সার্স-কোভি-২ ভাইরাসের বিটা প্রকারণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(৫০১.ভি২ প্রকারণ থেকে পুনর্নির্দেশিত)

সার্স-কোভি-২ ভাইরাসের বিটা প্রকারণ, ৫০১.ভি২ প্রকারণ (সংক্ষেপে ৫০১.ভি২), দক্ষিণ আফ্রিকীয় প্রকারণ বা বি.১.৩৫১ বংশ হলো কোভিড-১৯ রোগ সৃষ্টিকারী সার্স কোভি-২ এর একটি পরিব্যক্ত প্রকারণ। এই প্রকারণটি ২০২০ সালের ১৮ই ডিসেম্বর তারিখে দক্ষিণ আফ্রিকার স্বাস্থ্য বিভাগ কর্তৃক সর্বপ্রথম শনাক্ত করা হয়।[১] গবেষক ও কর্মকর্তাদের মতে ইতিপূর্বে অন্তর্নিহিত জটিল রোগের ইতিহাস না থাকা তরুণদের মধ্যে এই প্রকারণের বিস্তার অত্যধিক। পূর্ববর্তী জটিল রোগ না থাকা সত্ত্বেও এটি তাদের মধ্যে গুরুতর অসুস্থতা সৃষ্টি করতে পারে।[২] দক্ষিণ আফ্রিকার স্বাস্থ্য বিভাগের মতে, করোনাভাইরাসের এই স্ট্রেইনটি পূর্বের অন্যান্য স্ট্রেইনের তুলনায় খুব দ্রুত বিস্তার লাভ করছে এবং করোনাভাইরাস মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউকে ত্বরান্বিত করছে।[১][২]

বিজ্ঞানীরা লক্ষ্য করেছেন, ভাইরাসের এই প্রকারণে বেশ কিছু পরিব্যক্তি ঘটেছে, যা এটিকে মানবকোষের সাথে আরও সহজে সংযুক্ত হতে সহায়তা করে। কেননা এর তিনটি পরিব্যক্তিই ঘটেছে ভাইরাসের স্পাইক গ্লাইকোপ্রোটিনের গ্রাহক-বন্ধন অধিক্ষেত্রে (রিসেপ্টর-বাইন্ডিং ডোমেনে); যার মধ্যে এন৫০১ওয়াই[১][৩] (৫০১ নম্বর অবস্থানের অ্যামিনো অ্যাসিডে অ্যাসপারাজিন (এন) থেকে টাইরোসিনে (ওয়াই)[৪] রূপান্তর) অন্যতম। এই বিশেষ রূপান্তর বা পরিব্যক্তিটি অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাজ্যেও শনাক্ত করা হয়েছে।[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

  • ভিওসি-২০২০১২/০১, যুক্তরাজ্যে প্রাপ্ত সার্স-কোভি-২ ভাইরাসের একটি প্রকারণ
  • ক্লাস্টার ৫, ডেনমার্কে প্রাপ্ত সার্স-কোভি-২ ভাইরাসের একটি প্রকরণ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "South Africa announces a new coronavirus variant"The New York Times। ১৮ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০২০ 
  2. Wroughton, Lesley; Bearak, Max (১৮ ডিসেম্বর ২০২০)। "South Africa coronavirus: Second wave fueled by new strain, teen 'rage festivals'"The Washington Post। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০২০ 
  3. Abdool Karim, Salim S. (19 December 2020). "The 2nd Covid-19 wave in South Africa:Transmissibility & a 501.V2 variant". 11th slide. SCRIBD.
  4. For a list of the symbols used for the α-amino acids incorporated into protein under mRNA direction, see: