২০১৬ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৬ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ.png
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের লোগো
তারিখ৮ নভেম্বর – ৯ ডিসেম্বর ২০১৬
ব্যবস্থাপকবিসিবি
ক্রিকেটের ধরনটুয়েন্টি২০
প্রতিযোগিতার ধরনরাউন্ড-রবিন এবং প্লেঅফ
আয়োজক বাংলাদেশ
বিজয়ী ঢাকা ডায়নামাইটস (১ম শিরোপা)
অংশগ্রহণকারী
খেলার সংখ্যা৪৬
প্রতিযোগিতার সেরা
খেলোয়াড়
বাংলাদেশ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (খুলনা টাইটানস)
সর্বোচ্চ রানবাংলাদেশ তামিম ইকবাল (চিটাগং ভাইকিংস) (৪৭৬)
সর্বোচ্চ উইকেটক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ ডোয়েন ব্র্যাভো (ঢাকা ডাইনামাইটস) (২১)
প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইটBPL

২০১৬ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ, যা বিপিএল ৪ বা একেএস বিপিএল ২০১৬ নামে পরিচিত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের চতুর্থ আসর। বাংলাদেশের শীর্ষ স্তরের পেশাদার টুয়েন্টি২০ ক্রিকেট ফ্রেঞ্চাইজি লীগ। এই প্রতিযোগিতাটি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কর্তৃক আয়োজন করা হয় ও এতে সাতটি দল অংশ নেয়। এই মৌসুম মূলত ৪ নভেম্বর ২০১৬ তে শুরু হয়। কিন্তু, বৃষ্টির কারণে টুর্নামেন্টের প্রথম দুই দিনের চারটি খেলা বাতিল হয়ে যায় ও পরে আরও বৃষ্টি হাওয়ার পূর্বাভাস থাকায় টুর্নামেন্ট ৮ নভেম্বরে পুনঃআরম্ভ করা হয়। বাতিল হওয়া সব ম্যাচও খেলা হয়। টুর্নামেন্ট ৯ ডিসেম্বরে শেষ হয়।

দুটি নতুন দল, খুলনা টাইটান্স ও রাজশাহী কিংস নতুন মালিকানায় অংশ নেয়। এ দুটি দলকে ২০১৫ প্রতিযোগিতায় নিয়ম ভঙ্গের কারণে অংশ গ্রহণ করতে দেয়া হয়নি। অন্যদিকে, সিলেট সুপার স্টার্সের ফ্রেঞ্চাইজইকে এই আসর থেকে বাদ দেয়া হয়। বিসিবি প্রথমে জানায় সিলেট ফ্রেঞ্চাইজি চুক্তি লঙ্ঘন বা ব্যাংক নিশ্চয়তা না দেয়ায় তাঁদের বাদ দেয়া হয়েছে, কিন্তু পরে ২১ সেপ্টেম্বর জানায় যে "শৃঙ্খলজনিত কারণে" তাঁদের বাদ দেয়া হয়েছে।

২০১৫'র তৃতীয় আসরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস চ্যাম্পিয়ন হয়, কিন্তু তাঁরা এই আসলে গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ে যায়। ফাইনাল খেলায়, রাজশাহী কিংসকে পরাজিত করে ঢাকা ডাইনামাইটস তাঁদের প্রথম শিরোপা লাভ করে।

মাঠ[সম্পাদনা]

ফাইনালসহ মোট ৪৬টি ম্যাচ ঢাকা ও চট্টগ্রামের মাঠ দুটিতে অনুষ্ঠিত হয়। টুর্নামেন্টের ২য় পর্বের মোট ১০টি ম্যাচ জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। অন্যদিকে, প্লেঅফ, ফাইনালসহ ১ম পর্ব ও ৩য় পর্বের ম্যাচগুলি শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়।

চট্টগ্রাম ঢাকা
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম
ধারন ক্ষমতা: ২২,০০০ ধারন ক্ষমতা: ২৫,০০০
Zacs rain.jpg Sher-e-Bangla National Cricket Stadium.jpg

দলসমূহ[সম্পাদনা]

