২০১৭ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৭ সাফ অনুর্ধ্ব অ-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ
টুর্নামেন্টের বিবরণ
স্বাগতিক দেশনেপাল নেপাল
তারিখসমূহ১৮-১৭ আগস্ট ২০১৭
দলসমূহ
ভেন্যু(সমূহ)২ (ললিতপুর এবং কাঠমান্ডুটি আয়োজক শহরে)
শীর্ষস্থানীয় অবস্থান
চ্যাম্পিয়ন ভারত (২য় শিরোপা)
রানার-আপ   নেপাল
প্রতিযোগিতার পরিসংখ্যান
ম্যাচ খেলেছে১০
গোল সংখ্যা৫১ (ম্যাচ প্রতি ৫.১টি)
শীর্ষ গোলদাতাবাংলাদেশ ফয়সাল আহমেদ
সেরা খেলোয়াড়ভারত বিক্রম প্রতাপ সিং
ফেয়ার প্লে পুরষ্কারবাংলাদেশ

২০১৭ সাফ অনুর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ হলো সাফ অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপ-এর ৪র্থ আসর। ২০১৮ সালে অনুর্ধ্ব-১৬ বাছাইপর্ব থাকার কারণে সব দল অনুর্ধ্ব-১৫ দল পাঠায়, তাই টুর্নামেন্টটিকে অফিসিয়ালি অনুর্ধ্ব-১৫ করা হয়েছে। টুর্নামেন্ট টি ১৮-২৪ আগস্ট ২০১৭ তে নেপালে অনুষ্ঠিত হয়। ৬ টি দল ২টি গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলে। যেখানে ভারত চ্যাম্পিয়ন হয়।[১]

আয়োজক নির্ধারন[সম্পাদনা]

১০ জুলাই ২০১৭ তারিখে বাফুফে ভবনে একটি ড্র অনুষ্ঠানে নেপালকে আয়োজক হিসেবে নির্ধারণ করা হয়।[২]

দলসমূহ[সম্পাদনা]

খেলোয়াড় অংশগ্রহনের যোগ্যতা[সম্পাদনা]

শুধুমাত্র ১ জানুয়ারি ২০০২ অথবা তার পরে জন্মগ্রহণকারীরাই খেলতে পারবে।

ভেন্যু[সম্পাদনা]

ললিতপুর কাঠমুন্ডু
আনফা কমপ্লেক্স হালচোক স্টেডিয়াম
ধারণক্ষমতা: ৪,০০০ ধারণক্ষমতা: ৩,৫০০
SAFF Championship 2013 (3).JPG

খেলা পরিচালনাকারীগণ[সম্পাদনা]

রেফারীগণ
  • নেপাল কবিন
  • বাংলাদেশ গোলাম মোরশেদ চৌধুরী
  • মালদ্বীপ আব্দুল্ল শাতির
  • শ্রীলঙ্কা ইন্দিকা সেনানায়েকে
  • ভারত তন্ময় ধর
  • ভুটান উগেইন দরজি
সহকারী রেফারিগণ
  • নেপাল নানি রাম থাপা
  • ভারত কুলদিপ তারিয়া
  • বাংলাদেশ মো: শফিকুল ইসলাম
  • শ্রীলঙ্কা কে.এল.এস.চাতুরাঙ্গা
  • মালদ্বীপ আব্দুল্লা সুনিদ
  • ভুটান ফুরপা ওয়াংচুক

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

সকল খেলা ইউটিসি+০৫:৪৫ সময়ে অনুষ্ঠিত হয়।

গ্রুপ এ[সম্পাদনা]

অবস্থান দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট
 বাংলাদেশ +৭
 ভুটান +৩
 শ্রীলঙ্কা ১০ −১০

উৎস : গোলনেপাল

বাংলাদেশ ৪-০ শ্রীলঙ্কা
ফয়সাল আহমেদ গোল ২৮'৩২'৭৪' (পেনাল্টি)
নাজমুল বিশ্বাস গোল ৪৪'
Report

ভুটান ৬-০ শ্রীলঙ্কা
খান্দো গোল ৮'২৪'
কিঙ্গা ওয়াংচুক গোল ৩০'
কেলজাং জিগমিগোল ৪৩'৪৫+১'
সিদ্ধার্থ গুরুং গোল ৯০'
Report
রেফারি: আব্দুল্লা সাথির (মালদ্বীপ)

বাংলাদেশ ৩-০ ভুটান
ফয়সাল আহমেদ গোল ২৫'
মিরাজ মোল্লা গোল ৫২'৮১'
Report

গ্রুপ বি[সম্পাদনা]

অবস্থান দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট
 ভারত ১১ +১০
   নেপাল (আয়োজক) +৫
 মালদ্বীপ ১৫ −১৫

উৎস : গোলনেপাল

ভারত ৯–০ মালদ্বীপ
রবি বাহাদুর রানা গোল ২০'২৬'
ইব্রাহিম আনুফ গোল ২২'৮৯' (আ.গো.)
থইবা সিং গোল ৪১'
বিক্রম প্রতাপ সিং গোল ৪৮'৭০'
রিকি জনগোল ৫৭'
লালরোকিমা গোল ৮০'
Report

