ডেভ কালাহান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Dave Callaghan থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডেভ কালাহান
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামডেভিড জন কালাহান
জন্ম (1965-02-01) ১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৫ (বয়স ৫৪)
কুইন্সটাউন, পূর্ব কেপ
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
সম্পর্কজাস্টিন কেম্প (কাকাতো ভাই)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২২)
৭ ডিসেম্বর ১৯৯২ বনাম ভারত
শেষ ওডিআই১৪ এপ্রিল ২০০০ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ২৯ ১৪৬ ২১৬
রানের সংখ্যা ৪৯৩ ৭,৭৩০ ৫,৩০৪
ব্যাটিং গড় ২৫.৯৪ ৩৬.১২ ৩২.৭৪
১০০/৫০ ১/০ ১৮/৩৭ ২/৩৩
সর্বোচ্চ রান ১৬৯* ১৭১ ১৬৯*
বল করেছে ৪৪৪ ৮,৬৫১ ৫,৬৪৩
উইকেট ১০ ১২৬ ১৪৭
বোলিং গড় ৩৬.৫০ ২৯.০৭ ২৯.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৩/৩২ ৫/২৪ ৪/৩১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৬/০ ১১৩/০ ৪৮/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ডেভিড জন কালাহান (ইংরেজি: Dave Callaghan; জন্ম: ১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৫) পূর্ব কেপের কুইন্সটাউনে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ও সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯২ থেকে ২০০০ সময়কালে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে ইস্টার্ন প্রভিন্স দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন ডেভ কালাহান। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে ভূমিকা রেখেছেন। এছাড়াও ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলিং করতেন তিনি।

কালাহানের কাকাতো ভাই জাস্টিন কেম্প দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন।

শৈশবকাল[সম্পাদনা]

১৯৮৩ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিদ্যালয়ের ছাত্রদের নিয়ে গঠিত ‘আলবাট্রসেস দলের’ সদস্যরূপে ইংল্যান্ড গমন করেছিলেন। ঐ দলটিতে বর্ষসেরা ক্রিকেটার মার্ক রাশমেয়ার, ডেভ রান্ডল, ড্যারিল কালিনান, মেরিক প্রিঙ্গলসালিয়েগ ন্যাকারডিয়েনের ন্যায় তারকা খেলোয়াড়ের অংশগ্রহণ ছিল।

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯ বছরব্যাপী প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন ডেভ কালাহান। অধিকাংশ সময়ই ইংল্যান্ডে অবস্থান করে সাফোক ও নটিংহ্যামশায়ারের পক্ষে খেলেছেন।

প্রাদেশিক ক্রিকেটে খেলোয়াড়ী জীবনের বেশীরভাগ সময় ইস্টার্ন প্রভিন্সের পক্ষে খেলেছেন। ঐ সময়ে দেশের শক্তিধর ব্যাটিংসমৃদ্ধ দলটিতে কেপলার ওয়েসেলস, ফিল আম, মার্ক রাশমেয়ার ও কেনি ম্যাকইউয়ানের অংশগ্রহণ ছিল।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণের সুযোগ পাননি তিনি। দীর্ঘ আট বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করলেও ডেভ কালাহান মাত্র ২৯টি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশ নিতে পেরেছিলেন। ৭ ডিসেম্বর, ১৯৯২ তারিখে ভারতের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে ডেভ কালাহানের অভিষেক ঘটে।

১৯৯৪ সালে ম্যান্ডেলা ট্রফি প্রতিযোগিতায় দূর্দান্ত ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শন করেন। সেঞ্চুরিয়নে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অপরাজিত ১৬৯ রানের দূর্দান্ত ইনিংস উপহার দেন ডেভ কালাহান। ব্যাটিং উদ্বোধনে নেমে ৪ ছক্কা সহযোগে ১৪৩ বল মোকাবেলান্তে ১৬৯ রানের মনোরম সেঞ্চুরি করেন। এটিই একদিনের আন্তর্জাতিকে যে-কোন ব্যাটসম্যানের তৎকালীন ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংসের মর্যাদা পেয়েছিল। এরপর তিনি আর একবার মাত্র পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের ইনিংসে খেলেছিলেন। এছাড়াও খেলোয়াড়ী জীবনের সেরা বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন ৩/৩২। ফলশ্রুতিতে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি। টেস্টিকুলার ক্যান্সার থেকে আরোগ্য লাভের পর প্রথম ডেভ কালাহান খেলতে নেমেছিলেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dave Callaghan returned to International Cricket with a bang after beating cancer 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]