২৩১২ (উপন্যাস)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২৩১২
২৩১২ উপন্যাসের প্রচ্ছদ.jpeg
লেখককিম স্ট্যানলি রবিনসন
প্রচ্ছদ শিল্পীকার্ক বেনশফ
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
ধরনকল্পবিজ্ঞান
প্রকাশকঅরবিট
প্রকাশনার তারিখ
২৩ মে, ২০১২
মিডিয়া ধরনমুদ্রণ (হার্ডকভারবৈদ্যুতিক বই) ও অডিও-সিডি
পৃষ্ঠাসংখ্যা৫৭৬
পুরস্কারসমূহশ্রেষ্ঠ উপন্যাস বিভাগে নেব্যুলা পুরস্কার
আইএসবিএন978-0-316-09812-0

২৩২১ (ইংরেজি: 2312) হল মার্কিন লেখক কিম স্ট্যানলি রবিনসনের লেখা একটি কল্পবিজ্ঞান উপন্যাস। ২০১২ সালে এই উপন্যাসটি প্রকাশিত হয়। ২৩১২ সালের এক কল্পিত প্রেক্ষাপটে এই উপন্যাসটি রচিত। এই প্রেক্ষাপটে সমগ্র সৌরজগৎ জুড়ে মানব সমাজের প্রসার ঘটেছে। উপন্যাসটি ২০১৩ সালে শ্রেষ্ঠ উপন্যাস বিভাগে নেব্যুলা পুরস্কার জয় করে।[১]

কাহিনি-সারাংশ[সম্পাদনা]

উপন্যাসটি ২৩১২ সালের প্রেক্ষাপটে রচিত। বুধ গ্রহের টারমিনেটর মহানগরটিকে ওই গ্রহের গোধূলি ক্ষেত্রের কাছাকাছি বাসযোগ্য অঞ্চলে রাখার জন্য দৈত্যাকার ট্র্যাকের উপর স্থাপন করা থাকে। শিল্পী তথা প্রাক্তন গ্রহাণু টেরারিয়াম নকশাবিদ সোয়ান এর হং তার সৎ-ঠাকুমা আলেক্সের আকস্মিক মৃত্যুতে শোকাহত। অ্যালেক্স টারমিনেটরের অধিবাসীদের মধ্যে অত্যন্ত প্রভাবশালী ছিলেন। অন্ত্যেষ্টি শোভাযাত্রার পর অ্যালেক্সের পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের মধ্যে একটি সম্মেলন বসে। এই সম্মেলনে উপস্থিত কয়েকজনের কথা সোয়ান আগে কোনও দিন শোনেননি। এঁদেরই একজন ছিলেন টাইটানের বাসিন্দা ফিৎজ ওয়াহ্‌রাম। এঁকে সোয়ান অপছন্দই করতেন। সম্মেলনের পর সোয়ান ঠিক করলেন তিনি আইয়োতে আরেক বন্ধু ওয়াং-এর সঙ্গে দেখা করতে যাবেন। ওয়ান ছিলেন বৃহত্তম কিউবেস বা কোয়ান্টাম কম্পিউটারগুলির মধ্যে একটির নকশা-অঙ্কনকারী। সোয়ান যখন আইয়োতে ওয়াং-এর সঙ্গে দেখা করতে যান, তখন আপাতদৃষ্টিতে ঘটে যাওয়া কোনও এক ধরনের সংঘাত ব্যর্থ হয়। কিছুদিন বাদেই টারমিনেটরে একটি সংঘাতের ঘটনা ঘটে। কৃত্রিমভাবে সৃষ্ট একটি উল্কার আঘাতে শহরের ট্র্যাকগুলি ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। ফলে শহরের চলন থেমে যায় এবং সেটি সূর্যালোকের প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে এসে অপরিহার্যভাবেই দগ্ধ হতে শুরু করে। এদিকে সফরে বেরিয়ে সোয়ান তার ঠাকুমার মৃত্যু ও টারমিনেটর ধ্বংসের পারিপার্শ্বিক রহস্য সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারেন। ওয়াহ্‌রাম ও গেনেটের সঙ্গে সোয়ান সমগ্র সৌরজগতের বিভিন্ন স্থানে ভ্রমণ করেন এবং তীব্রতর হতে থাকে একের পর এক ষড়যন্ত্রের তদন্ত করতে থাকেন।

