগলাস ইভেস্তার ১৯৯৬  যুক্তরাষ্ট্র
উদো ইয়ুর্গেন ১৯৯৬  জার্মানি
ফারনান্দ সাস্ত্রে ১৯৯৮  ফ্রান্স
নেলসন মেন্ডেলা ১৯৯৮  দক্ষিণ আফ্রিকা
এরুইন হিমেলসেহের ২০০০  জার্মানি
কফি আনান ২০০২  ঘানা
থাকসিন সিনাওয়াত্রা ২০০৪  থাইল্যান্ড
রবার্ট লুইজ-ড্রেইসুস ২০০৬  ফ্রান্স
ওতো স্কিলি ২০০৬  জার্মানি
রুডি মাইকেল ২০০৬  জার্মানি
মোহাম্মেদ ইউসুফ ২০০৮  ফিজি
আলফা উমার কোনারে ২০০৮  মালি
থাবো এমবেকি ২০১০  দক্ষিণ আফ্রিকা

অন্যান্য প্রাপক[সম্পাদনা]

প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
টেলিভিশন ২০০৪ ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
শেফিল্ড শহর ২০০৪  ইংল্যান্ড ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
জাপানের সমর্থক ২০০৪  জাপান ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
কোরিয়ার সমর্থক ২০০৪  দক্ষিণ কোরিয়া ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার

বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

প্রাপক বছর জাতীয়তা দ্রষ্টব্য
এডিডাস ২০০৪  জার্মানি
কোকা-কোলা ২০০৪  যুক্তরাষ্ট্র ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার
এসোসিয়েশান ইন্টারনেশনাল দে লা প্রেসে স্পোর্তিভ ২০০৪  ফ্রান্স ২০০৪ সালে শতবার্ষিক পুরষ্কার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Honours of Oldest Soccer Team in World"। Sheffield FC। ২০ জানুয়ারি ২০১৮। ২০ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. "Anniversary with nine FIFA Order of Merit Awards"। FIFA। ৯ আগস্ট ১৯৯৬। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৮ 
  3. "Global game honours fighter Warren"। Sydney Morning Herald। ১০ জুলাই ২০০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]