২০১৬ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ ২০১৬
বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগের লোগো.jpg
২০১৯-এ প্রবর্তিত বিসিএল-এর সাধারণ লোগো
মৌসুম২০১৬
তারিখ২৯ অক্টোবর, ২০১৬ হতে
৯ জানুয়ারি, ২০১৭ পর্যন্ত
চ্যাম্পিয়নফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব
(১ম শিরোপা)
শীর্ষ স্থানেফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব
উন্নীতসাইফ স্পোর্টিং ক্লাব
(ফকিরেরপুল প্রিমিয়ার লীগে খেলেনি)
অবনমনচট্টগ্রাম মোহামেডান
মোট খেলা৫৬
মোট গোলসংখ্যা১০৮ (ম্যাচ প্রতি ১.৯৩টি)
সেরা খেলোয়াড়বাংলাদেশ মতিন মিয়া[১]
শীর্ষ গোলদাতাবাংলাদেশ আরিফুর রহমান
(৬ গোল)
সর্বোচ্চ স্কোরিংঅগ্রণী ব্যাংক ৪-১ ভিক্টোরিয়া
(১১ আগস্ট, ২০১৬)
দীর্ঘতম টানা অপরাজিতসাইফ স্পোর্টিং ক্লাব (১৪ ম্যাচ)
সব পরিসংখ্যান ১০ জানুয়ারি, ২০১৭ অনুযায়ী সঠিক।

২০১৬ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ (পৃষ্টপোষকতা জনিত কারণে মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ ২০১৬ নামেও পরিচিত)[২] বাংলাদেশের পেশাদার ফুটবল লীগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ(বিসিএল)-এর পঞ্চম মৌসুম। এই মৌসুমে ৮টি ফুটবল ক্লাব - টিএন্ডটি ক্লাব মতিঝিল, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব, বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব, কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ, চট্টগ্রাম মোহামেডান এসসিসাইফ স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড অংশগ্রহণ করে। এই মৌসুম ২৯ অক্টোবর, ২০১৬ হতে ৯ জানুয়ারি, ২০১৭ পর্যন্ত চলে।[৩][৪] মৌসুমের সকল খেলা(৫৬টি ম্যাচ) ঢাকা মহানগরীর ২টি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হয়।[৫] এই মৌসুমে ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব শিরোপা জয় করে।[৬] চট্টগ্রাম মোহামেডান নিম্নস্তরের লীগে অবনমিত হয়।[৭]

মৌসুমের সার-সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন, এই মৌসুমে দলগুলিকে কোন বিদেশী খেলোয়াড় নিবন্ধনের সুযোগ রাখেনি।[৮] ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব এই মৌসুমের ১৪ খেলায় ২৭ পয়েন্ট নিয়ে তাদের প্রথম বিসিএল শিরোপা জয় করে। সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব লীগের ১৪ ম্যাচেই অপরাজিত থাকে এবং ২৬ পয়েন্ট নিয়ে অপরাজিত রানার্স-আপ হয়।[৭][৯] দল দুইটি ২০১৭-১৮ মৌসুমের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে-এ উত্তীর্ণ হয়।[৪][১০] ১১ আগস্ট, ২০১৬ তারিখের অগ্রণী ব্যাংক ও ভিক্টোরিয়া এসসি-এর মধ্যে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে লীগের সর্বোচ্চ ৫ গোল হয়।[৫][১১] মোট ৫৬টি ম্যাচে ১০৮টি গোল হয়। আট দলের পয়েন্ট তালিকায় সবার নিচে থাকায় চট্টগ্রাম মোহামেডান প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগে অবনমিত হয়।[৭] অর্থাভাবে এই মৌসুমের শিরোপাজয়ী দল ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব পরের মৌসুমে প্রিমিয়ার লীগে খেলেনি,[১২][১৩] তারা পুনরায় ২০১৭-এর চ্যাম্পিয়নশিপ লীগে অংশগ্রহণ করে।[১৪]

পৃষ্টপোষক[সম্পাদনা]

ওয়ালটন গ্রুপের মার্সেল ব্র্যান্ড এই মৌসুমের শিরোনাম পৃষ্টপোষক ও পুরষ্কারের অর্থায়ন করে। এছাড়াও প্রিমিয়ার ব্যাংক, প্রগতি ইনস্যুরেন্স, ইস্টার্ন ব্যাংক ও ম্যাক্স গ্রুপ সহযোগী পৃষ্টপোষক ছিল[২][১৫][১৬]

দল ও ভেন্যুসমূহ[সম্পাদনা]

দলসমূহ[সম্পাদনা]