ঘটনাক্রমে ইন্সপেক্টর গেনেট আবিষ্কার করেন কীভাবে টারমিনেটর ধ্বংসকারী কৃত্রিম উল্কাটি তৈরি করা হয়েছিল: কেউ ট্রাজেকটরিগুলিতে প্রচুর সংখ্যায় ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বস্তু উৎক্ষেপণ করে। সেগুলি ক্রমে ক্রমে বুধের উপর এসে একাঙ্গীভূত হয়। কিন্তু বুধের এতটাই কাছে সেগুলি উপস্থিত হয়েছিল যে গ্রহের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তখন বিরাট বস্তুটিকে ধ্বংস করতে অসমর্থ হয়। সংঘর্ষের জটিল পদ্ধতিটি দেখে সোয়ানের স্থির বিশ্বাস জন্মায় যে, এই ঘটনায় অবশ্যই কোয়ান্টাম কম্পিউটার ব্যবহার করা হয়েছে।

ইতিমধ্যে সোয়ান ও ওয়াহ্‌রাম মহাকাশ-ভিত্তিক সাময়িক পরিবেশগুলি থেকে হাজার হাজার প্রজাতিকে পৃথিবীতে সেগুলির ঘরোয়া পরিবেশে ফিরিয়ে আনার মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বিধ্বস্ত পৃথিবীকে পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে আনা ও সেখানে পুনরায় বনসৃজনের কাজে জড়িয়ে পড়েন।

চরিত্র[সম্পাদনা]

  • সোয়ান এর হং – শিল্পী ও প্রাক্তন গ্রহাণু টেরারিয়াম নকশাবিদ
  • ফিৎজ ওয়াহ্‌রাম – টাইটান উপগ্রহের কূটনীতিবিদ
  • জ্যঁ গেনেট – জনৈক "স্মল", অ্যালেক্সের ঘনিষ্ঠ এক বন্ধু
  • অ্যালেক্স – প্রয়াত প্রভাবশালী এক বিজ্ঞানী ও কূটনীতিবিদ, সোয়ানের ঠাকুমা
  • ম্‌কারেট – বিজ্ঞানী ও আলেক্সের সঙ্গী
  • কিরান – পৃথিবীর একটি অল্পবয়সী বালক। নিজের বস্তি-সদৃশ শহরে সে সোয়ানকে কয়েকটি বিপদের হাত থেকে উদ্ধার করে। কৃতজ্ঞতাস্বরূপ সোয়ান তাকে গ্রহের বাইরে একটি কাজ দেয়।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি[সম্পাদনা]

এই উপন্যাসটির পটভূমিতে বুধ, শুক্রমঙ্গল গ্রহ এবং বৃহস্পতিশনি গ্রহের উপগ্রহগুলিতে মানুষের জনবসতি গড়ে উঠেছে। প্রাকৃতিক ও কৃত্রিম উপগ্রহ সহ সৌরজগতের সব ক-টি বাসযোগ্য পৃষ্ঠতলে মানবজাতি উপস্থিত হয়ে অথবা উপস্থিতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এছাড়া সৌরজগতের প্রায় প্রত্যেকটি গ্রহাণুগুলিকে শূন্যগর্ভ করে "টেরারিয়াম" সৃষ্টি করা হয়েছে। এর মধ্যে আভ্যন্তরীণ কৃত্রিম পরিবেশের নকশা করা হয়েছিল পৃথিবীতে প্রাপ্ত বিভিন্ন জীবাঞ্চলের অনুকৃতি করার জন্য বা বিভিন্ন জীবঞ্চলের মিশ্রণ ঘটানোর জন্য। এগুলির মধ্যে কয়েকটি পশু সংরক্ষণ কেন্দ্র অথবা বিপন্ন বা অল্প-উৎপাদিত উদ্ভিদ ও প্রাণীসম্পদের খামার হিসেবে ব্যবহৃত হত। মানুষ সেই সব গ্রহাণুতে শাটল নিয়ে যায় এবং সেগুলিকেই সৌরজগতের মধ্যে গ্রহান্তরের যান হিসেবে ব্যবহার করে। এই টেরারিয়ামগুলির মধ্যে কয়েকটি ব্যর্থ হয়। যেমন, একটিতে প্রোগ্রামিং-এ একটি ভুলের জন্য গ্রহাণুটি প্রায় ধ্বংস হতে বসেছিল এবং অপর একটিতে টেরারিয়ামের বরফের প্রাচীরে একটি ছোটো ফাটল দেখা দিলে সেখানকার অধিকাংশ জনবসতিই অধিবাসীদের নিয়ে ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়।