দল শহর মালিক অধিনায়ক প্রধান কোচ আইকন খেলোয়াড়
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস কুমিল্লা আক্সিওম বাংলাদেশ মাশরাফি বিন মর্তুজা বাংলাদেশ মিজানুর রহমান বাবুল[১] বাংলাদেশ মাশরাফি বিন মর্তুজা
ঢাকা ডায়নামাইটস ঢাকা বেক্সিমকো গ্রুপ বাংলাদেশ সাকিব আল হাসান বাংলাদেশ খালেদ মাহমুদ সুজন[১] বাংলাদেশ সাকিব আল হাসান
চিটাগাং ভাইকিংস চট্টগ্রাম বাংলাদেশ তামিম ইকবাল বাংলাদেশ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন[১] বাংলাদেশ তামিম ইকবাল
বরিশাল বুলস বরিশাল বাংলাদেশ মুশফিকুর রহিম অস্ট্রেলিয়া ডেভ হোয়াটমোর[১] বাংলাদেশ মুশফিকুর রহিম
রাজশাহী কিংস রাজশাহী ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ ড্যারেন স্যামি বাংলাদেশ সারওয়ার ইমরান[১] বাংলাদেশ সাব্বির রহমান
খুলনা টাইটানস খুলনা বাংলাদেশ মাহমুদুল্লাহ অস্ট্রেলিয়া স্টুয়ার্ট ল[১] বাংলাদেশ মাহমুদুল্লাহ
রংপুর রাইডার্স রংপুর বাংলাদেশ নাঈম ইসলাম বাংলাদেশ জাভেদ ওমর বেলিম[১] বাংলাদেশ সৌম্য সরকার

পয়েন্ট টেবিল[সম্পাদনা]

দল খে ট্রা ফহ গরারে
ঢাকা ডায়নামাইটস ১২ ১৬ +০.৯১২
খুলনা টাইটানস ১২ ১৪ -০.২১৫
চিটাগাং ভাইকিংস ১২ ১২ +০.২৩৩
রাজশাহী কিংস ১২ ১২ +০.২০৮
রংপুর রাইডার্স ১২ ১২ -০.১০৬
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ১২ ১০ -০.৩৪৫
বরিশাল বুলস ১২ -০.৬৮৮

সুত্র: ক্রিকইনফো[২]

লীগ অগ্রগতি[সম্পাদনা]

 
দল
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস
খুলনা টাইটানস
চিটাগাং ভাইকিংস
ঢাকা ডায়নামাইটস
বরিশাল বুলস
রংপুর রাইডার্স
রাজশাহী কিংস
গ্রুপ ম্যাচ
১০ ১১ ১২
১০
১০ ১০ ১২ ১২ ১২ ১২ ১৪
১০ ১২ ১২ ১২
১০ ১২ ১৪ ১৬ ১৬
১০ ১০ ১০ ১০ ১০ ১২ ১২
১০ ১০ ১০ ১২
প্লেঅফ
ক১ ক২
 
হা হা
হা
 
 
হা
জয় হার ফলাফল হয়নি
দলটি গ্রুপ পর্যায়ে বাদ।

টীকা:

  • প্রতিটি গ্রুপ ম্যাচ শেষে মোট পয়েন্ট তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।
  • ম্যাচের সারসংক্ষেপ দেখার জন্য পয়েন্টে ক্লিক করুন (গ্রুপ ম্যাচগুলির জন্য) অথবা জ/হা (প্লেঅফের জন্য)।

লীগের পর্ব[সম্পাদনা]

স্বাগতিক \ অতিথি বরিশাল চট্টগ্রাম কুমিল্লা ঢাকা রংপুর খুলনা রাজশাহী
বরিশাল বুলস
চিটাগাং ভাইকিংস
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস চিটাগাং
২৯ রান
ঢাকা ডায়নামাইটস ঢাকা
৮ উইকেট
রংপুর রাইডার্স রংপুর
৯ উইকেট
রংপুর
৯ উইকেটে
খুলনা টাইটানস খুলনা
৩ রান
রাজশাহী কিংস
  স্বাগতিক দল জয়ী
  অতিথি দল জয়ী

