২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ
LuzLissabon.jpg
লিসবনের এস্তাদিও দা লুজে এই আসরের ফাইনাল অনুস্থিত হবে
প্রতিযোগিতার বিবরণ
তারিখবাছাইপর্ব:
২৫ জুন – ২৮ আগস্ট ২০১৯
চূড়ান্ত পর্ব:
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ – ২৩ আগস্ট ২০২০
দলচূড়ান্ত পর্ব: ৩২
মোট: ৭৯ (৫৪টি অ্যাসোসিয়েশন থেকে)

২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ উয়েফা কর্তৃক আয়োজিত ইউরোপীয় দলগুলোর ফুটবল প্রতিযোগিতার ৬৫তম আসর এবং ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নস ক্লাব হতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে নামে পরিবর্তন করার পর ২৮তম আসর।

এই আসরের ফাইনাল পর্তুগালের ইস্তানবুলের লিসবনের এস্তাদিও দা লুজে অনুষ্ঠিত হবে।[১][২] ২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের বিজয়ী দল ২০২০ উয়েফা সুপার কাপে ২০১৯–২০ উয়েফা ইউরোপা লীগ বিজয়ীর বিরুদ্ধে খেলার অধিকার অর্জন করবে; উক্ত খেলায় বিজয়ী দল কাতারে অনুষ্ঠিত ২০২০ ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। একই সাথে উভয় দল স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২০২০–২১ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের গ্রুপ পর্বের জন্যও উত্তীর্ণ হয়ে যাবে এবং যদি তারা ইতিমধ্যে তাদের লীগ খেলার মধ্য দিয়ে যোগ্যতা উত্তীর্ণ হয়, তবে সংরক্ষিত আসনটি ২০১৯–২০ এরেডিভিসির চ্যাম্পিয়ন দলকে দেওয়া হবে, যারা বর্তমানে পরবর্তী মৌসুমের প্রবেশ তালিকায় ১১তম স্থানে রয়েছে।

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো, এই আসরের প্লে-পর্ব হতে ভিডিও সহকারী রেফারি (ভিএআর) প্রক্রিয়াটি ব্যবহার করা হবে।[৩]

লিভারপুল হচ্ছে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের ইতিহাসে সর্বমোট ৬ বার এবং বর্তমান চ্যাম্পিয়ন,[৪] যারা ১৬ দলের পর্বে আতলেতিকো মাদ্রিদের কাছে হেরে এই আসর থেকে বিদায় নিয়েছে।

১৬ দলের পর্বে দ্বিতীয় লেগের প্রথম চারটি ম্যাচ আয়োজনের পর ইউরোপে ইউরোপে করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারীর কারণে এই আসরটি অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছিল।[৫][৬] মূলত ২০২০ সালের ৩০শে মে তারিখে তুরস্কের ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক অলিম্পিক স্টেডিয়ামে এই আসরের ফাইনাল ম্যাচ আয়োজনে কথা ছিল, যা ২০২০ সালের ২৩শে মার্চ তারিখে স্থগিত করা হয়েছিল।[৭] ২০২০ সালের ১৭ই জুন তারিখে, উয়েফা এক ঘোষণায় জানায় যে কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল এবং ফাইনালের সকল ম্যাচ ২০২০ সালের আগস্ট মাসে পর্তুগালে আগস্ট পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হবে, অন্যদিকে ২০২০–২১ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের ফাইনাল ম্যাচ ইস্তাম্বুল আয়োজন করবে।[৮]

এসোসিয়েশন দল বণ্টন[সম্পাদনা]

উয়েফার ৫৫টি সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে ৫৪টি রাষ্ট্রের সর্বমোট ৭৯টি দল ২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে অংশগ্রহণ করেছে (শুধু লিশটেনস্টাইন এর ব্যতিক্রম, কারণ তারা কোনো ঘরোয়া লীগ আয়োজন করে না)। উয়েফা দেশ গুণাঙ্ক নিয়ম অনুযায়ী উয়েফার এসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং করা হয়, যার মাধ্যমে এই প্রতিযোগিতায় প্রত্যেক এসোসিয়েশন হতে কতটি দল অংশগ্রহণ করবে তা নির্ধারণ করা হয়েছে:[৯]

  • এসোসিয়েশন ১–৪ হতে ৪টি করে দল খেলার যোগ্যতা লাভ করবে।
  • এসোসিয়েশন ৫–৬ হতে ৩টি করে দল খেলার যোগ্যতা লাভ করবে।
  • এসোসিয়েশন ৭–১৫ হতে ২টি করে দল খেলার যোগ্যতা লাভ করবে।
  • এসোসিয়েশন ১৬–৫৫ (ব্যতিক্রম লিশটেনস্টাইন) হতে ১টি করে দল খেলার যোগ্যতা লাভ করবে।
  • ২০১৮–১৯ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ এবং ২০১৮–১৯ উয়েফা ইউরোপা লীগের বিজয়ীদের এই আসরে খেলার একটি অতিরিক্ত প্রবেশাধিকার রয়েছে, যার মাধ্যমে তারা যদি তাদের ঘরোয়া লীগের মাধ্যমে ২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে খেলার যোগ্যতা অর্জন না করেও এই আসরে খেলতে পারবে। কারণ একটি এসোসিয়েশন হতে সর্বোচ্চ ৫টি দল চ্যাম্পিয়নস লীগে খেলতে পারে, যদি চ্যাম্পিয়নস লীগের বিজয়ী এবং ইউরোপা লীগের বিজয়ী উভয়ই উয়েফার শীর্ষ ৩ সদস্য রাষ্ট্রের যেকোনো একটির অন্তর্ভুক্ত হয় এবং তাদের নিজস্ব ঘরোয়া লীগে তারা শীর্ষ ৪-এর বাহিরে থেকে লীগ শেষ করে তবে উক্ত লীগে ৪র্থ স্থান অর্জনকারী দলটি ইউরোপা লীগে প্রবেশ করবে।

এসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের জন্য, ২০১৮ সালে উয়েফা দেশ গুণাঙ্ক অনুযায়ী প্রত্যেক সদস্য রাষ্ট্র হতে কতটি দল খেলবে তা বরাদ্দ করা হয়েছে, যেটি ২০১৩–১৪ হতে ২০১৭–১৮ পর্যন্ত ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় তাদের কর্মক্ষমতার অপর ভিত্তি করে নির্ধারিত।[১০]

এই দেশ গুণাঙ্কের দল বরাদ্দ ছাড়াও, চ্যাম্পিয়নস লীগে এসোসিয়েশন হতে অতিরিক্ত দলও খেলতে পারে, নিম্নে উল্লিখিত:

  • (ইউসিএল) – ২০১৮–১৯ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ বিজয়ী দলের জন্য অতিরিক্ত স্থান।
  • (ইউইএল) – ২০১৮–১৯ উয়েফা ইউরোপা লীগ বিজয়ী দলের জন্য অতিরিক্ত স্থান।
২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের জন্য এসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং
ক্রম এসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল নোট
স্পেন স্পেন ১০৬.৯৯৮
ইংল্যান্ড ইংল্যান্ড ৭৯.৬০৫
ইতালি ইতালি ৭৬.২৪৯
জার্মানি জার্মানি ৭১.৪২৭
ফ্রান্স ফ্রান্স ৫৬.৪১৫
রাশিয়া রাশিয়া ৫৩.৩৮২
পর্তুগাল পর্তুগাল ৪৭.২৪৮
ইউক্রেন ইউক্রেন ৪১.১৩৩
বেলজিয়াম বেলজিয়াম ৩৮.৫০০
১০ তুরস্ক তুরস্ক ৩৫.৮০০
১১ অস্ট্রিয়া অস্ট্রিয়া ৩২.৮৫০
১২ সুইজারল্যান্ড সুইজারল্যান্ড ৩০.২০০
১৩ চেক প্রজাতন্ত্র চেক প্রজাতন্ত্র ৩০.১৭৫
১৪ নেদারল্যান্ডস নেদারল্যান্ডস ২৯.৭৪৯
১৫ গ্রিস গ্রিস ২৮.৬০০
১৬ ক্রোয়েশিয়া ক্রোয়েশিয়া ২৬.০০০
১৭ ডেনমার্ক ডেনমার্ক ২৫.৯৫০
১৮ ইসরায়েল ইসরায়েল ২১.৭৫০
১৯ সাইপ্রাস সাইপ্রাস ২১.৫৫০
ক্রম এসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল নোট
২০ রোমানিয়া রোমানিয়া ২০.৪৫০
২১ পোল্যান্ড পোল্যান্ড ২০.১২৫
২২ সুইডেন সুইডেন ১৯.৯৭৫
২৩ আজারবাইজান আজারবাইজান ১৯.১২৫
২৪ বুলগেরিয়া বুলগেরিয়া ১৯.১২৫
২৫ সার্বিয়া সার্বিয়া ১৮.৭৫০
২৬ স্কটল্যান্ড স্কটল্যান্ড ১৮.৬২৫
২৭ বেলারুশ বেলারুশ ১৮.৬২৫
২৮ কাজাখস্তান কাজাখস্তান ১৮.১২৫
২৯ নরওয়ে নরওয়ে ১৭.৪২৫
৩০ স্লোভেনিয়া স্লোভেনিয়া ১৪.৫০০
৩১ লিশটেনস্টাইন লিশটেনস্টাইন ১৩.০০০
৩২ স্লোভাকিয়া স্লোভাকিয়া ১২.১২৫
৩৩ মলদোভা মলদোভা ১০.০০০
৩৪ আলবেনিয়া আলবেনিয়া ৮.৫০০
৩৫ আইসল্যান্ড আইসল্যান্ড ৮.২৫০
৩৬ হাঙ্গেরি হাঙ্গেরি ৮.১২৫
৩৭ উত্তর মেসিডোনিয়া উত্তর ম্যাসেডোনিয়া ৭.৫০০
ক্রম এসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল নোট
৩৮ ফিনল্যান্ড ফিনল্যান্ড ৬.৯০০
৩৯ প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড আয়ারল্যান্ড প্রজাতন্ত্র ৬.৭০০
৪০ বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ৬.৬২৫
৪১ লাতভিয়া লাতভিয়া ৫.৬২৫
৪২ এস্তোনিয়া এস্তোনিয়া ৫.৫০০
৪৩ লিথুয়ানিয়া লিথুয়ানিয়া ৫.৩৭৫
৪৪ মন্টিনিগ্রো মন্টিনিগ্রো ৫.০০০
৪৫ জর্জিয়া (রাষ্ট্র) জর্জিয়া ৫.০০০
৪৬ আর্মেনিয়া আর্মেনিয়া ৪.৮৭৫
৪৭ মাল্টা মাল্টা ৪.৫০০
৪৮ লুক্সেমবুর্গ লুক্সেমবুর্গ ৪.৩৭৫
৪৯ উত্তর আয়ারল্যান্ড উত্তর আয়ারল্যান্ড ৪.২৫০
৫০ ওয়েল্‌স্‌ ওয়েলস ৩.৮৭৫
৫১ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ফারো দ্বীপপুঞ্জ ৩.৭৫০
৫২ জিব্রাল্টার জিব্রালটার ৩.০০০
৫৩ অ্যান্ডোরা অ্যান্ডোরা ১.৩৩১
৫৪ সান মারিনো সান মারিনো ০.৪৯৯
৫৫ কসোভো কসোভো ০.০০০

