২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লীগ থেকে পুনর্নির্দেশিত)
২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগ
Estadio Ramón Sánchez Pizjuán Preferencia and Gol Norte-2007-04-05.jpg
স্পেনের সেভিয়ার রামোন সানচেস পিসহুয়ানে এই আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে
বিবরণ
তারিখবাছাইপর্ব:
৩ – ২৬ আগস্ট ২০২১
চূড়ান্ত পর্ব:
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ – ১৮ মে ২০২২
দলচূড়ান্ত পর্ব: ৩২+৮
মোট: ২১+৩৭ (৩২–৩৫টি অ্যাসোসিয়েশন থেকে)

২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগ হচ্ছে উয়েফা কর্তৃক আয়োজিত ইউরোপীয় দলগুলোর ফুটবল প্রতিযোগিতার ৫১তম আসর এবং উয়েফা কাপ হতে উয়েফা ইউরোপা লিগে নামে পরিবর্তন করার পর ১৩তম আসর।

এই আসরের ফাইনাল স্পেনের সেভিয়ার রামোন সানচেস পিসহুয়ানে অনুষ্ঠিত হবে। এটি মূলত হাঙ্গেরির বুদাপেস্টের পুশকাশ এরিনায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।[১] তবে পূর্ববর্তী আসরের ফাইনাল স্থগিত ও স্থানান্তরের কারণে ফাইনালের আয়োজকদের এক বছর পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।[২] ২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগের বিজয়ী দল ২০২২ উয়েফা সুপার কাপে ২০২১–২২ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের বিজয়ী দলের বিরুদ্ধে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। একই সাথে উভয় দল স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে খেলার জন্য উত্তীর্ণ হবে।

এই আসরটি ১৯৯৯–২০০০ মৌসুমের পর প্রথম (উক্ত মৌসুমে ১৯৯৮–৯৯ উয়েফা কাপ উইনার্স কাপের শেষ আসর অনুষ্ঠিত হয়েছিল) মৌসুম, যেখানে উয়েফার তিনটি প্রধান ক্লাব প্রতিযোগিতা (উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ, উয়েফা ইউরোপা লিগ এবং উয়েফা ইউরোপা কনফারেন্স লিগ) অনুষ্ঠিত হবে।[৩] এই মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগের বিন্যাসে কোন পরিবর্তন করা হয়নি, তবে যে দলগুলো প্রাথমিক পর্ব এবং প্রথম বাছাইপর্ব থেকে বাদ পড়েছে তারা এবার ইউরোপা লিগের পরিবর্তে ইউরোপা কনফারেন্স লিগে স্থানান্তরিত হয়েছে।[৪] এর ফলে ইউরোপা লিগের বিন্যাসে বড় ধরনের পরিবর্তন আনা হয়েছে। গ্রুপ পর্বে দলের সংখ্যা ৪৮ থেকে কমিয়ে ৩২টি দল করা হয়েছে এবং বাছাইপর্বে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যাও উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করা হয়েছে। নকআউট পর্বের প্রথম পর্বে এখন কেবল গ্রুপ পর্বে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী এবং চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে তৃতীয় স্থান অধিকারী দল অংশগ্রহণ করবে; গ্রুপ পর্বে প্রথম স্থান অধিকারী দল সরাসরি ১৬ দলের পর্বে অংশগ্রহণ করবে।[৩]

২০২১ সালের ২৪শে জুন তারিখে উয়েফা সকল উয়েফা ক্লাব প্রতিযোগিতায় অ্যাওয়ে গোল নিয়ম বাতিল করার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে,[৫][৬] যা ১৯৬৫ সাল থেকে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল।[৭] অতএব, যদি দুই লেগের পর্বের ম্যাচ সমতায় থাকে অর্থাৎ দুটি দল একই পরিমাণ গোল করে, তবে বিজয়ী প্রতিটি দলের অ্যাওয়ে গোলের সংখ্যা দ্বারা বিজয়ী নির্ধারণ করা হবে না, তবে সর্বদা অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। যদি অতিরিক্ত সময় শেষেও দুটি দল সমতায় থাকে, তবে পেনাল্টি শুট-আউটের মাধ্যমে ম্যাচের বিজয়ী নির্ধারণ করা হবে।[৮]

