বিষয়বস্তুতে চলুন

২০২২-এ ইউক্রেনীয় শরণার্থী সংকট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের পর ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ দিকে ইউরোপে চলমান শরণার্থী সংকট শুরু হয়। ইউক্রেন থেকে পালিয়ে আসা প্রায় ৭৫ লাখ শরণার্থী ইউরোপ জুড়ে নথিভুক্ত করা হয়েছে,[১] যখন আনুমানিক ৮০ লাখ মানুষ মে মাসের শেষের দিকে দেশের মধ্যে বাস্তুচ্যুত হয়েছিল।[২][৩][৪] দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় এক-চতুর্থাংশ ২০ই মার্চের মধ্যে ইউক্রেনে তাদের বাড়িঘর ছেড়েছিল।[৫] ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের ৯০% নারী ও শিশু, এবং ১৮ বছর থেকে ৬০ বছর বয়সী ইউক্রেনীয় পুরুষদের দেশ ত্যাগ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।[৬] ইউক্রেনের সমস্ত শিশুর অর্ধেকেরও বেশি ২৪শে মার্চের মধ্যে তাদের বাড়ি ছেড়েছিল, যাদের এক চতুর্থাংশ দেশ ছেড়েছিল।[৭][৮] আগ্রাসনটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে ইউরোপের সবচেয়ে বড় শরণার্থী সঙ্কট সৃষ্টি করে,[৯] এটি ১৯৯০-এর দশকে যুগোস্লাভ যুদ্ধের পর ইউরোপে এই ধরনের প্রথম ঘটনা,[১০][১১] এবং বিশ্বব্যাপী সর্বোচ্চ শরণার্থীর হার সহ ২১তম শতকের বৃহত্তম শরণার্থী সংকট।[১২][১৩]

বেশিরভাগ শরণার্থী প্রাথমিকভাবে ইউক্রেনের পশ্চিমের (পোল্যান্ড, স্লোভাকিয়া, হাঙ্গেরি, রোমানিয়ামলদোভা) প্রতিবেশী দেশগুলিতে প্রবেশ করেছিল।[১৪] সেই সময়ে প্রায় ৩০ লাখ মানুষ আরও পশ্চিমে অন্যান্য ইউরোপীয় দেশে চলে যায়।[১][১৫] ৩০শে আগস্ট পর্যন্ত, সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ইউক্রেনীয় শরণার্থী গ্রহনকারী দেশসমূহ হল রাশিয়া (২.৪ মিলিয়ন), পোল্যান্ড (১.৪ মিলিয়ন), জার্মানি (১ মিলিয়ন) ও চেক প্রজাতন্ত্র (০.৪ মিলিয়ন)[১][১৬] হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত নথিভুক্ত করেছে যে ইউক্রেনের বেসামরিক নাগরিকদের জোর করে রাশিয়ায় স্থানান্তর করা হচ্ছে।[১৭] মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট অনুমান করেছে যে কমপক্ষে ৯,০০,০০০ জন ইউক্রেনীয় নাগরিককে জোরপূর্বক রাশিয়ায় স্থানান্তরিত করা হয়েছে।[১৮] আগ্রাসনের শুরু থেকে ৪৫ লাখেরও বেশি ইউক্রেনীয় ইউক্রেনে ফিরে এসেছে।[১][১৯]

ইউক্রেনের সীমান্তবর্তী ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশগুলি সমস্ত ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে,[২০] এবং ইইউ অস্থায়ী সুরক্ষা নির্দেশিকা আহ্বান করেছে যা ইউক্রেনীয়দের এক বছরের একটি প্রাথমিক সময়ের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রে থাকার, কাজ করার ও পড়াশোনা করার অধিকার দেয়।[২১] কিছু অ-ইউরোপীয় ও রোমানি জাতির মানুশ সীমান্তে জাতিগত বৈষম্যের কথা জানিয়েছে।

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "Refugees fleeing Ukraine (since 24 February 2022)"UNHCR। ২০২২। ১০ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  2. "UNHCR: Ukraine, other conflicts push forcibly displaced total over 100 million for first time" 
  3. "Needs Growing for over 8 Million Internally Displaced in Ukraine" 
  4. "Ukraine"IDMC (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  5. Ramsay, George (২১ মার্চ ২০২২)। "A quarter of Ukrainians have fled their homes. Here's where they've gone"CNN। ২১ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  6. "More than 4.4m Ukrainians flee war, UN says"The Guardian। ৯ এপ্রিল ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  7. "UNICEF: more than half of children in Ukraine were forced to leave their homes"Meduza (Russian ভাষায়)। ২৪ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  8. "One month of war leaves more than half of Ukraine's children displaced"UN News। United Nations। ২৪ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  9. "'We couldn't stand it': the Ukrainians travelling for days to flee Russian bombs and rockets"The Guardian (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০৩-০৮। ৯ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  10. "Protecting Ukrainian refugees: What can we learn from the response to Kosovo in the 90s?"। ৭ মার্চ ২০২২। ৭ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  11. "IntelBrief: China Seeks to Balance Its Interests as Russia's War on Ukraine Intensifies"। The Soufan Center। ৪ মার্চ ২০২২। ১০ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  12. Beaumont, Peter (২০২২-০৩-০৬)। "Ukraine has fastest-growing refugee crisis since second world war, says UN"The Guardian (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  13. Keaten, Jamey (২০২২-০৩-০৩)। "UN refugee agency: 1 million flee Ukraine in under a week"AP NEWS (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  14. "UN-Angaben: 500.000 Menschen aus der Ukraine geflüchtet"Tagesschau.de। ২০২২-০২-২৮। ২০২২-০২-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  15. "Waves of Ukrainian Refugees Overwhelm Poland"BusinessHala। ১০ মার্চ ২০২২। ৯ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  16. "Regional Refugee Response Plan for the Ukraine Situation - Inter-Agency Operational Update: Czech Republic, March - June 2022 - Czechia | ReliefWeb"reliefweb.int 
  17. "Forcible Transfer of Ukrainians to Russia"Human Rights Watch (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০৯-০১। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  18. Press, Associated। "Hundreds of thousands of Ukrainians forced to Russia, U.S. claims"POLITICO (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  19. "'They thought we were crazy': Why millions of Ukrainian refugees are coming home"Grid (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০৭-১৮। ২০২৩-০৪-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-১০-০৫ 
  20. "Information for people fleeing the war in Ukraine"। European Commission। ১৭ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 
  21. "Ukraine: Council unanimously introduces temporary protection for persons fleeing the war"www.consilium.europa.eu (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯ মার্চ ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০২২ 

বহিঃসংযোগ

[সম্পাদনা]