এই উপন্যাসে দেখানো হয়েছে যে, মানবসভ্যতার শক্তিবৃদ্ধি, অন্য গ্রহে বসতি স্থাপনপৃথিবীকরণের মতো বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তিগত অগ্রগতিগুলি এক অসাধারণ ভবিষ্যতের পথ খুলে দিয়েছে। নতুন আবিষ্কারগুলির মধ্যে অন্যতম প্রধান হল কিউবস। এগুলি হল কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অধিকারী কোয়ান্টাম কম্পিউটার। এগুলির অনেকগুলিই এতটাই ছোটো যে ব্যবহারকারী সেগুলিকে মাথায় প্রোথিত করে নিতে পারেন বা লোকে যেমন হাতঘড়ি বা মোবাইল ফোন নিয়ে ঘোরে, তেমনভাবেই সঙ্গে নিয়ে ঘুরতে পারেন। ডিজিট্যাল কম্পিউটারে তখনও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহৃত হয়। কিন্তু ক্ষুদ্রতর অথচ অনেক বেশি শক্তিশালী কিউবসগুলি সেগুলির স্থান দখল করে নিচ্ছে।

পুঁজিবাদের স্থান গ্রহণ করেছে একটি পরিকল্পিত অর্থনীতি। বিবরণ অনুযায়ী, এই অর্থনীতির ভিত্তি কোয়ান্টাম কম্পিউটার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত মনড্র্যাগন ধারণা। কিন্তু পৃথিবীতে তখনও বাজার ব্যবস্থার কিছু অংশবিশেষ রয়ে গিয়েছে।

যৌনতা, যৌনপ্রবৃতি ও লিঙ্গ[সম্পাদনা]

এই জগতে লিঙ্গ ও যৌনপ্রবৃত্তি পরিবর্তনশীল ও প্রসারণশীল। উপন্যাসের লিঙ্গ ও যৌনপ্রবৃত্তির প্রধান শ্রেণিগুলির মধ্যে রয়েছে নারী, পুরুষ, মিশ্রলিঙ্গ, অনির্দিষ্টলিঙ্গকামী, উভকামী, ক্লীব, খোজা, অযৌন, অপার্থক্যীকৃত, পুরুষ সমকামী, নারী সমকামী, কুয়ার, পরিবর্তিত, সমকামী, পলিমরফাস, পলি, লেবাইল, বার্ডাক, হিজড়াটু-স্পিরিট। অনেকেই আন্তঃলিঙ্গ বা "গাইনান্ড্রোমরফাস" যৌন চরিত্রের (যাদের পুরুষাঙ্গ ও যোনি দুইই উপস্থিত) পরিচয় দেয়।

ক্রমবিকাশ[সম্পাদনা]

উপন্যাসে উল্লিখিত টার্মিনেটর শহরটি বুধ গ্রহের সূর্যালোকিত দিকটি এড়ানোর জন্য গ্রহের চারিদিকে ধীরে ধীরে আবর্তন করে। এই শহরটির উল্লেখ প্রথম পাওয়া যায় রবিনসনের আগে লেখা দ্য মেমরি অফ হোয়াইটনেস উপন্যাসে।[২] এছাড়া রবিনসনের মার্স ত্রয়ী উপন্যাসেও এই শহরের সংক্ষিপ্ত উল্লেখ পাওয়া যায়। ২০১৫ সালে উল্লিখিত অরোরা উপন্যাসেও টারমিনেটরের সংক্ষিপ্ত উল্লেখ পাওয়া যায়।