এই প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হচ্ছে স্পেনীয় ক্লাব ভিয়ারিয়াল, যারা পূর্ববর্তী আসরের ফাইনালে ইংরেজ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে পেনাল্টি শুট-আউটে ১১–১০ গোলে পরাজিত করেছিল।[৯] ইউরোপা লিগের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ভিয়ারিয়াল স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২০২১–২২ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে খেলার জন্য উত্তীর্ণ হয়েছে, তবে যদি তারা গ্রুপ পর্বে তৃতীয় স্থান অধিকার করে, তারা এই আসরে অংশগ্রহণ করবে।

দল বণ্টন[সম্পাদনা]

উয়েফার ৫৫টি সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে ৩২–৩৫টি রাষ্ট্রের সর্বমোট ৫৮টি দল ২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগে অংশগ্রহণ করেছে, তাদের মধ্যে ১৬টি অ্যাসোসিয়েশনের দল সরাসরি ইউরোপা লিগে খেলার জন্য উত্তীর্ণ হয়েছে, অন্যদিকে অন্যান্য ৩৯টি অ্যাসোসিয়েশন হতে দল সরাসরি উত্তীর্ণ হয়নি, তাদের মধ্যে ১৫ থেকে ২০টি দল চ্যাম্পিয়নস লিগ হতে স্থানান্তর হতে পারে (শুধুমাত্র লিশটেনস্টাইন এর ব্যতিক্রম, কেননা তারা কোনো ঘরোয়া লিগ আয়োজন করে না, তবে তাদের কাপ বিজয়ী দল ইউরোপা কনফারেন্স লিগে অংশগ্রহণ করতে পারে)। উয়েফা দেশ গুণাঙ্ক নিয়ম অনুযায়ী উয়েফার অ্যাসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং করা হয়েছে,[১০] যার মাধ্যমে এই প্রতিযোগিতায় প্রত্যেক অ্যাসোসিয়েশন হতে কতটি দল অংশগ্রহণ করবে তা নির্ধারণ করা হবে:

  • অ্যাসোসিয়েশন ১–৫ হতে ২টি করে দল উত্তীর্ণ হয়েছে।
  • অ্যাসোসিয়েশন ৬–১৫ হতে ১টি করে দল উত্তীর্ণ হয়েছে।
    • যেহেতু উয়েফা ইউরোপা কনফারেন্স লিগের চ্যাম্পিয়ন দল এই আসরে অংশগ্রহণে করতে পারেনি, ১৬তম অ্যাসোসিয়েশনের একটি দল ইউরোপা কনফারেন্স লিগ থেকে ইউরোপা লিগে অংশগ্রহণ করেছে, যার ফলে তাদেরও একটি দল উত্তীর্ণ হয়েছে।
  • এছাড়াও, ২০২১–২২ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বাদ পড়া ৩৭টি দল ইউরোপা লিগে স্থানান্তরিত হবে।
  • অ্যাসোসিয়েশন ৭–১৫ হতে ২টি করে দল উত্তীর্ণ হয়েছে।
  • অ্যাসোসিয়েশন ১৬–৫৫ (ব্যতিক্রম লিশটেনস্টাইন) হতে ১টি করে দল উত্তীর্ণ হয়েছে।
  • পরবর্তী মৌসুমগুলোতে, উয়েফা ইউরোপা কনফারেন্স লিগের চ্যাম্পিয়ন দলের একটি অতিরিক্ত প্রবেশাধিকার থাকবে। তবে উয়েফা ইউরোপা কনফারেন্স লিগের প্রথম আসর অনুষ্ঠিত না হওয়ায় এই মৌসুমের জন্য এই স্থানটি ব্যবহার করা হয়নি।

অ্যাসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগের জন্য, ২০২০ সালের উয়েফা দেশ গুণাঙ্ক অনুযায়ী প্রত্যেক সদস্য রাষ্ট্র হতে কতটি দল খেলবে তা বরাদ্দ করা হয়েছে, যেটি ২০১৫–১৬ মৌসুম হতে ২০১৯–২০ মৌসুম পর্যন্ত ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় তাদের ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে নির্ধারিত।[১১]