নেপাল   ৬–০ মালদ্বীপ
ব্রিজেশ চৌধুরী গোল ১৪'৭৩'
দর্শন গুরুং গোল ২২'
রোশান রানা মাগার গোল ৩৮' (পেনাল্টি)
আকাশ বুদ্ধা গোল ৪৫+১'৪৭'
Report
রেফারি: ইন্দিকা সেনানায়েকে (শ্রীলংকা)

নেপাল   ১–২ ভারত
রোশান রানা মাগার গোল ৪০' (পেনাল্টি) Report গোল ২৭' বিক্রম প্রতাপ সিং
গোল ৬৪' রবি বাহাদুর রানা
রেফারি: উগেইন দর্জি (ভুটান)

নকআউট পর্ব[সম্পাদনা]

বন্ধনী[সম্পাদনা]

 
সেমিফাইনালফাইনাল
 
      
 
২৫ আগস্ট – আনফা কমপ্লেক্স
 
 
 বাংলাদেশ
 
২৭ আগস্ট – আনফা কমপ্লেক্স
 
   নেপাল
 
   নেপাল 1
 
২৫ আগস্ট – হালচোক স্টেডিয়াম
 
 ভারত2
 
 ভারত
 
 
 ভুটান
 
তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ
 
 
২৭ আগস্ট – হালচোক স্টেডিয়াম
 
 
 বাংলাদেশ
 
 
 ভুটান

সেমিফাইনাল[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ২–৪   নেপাল
ফয়সাল আহমেদ গোল ৭২'
গোল ৭৩' হাবিবুর রহমান
Report গোল ৫'৬৪' আকাশ বুদ্ধা মাগার
গোল ৬৪' (আ.গো.) নাজমুল বিশ্বাস
গোল ৯০+৬' ব্রিজেশ চৌধুরী
রেফারি: ইন্দিকা সেনানায়েকে (শ্রীলংকা)

ভারত ৩–০ ভুটান
বিক্রাম প্রতাপ সিং গোল ২০'
হারপ্রিত সিং গোল ৭৬'
রিডজ মেলভিন ডিমেলো গোল ৯০+২'
Report
রেফারি: গোলাম মোর্শেদ চৌধুরী (বাংলাদেশ)

তৃতীয় স্থান নির্ধারনী খেলা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ৮–০ ভুটান
ফয়সাল আহমেদ গোল ১৮'
রাজা শেখ গোল ২০'৪৬'
মিরাজ মোল্লা গোল ২৯'৫৮'
মো: আকাশ গোল ৬৯'
ইয়াসিন আরাফাত গোল ৭৯'
আরিফ হোসেনগোল ৯০'
Report

ফাইনাল[সম্পাদনা]

নেপাল   ১–২ ভারত
ব্রিজশ চৌধুরী গোল ৪১' (পেনাল্টি) প্রতিবেদন গোল ৫৯' লালরোকিমা
গোল ৭৫' বিক্রম প্রতাপ সিং
দর্শক সংখ্যা: ৫০০০
রেফারি: গোলাম মোর্শেদ চৌধুরী (বাংলাদেশ)

পুরষ্কার[সম্পাদনা]

টুর্নামেন্টে ভালো খেলা ফলস্বরূপ নিম্নের পুরষ্কারগুলো দেয়া হয়।

ফিফা ফেয়ার প্লে পুরষ্কার সেরা খেলোয়াড় গোল্ডেন বুট
 বাংলাদেশ ভারত বিক্রম প্রতাপ সিং বাংলাদেশ ফয়সাল আহমেদ

গোলদাতা[সম্পাদনা]

৬ টি গোল
  • বাংলাদেশ ফয়সাল আহমেদ
৫ টি গোল
  • ভারত বিক্রম প্রতাপ সিং
৪টি গোল
  • নেপাল আকাশ বুদ্ধা মাগার
  • নেপাল ব্রিজেশ চৌধুরী
  • বাংলাদেশ মিরাজ মোল্লা
৩টি গোল
  • ভারত রবি বাহাদুর রানা
২টি গোল
  • ভুটান দরজি খান্দো
  • ভুটান কেলজাং জিগমি
  • নেপাল রোশান রানা মাগার
  • ভারত লালরোকিমা
  • বাংলাদেশ রাজা শেখ
১টি গোল
  • বাংলাদেশ নাজমুল বিশ্বাস
  • বাংলাদেশ হাবিবুর রহমান
  • ভারত থইবা সিং
  • ভারত রিকি জন
  • ভুটান কিঙ্গা ওয়াংভুক
  • ভুটান সিদ্ধার্থ গুরুং
  • নেপাল দর্শন গুরুং
  • ভারত হারপ্রিত সিং
  • ভারত রিডজ মেলভিন ডিমেলো
  • বাংলাদেশ মো: আকাশ
  • বাংলাদেশ ইয়াসিন আরাফাত
  • বাংলাদেশ আরিফ হোসেন
২ টি আত্বঘাতী গোল
  • মালদ্বীপ ইব্রাহিম আনুফ ( ভারত এর বিপক্ষে খেলার সময়)
আত্বঘাতী গোল
  • বাংলাদেশ নাজমুল বিশ্বাস ( নেপালl এর বিপক্ষে খেলার সময়)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]