বিন্যাস[সম্পাদনা]

নিম্নে এই মৌসুমের প্রবেশ তালিকা উল্লেখ করা হয়েছে।[১১]

২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের প্রবেশাধিকার তালিকা
পর্বসমূহ যেসকল দল এই পর্বে প্রবেশ করে যেসকল দল পূর্ববর্তী পর্ব হতে প্রবেশ করে
প্রাথমিক পর্ব
(৪টি দল)
  • এসোসিয়েশন ৫২–৫৫ থেকে ৪টি চ্যাম্পিয়ন
প্রথম বাছাইপর্ব
(৩২টি দল)
  • এসোসিয়েশন ২০–৫১ থেকে ৩১টি চ্যাম্পিয়ন (ব্যতিক্রম লিশটেনস্টাইন)
  • প্রাথমিক পর্ব থেকে ১টি বিজয়ী
দ্বিতীয় বাছাইপর্ব চ্যাম্পিয়নস পথ
(২০টি দল)
  • এসোসিয়েশন ১৬–১৯ থেকে ৪টি চ্যাম্পিয়ন
  • প্রথম বাছাইপর্ব থেকে ১৬টি বিজয়ী
লীগ পথ
(৪টি দল)
  • এসোসিয়েশন ১২–১৫ থেকে ৪টি রানার-আপ
তৃতীয় বাছাইপর্ব চ্যাম্পিয়নস পথ
(১২টি দল)
  • এসোসিয়েশন ১৪–১৫ থেকে ২টি চ্যাম্পিয়ন
  • দ্বিতীয় বাছাইপর্ব (চ্যাম্পিয়নস পথ) থেকে ১০টি বিজয়ী
লীগ পথ
(৮টি দল)
  • এসোসিয়েশন ৭–১১ থেকে ৫টি রানার-আপ
  • এসোসিয়েশন ৬ থেকে ১টি ৩য় স্থান অধিকারী
  • দ্বিতীয় বাছাইপর্ব (লীগ পথ) থেকে ২টি বিজয়ী
প্লে-অফ পর্ব চ্যাম্পিয়নস পথ
(৮টি দল)
  • এসোসিয়েশন ১২–১৩ থেকে ২টি বিজয়ী
  • তৃতীয় বাছাইপর্ব (চ্যাম্পিয়নস পথ) থেকে ৬টি বিজয়ী
লীগ পথ
(৪টি দল)
  • তৃতীয় বাছাইপর্ব (লীগ পথ) থেকে ৪টি বিজয়ী
গ্রুপ পর্ব
(৩২টি দল)
  • এসোসিয়েশন ১–১১ থেকে ১১টি বিজয়ী
  • এসোসিয়েশন ১–৬ থেকে ৬টি রানার-আপ
  • এসোসিয়েশন ১–৫ থেকে ৫টি তৃতীয় স্থান অধিকারী
  • এসোসিয়েশন ১–৪ থেকে ৪টি চতুর্থ স্থান অধিকারী
  • প্লে-অফ পর্ব থেকে ৪টি বিজয়ী (চ্যাম্পিয়নস পথ)
  • প্লে-অফ পর্ব থেকে ২টি বিজয়ী (লীগ পথ)
নকআউট পর্ব
(১৬টি দল)
  • গ্রুপ পর্ব থেকে ৮টি গ্রুপ বিজয়ী
  • গ্রুপ পর্ব থেকে ৮টি গ্রুপ রানার-আপ

পূর্বনির্ধারিত প্রবেশ তালিকায় বেশ কিছু পরিবর্তন করা হয়, যেহেতু চ্যাম্পিয়নস লীগ এবং / অথবা ইউরোপা লীগের শিরোপাধারী তাদের ঘরোয়া লীগের মাধ্যমে টুর্নামেন্টের জন্য যোগ্যতা অর্জন করে। যদি চ্যাম্পিয়নস লীগের কোনও জায়গা ফাঁকা থাকে, উপযুক্ত পথে আগের রাউন্ডে সর্বোচ্চ পদযুক্ত সংস্থার দলকে সেই অনুযায়ী পদোন্নতি দেওয়া হয়।

  • সাধারণ প্রবেশ তালিকায়, চ্যাম্পিয়নস লীগ শিরোপাধারী দল গ্রুপ পর্বে প্রবেশ করবে। যাহোক, যেহেতু লিভারপুল ইতোমধ্যেই গ্রুপ পর্বে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে (২০১৮–১৯ প্রিমিয়ার লীগে ২য় স্থান অর্জনকারী হিসেবে), তাই নিম্নে উল্লেখিত কিছু পরিবর্তন করা হয়েছে:
    • এসোসিয়েশন ১১-এর (অস্ট্রিয়া) বিজয়ী দল প্লে-অফ রাউন্ডে খেলার পরিবর্তে সরাসরি গ্রুপ পর্বে প্রবেশ করেছে।
    • এসোসিয়েশন ১৩-এর (চেক প্রজাতন্ত্র) বিজয়ী দল তৃতীয় বাছাইপর্বে খেলার পরিবর্তে সরাসরি প্লে-অফ রাউন্ডে প্রবেশ করেছে।
    • এসোসিয়েশন ১৫-এর (গ্রিস) বিজয়ী দল দ্বিতীয় বাছাইপর্বে খেলার পরিবর্তে তৃতীয় বাছাইপর্বে প্রবেশ করেছে।
    • এসোসিয়েশন ১৮ এবং ১৯-এর (ইসরায়েল এবং সাইপ্রাস) বিজয়ী দল প্রথম বাছাইপর্বে খেলার পরিবর্তে দ্বিতীয় বাছাইপর্বে প্রবেশ করেছে।
  • এছাড়াও, ইউরোপা লীগ শিরোপাধারী দল গ্রুপ পর্বে প্রবেশ করবে। যাহোক, যেহেতু চেলসি ইতোমধ্যেই গ্রুপ পর্বে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে (২০১৮–১৯ প্রিমিয়ার লীগে ৩য় স্থান অর্জনকারী হিসেবে), তাই নিম্নে উল্লেখিত কিছু পরিবর্তন করা হয়েছে:
    • এসোসিয়েশন ৫-এর (ফ্রান্স) ৩য় স্থান অর্জনকারী দল তৃতীয় বাছাইপর্বে খেলার পরিবর্তে সরাসরি গ্রুপ পর্বে প্রবেশ করেছে।
    • এসোসিয়েশন ১০ এবং ১১-এর (তুরস্ক এবং অস্ট্রিয়া) রানার-আপ দল দ্বিতীয় বাছাইপর্বে খেলার পরিবর্তে তৃতীয় বাছাইপর্বে প্রবেশ করেছে।