এই দেশ গুণাঙ্কের দল বরাদ্দ ছাড়াও, নিম্নে উল্লেখিত ক্ষেত্রে অ্যাসোসিয়েশন হতে অতিরিক্ত দলও এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারে:

  • (ইউসিএল) – ২০২১–২২ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ হয়ে স্থানান্তরিত হওয়া দলের অতিরিক্ত স্থান।
২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগের জন্য অ্যাসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং
অব. অ্যাসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল টীকা
 স্পেন ১০২.২৮৩
 ইংল্যান্ড ৯০.৪৬২
 জার্মানি ৭৪.৭৮৪
 ইতালি ৭০.৬৫৩
 ফ্রান্স ৫৯.২৪৮ +১ (ইউসিএল)
 পর্তুগাল ৪৯.৪৪৯
 রাশিয়া ৪৫.৫৪৯ +১ (ইউসিএল)
 বেলজিয়াম ৩৭.৯০০ +১ (ইউসিএল)
 ইউক্রেন ৩৬.১০০
১০  নেদারল্যান্ডস ৩৫.৭৫০ +১ (ইউসিএল)
১১  তুরস্ক ৩৩.৬০০ +১ (ইউসিএল)
১২  অস্ট্রিয়া ৩২.৯২৫ +১ (ইউসিএল)
১৩  ডেনমার্ক ২৯.২৫০ +২ (ইউসিএল)
১৪  স্কটল্যান্ড ২৭.৮৭৫ +২ (ইউসিএল)
১৫  চেক প্রজাতন্ত্র ২৭.৩০০ +২ (ইউসিএল)
১৬  সাইপ্রাস ২৬.৭৫০ +১ (ইউসিএল)
১৭   সুইজারল্যান্ড ২৬.৪০০
১৮  গ্রিস ২৬.৩০০ +১ (ইউসিএল)
১৯  সার্বিয়া ২৫.৫০০ +১ (ইউসিএল)
অব. অ্যাসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল টীকা
২০  ক্রোয়েশিয়া ২৪.৮৭৫ +১ (ইউসিএল)
২১  সুইডেন ২২.৭৫০
২২  নরওয়ে ২১.৭৫০
২৩  ইসরায়েল ১৯.৬২৫
২৪  কাজাখস্তান ১৯.২৫০ +১ (ইউসিএল)
২৫  বেলারুশ ১৮.৮৭৫
২৬  আজারবাইজান ১৮.৭৫০ +১ (ইউসিএল)
২৭  বুলগেরিয়া ১৭.৩৭৫ +১ (ইউসিএল)
২৮  রোমানিয়া ১৬.৭০০ +১ (ইউসিএল)
২৯  পোল্যান্ড ১৬.৬২৫ +১ (ইউসিএল)
৩০  স্লোভাকিয়া ১৫.৮৭৫ +১ (ইউসিএল)
৩১  লিশটেনস্টাইন ১৩.৫০০
৩২  স্লোভেনিয়া ১৩.০০০ +১ (ইউসিএল)
৩৩  হাঙ্গেরি ১২.৮৭৫ +১ (ইউসিএল)
৩৪  লুক্সেমবুর্গ ৮.০০০
৩৫  লিথুয়ানিয়া ৭.৮৭৫ +১ (ইউসিএল)
৩৬  আর্মেনিয়া ৭.৬২৫ +১ (ইউসিএল)
৩৭  লাতভিয়া ৭.৬২৫
অব. অ্যাসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল টীকা
৩৮  আলবেনিয়া ৭.৩৭৫
৩৯  উত্তর মেসিডোনিয়া ৭.৩৭৫
৪০  বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ৬.৮৭৫
৪১  মলদোভা ৬.৭৫০
৪২  আয়ারল্যান্ড ৬.৭০০
৪৩  ফিনল্যান্ড ৬.৫০০ +১ (ইউসিএল)
৪৪  জর্জিয়া ৫.৭৫০
৪৫  মাল্টা ৫.৭৫০
৪৬  আইসল্যান্ড ৫.৩৭৫
৪৭  ওয়েলস ৫.০০০
৪৮  উত্তর আয়ারল্যান্ড ৪.৮৭৫
৪৯  জিব্রাল্টার ৪.৭৫০ +১ (ইউসিএল)
৫০  মন্টিনিগ্রো ৪.৩৭৫
৫১  এস্তোনিয়া ৪.৩৭৫ +১ (ইউসিএল)
৫২  কসোভো ৪.০০০
৫৩  ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ৩.৭৫০
৫৪  অ্যান্ডোরা ২.৮৩১
৫৫  সান মারিনো ০.৬৬৬

