২০১৯–২০ ইন্ডিয়ান সুপার লিগ মরসুম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইন্ডিয়ান সুপার লিগ
মৌসুম২০১৯–২০
তারিখ২০ অক্টোবর ২০১৯ – ১৪ মার্চ ২০২০
চ্যাম্পিয়নএটিকে (তৃতীয় শিরোপা)
শীর্ষ স্থানেগোয়া (প্রথম শিরোপা)
এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লীগগোয়া
এএফসি কাপএটিকে
বেঙ্গালুরু
মোট খেলা৯৫
মোট গোলসংখ্যা২৯৪ (ম্যাচ প্রতি ৩.০৯টি)
শীর্ষ গোলদাতারায় কৃষ্ণ (এটিকে)
নেরিজাস ভালস্কিস (চেন্নাইয়ান)
(১৫ টি গোল, ৬ টি সহায়তা)
সেরা গোলরক্ষকগুরপ্রীত সিং সন্ধু
(১২২.১৪ মিনিট/গোল)
সবচেয়ে বড় হোম জয়এটিকে ৫–০ হায়দ্রাবাদ
(২৫ অক্টোবর ২০১৯)
সবচেয়ে বড় অ্যাওয়ে জয়জামশেদপুর ০–৫ গোয়া
(১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০)
সর্বোচ্চ স্কোরিংকেরল ব্লাস্টার্স ৩–৬ চেন্নাইয়ান
(১ ফেব্রুয়ারি ২০২০)
দীর্ঘতম টানা জয়গোয়া
(৫ টি ম্যাচ)
দীর্ঘতম টানা অপরাজিতচেন্নাইয়ান
(৯ টি ম্যাচ)
দীর্ঘতম টানা জয়বিহীনহায়দ্রাবাদ
নর্থইস্ট ইউনাইটেড
(১৪ টি ম্যাচ)
দীর্ঘতম টানা পরাজয়হায়দ্রাবাদ
(৪ টি ম্যাচ)
সর্বোচ্চ উপস্থিতি৫০,১০২
এটিকে ৩–১ বেঙ্গালুরু
(৮ মার্চ ২০২০)
সর্বনিম্ন উপস্থিতি১,০০০
নর্থইস্ট ইউনাইটেড ০–০ কেরল ব্লাস্টার্স
(৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০)
মোট উপস্থিতি১২,২৬,৯১২
গড় উপস্থিতি১৩,০৫২
সব পরিসংখ্যান ২০২০ সালের ১৪ মার্চ অনুযায়ী সঠিক।

২০১৯–২০ ইন্ডিয়ান সুপার লীগ মরসুমটি ছিল শীর্ষ ভারতীয় পেশাদার ফুটবল লিগ ইন্ডিয়ান সুপার লিগের ষষ্ঠ মৌসুম। নিয়মিত মৌসুম ২০১৯ সালের ২০ অক্টোবর শুরু হয় এবং ২০২০ সালের ১৪ মার্চ সমাপ্ত হয়।

হায়দ্রাবাদ পুনে সিটিকে প্রতিস্থাপন করে,[১] অপরদিকে দিল্লি ডায়নামস ভুবনেশ্বরে চলে আসে এবং এর নতুন নাম ওড়িশা এফসি রাখা হয়।[২]

বেঙ্গালুরু ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ছিল, যারা ফাইনালে গোয়াকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে তাদের প্রথম ইন্ডিয়ান সুপার লিগের খেতাব অর্জন করে।[৩] যাইহোক, বেঙ্গালুরু সেমিফাইনালে ৩-২ গোলে এটিকে এর কাছে পরাজিত হয়ে ২০১৯-২০ মরসুমের ফাইনালে পৌঁছাতে পারেনি।[৪] একই সময়ে, চেন্নাইন সেমিফাইনালে এফসি গোয়াকে ৬-৫ গোলে পরাজিত করে তৃতীয় বারের জন্য আইএসএল ফাইনালে পৌঁছায়।[৫] অবশেষে এটিকে ২০২০ সালের ১৪ মার্চ চেন্নাইয়ানের বিরুদ্ধে ৩-১ গোলের দ্বারা জয়ের শিরোপা অর্জন করে এবং প্রথম ক্লাব হিসাবে তিনটি আইএসএল জয়ের খেতাব অর্জন করে।[৬]

দলসমূহ[সম্পাদনা]