ম্যাচ[সম্পাদনা]

সকল সময় বাংলাদেশ মান সময় (ইউটিসি+০৬:০০) অনুযায়ী।

বৃষ্টিবিঘ্নিত[সম্পাদনা]

৪ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় ও ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ভারী বৃষ্টির কারণে খেলা সম্ভব হয়নি।
  • এই ম্যাচটি ৩০ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পুনঃখেলা হয়।[৩]

৪ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
  • টস হয়নি।
  • ভারী বৃষ্টির কারণে খেলা সম্ভব হয়নি।
  • এই ম্যাচটি ১০ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পুনঃখেলা হয়।[৩]

৫ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
  • টস হয়নি।
  • ভারী বৃষ্টির কারণে খেলা সম্ভব হয়নি।
  • এই ম্যাচটি ১৪ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পুনঃখেলা হয়।[৩]

৫ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
  • টস হয়নি।
  • ভারী বৃষ্টির কারণে খেলা সম্ভব হয়নি।
  • এই ম্যাচটি ১৪ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পুনঃখেলা হয়।[৩]

৬ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
  • এই ম্যাচটি ২৮ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পুনঃখেলা হয়।[৩]

৬ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
  • এই ম্যাচটি ২০ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পুনঃখেলা হয়।[৩]

পর্ব ১[সম্পাদনা]

৮ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১৬১/৩ (২০ ওভার)
তামিম ইকবাল ৫৪ (৩৮)
ইমাদ ওয়াসিম ১/২২ (৪ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস ২৯ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: গাজী সোহেল (বাংলাদেশ) এবং র‌্যানমোর মার্টিনেজ (শ্রীলঙ্কা)
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মদ নবী (চিটাগাং ভাইকিংস)

৮ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
বরিশাল বুলস
১৪৮/৬ (২০ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৪৯/২ (১৬ ওভার)
মেহেদী মারুফ ৭৫ (৪৫)
তাইজুল ইসলাম ১/১৪ (২ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস ৮ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: খালিদ মাহমুদ (পাকিস্তান) এবং নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: মেহেদী মারুফ (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • ঢাকা ডায়নামাইটস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • মেহেদী হাসানের (বরিশাল বুলস) টি২০ অভিষেক হয়।

৯ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১৩৩/৮ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১৩০/১০(২০ ওভার)
মমিনুল হক ৬৪ (৫৭)
জুনায়েদ খান ৪/২৩ (৪ ওভার)
  • খুলনা টাইটানস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • আব্দুল মজিদ এবং মেহেদী হাসান (রাজশাহী কিংস) দুইজনের টি২০ অভিষেক হয়।

৯ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১২৪/১০ (১৯.৪ ওভার)
রংপুর রাইডার্স
১২৫/১ (১৫ ওভার)
শোয়েব মালিক ৩০ (৩২)
সোহাগ গাজী ২/১৮ (৩ ওভার)
রংপুর রাইডারস ৯ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: খালিদ মাহমুদ (পাকিস্তান) এবং নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মাদ শেহজাদ (রংপুর রাইডার্স)
  • রংপুর রাইডার টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১০ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
৪৪/১০ (১০.৪ ওভার)
রংপুর রাইডার্স
৪৫/১ (৮ ওভার)
শুভাগত হোম ১২ (৮)
শহীদ আফ্রিদি ৪/১২ (৩ ওভার)
মোহাম্মদ মিঠুন ১৫* (১৫)
জুনায়েদ খান ১/১৪ (২ উইকেট)
  • রংপুর রাইডার টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • নূর আলমের (খুলনা টাইটানস) টি২০ অভিষেক হয়।
  • এটি ৪ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পরিত্যক্ত ম্যাচটির পুনঃখেলা।