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

গ্রুপ এ[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
ফ্রান্স লিয়ঁ ১৬ +১১ ১৬ ১৬ দলের পর্বে উত্তীর্ণ
স্কটল্যান্ড রেঞ্জার্স +১ নকআউট পর্ব প্লে-অফে উত্তীর্ণ
চেক প্রজাতন্ত্র স্পার্টা প্রাগ −৩ ইউরোপা কনফারেন্স লিগে অবনমন

ডেনমার্ক ব্রন্ডবি ১১ −৯
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: টাইব্রেকার

গ্রুপ বি[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
ফ্রান্স মোনাকো +৩ ১২ ১৬ দলের পর্বে উত্তীর্ণ
স্পেন রিয়াল সোসিয়েদাদ +৩ নকআউট পর্ব প্লে-অফে উত্তীর্ণ
নেদারল্যান্ডস পিএসভি এইন্থোভেন +১ ইউরোপা কনফারেন্স লিগে অবনমন

অস্ট্রিয়া স্টুর্ম গ্রাৎস ১০ −৭
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: টাইব্রেকার

গ্রুপ সি[সম্পাদনা]

গ্রুপ ডি[সম্পাদনা]

গ্রুপ ই[সম্পাদনা]

গ্রুপ এফ[সম্পাদনা]

গ্রুপ জি[সম্পাদনা]

গ্রুপ এইচ[সম্পাদনা]

নক-আউট পর্ব[সম্পাদনা]

নক-আউট পর্ব প্লে-অফ[সম্পাদনা]

১৬ দলের পর্ব[সম্পাদনা]

কোয়ার্টার-ফাইনাল[সম্পাদনা]

সেমি-ফাইনাল[সম্পাদনা]

ফাইনাল[সম্পাদনা]

অনির্ধারিত বনাম অনির্ধারিত

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "UEFA competitions to resume in August"UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৭ জুন ২০২০। ২৫ আগস্ট ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০২০ 
  2. "Budapest to host 2022 UEFA Europa League Final"UEFA.com। Union of European Football Associations। ২ মার্চ ২০২০। ২৫ আগস্ট ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ মার্চ ২০২০ 
  3. "UEFA Executive Committee approves new club competition"UEFA.com। Union of European Football Associations। ২ ডিসেম্বর ২০১৮। ১৩ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  4. "UEFA Executive Committee approves new club competition"। UEFA। ২ ডিসেম্বর ২০১৮। ১৩ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  5. "Inside UEFA"UEFA.com। ২৪ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৭ আগস্ট ২০২১ 
  6. "Away goals rule abolished for UEFA club competitions from 2021-22 season - Football News"Sky Sports। ২৪ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৭ আগস্ট ২০২১ 
  7. "Away goals abolished by UEFA in major move"ESPN। ২৪ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৭ আগস্ট ২০২১ 
  8. "Abolition of the away goals rule in all UEFA club competitions"। UEFA.com। ২৪ জুন ২০২১। 
  9. "Villarreal-Man. United 2021 History - UEFA Europa League"UEFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ আগস্ট ২০২১ 
  10. "Regulations of the UEFA Champions League, 2021/22 Season"UEFA.com। Union of European Football Associations। ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০২১ 
  11. "Association coefficients 2019/20"UEFA.com। Union of European Football Associations। ২০২০। ৪ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ আগস্ট ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]