দল[সম্পাদনা]

গত মৌসুমে লীগে দলের অবস্থানকে প্রথম বন্ধনীর মধ্যে দেখানো হয়েছে (চ্যা: চ্যাম্পিয়নস লীগে শিরোপাধারী দল; ইউ: ইউরোপা লীগে শিরোপাধারী দল)।[১১]

২০১৮–১৯ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে উত্তীর্ণ দল (পর্ব অনুসারে)
গ্রুপ পর্ব
ইংল্যান্ড লিভারপুলচ্যা (২য়) ইংল্যান্ড টটেনহ্যাম হটস্পার (৪র্থ) জার্মানি আরবি লাইপৎসিশ (৩য়) পর্তুগাল বেনফিকা (১ম)
ইংল্যান্ড চেলসিইউ (৩য়) ইতালি ইয়ুভেন্তুস (১ম) জার্মানি বায়ার লেভারকুজেন (৪র্থ) ইউক্রেন শাখতার দোনেৎস্ক (১ম)
স্পেন বার্সেলোনা (১ম) ইতালি নাপোলি (২য়) ফ্রান্স পারি সাঁ-জেরমাঁ (১ম) বেলজিয়াম খেংক (১ম)
স্পেন আতলেতিকো মাদ্রিদ (২য়) ইতালি আতালান্তা (৩য়) ফ্রান্স লিল (২য়) তুরস্ক গালাতাসারায় (১ম)
স্পেন রিয়াল মাদ্রিদ (৩য়) ইতালি ইন্টার মিলান (৪র্থ) ফ্রান্স লিঁও (৩য়) অস্ট্রিয়া রেড বুল জালৎসবুর্গ (১ম)
স্পেন ভ্যালেন্সিয়া (৪র্থ) জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ (১ম) রাশিয়া জিনিত সেন্ট পিটার্সবার্গ (১ম)
ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার সিটি (১ম) জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড (২য়) রাশিয়া লকোমতিভ মস্কো (২য়)
প্লে-অফ পর্ব
চ্যাম্পিয়নস পথ লীগ পথ
সুইজারল্যান্ড ইয়াং বয়েস (১ম) চেক প্রজাতন্ত্র স্লাভিয়া প্রাহা (১ম)
তৃতীয় বাছাইপর্ব
চ্যাম্পিয়নস পথ লীগ পথ
নেদারল্যান্ডস আয়াক্স (১ম) গ্রিস পিএওকে (১ম) রাশিয়া ক্রাস্নোদার (৩য়) বেলজিয়াম ক্লাব ব্রুজ (২য়)
পর্তুগাল পোর্তো (২য়) তুরস্ক ইস্তানবুল বাশাকশেহির (২য়)
ইউক্রেন দিনামো কিয়েভ (২য়) অস্ট্রিয়া এলএএসকে (২য়)
দ্বিতীয় বাছাইপর্ব
চ্যাম্পিয়নস পথ লীগ পথ
ক্রোয়েশিয়া দিনামো জাগরেব (১ম) ইসরায়েল ম্যাকাবি তেল আবিব (১ম) সুইজারল্যান্ড বাজেল (২য়) নেদারল্যান্ডস পিএসভি আইন্দোভেন (২য়)
ডেনমার্ক কোপেনহেগেন (১ম) সাইপ্রাস এপিওইএল (১ম) চেক প্রজাতন্ত্র ভিক্তোরিয়া প্লজেন (২য়) গ্রিস অলিম্পিয়াকোস (২য়)
প্রথম বাছাইপর্ব
রোমানিয়া ক্লুজ (১ম) কাজাখস্তান আস্তানা (১ম) উত্তর মেসিডোনিয়া স্কেন্দিয়া (১ম) জর্জিয়া (রাষ্ট্র) সাবুর্তালো তিবি‌লিসি (১ম)
পোল্যান্ড পিয়াস্ত গ্লিভিৎস (১ম) নরওয়ে রুসনবর্গ (১ম) ফিনল্যান্ড এইচজেকে (১ম) আর্মেনিয়া আরারাত-আর্মেনিয়া (১ম)
সুইডেন এআইকে (১ম) স্লোভেনিয়া মারিবর (১ম) প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড ডানডক (১ম) মাল্টা ভালেটা (১ম)
আজারবাইজান কারাবাখ (১ম) স্লোভাকিয়া স্লোভান ব্রাতিস্লাভা (১ম) বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা সারায়েভো (১ম) লুক্সেমবুর্গ এফ৯১ দুদলঁজ (১ম)
বুলগেরিয়া লুডোগোরেটস রাজগ্রাড (১ম) মলদোভা শেরিফ তিরাস্পোল (১ম) লাতভিয়া রিগা (১ম) উত্তর আয়ারল্যান্ড লিনফিল্ড (১ম)
সার্বিয়া রেড স্টার বেলগ্রেড (১ম) আলবেনিয়া পার্তিজানি (১ম) এস্তোনিয়া নোম্মে কাইয়ু (১ম) ওয়েল্‌স্‌ দ্য নিউ সেইন্টস (১ম)
স্কটল্যান্ড সেল্টিক (১ম) আইসল্যান্ড ভালুর (১ম) লিথুয়ানিয়া সুদুভা (১ম) ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ এইচবি থওশাওন (১ম)
বেলারুশ বাতে বরিসভ (১ম) হাঙ্গেরি ফেরেনৎসভারোশি (১ম) মন্টিনিগ্রো সুৎজেস্কা নিকশিচ (১ম)
প্রাথমিক পর্ব
জিব্রাল্টার লিঙ্কন রেড ইম্পস (১ম) অ্যান্ডোরা এফসি স্যান্টা কুলোমা (১ম) সান মারিনো ত্রে পেন্নে (১ম) কসোভো ফেরোনিকেয়ি (১ম)