১১ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
বরিশাল বুলস
১৩০/৪ (১৮.৩ ওভার)
থিসারা পেরেরা ৩৪ (২০)
নাবিল সামাদ ১/১২ (৩ ওভার)
  • কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১১ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৩৮/৫ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১৩৯/৪ (১৮.১ ওভার)
সামিত প্যাটেল ৪৪* (২৫)
আবু জায়েদ ১/১৪ (২ ওভার)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১২ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১২৭/৭ (২০ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস
১২৩/৯ (২০ ওভার)
মোহাম্মাদ নবী ৩৯ (২৩)
শফিউল ইসলাম ৪/২৮ (৪ ওভার)
  • চিটাগাং ভাইকিংস টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • হাসানুজ্জামানের (খুলনা টাইটানস) টি২০ অভিষেক হয়।

১২ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৭০/৬ (২০ ওভার)
রংপুর রাইডার্স
৯২/৯ (১৯.২ ওভার)
নাঈম ইসলাম ২৯ (২৬)
সাকিব আল হাসান ২/১৭ (৪ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস ৭৮ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: খালিদ মাহমুদ (পাকিস্তান) এবং নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: মোসাদ্দেক হোসেন (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • রংপুর রাইডার্স টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৩ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
বরিশাল বুলস
১৯২/৪ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১৮৮/৬ (২০ ওভার)
মুশফিকুর রহিম ৮১* (৫২)
ফরহাদ রেজা ২/২২ (৪ ওভার)
সাব্বির রহমান ১২২ (৬১)
আল-আমিন হোসেন ৩/৩৫ (৪ ওভার)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৩ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১৪৪/৯ (২০ ওভার)
  • কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস) টি২০ অভিষেক হয়।

১৪ নভেম্বর ২০১৬
১৪:০০
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১৬৩/৩ (২০ ওভার)
বরিশাল বুলস
১৬৭/৩ (১৯.৪ ওভার)
দাউদ মালান ৭৮ (৪৮)
ইমরান খান ২/৩০ (৪ ওভার)
  • বরিশাল বুলস টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এটি ৫ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পরিত্যক্ত ম্যাচটির পুনঃখেলা।

১৪ নভেম্বর ২০১৬
১৯:০০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৯৪/৫ (২০ ওভার)
মেহেদী মারুফ ৬০ (৩৯)
রশীদ খান ৩/২৮ (৪ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস ৩৩ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: র‌্যানমোর মার্টিনেজ (শ্রীলঙ্কা) এবং নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: মেহেদী মারুফ (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এটি ৫ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পরিত্যক্ত ম্যাচটির পুনঃখেলা।

পর্ব ২[সম্পাদনা]

১৭ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৪৮/৯ (২০ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস
১২৯/৮ (২০ ওভার)
তামিম ইকবাল ২৬ (৩৫)
মোহাম্মদ শহীদ ৩/২৩ (৪ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস ১৯ রানে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মদ শহীদ (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • চিটাগাং ভাইকিংস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৭ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
রংপুর রাইডার্স
১৭৫/৬ (২০ ওভার)
বরিশাল বুলস
১৬৩ (১৯.৪ ওভার)
জীবন মেন্ডিস ৫৭ (৫৩)
সোহাগ গাজী ৩/১৯ (৩.৪ ওভার)
রংপুর রাইডার্স ১২ রানে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মদ মিঠুন (রংপুর রাইডার্স)
  • বরিশাল বুলস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৮ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১৯০/৫ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১৭১/৯ (২০ ওভার)
সাব্বির রহমান ৪৬ (৩০)
তাসকিন আহমেদ ৫/৩১ (৪ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস ১৯ রানে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মাদ নবী (চিটাগাং ভাইকিংস)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৮ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
রংপুর রাইডার্স
১২৬/১ (১৭ ওভার)
আহমেদ শেহজাদ ৫২ (৪৫)
রুবেল হোসেন ২/২৭ (৪ ওভার)
রংপুর রাইডার্স ৯ উইকেটে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মাদ শেহজাদ (রংপুর রাইডার্স)
  • রংপুর রাইডার্স টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৯ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১৫৭/৫ (২০ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৪৮ (১৯.১ ওভার)
  • খুলনা টাইটানস টসে জয়ী হয় ও ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

