২০১৮-১৯ সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিউজিল্যান্ড বনাম পাকিস্তান ক্রিকেট দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০১৮-১৯ সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিউজিল্যান্ড বনাম পাকিস্তান ক্রিকেট দল
Flag of Pakistan.svg
পাকিস্তান
Flag of New Zealand.svg
নিউজিল্যান্ড
তারিখ ৩১ অক্টোবর – ৭ ডিসেম্বর ২০১৮
অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ কেন উইলিয়ামসন
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ নিউজিল্যান্ড ২–১ এ জয়ী হয়
সর্বাধিক রান আজহার আলী (৩০৭) কেন উইলিয়ামসন (৩৮৬)
সর্বাধিক উইকেট ইয়াসির শাহ (২৯) এজাজ প্যাটেল (১৩)
সিরিজ সেরা ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ ১–১ এ ড্র হয়
সর্বাধিক রান ফখর জামান (১৫৪) রস টেলর (১৬৬)
সর্বাধিক উইকেট শাহীন আফ্রিদি (৯) লকি ফার্গুসন (১১)
সিরিজ সেরা শাহীন আফ্রিদি (পাকিস্তান)
টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ পাকিস্তান ৩–০ তে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান মোহাম্মদ হাফিজ (১৩২) কেন উইলিয়ামসন (১০৮)
সর্বাধিক উইকেট ইমাদ ওয়াসিম (৪)
শাদাব খান (৪)
অ্যাডাম মিলেন (৪)
সিরিজ সেরা মোহাম্মদ হাফিজ (পাকিস্তান)

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল দুইটি টেস্ট ক্রিকেট, তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক এবং তিনটি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক খেলার জন্য পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর করে, যা অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর ২০১৮-এ অনুষ্ঠিত হয়। মূলত, সফর নির্ধারিত ছিল তিনটি টেস্ট ক্রিকেট, পাঁচটি একদিনের আন্তর্জাতিক এবং একমাত্র টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক খেলা।

দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

টেস্ট ওডিআই টি২০আই
 পাকিস্তান  নিউজিল্যান্ড  পাকিস্তান  নিউজিল্যান্ড  পাকিস্তান  নিউজিল্যান্ড

টি২০আই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টি২০আই[সম্পাদনা]

৩১ অক্টোবর ২০১৮
২০:০০ (রাত)
পাকিস্তান 
১৪৮/৬ (২০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
১৪৬/৬ (২০ ওভার)
কলিন মানরো ৫৮ (৪২)
হাসান আলী ৩/৩৫ (৪ ওভার)
  • পাকিস্তান টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এজাজ প্যাটেল (নিউজিল্যান্ড) তার টি২০আই অভিষেক হয়।

২য় টি২০আই[সম্পাদনা]

২ নভেম্বর ২০১৮
২০:০০ (রাত)
নিউজিল্যান্ড 
১৫৩/৭ (২০ ওভার)
 পাকিস্তান
১৫৪/৪ (১৯.৪ ওভার)
বাবর আজম ৪০ (৪১)
অ্যাডাম মিলেন ২/২৫ (২.৪ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এই জয় দিয়ে, পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি (১১) এ ধারাবাহিক সিরিজ জয়ের জন্য নতুন রেকর্ড গড়েন।

৩য় টি২০আই[সম্পাদনা]

৪ নভেম্বর ২০১৮
২০:০০ (রাত)
পাকিস্তান 
১৬৬/৩ (২০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
১১৯ (১৬.৫ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ৬০ (৩৮)
শাদাব খান ৩/৩০ (৪ ওভার)
  • পাকিস্তান টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ওয়াকাস মাকসুদ (পাকিস্তান) তার টি২০আই অভিষেক হয়।
  • বাবর আজম (পাকিস্তান) দ্রুততম ব্যাটসম্যান ইনিংস নিরিখে টি২০আইর ১,০০০ রান (২৬) হয়ে ওঠে।

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

৭ নভেম্বর ২০১৮
১৫:০০ (দিন/রাত)
নিউজিল্যান্ড 
২৬৬/৯ (৫০ ওভার)
 পাকিস্তান
২১৩ (৪৭.২ ওভার)
রস টেলর ৮০ (১১২)
শাদাব খান ৪/৩৮ (১০ ওভার)
সরফরাজ আহমেদ ৬৪ (৬৯)
লকি ফার্গুসন ৩/৩৬ (৯.২ ওভার)
নিউজিল্যান্ড রানে ৪৭ জয়ী
শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়াম, আবুধাবি
আম্পায়ার: সোজাব রাজা (পাকিস্তান) ও জোয়েল উইলসন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
সেরা খেলোয়াড়: ট্রেন্ট বোল্ট (নিউজিল্যান্ড)