পর্ব ও ড্রয়ের তারিখ[সম্পাদনা]

এই আসরের সকল পর্বের সময়সূচী নিম্নে উল্লেখ করা হলো (সকল ড্র উয়েফার প্রধান সদরদপ্তর সুইজারল্যান্ডের নিওঁ-এ অনুষ্ঠিত হয়েছে, যদি না অন্যথায় হওয়ার জন্য বিবৃতি প্রদান করা হয়)।[১২]

২০১৯–২০ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের সময়সূচী
ধাপ পর্ব ড্রয়ের তারিখ প্রথম লেগ দ্বিতীয় লেগ
বাছাইপর্ব প্রাথমিক পর্ব ১১ জুন ২০১৯ ২৫ জুন ২০১৯ (সেমি-ফাইনাল পর্ব) ২৮ জুন ২০১৯ (ফাইনাল পর্ব)
প্রথম বাছাইপর্ব ১৮ জুন ২০১৯ ৯–১০ জুলাই ২০১৯ ১৬–১৭ জুলাই ২০১৯
দ্বিতীয় বাছাইপর্ব ১৯ জুলাই ২০১৯ ২৩–২৪ জুলাই ২০১৯ ৩০–৩১ জুলাই ২০১৯
তৃতীয় বাছাইপর্ব ২২ জুলাই ২০১৯ ৬–৭ আগস্ট ২০১৯ ১৩ আগস্ট ২০১৯
প্লে-অফ প্লে-অফ পর্ব ৫ আগস্ট ২০১৯ ২০–২১ আগস্ট ২০১৯ ২৭–২৮ আগস্ট ২০১৯
গ্রুপ পর্ব ম্যাচদিন ১ ২৯ আগস্ট ২০১৯
(মোনাকো)
১৭–১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
ম্যাচদিন ২ ১–২ অক্টোবর ২০১৯
ম্যাচদিন ৩ ২২–২৩ অক্টোবর ২০১৯
ম্যাচদিন ৪ ৫–৬ নভেম্বর ২০১৯
ম্যাচদিন ৫ ২৬–২৭ নভেম্বর ২০১৯
ম্যাচদিন ৬ ১০–১১ ডিসেম্বর ২০১৯
নকআউট পর্ব ১৬ দলের পর্ব ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৮–১৯ ও ২৫–২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১০–১১ মার্চ ও ৭–৮ আগস্ট ২০২০[ক]
কোয়ার্টার-ফাইনাল ১০ জুলাই ২০২০[খ] ১২–১৫ আগস্ট ২০২০[গ]
সেমি-ফাইনাল ১৮–১৯ আগস্ট ২০২০[ঘ]
ফাইনাল লিসবনের এস্তাদিও দা লুজে ২৩ আগস্ট ২০২০[ঙ]
  1. মূলত ১৭–১৮ মার্চ ২০২০-এ দ্বিতীয় লেগের খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল
  2. মূলত ২০ মার্চ ২০২০-এ কোয়ার্টার-ফাইনাল, সেমি-ফাইনাল এবং ফাইনালের ড্র অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল
  3. মূলত ৭–৮ এপ্রিল ২০২০-এ প্রথম এবং ১৪–১৫ এপ্রিল ২০২০-এ দ্বিতীয় লেগের খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল
  4. মূলত ২৮–২৯ এপ্রিল ২০২০-এ প্রথম এবং ৫–৬ মে ২০২০-এ দ্বিতীয় লেগের খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল
  5. মূলত ৩০ মে ২০২০-এ ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক অলিম্পিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল

প্রাথমিক পর্ব[সম্পাদনা]

প্রাথমিক পর্বে, দলগুলোকে ২০১৯ উয়েফা ক্লাব গুণাঙ্কের ওপর ভিত্তি করে বাছাই এবং অ-বাছাই নামে দুইটি ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে[১৩] এবং পরবর্তীতে এক লেগের ভাগে ভাগ করা হয়েছে।