১৯ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
রাজশাহী কিংস
১২০ (১৯ ওভার)
মমিনুল হক ৫৩ (৪৩)
সোহেল তানভীর ৪/১৮ (৩ ওভার)
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ৩২ রানে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: সোহেল তানভীর (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২০ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১৫১/৭ (২০ ওভার)
বরিশাল বুলস
১২৯ (১৯.৩ ওভার)
  • বরিশাল বুলস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এটি ৬ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পরিত্যক্ত ম্যাচটির পুনঃখেলা।

২১ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৮২/৪ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১৮৪/৭ (১৯.৫ ওভার)
  • ঢাকা ডায়নামাইটস টসে জয়ী হয় ও ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২১ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১৮৬/৪ (১৯.২ ওভার)
খালিদ লতিফ ৭৬ (৫৩)
তাসকিন আহমেদ ১/৪৪ (৪ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস ৬ উইকেটে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মাদ নবী (চিটাগাং ভাইকিংস)
  • কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস টসে জয়ী হয় ও ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২২ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১২৫/৭ (২০ ওভার)
রংপুর রাইডার্স
১২৯/৩ (১৯ ওভার)
তাইবুর রহমান ৩২ (৩৭)
আরাফাত সানি ২/১৬ (৪ ওভার)
রংপুর রাইডার্স ৭ উইকেটে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: শহীদ আফ্রিদি (রংপুর রাইডার্স)
  • খুলনা টাইটানস টসে জয়ী হয় ও ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২২ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১৮৫/৫ (২০ ওভার)
বরিশাল বুলস
১০৭ (১৮.৪ ওভার)
এনামুল হক ৪২ (৩৭)
মোহাম্মাদ নবী ৩/১৬ (৩ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস ৭৮ রানে বিজয়ী
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
সেরা খেলোয়াড়: শোয়েব মালিক (চিটাগাং ভাইকিংস)
  • চিটাগাং ভাইকিংস টসে জয়ী হয় ও ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

পর্ব ৩[সম্পাদনা]

২৫ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
রাজশাহী কিংস
১৬২/৫ (২০ ওভার)
রংপুর রাইডার্স
১৫০/৫ (২০ ওভার)
ড্যারেন স্যামি ৪৪ (১৮)
লিয়াম ডসন ২/১৫ (৩ ওভার)
  • রংপুর রাইডার্স টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২৫ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
বরিশাল বুলস
১১৯/৫ (২০ ওভার)
খুলনা টাইটানস
১২০/৪ (১৮.৪ ওভার)
শুভাগত হোম ৪০ (৩৪)
রুম্মান রাইস ২/১৩ (৪ ওভার)
খুলনা টাইটানস ৬ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: শুভাগত হোম (খুলনা টাইটানস)
  • বরিশাল বুলস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২৬ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৭০/৪ (২০ ওভার)
সাকিব আল হাসান ৪১ (২৬)
রাশিদ খান ২/২৬ (৪ ওভার)
খালিদ লতিফ ৩৮ (৩৩)
ডোয়েন ব্র্যাভো ৩/৩২ (৪ ওভার)
ঢাকা ডাইনামাইটস ৩২ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: সাকিব আল হাসান (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • ঢাকা ডায়নামাইটস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২৬ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
রাজশাহী কিংস
১৫৪/৮ (২০ ওভার)
খুলনা টাইটানস
১৪৫/৬ (২০ ওভার)
ড্যারেন স্যামি ৭১ (৩৪)
কেভন কুপার ২/৩১ (৪ ওভার)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২৭ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
বরিশাল বুলস
১৩২/৬ (২০ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৩৫/৬ (১৯.২ ওভার)
মুশফিকুর রহিম ৩৬ (৩০)
আবু জায়েদ ১/১২ (৪ ওভার)
নাসির হোসেন ৩৪ (২৯)
তাইজুল ইসলাম ২/১৯ (৪ ওভার)
ঢাকা ডাইনামটস ৪ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: সাকিব আল হাসান (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • বরিশাল বুলস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২৭ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
রংপুর রাইডার্স
১২৪/৬ (২০ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস
১২৮/১ (১৬ ওভার)
সৌম্য সরকার ২৬ (২১)
তাসকিন আহমেদ ২/২৫ (৪ ওভার)
তামিম ইকবাল ৬২ (৪৮)
শহীদ আফ্রিদি ১/২৫ (২ ওভার)
চিটাগং ভাইকিংস ৯ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: তামিম ইকবাল (চিটাগাং ভাইকিংস)
  • রংপুর রাইডার্স টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২৮ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
রাজশাহী কিংস
১২৮/৭ (২০ ওভার)
রংপুর রাইডার্স
৭৯ (১৭.৪ ওভার)
ফরহাদ রেজা ৪৪ (৩২)
আরাফাত সানি ৩/৩১ (৪ ওভার)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এটি ৬ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পরিত্যক্ত ম্যাচটির পুনঃখেলা।