প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

২৩১২ উপন্যাসটি সমালোচকদের মিশ্র থেকে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া লাভ করে।[৩][৪] স্ট্রেঞ্জ হোরাইজনস পত্রিকায় লেখা হয় যে "পাঠকদের মনস্থিত করে নিতেই হবে।"[৫] স্লেট ম্যাগাজিনগার্ডিয়ান উভয় পত্রিকাতেই এই উপন্যাসের সমালোচনা প্রকাশিত হয়। স্লেট ম্যাগাজিন উপন্যাসটির উচ্ছ্বাসিত প্রশংসা করলেও গার্ডিয়ান পত্রিকায় বইটির সমাপ্তি অংশটিকে কৌশলী বলে বিরূপ সমালোচনা করে।[৬][৭] লস এঞ্জেলস টাইমস পত্রিকায় জেফ ভ্যান্ডারমেয়ার বইটিকে "আবেগপ্রবণ গল্পকথনের অনুরাগীদের কাছে একটি বহুমূল্য উপহার" বলে উল্লেখ করে বইটির "দুঃসাহস"কে সম্পদ বলে উল্লেখ করেন।[৮]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

বইটি ২০১৩ সালে শ্রেষ্ঠ উপন্যাস বিভাগে নেব্যুলা পুরস্কার জয় করে।[১] এবং ওই বছরেই শ্রেষ্ঠ উপন্যাস বিভাগে হিউগো পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়।[৯] এছাড়াও বইটি ২০১২ সালে শ্রেষ্ঠ উপন্যাস বিভাগে বিএসএফএ পুরস্কার [১০] ও ২০১৩ সালে আর্থার সি. ক্লার্ক পুরস্কারের [১১] জন্য বাছাই করার নামের সংক্ষিপ্ত তালিকার অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল এবং ২০১২ সালে জেমস টিপট্রি জুনিয়র পুরস্কারের সম্মান তালিকারও অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল।[১২] এটি কল্পবিজ্ঞান সাহিত্যে গুডরিডস চয়েস পুরস্কারের জন্যও মনোনীত হয়েছিল।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "2012 Nebula Award Winners," Locus Magazine, May 18, 2013.
  2. Geek's Guide to the Galaxy (জুন ১৩, ২০১২)। "Kim Stanley Robinson Sees Humans Colonizing the Solar System in 2312"Wired। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১১, ২০১২ 
  3. Kaveney, Roz (জুন ১২, ২০১২)। "2312, By Kim Stanley Robinson"The Independent। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১১, ২০১২ 
  4. Canavan, Gerry (জুন ১৪, ২০১২)। "Struggle Forever"Los Angeles Review of Books। আগস্ট ১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৩১, ২০১২ 
  5. Yanarella, Ernest J. (জুন ৪, ২০১২)। "2312 by Kim Stanley Robinson"Strange Horizons। আগস্ট ২৯, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৩১, ২০১২readers must make up their own minds 
  6. M John Harrison (জুন ১৪, ২০১২)। "2312 by Kim Stanley Robinson – review"The Guardian। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১১, ২০১২ 
  7. Sicha, Choire (জুন ১, ২০১২)। "What Will Be"Slate। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১১, ২০১২ 
  8. VanderMeer, Jeff। "Review: Kim Stanley Robinson's '2312' a masterful, moving vision"Los Angeles Times। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩, ২০১২Jeff VanderMeer called the book a "treasured gift to fans of passionate storytelling", writing that the book's "audacity" was an asset. 
  9. Hugo Award Finalists, LoneStarCon, মার্চ ৩১, ২০১৩, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২, ২০১৩ 
  10. BSFA Shortlist Announced, British Science Fiction Association, জানুয়ারি ১৮, ২০১৩, সংগ্রহের তারিখ মে ৩০, ২০১৩ 
  11. 2013 Shortlist, Serendip, এপ্রিল ৪, ২০১৩, সংগ্রহের তারিখ মে ৩০, ২০১৩ 
  12. Kiernan and Salaam Win Tiptree Awards, Locus Magazine, মার্চ ৫, ২০১৩, সংগ্রহের তারিখ মে ৩০, ২০১৩