২০১৯ সালে ১১ই জুন দুপুর ১২:০০টায় (সিইএসটি) উয়েফার প্রধান সদরদপ্তর সুইজারল্যান্ডের নিওঁ-এ প্রাথমিক পর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বাছাইপর্বের সেমিফাইনাল পর্বের খেলা ২৫শে জুন এবং ফাইনাল পর্বের খেলা ২৮শে জুন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উভয় খেলা-ই কসোভোর ফাদিল ভোকরি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল পর্বে হেরে যাওয়া দলগুলো ২০১৯–২০ উয়েফা ইউরোপা লীগের দ্বিতীয় বাছাইপর্বে প্রবেশ করেছে।

দল ১  ফলাফল  দল ২
সেমি-ফাইনাল পর্ব
ত্রে পেন্নে সান মারিনো ০–১ অ্যান্ডোরা স্যান্টা কুলোমা
ফেরোনিকেয়ি কসোভো ১–০ জিব্রাল্টার লিঙ্কন রেড ইম্পস
দল ১  ফলাফল  দল ২
ফাইনাল পর্ব
ফেরোনিকেয়ি কসোভো ২–১ অ্যান্ডোরা স্যান্টা কুলোমা


সেমি-ফাইনাল পর্ব[সম্পাদনা]


ফাইনাল পর্ব[সম্পাদনা]

বাছাইপর্ব[সম্পাদনা]

বাছাইপর্বে এবং প্লে-অফ পর্বে, দলগুলোকে ২০১৯ উয়েফা ক্লাব গুণাঙ্কের ওপর ভিত্তি করে বাছাই এবং অ-বাছাই নামে দুইটি ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে,[১৩] এবং তারপরে দুই লেগের হোম এবং অ্যাওয়ে সমতায় ভাগ করা হয়েছে। একই এসোসিয়েশনের দলগুলোকে কখনো একে অপরের বিপক্ষে ড্র করা হয় না।

প্রথম বাছাইপর্ব[সম্পাদনা]

২০১৯ সালের ১৮ই জুন, উয়েফার প্রধান সদরদপ্তর সুইজারল্যান্ডের নিঁও-এ প্রথম বাছাইপর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বাছাইপর্বের প্রথম লেগের খেলা ২০১৯ সালের ৯ এবং ১০ই জুলাই এবং দ্বিতীয় লেগের খেলা ২০১৯ সালের ১৬ এবং ১৭ই জুলাই অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বাছাইপর্বের হেরে যাওয়া দল ২০১৯–২০ উয়েফা ইউরোপা লীগের তৃতীয় পর্বে প্রবেশ করেছে।

দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
নোম্মে কাইয়ু এস্তোনিয়া ২–২ (অ্যা) উত্তর মেসিডোনিয়া স্কেন্দিয়া ০–১ ২–১
সুদুভা লিথুয়ানিয়া ১–২ সার্বিয়া রেড স্টার বেলগ্রেড ০–০ ১–২
আরারাত-আর্মেনিয়া আর্মেনিয়া ৩–৪ সুইডেন এআইকে ২–১ ১–৩
আস্তানা কাজাখস্তান ২–৩ রোমানিয়া ক্লুজ ১–০ ১–৩
ফেরেনৎসভারোশি হাঙ্গেরি ৫–৩ বুলগেরিয়া লুডোগোরেটস রাজগ্রাড ২–১ ৩–২
পার্তিজানি আলবেনিয়া ০–২ আজারবাইজান কারাবাখ ০–০ ০–২
স্লোভান ব্রাতিস্লাভা স্লোভাকিয়া ২–২
(২–৩ পেনাল্টি)
মন্টিনিগ্রো সুৎজেস্কা নিকশিচ ১–১ ১–১
(অ.স.প.)
সারায়েভো বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ২–৫ স্কটল্যান্ড সেল্টিক ১–৩ ১–২
শেরিফ তিরাস্পোল মলদোভা ৩–৪ জর্জিয়া (রাষ্ট্র) সাবুর্তালো তিবি‌লিসি ০–৩ ৩–১
এফ৯১ দুদলঁজ লুক্সেমবুর্গ ৩–৩ (অ্যা) মাল্টা ভালেটা ২–২ ১–১
লিনফিল্ড উত্তর আয়ারল্যান্ড ০–৬ নরওয়ে রুসনবর্গ ০–২ ০–৪
ভালুর আইসল্যান্ড ০–৫ স্লোভেনিয়া মারিবর ০–৩ ০–২
ডানডক প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড ০–০
(৫–৪ পেনাল্টি)
লাতভিয়া রিগা ০–০ ০–০
(অ.স.প.)
দ্য নিউ সেইন্টস ওয়েল্‌স্‌ ৩–২ কসোভো ফেরোনিকেয়ি ২–২ ১–০
এইচজেকে ফিনল্যান্ড ৫–২ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ এইচবি থওশাওন ৩–০ ২–২
বাতে বরিসভ বেলারুশ ৩–২ পোল্যান্ড পিয়াস্ত গ্লিভিৎস ১–১ ২–১


ম্যাচ[সম্পাদনা]

সামগ্রিকভাবে ২–২ গোলে ড্র, নোম্মে কাইয়ু অধিক অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী


রেড স্টার বেলগ্রেড সামগ্রিকভাবে ২–১ গোলে জয়ী


এআইকে সামগ্রিকভাবে ৪–৩ গোলে জয়ী


আস্তানা কাজাখস্তান১–০রোমানিয়া ক্লুজ
প্রতিবেদন

সিএফআর ক্লুজ সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


ফেরেনৎসভারোশি সামগ্রিকভাবে ৫–৩ গোলে জয়ী


কারাবাখ আজারবাইজান২–০আলবেনিয়া পার্তিজানি
প্রতিবেদন

কারাবাখ সামগ্রিকভাবে ২–০ গোলে জয়ী


সামগ্রিকভাবে ২–২ গোলে ড্র, সুৎজেস্কা নিকশিচ পেনাল্টিতে ৩–২ গোলে জয়ী


সেল্টিক স্কটল্যান্ড২–১বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা সারায়েভো
প্রতিবেদন