২৯ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
বরিশাল বুলস
১৪২/৮ (২০ ওভার)
মুশফিকুর রহিম ২৯ (২৩)
নাবিল সামাদ ৩/১৭ (৪ ওভার)
আহমেদ শেহজাদ ৬১ (৫৬)
দাউদ মালান ১/৮ (২ ওভার)
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৮ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: আহমেদ শেহজাদ (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • বরিশাল বুলস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২৯ নভেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১৩১/৮ (২০ ওভার)
চিটাগাং ভাইকিংস
১৩৫/৫ (১৮.৪ ওভার)
চিটাগং ভাইকিংস ৫ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: তামিম ইকবাল (চিটাগাং ভাইকিংস)
  • খুলনা টাইটানস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

৩০ নভেম্বর ২০১৬
১৪:৩০
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৮৮/৭ (২০ ওভার)
রংপুর রাইডার্স
১৪৬/৮ (২০ ওভার)
এভিন লুইস ৭৫ (৩৪)
রুবেল হোসেন ৩/২৫ (৪ ওভার)
জিয়াউর রহমান ৬০ (৪৩)
আবু জায়েদ ৩/২০ (৪ ওভার)
ঢাকা ডাইনামাইটস ৪২ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: এভিন লুইস (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • ঢাকা ডায়নামাইটস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এই ম্যাচের ফলাফলের মাধ্যমে, ঢাকা ডাইনামাইটস পরবর্তী পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।

৩০ নভেম্বর ২০১৬
স্কোরকার্ড
রাজশাহী কিংস
১২৪/৭ (২০ ওভার)
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৮ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় এবং ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • এটি ৪ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে পরিত্যক্ত ম্যাচটির পুনঃখেলা।

১ ডিসেম্বর ২০১৬
১৯:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
বরিশাল বুলস
১৬১/৪ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১৪৪/৭ (২০ ওভার)
দাউদ মালান ৫৬ (৩৩)
মোহাম্মদ সামি ১/১৬ (৪ ওভার)
সামিত প্যাটেল ৬২ (৫১)
রায়াদ এমরিত ৩/২৭ (৪ ওভার)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় এবং বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২ ডিসেম্বর ২০১৬
১৩:৩০
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১৪১/৬ (২০ ওভার)
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ৫ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: মারলন স্যামুয়েলস (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস)
  • কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

২ ডিসেম্বর ২০১৬
১৮:১৫ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১৩৪/৬ (২০ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৩৫/৪ (১৮.২ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস ৬ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: ডোয়েন ব্র্যাভো (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • ঢাকা ডায়নামাইটস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

৩ ডিসেম্বর ২০১৬
১৩:০০
স্কোরকার্ড
রাজশাহী কিংস
১৫৪/৫ (২০ ওভার)
বরিশাল বুলস
১২৫ (১৮.২ ওভার)
দাউদ মালান ৩০ (২৩)
লিয়াম ডসন ২/১১ (২ ওভার)
  • রংপুর রাইডার্স টসে জয়ী হয় ও ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

৩ ডিসেম্বর ২০১৬
১৭:৪৫ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১১১/৯ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১১২/৪ (১৩.৫ ওভার)
শোয়েব মালিক ৬৭ (৫৪)
আফিফ হোসেন ৫/২১ (৪ ওভার)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • আফিফ হোসেন (রাজশাহী কিংস) এর টি২০ অভিষেক হয়।

