২০২২–২৩ নিউজিল্যান্ড পুরুষ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর (ডিসেম্বর ২০২২)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০২২–২৩ নিউজিল্যান্ড পুরুষ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর
Flag of Pakistan.svg
পাকিস্তান
Flag of New Zealand.svg
নিউজিল্যান্ড
তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২২ – ১৪ জানুয়ারি ২০২৩
অধিনায়ক বাবর আজম টিম সাউদি (টেস্ট)
কেন উইলিয়ামসন (ওডিআই)
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ২ ম্যাচের সিরিজ ০–০ ব্যবধানে ড্র হয়
সর্বাধিক রান সরফরাজ আহমেদ (৩৩৫) টম ল্যাথাম (২৮১)
সর্বাধিক উইকেট আবরার আহমেদ (১১) ইশ সোধি (১৩)
সিরিজ সেরা সরফরাজ আহমেদ (পাকিস্তান)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩ ম্যাচের সিরিজে নিউজিল্যান্ড ২–১ ব্যবধানে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান মোহাম্মদ রিজওয়ান (১৮২) কেন উইলিয়ামসন (১৬৪)
সর্বাধিক উইকেট নাসিম শাহ (৮) মোহাম্মদ নওয়াজ (৬)
সিরিজ সেরা ডেভন কনওয়ে (নিউজিল্যান্ড)

নিউজিল্যান্ড পুরুষ ক্রিকেট দল ২০২২ সালের ডিসেম্বর ও ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে দুটি টেস্ট ও তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক (ওডিআই) ম্যাচ খেলার জন্য পাকিস্তান সফর করে।[১][২] টেস্ট সিরিজটি ২০২১–২০২৩ আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ও ওডিআই সিরিজটি ২০২০–২০২৩ আইসিসি পুরুষ ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের একটি অংশ হিসেবে খেলা হয়।[৩]

২০২২ সালের এপ্রিল মাসে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) সিরিজটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা নিশ্চিত করে।[৪][৫] এ সফরটি শেষ হওয়ার পর ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের বাতিল হয়ে যাওয়া সিরিজের পরিপ্রেক্ষিতে আরেকটি অতিরিক্ত সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ড দল পাকিস্তান সফর করবে।[৬][৭] ২০২২ সালের অক্টোবর মাসে সফরের সূচি ঘোষিত হয়,[৮] যে সূচির ম্যাচসমূহকে পরবর্তীতে এক দিন এগিয়ে আনা হয়।[৯] টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে মুলতানে অনুষ্ঠিতব্য ২য় টেস্ট ম্যাচের আয়োজনস্থল পরিবর্তন করে ম্যাচটিকে করাচিতে নিয়ে আসা হয়।[১০]

টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে কেন উইলিয়ামসন নিউজিল্যান্ডের টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ালে টিম সাউদিকে নিউজিল্যান্ডের নতুন টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্বে নিযুক্ত করা হয়।[১১][১২]

টেস্ট সিরিজটি ০–০ ব্যবধানে ড্র হয়।[১৩] ওডিআই সিরিজে নিউজিল্যান্ড ২–১ ব্যবধানে জয়লাভ করে।[১৪]

দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

 পাকিস্তান  নিউজিল্যান্ড
টেস্ট[১৫] ওডিআই[১৬] টেস্ট[১৭] ওডিআই[১৮]

টেস্ট সিরিজ শুরু হওয়ার আগ পাকিস্তানের টেস্ট দলে মির হামজা, শাহনেওয়াজ দাহানি ও সাজিদ খানকে যোগ করা হয়।[১৯] টেস্ট সিরিজ চলার সময় নিউজিল্যান্ডের ওডিআই দলে অ্যাডাম মিলনার পরিবর্তে ব্লেয়ার টিকনারকে নেয়া হয়।[২০] চোটের কারণে ম্যাট হেনরি নিউজিল্যান্ডের ওডিআই দল থেকে ছিটকে যান।[২১]

টেস্ট সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টেস্ট[সম্পাদনা]