সেল্টিক সামগ্রিকভাবে ৫–২ গোলে জয়ী


সাবুর্তালো তিবি‌লিসি সামগ্রিকভাবে ৪–৩ গোলে জয়ী


সামগ্রিকভাবে ৩–৩ গোলে ড্র, ভালেটা অধিক অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী


রুসনবর্গ সামগ্রিকভাবে ৬–০ গোলে জয়ী


মারিবর স্লোভেনিয়া২–০আইসল্যান্ড ভালুর
প্রতিবেদন

মারিবর সামগ্রিকভাবে ৫–০ গোলে জয়ী


ডানডক প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড০–০লাতভিয়া রিগা
প্রতিবেদন

সামগ্রিকভাবে ০–০ গোলে ড্র, ডানডক পেনাল্টিতে ৫–৪ গোলে জয়ী


দ্য নিউ সেইন্টস সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


এইচবি থওশাওন ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ২–২ফিনল্যান্ড এইচজেকে
প্রতিবেদন

এইচজেকে সামগ্রিকভাবে ৫–২ গোলে জয়ী


বাতে বরিসভ বেলারুশ১–১পোল্যান্ড পিয়াস্ত গ্লিভিৎস
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ১১,৫২৯[১৫]

বাতে বরিসভ সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী

দ্বিতীয় বাছাইপর্ব[সম্পাদনা]

দ্বিতীয় বাছাইপর্ব দুটি আলাদা বিভাগে বিভক্ত: চ্যাম্পিয়নস পথ (লীগ চ্যাম্পিয়নদের জন্য) এবং লীগ পথ (নন-লীগ চ্যাম্পিয়নদের জন্য)। ২০১৯ সালের ১৯শে জুন তারিখে, উয়েফার প্রধান সদরদপ্তর সুইজারল্যান্ডের নিওঁ-এ দ্বিতীয় বাছাইপর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বাছাইপর্বের প্রথম লেগের খেলা ২০১৯ সালের ২৩ এবং ২৪শে জুলাই এবং দ্বিতীয় লেগের খেলা ২০১৯ সালের ৩০ এবং ৩১শে জুলাই তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বাছাইপর্বের চ্যাম্পিয়নস পথ এবং লীগ পথে হেরে যাওয়া দল ২০১৯–২০ উয়েফা ইউরোপা লীগের তৃতীয় পর্বে প্রবেশ করেছে।

দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
চ্যাম্পিয়নস পথ
ক্লুজ রোমানিয়া ৩–২ ইসরায়েল ম্যাকাবি তেল আবিব ১–০ ২–২
বাতে বরিসভ বেলারুশ ২–৩ নরওয়ে রুসনবর্গ ২–১ ০–২
দ্য নিউ সেইন্টস ওয়েল্‌স্‌ ০–৩ ডেনমার্ক কোপেনহেগেন ০–২ ০–১
ফেরেনৎসভারোশি হাঙ্গেরি ৪–২ মাল্টা ভালেটা ৩–১ ১–১
ডানডক প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড ১–৪ আজারবাইজান কারাবাখ ১–১ ০–৩
সাবুর্তালো তিবি‌লিসি জর্জিয়া (রাষ্ট্র) ০–৫ ক্রোয়েশিয়া দিনামো জাগরেব ০–২ ০–৩
সেল্টিক স্কটল্যান্ড ৭–০ এস্তোনিয়া নোম্মে কাইয়ু ৫–০ ২–০
রেড স্টার বেলগ্রেড সার্বিয়া ৩–২ ফিনল্যান্ড এইচজেকে ২–০ ১–২
সুৎজেস্কা নিকশিচ মন্টিনিগ্রো ০–৪ সাইপ্রাস এপিওইএল ০–১ ০–৩
মারিবর স্লোভেনিয়া ৪–৪ (অ্যা) সুইডেন এআইকে ২–১ ২–৩
(অ.স.প.)
দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
লীগ পথ
ভিক্তোরিয়া প্লজেন চেক প্রজাতন্ত্র ০–৪ গ্রিস অলিম্পিয়াকোস ০–০ ০–৪
পিএসভি আইন্দোভেন নেদারল্যান্ডস ৪–৪ (অ্যা) সুইজারল্যান্ড বাজেল ৩–২ ১–২


ম্যাচ[সম্পাদনা]

চ্যাম্পিয়নস পথ

ক্লুজ সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


রুসনবর্গ সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


কোপেনহেগেন ডেনমার্ক১–০ওয়েল্‌স্‌ দ্য নিউ সেইন্টস
প্রতিবেদন

কোপেনহেগেন সামগ্রিকভাবে ৩–০ গোলে জয়ী


ফেরেনৎসভারোশি সামগ্রিকভাবে ৪–২ গোলে জয়ী


ডানডক প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড১–১আজারবাইজান কারাবাখ
প্রতিবেদন
কারাবাখ আজারবাইজান৩–০প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড ডানডক
প্রতিবেদন

কারাবাখ সামগ্রিকভাবে ৪–১ গোলে জয়ী


দিনামো জাগরেব ক্রোয়েশিয়া৩–০জর্জিয়া (রাষ্ট্র) সাবুর্তালো তিবি‌লিসি
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ০[১৬] (দর্শকহীন ম্যাচ)

দিনামো জাগরেব সামগ্রিকভাবে ৫–০ গোলে জয়ী


সেল্টিক স্কটল্যান্ড৫–০এস্তোনিয়া নোম্মে কাইয়ু
প্রতিবেদন
নোম্মে কাইয়ু এস্তোনিয়া০–২স্কটল্যান্ড সেল্টিক
প্রতিবেদন