লিগ টেবিল[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
গোয়া ১৮ ১২ ৪৬ ২৩ +২৩ ৩৯ প্রিমিয়ার্স, ২০২১ এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ গ্রুপ পর্ব ও প্লে-অফ
এটিকে (C) ১৮ ১০ ৩৩ ১৬ +১৭ ৩৪ প্লে-অফ[Note 1]
বেঙ্গালুরু ১৮ ২২ ১৩ +৯ ৩০ ২০২১ এএফসি কাপ প্লে-অফ ও আইএসএল প্লে-অফ
চেন্নাইয়িন ১৮ ৩২ ২৪ +৮ ২৯ প্লে-অফ
মুম্বই সিটি ১৮ ২৫ ২৯ −৪ ২৬
ওড়িশা ১৮ ২৮ ৩১ −৩ ২৫
কেরালা ব্লাস্টার্স ১৮ ২৯ ৩২ −৩ ১৯
জামশেদপুর ১৮ ২২ ৩৫ −১৩ ১৮
নর্থইস্ট ইউনাইটেড ১৮ ১৪ ২৮ −১৪ ১৪
১০ হায়দ্রাবাদ ১৮ ১২ ২১ ৩৯ −১৮ ১০
উৎস: ইন্ডিয়ান সুপার লিগ
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: 1) পয়েন্ট; 2) হেড-টু-হেড পয়েন্ট; 3) হেড-টু-হেড গোল পার্থক্য ; 4) হেড-টু-হেড গোল করার সংখ্যা; 5) গোল পার্থক্য; 5) মোট করা গোল সংখ্যা; 6) ফেয়ার প্লে র‌্যাঙ্কিং; 6) অঙ্কন
(C) চ্যাম্পিয়ন।

Note 1: Originally, মোহনবাগান, the 2019–20 I-League champions (they were already assured of the title before the league was abandoned due to the COVID-19 pandemic in India), would qualify as India 2 (AFC Cup group stage), and ATK, the 2019–20 Indian Super League playoffs winners, would qualify as India 3 (AFC Cup qualifying play-offs).[৭] However, ATK merged with Mohun Bagan for the 2020–21 Indian Super League season, and the new team will qualify as India 2. The All India Football Federation decided that Bengaluru FC, the 2019–20 Indian Super League regular season 3rd place (behind FC Goa, which qualified for the 2021 AFC Champions League, and ATK), will qualify as India 3.[৮]

লিগ পর্বের ফলাফল[সম্পাদনা]

স্বাগতিক \ অতিথি ATK BEN CHE GOA HFC JAM KER MUM NEU OFC
এটিকে ১–০ ১–৩ ২–০ ৫–০ ৩–১ ০–১ ২–২ ১–০ ৩–১
বেঙ্গালুরু ২–২ ৩–০ ২–১ ১–০ ২–০ ১–০ ২–৩ ০–০ ৩–০
চেন্নাইয়িন ০–১ ০–০ ৩–৪ ২–১ ৪–১ ৩–১ ০–০ ২–০ ২–২
গোয়া ২–১ ১–১ ৩–০ ৪–১ ০–১ ৩–২ ৫–২ ২–০ ৩–০
হায়দ্রাবাদ ২–২ ১–১ ১–৩ ০–১ ১–১ ২–১ ১–১ ০–১ ১–২
জামশেদপুর ০–৩ ০–০ ১–১ ০–৫ ৩–১ ৩–২ ১–২ ১–১ ২–১
কেরালা ব্লাস্টার্স ২–১ ২–১ ৩–৬ ২–২ ৫–১ ২–২ ০–১ ১–১ ০–০
মুম্বই সিটি ০–২ ২–০ ০–১ ২–৪ ২–১ ২–১ ১–১ ১–০ ২–৪
নর্থইস্ট ইউনাইটেড ০–৩ ০–২ ২–২ ২–২ ১–৫ ৩–৩ ০–০ ২–২ ২–১
ওড়িশা ০–০ ০–১ ২–০ ২–৪ ৩–২ ২–১ ৪–৪ ২–০ ২–১
উৎস: ইন্ডিয়ান সুপার লিগ
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।

প্লে-অফ পর্ব[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Hyderabad FC to replace struggling FC Pune City as new ISL franchise"PTI। The India Today। ২৭ আগস্ট ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০২০ 
  2. Das, Prafulla (৩০ আগস্ট ২০১৯)। "Delhi Dynamos shifts base to Bhubaneswar, renamed Odisha FC"The Sportstar। The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০২০ 
  3. S Quadri, Abreshmina (১৭ মার্চ ২০১৯)। "ISL 2018–19 Final: Bengaluru FC win maiden title with 1–0 win over FC Goa"The India Today। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০২০ 
  4. "ATK turn the tables on Bengaluru to set final date with Chennaiyin"ISL। ৮ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০২০ 
  5. "Chennaiyin reach third Hero ISL final after seeing off spirited Goa challenge"ISL। ৭ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০২০ 
  6. "ATK best Chennaiyin in Hero ISL 2019-20 final to clinch record third title"ISL। ১৪ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মার্চ ২০২০ 
  7. "Clarification over AFC Club Competition slots from 2021 onwards"www.the-aiff.com। ২০ জুন ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৯ 
  8. Scroll Staff (৪ জুন ২০২০)। "Bengaluru FC to play in AFC Cup playoffs as AIFF confirms all three continental spots for ISL teams"Scroll.in (ইংরেজি ভাষায়)। ২ মে ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]