২৬–৩০ ডিসেম্বর ২০২২
স্কোরকার্ড
৪৩৮ (১৩০.৫ ওভার)
বাবর আজম ১৬১ (২৮০)
টিম সাউদি ৩/৬৯ (২৫.৫ ওভার)
৬১২/৯ঘো (১৯৪.৫ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ২০০* (৩৯৫)
আবরার আহমেদ ৫/২০৫ (৬৭.৫ ওভার)
৩১১/৮ঘো (১০৪ ওভার)
ইমাম-উল-হক ৯৬ (২০৬)
ইশ সোধি ৬/৮৬ (৩৭ ওভার)
৬১/১ (৭.৩ ওভার)
টম ল্যাথাম ৩৫* (২৪)
আবরার আহমেদ ১/২৩ (৩ ওভার)
খেলা ড্র
জাতীয় স্টেডিয়াম, করাচি
আম্পায়ার: অ্যালেক্স হোয়ার্ফ (ইংল্যান্ড) ও আলিম দার (পাকিস্তান)
ম্যাচসেরা: কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)
  • পাকিস্তান টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • পঞ্চম দিনে আলোকস্বল্পতার কারণে ৭.৩ ওভার খেলা সম্ভব হয়নি।
  • সালমান আলি আগা (পাকিস্তান) টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম শতরানের ইনিংস খেলেন।[২২]
  • ইশ সোধি (নিউজিল্যান্ড) টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম পাঁচ উইকেট লাভ করেন।[২৩]
  • বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট: পাকিস্তান ৪, নিউজিল্যান্ড ৪।

২য় টেস্ট[সম্পাদনা]

২–৬ জানুয়ারি ২০২৩
স্কোরকার্ড
৪৪৯ (১৩১ ওভার)
ডেভন কনওয়ে ১২২ (১৯১)
আবরার আহমেদ ৪/১৪৯ (৩৭ ওভার)
৪০৮ (১৩৩ ওভার)
সউদ শাকিল ১২৫* (৩৪১)
এজাজ প্যাটেল ৩/৮৮ (১৭ ওভার)
২৭৭/৫ঘো (৮২ ওভার)
মাইকেল ব্রেসওয়েল ৭৪* (১১৯)
মির হামজা ১/৩৮ (১১ ওভার)
৩০৪/৯ (৯০ ওভার)
সরফরাজ আহমেদ ১১৮ (১৭৬)
মাইকেল ব্রেসওয়েল ৪/৭৫ (২০ ওভার)
খেলা ড্র
জাতীয় স্টেডিয়াম, করাচি
আম্পায়ার: অ্যালেক্স হোয়ার্ফ (ইংল্যান্ড) ও আলিম দার (পাকিস্তান)
ম্যাচসেরা: সরফরাজ আহমেদ (পাকিস্তান)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • সউদ শাকিল (পাকিস্তান) টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম শতরানের ইনিংস খেলেন।[২৪]
  • বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট: পাকিস্তান ৪, নিউজিল্যান্ড ৪।

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

৯ জানুয়ারি ২০২৩
১৪:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড 
২৫৫/৯ (৫০ ওভার)
 পাকিস্তান
২৫৮/৪ (৪৮.১ ওভার)
মাইকেল ব্রেসওয়েল ৪৩ (৪২)
নাসিম শাহ ৫/৫৭ (১০ ওভার)
মোহাম্মদ রিজওয়ান ৭৭* (৮৬)
মাইকেল ব্রেসওয়েল ২/৪৪ (১০ ওভার)
পাকিস্তান ৬ উইকেটে জয়ী
জাতীয় স্টেডিয়াম, করাচি
আম্পায়ার: আলিম দার (পাকিস্তান) ও আসিফ ইয়াকুব (পাকিস্তান)
ম্যাচসেরা: নাসিম শাহ (পাকিস্তান)
  • পাকিস্তান টসে জিতে ফিল্ডিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • উসামা মির (পাকিস্তান) ও হেনরি শিপলি (নিউজিল্যান্ড)-এর ওডিআই অভিষেক হয়।
  • বিশ্বকাপ সুপার লিগ পয়েন্ট: পাকিস্তান ১০, নিউজিল্যান্ড ০।