৪ ডিসেম্বর ২০১৬
১৩:০০
স্কোরকার্ড
রংপুর রাইডার্স
১৬২/৮ (২০ ওভার)
ইমরুল কায়েস ৫২ (৩৫)
আরাফাত সানি ২/২৯ (৩ ওভার)
মোহাম্মাদ শেহজাদ ৪৫ (৩১)
রাশিদ খান ৩/১৩ (৪ ওভার)
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ৮ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
সেরা খেলোয়াড়: রাশিদ খান (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস)
  • রংপুর রাইডার্স টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

৪ ডিসেম্বর ২০১৬
১৭:৪৫ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৫৮/৭ (২০ ওভার)
খুলনা টাইটানস
১৫৯/৪ (১৮ ওভার)
  • খুলনা টাইটানস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।

প্লেঅফ[সম্পাদনা]

প্রাথমিক পর্ব ফাইনাল
  ৯ ডিসেম্বর ২০১৬ — শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
৬ ডিসেম্বর ২০১৬ — শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
ঢাকা ডায়নামাইটস ১৪০/২ (২০ ওভার)
খুলনা টাইটানস ৮৬ (১৬.২ ওভার) ঢাকা ডায়নামাইটস ১৫৯/৯ (২০ ওভার)
ঢাকা ৫৪ রানে বিজয়ী  রাজশাহী কিংস ১০৩ (১৭.৪ ওভার)
ঢাকা ৫৬ রানে বিজয়ী 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬ — শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
খুলনা টাইটানস ১২৫/৯ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস ১২৯/৩ (১৯.২ ওভার)
রাজশাহী ৭ উইকেটে বিজয়ী 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬ — শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
চিটাগাং ভাইকিংস ১৪২/৮ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস ১৪৩/৭ (১৮.৩ ওভার)
রাজশাহী ৩ উইকেটে বিজয়ী 

এলিমিনেটর[সম্পাদনা]

৬ ডিসেম্বর ২০১৬
১৩:০০
স্কোরকার্ড
চিটাগাং ভাইকিংস
১৪২/৮ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১৪৩/৭ (১৮.৩ ওভার)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • রাজশাহী কিংস দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ও চিটাগাং ভাইকিংস বাদ হয়ে যায়।

কোয়ালিফায়ার ১[সম্পাদনা]

৬ ডিসেম্বর ২০১৬
১৭:৪৫ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৪০/৮ (২০ ওভার)
খুলনা টাইটানস
৮৬ (১৬.২ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস ৫৪ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
সেরা খেলোয়াড়: আন্দ্রে রাসেল (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • খুলনা টাইটানস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ঢাকা ডায়নামাইটস ফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ও খুলনা টাইটানস কোয়ালিফায়ার ২-এ যায়।

কোয়ালিফায়ার ২[সম্পাদনা]

৭ ডিসেম্বর ২০১৬
১৭:৪৫ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
খুলনা টাইটানস
১২৫/৯ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১২৯/৩ (১৯.২ ওভার)
আরিফুল হক ৩২ (২৯)
সামিত প্যাটেল ৩/১৯ (৪ ওভার)
  • খুলনা টাইটানস টসে জয়ী হয় ও ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • রাজশাহী কিংস ফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ও খুলনা টাইটানস বাদ হয়ে যায়।

ফাইনাল[সম্পাদনা]

৯ ডিসেম্বর ২০১৬
১৭:৪৫ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ঢাকা ডায়নামাইটস
১৫৯/৯ (২০ ওভার)
রাজশাহী কিংস
১০৩ (১৭.৪ ওভার)
এভিন লুইস ৪৫ (৩১)
ফরহাদ রেজা ৩/২৮ (৪ ওভার)
মমিনুল হক ২৭ (৩০)
আবু জায়েদ ২/১২ (৩ ওভার)
ঢাকা ডায়নামাইটস ৫৬ রানে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
আম্পায়ার: খালিদ মাহমুদ (পাকিস্তান) এবং মাহফুজুর রহমান (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: কুমার সাঙ্গাকারা (ঢাকা ডায়নামাইটস)
  • রাজশাহী কিংস টসে জয়ী হয় ও বল করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ঢাকা ডায়নামাইটস ২০১৬ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়ন হয়।