সেল্টিক সামগ্রিকভাবে ৭–০ গোলে জয়ী


রেড স্টার বেলগ্রেড সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


এপিওইএল সাইপ্রাস৩–০মন্টিনিগ্রো সুৎজেস্কা নিকশিচ
প্রতিবেদন

এপিওইএল সামগ্রিকভাবে ৪–০ গোলে জয়ী


মারিবর স্লোভেনিয়া২–১সুইডেন এআইকে
প্রতিবেদন

সামগ্রিকভাবে ৪–৪ গোলে ড্র, মারিবর অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী

লীগ পথ
ভিক্তোরিয়া প্লজেন চেক প্রজাতন্ত্র০–০গ্রিস অলিম্পিয়াকোস
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ১০,৬৩২[১৬]

অলিম্পিয়াকোস সামগ্রিকভাবে ৪–০ গোলে জয়ী


সামগ্রিকভাবে ৪–৪ গোলে ড্র, বাজেল অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী

তৃতীয় বাছাইপর্ব[সম্পাদনা]

তৃতীয় বাছাইপর্ব দুটি আলাদা বিভাগে বিভক্ত: চ্যাম্পিয়নস পথ (লীগ চ্যাম্পিয়নদের জন্য) এবং লীগ পথ (নন-লীগ চ্যাম্পিয়নদের জন্য)। ২০১৯ সালের ২২শে জুলাই তারিখে, উয়েফার প্রধান সদরদপ্তর সুইজারল্যান্ডের নিঁও-এ তৃতীয় বাছাইপর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বাছাইপর্বের প্রথম লেগের খেলা ২০১৯ সালের ৬ এবং ৭ই আগস্ট এবং দ্বিতীয় লেগের খেলা ২০১৯ সালের ১৩ই আগস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বাছাইপর্বের চ্যাম্পিয়নস পথে হেরে যাওয়া দল ২০১৯–২০ উয়েফা ইউরোপা লীগের প্লে-অফ পর্বে প্রবেশ করেছে; অন্যদিকে লীগ পথে হেরে যাওয়া দল ২০১৯–২০ উয়েফা ইউরোপা লীগের গ্রুপ পর্বে প্রবেশ করেছে।

দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
চ্যাম্পিয়নস পথ
ক্লুজ রোমানিয়া ৫–৪ স্কটল্যান্ড সেল্টিক ১–১ ৪–৩
এপিওইএল সাইপ্রাস ৩–২ আজারবাইজান কারাবাখ ১–২ ২–০
পিএওকে গ্রিস ৪–৫ নেদারল্যান্ডস আয়াক্স ২–২ ২–৩
দিনামো জাগরেব ক্রোয়েশিয়া ৫–১ হাঙ্গেরি ফেরেনৎসভারোশি ১–১ ৪–০
রেড স্টার বেলগ্রেড সার্বিয়া ২–২
(৭–৬ পেনাল্টি)
ডেনমার্ক কোপেনহেগেন ১–১ ১–১
(অ.স.প.)
মারিবর স্লোভেনিয়া ২–৬ নরওয়ে রুসনবর্গ ১–৩ ১–৩
দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
লীগ পথ
ইস্তানবুল বাশাকশেহির তুরস্ক ০–৩ গ্রিস অলিম্পিয়াকোস ০–১ ০–২
ক্রাস্নোদার রাশিয়া ৩–৩ (অ্যা) পর্তুগাল পোর্তু ০–১ ৩–২
ক্লাব ব্রুজ বেলজিয়াম ৪–৩ ইউক্রেন দিনামো কিয়েভ ১–০ ৩–৩
বাজেল সুইজারল্যান্ড ২–৫ অস্ট্রিয়া এলএএসকে ১–২ ১–৩


ম্যাচ[সম্পাদনা]

চ্যাম্পিয়নস পথ
সেল্টিক স্কটল্যান্ড৩–৪রোমানিয়া ক্লুজ
প্রতিবেদন

ক্লুজ সামগ্রিকভাবে ৫–৪ গোলে জয়ী


এপিওইএল সাইপ্রাস১–২আজারবাইজান কারাবাখ
প্রতিবেদন

এপিওইএল সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


পিএওকে গ্রিস২–২নেদারল্যান্ডস আয়াক্স
প্রতিবেদন

আয়াক্স সামগ্রিকভাবে ৫–৪ গোলে জয়ী


ফেরেনৎসভারোশি হাঙ্গেরি০–৪ক্রোয়েশিয়া দিনামো জাগরেব
প্রতিবেদন

দিনামো জাগরেব সামগ্রিকভাবে ৫–১ গোলে জয়ী


সামগ্রিকভাবে ২–২ গোলে ড্র, রেড স্টার বেলগ্রেড পেনাল্টিতে ৭–৬ গোলে জয়ী


মারিবর স্লোভেনিয়া১–৩নরওয়ে রুসনবর্গ
প্রতিবেদন

রুসনবর্গ সামগ্রিকভাবে ৬–২ গোলে জয়ী

লীগ পথ

অলিম্পিয়াকোস সামগ্রিকভাবে ৩–০ গোলে জয়ী


সামগ্রিকভাবে ৩–৩ গোলে ড্র, ক্রাস্নোদার অধিক অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী


ক্লাব ব্রুজ সামগ্রিকভাবে ৪–৩ গোলে জয়ী


বাজেল সুইজারল্যান্ড১–২অস্ট্রিয়া এলএএসকে
প্রতিবেদন
এলএএসকে অস্ট্রিয়া৩–১সুইজারল্যান্ড বাজেল