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

১১ জানুয়ারি ২০২৩
১৪:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড 
২৬১ (৪৯.৫ ওভার)
 পাকিস্তান
১৮২ (৪৩ ওভার)
ডেভন কনওয়ে ১০১ (৯২)
মোহাম্মদ নওয়াজ ৪/৩৮ (১০ ওভার)
বাবর আজম ৭৯ (১১৪)
টিম সাউদি ২/৩৩ (৬ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ৭৯ রানে জয়ী
জাতীয় স্টেডিয়াম, করাচি
আম্পায়ার: আলিম দার (পাকিস্তান) ও রাশিদ রিয়াজ (পাকিস্তান)
ম্যাচসেরা: ডেভন কনওয়ে (নিউজিল্যান্ড)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বিশ্বকাপ সুপার লিগ পয়েন্ট: নিউজিল্যান্ড ১০, পাকিস্তান ০।

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

১৩ জানুয়ারি ২০২৩
১৪:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান 
২৮০/৯ (৫০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
২৮১/৮ (৪৮.১ ওভার)
ফখর জামান ১০১ (১২২)
টিম সাউদি ৩/৫৬ (১০ ওভার)
গ্লেন ফিলিপস ৬৩* (৪২)
মোহাম্মদ ওয়াসিম ২/৩৫ (৫ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ২ উইকেটে জয়ী
জাতীয় স্টেডিয়াম, করাচি
আম্পায়ার: আলিম দার (পাকিস্তান) ও আহসান রাজা (পাকিস্তান)
ম্যাচসেরা: গ্লেন ফিলিপস (নিউজিল্যান্ড)
  • পাকিস্তান টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • কামরান গোলাম (পাকিস্তান)-এর ওডিআই অভিষেক হয়।
  • হারিস সোহেল (পাকিস্তান)-এর বদলি হিসেবে খেলেন কামরান গোলাম[২৫]
  • বিশ্বকাপ সুপার লিগ পয়েন্ট: নিউজিল্যান্ড ১০, পাকিস্তান ০।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "New Zealand to tour Pakistan twice in 2022-23"পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০২১ 
  2. "BLACKCAPS to tour Pakistan twice in 2022-23"নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০২১ 
  3. "Black Caps to tour Pakistan twice in 2022/2023"স্টাফ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০২১ 
  4. "England, New Zealand set to tour Pakistan in November-December"ক্রিকবাজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০২২ 
  5. "Pakistan announce busy 12 months for national sides"পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০২২ 
  6. "New Zealand to return to Pakistan twice in 2022-23"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০২১ 
  7. "New Zealand to tour Pakistan twice in 2022-23 to make up for postponed series"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০২১ 
  8. "PCB unveils details of New Zealand's two Tests, eight ODIs and five T20Is in Pakistan"পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ অক্টোবর ২০২২ 
  9. "Pakistan v New Zealand series to commence on 26 December"পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০২২ 
  10. "Second Pakistan vs New Zealand Test moved from Multan to Karachi because of weather concerns"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০২২ 
  11. "Southee to lead as New Zealand name new-look Test squad for Pakistan"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০২২ 
  12. "Williamson to step down as Test captain | Southee appointed"নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০২২ 
  13. "Fantastic Sarfaraz ton not enough as bad light has final say in Karachi thriller"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০২৩ 
  14. "Hurricane Phillips makes Pakistan wait for 500th ODI win as Fakhar's maiden home century goes in vain"পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২৩ 
  15. "Pakistan recall Hasan Ali for New Zealand Tests, Shaheen still out"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০২২ 
  16. "Haris Sohail, Fakhar Zaman return to Pakistan squad for New Zealand ODIs"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৫ জানুয়ারি ২০২৩ 
  17. "Sodhi & Phillips return to Test squad | Tickner retained"নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০২২ 
  18. "Different captains, major recalls as New Zealand name ODI squads for Pakistan, India tours"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ডিসেম্বর ২০২২ 
  19. "Sajid Khan among three players added to Pakistan squad for New Zealand Tests"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০২২ 
  20. "Adam Milne withdrawn from New Zealand's ODI series in Pakistan and India"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০২৩ 
  21. "Injured Matt Henry out of ODIs in Pakistan, India; Boult 'out of the picture' for England Tests"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৭ জানুয়ারি ২০২৩ 
  22. "Conway and Latham propel New Zealand after Agha Salman century"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ডিসেম্বর ২০২২ 
  23. "New Zealand tee off after Babar declares, but bad light forces stalemate"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০২২ 
  24. "Shakeel maiden century drives Pakistan but New Zealand make late advances in tussle for lead"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২৩ 
  25. "Pakistan bring in a concussion sub for Haris Sohail"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]