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

৯ নভেম্বর ২০১৮
১৫:০০ (দিন/রাত)
নিউজিল্যান্ড 
২০৯/৯ (৫০ ওভার)
 পাকিস্তান
২১২/৪ (৪০.৩ ওভার)
রস টেলর ৮৬* (১২০)
শাহীন আফ্রিদি ৪/৩৮ (৯ ওভার)
ফখর জামান ৮৮ (৮৮)
লকি ফার্গুসন ৩/৬০ (১০ ওভার)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

১১ নভেম্বর ২০১৮
১৫:০০ (দিন/রাত)
পাকিস্তান 
২৭৯/৮ (৫০ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
৩৫/১ (৬.৫ ওভার)
বাবর আজম ৯২ (১০০)
লকি ফার্গুসন ৫/৪৫ (১০ ওভার)
  • পাকিস্তান টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • নিউজিল্যান্ডের ইনিংসের সময় বৃষ্টির কারণে কোনও খেলা হয়নি।
  • লকি ফার্গুসন (নিউজিল্যান্ড) ওয়ানডেতে প্রথম পাঁচ উইকেট শিকার করেন।

টেস্ট সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টেস্ট[সম্পাদনা]

১৬–২০ নভেম্বর ২০১৮
১৫৩ (৬৬.৩ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ৬৩ (১১২)
ইয়াসির শাহ ৩/৫৪ (১৬.৩ ওভার)
২২৭ (৮৩.২ ওভার)
বাবর আজম ৬২ (১০৯)
ট্রেন্ট বোল্ট ৪/৫৪ (১৮.২ ওভার)
২৪৯ (১০০.৪ ওভার)
বিজে ওয়াটলিং ৫৯ (১৪৫)
হাসান আলী ৫/৪৫ (১৭.৪ ওভার)
১৭১ (৫৮.৪ ওভার)
আজহার আলী ৬৫ (১৩৬)
এজাজ প্যাটেল ৫/৫৯ (২৩.৪ ওভার)
নিউজিল্যান্ড রানে ৪ জয়ী
শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়াম, আবুধাবি
আম্পায়ার: ইয়ান গোল্ড (ইংল্যান্ড) ও ব্রুস অক্সেনফোর্ড (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: এজাজ প্যাটেল (নিউজিল্যান্ড)

২য় টেস্ট[সম্পাদনা]

২৪–২৮ নভেম্বর ২০১৮
৪১৮/৫ঘো (১৬৭ ওভার)
হারিস সোহেল ১৪৭ (৪২১)
কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ২/৪৪ (৩০ ওভার)
৯০ (৩৫.৩ ওভার)
জিৎ রাভাল ৩১ (৭৫)
ইয়াসির শাহ ৮/৪১ (১২.৩ ওভার)
৩১২ (১১২.৫ ওভার) (f/o)
রস টেলর ৮২ (১২৮)
ইয়াসির শাহ ৬/১৪৩ (৪৪.৫ ওভার)
পাকিস্তান একটি ইনিংস এবং ১৬ রানে দ্বারা জয়ী
দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, দুবাই
আম্পায়ার: ব্রুস অক্সেনফোর্ড (অস্ট্রেলিয়া) ও পল রেইফেল (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান)
  • পাকিস্তান টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বাবর আজম (পাকিস্তান) টেস্টে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি করেছিলেন।
  • ইয়াসির শাহর (পাকিস্তান) টেস্টে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যে কোনও বোলারের পক্ষে প্রথম ইনিংসে ৮/১৪ নম্বর ছিল।
  • হেনরি নিকোলস (নিউজিল্যান্ড) টেস্টে তার ১,০০০তম রান করেছে।
  • ইয়াছির শাহর ম্যাচ ফিচারস ১৪/১4৪ একটি পাকিস্তানের সেরা ছিল স্পিন বোলার টেস্টে, দ্বিতীয় সেরা পরিসংখ্যান টেস্টে পাকিস্তানের হয়ে যে কোনও বোলার এবং টেস্ট ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একক বোলারের সর্বোচ্চ উইকেট।

৩য় টেস্ট[সম্পাদনা]

৩–৭ ডিসেম্বর ২০১৮
২৭৪ (১১৬.১ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ৮৯ (১৭৬)
বিলাল আসিফ ৫/৬৫ (৩০.১ ওভার)
৩৪৮ (১৩৫ ওভার)
আজহার আলী ১৩৪ (২৯৭)
উইলিয়াম সমারভিল ৪/৭৫ (৩৬ ওভার)
৩৫৩/৭ঘো (১১৬ ওভার)
কেন উইলিয়ামসন ১৩৯ (২৮৩)
ইয়াসির শাহ ৪/১২৯ (৩৯ ওভার)
১৫৬ (৫৬.১ ওভার)
বাবর আজম ৫১ (১১৪)
টিম সাউদি ৩/৪২ (১২ ওভার)
নিউজিল্যান্ড রানে ১২৩ জয়ী
শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়াম, আবুধাবি
আম্পায়ার: ইয়ান গোল্ড (ইংল্যান্ড) ও পল রেইফেল (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]