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

সর্বাধিক রান[সম্পাদনা]

নিম্নলিখিত টেবিলটি এই আসরের সর্বাধিক রান সংগ্রাহকের তালিকা।

খেলোয়াড় দল ম্যাচ ইনিংস রান গড় স্ট্রাইক রেট সর্বোচ্চ রান ১০০ ৫০
বাংলাদেশ তামিম ইকবাল চিটাগাং ভাইকিংস ১৩ ১৩ ৪৭৬ ৪৩.২৭ ১১৫.৮১ ৭৫ ৫৩ ১১
বাংলাদেশ মাহমুদুল্লাহ খুলনা টাইটানস ১৪ ১৪ ৩৯৬ ৩৩.০০ ১১৮.২০ ৬২ ৩১ ১৪
বাংলাদেশ সাব্বির রহমান রাজশাহী কিংস ১৫ ১৫ ৩৭৭ ২৬.৯২ ১১৭.৮১ ১২২ ২৯ ১৭
শ্রীলঙ্কা কুমার সাঙ্গাকারা ঢাকা ডায়নামাইটস ১৩ ১৩ ৩৭০ ২৮.৪৬ ১১৫.৬২ ৬৬ ৪৩
আফগানিস্তান মোহাম্মদ শাহজাদ রংপুর রাইডার্স ১১ ১১ ৩৫০ ৩৮.৮৮ ১১০.০৬ ৮০* ৩৬ ১১
উৎস: ক্রিকইনফো.কম, সর্বশেষ হালনাগাদ: ১০ ডিসেম্বর ২০১৬

সর্বোচ্চ উইকেট[সম্পাদনা]

খেলোয়াড় দল ম্যাচ ইনি ওভার মেডেন রান উই ইসেবো গড় ইকো স্ট্রারে ৪উই ৫উই
ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ ডোয়েন ব্র্যাভো ঢাকা ডায়নামাইটস ১৩ ১৩ ৪৪.২ ৩৩৫ ২১ ৩/১০ ১৫.৯৫ ৭.৫৫ ১২.৬
পাকিস্তান জুনায়েদ খান খুলনা টাইটানস ১৪ ১৪ ৫২.৪ ৩২১ ২০ ৪/২৩ ১৬.০৫ ৬.০৯ ১৫.৮
আফগানিস্তান মোহাম্মাদ নবী চিটাগাং ভাইকিংস ১৩ ১৩ ৪৪ ২৮৫ ১৯ ৪/২৪ ১৫.০০ ৬.৪৭ ১৩.৮
বাংলাদেশ শফিউল ইসলাম সুহাস খুলনা টাইটানস ১৩ ১২ ৪২.৩ ৩৩১ ১৮ ৪/১৭ ১৮.৩৮ ৭.৭৮ ১৪.১
পাকিস্তান শহীদ আফ্রিদি রংপুর রাইডার্স ১১ ১১ ৪০ ২৫৪ ১৭ ৪/১২ ১৪.৯৪ ৬.৩৫ ১৪.১
উৎস: Cricinfo.com, সর্বশেষ হালনাগাদ: ১০ ডিসেম্বর ২০১৬

দলীয় সর্বোচ্চ রান[সম্পাদনা]

দল সর্বমোট প্রতিপক্ষ মাঠ
ঢাকা ডায়নামাইটস ১৯৪/৫ (২০ overs) কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম
বরিশাল বুলস ১৯২/৪ (২০ overs) রাজশাহী কিংস শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম
চিটাগাং ভাইকিংস ১৯০/৫ (২০ overs) রাজশাহী কিংস জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম
উৎস: Cricinfo.com, সর্বশেষ হালনাগাদ: ১০ ডিসেম্বর ২০১৬

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বিপিএলে এবার দেশীয় কোচই বেশি"মানবজমিন। ৯ নভেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১০ নভেম্বর ২০১৬ 
  2. "পয়েন্ট টেবিল"ইএসপিএন ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  3. "বিপিএলের নতুন সূচি; নতুন করে শুরু ৯ নভেম্বর"দৈনিক ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]