এই মৌসুমে ৮টি দল অংশগ্রহণ করে। ৮টি দলের মধ্যে ৫টি দল পূর্ব মৌসুমের অংশগ্রহণকারী দল। সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ও কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘের অভিষেক ঘটে, দল দুইটি প্রথমবারের মত পেশাদার লীগে অংশ নেয়। চট্টগ্রাম মোহামেডান ২০১০-১১ মৌসুমের পর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে অবনমিত হওয়ার পর পুনরায় পেশাদার লীগে ফিরে আসে।[১৬][১৭] দল সমূহ -

ক্রম দল টীকা সুত্র
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল [৩][১৭]
কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ প্রথমবার বিসিএল-এ অংশগ্রহণ
চট্টগ্রাম মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব চার মৌসুম পর পেশাদার লীগে প্রত্যাবর্তন
মতিঝিল টিএন্ডটি ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল
বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল
ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব পূর্ব মৌসূমের দল
সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব প্রথমবার বিসিএল-এ অংশগ্রহণ

ভেন্যু সমূহ[সম্পাদনা]

এই মৌসুমের উদ্বোধনীসহ কিছু খেলা ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম ও বেশীরভাগ ম্যাচ বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে।[৮][১৮]

ভেন্যুর সংখ্যা অবস্থান ভেন্যুর নাম ধারণ ক্ষমতা
ঢাকা বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম ৩৬,০০০
বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম ২৫,০০০

ফলাফল[সম্পাদনা]

স্বাগতিক \ অতিথি অগ্রণী ব্যাংক কাওরান বাজার চট্টগ্রাম মোহামেডান টিএন্ডটি ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স বাংলাদেশ পুলিশ ভিক্টোরিয়া সাইফ স্পোর্টিং
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব ০–২ ১–১ ১–০ ১–০ ২–১ ৪–১ ০–১
কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ ০–১ ১–৩ ০–০ ১–১ ০–০ ০–০ ১–১
চট্টগ্রাম মোহামেডান ২–০ ০–১ ১–২ ১–১ ১–২ ০–৪ ১–৩
টিএন্ডটি ১–০ ৪–০ ০–০ ০–১ ০–২ ১–০ ১–৩
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব ২–০ ২–১ ২–১ ২–১ ১–০ ১–১ ১–১
বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব ১–০ ০–০ ৩–১ ১–১ ০–০ ০–০ ০–০
ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব ০–১ ০–০ ২–০ ২–২ ০–১ ২–১ ১–৩
সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ২–২ ০–০ ১–১ ১–১ ০–০ ১–০ ২–১
১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখের ম্যাচ(সমূহ) খেলা শেষের পর হালনাগাদকৃত। উৎস: গ্লোবাল স্পোর্টস আরকাইভ আরএসএসএসএফ
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।

পয়েন্ট তালিকা[সম্পাদনা]

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন বা অবনমন
ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব ১৪ ১৫ +৭ ২৭ বিপিএল-এ জন্য উত্তীর্ণ
সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ১৪ ১৯ ১০ +৯ ২৬ বিপিএল-এ জন্য উত্তীর্ণ
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব ১৪ ১৩ ১৪ −১ ২০
বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব ১৪ ১১ +২ ১৮
টিএন্ডটি স্পোর্টিং ক্লাব ১৪ ১৪ ১৪ ১৭
ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব ১৪ ১৪ ১৬ −২ ১৪
কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ ১৪ ১২ −৫ ১৪
চট্টগ্রাম মোহামেডান ১৪ ১৩ ২৩ −১০ ১০ প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগে অবনমন
১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখের ম্যাচ খেলা শেষের পর হালনাগাদকৃত। উৎস: গ্লোবাল স্পোর্টস আরকাইভ আরএসএসএসএফ
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) পয়েন্ট; ২) গোল পার্থক্য; ৩) গোল স্কোর

টীকাঃ অর্থাভাবে এই মৌসুমের শিরোপাজয়ী দল ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব পরের মৌসুমে প্রিমিয়ার লীগে খেলেনি[১২] এবং ২০১৭-এর চ্যাম্পিয়নশিপ লীগে অংশগ্রহণ করে।[১৪]

মৌসুম পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

ক্যটাগরি দল মন্তব্য সুত্র
শিরোপাজয়ী ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব দলটিরর প্রথম বিসিএল শিরোপা [৪]
রানার্স-আপ সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব
সেরা খেলোয়াড় মতিন মিয়া (সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব)
সর্বোচ্চ গোলদাতা আরিফুর রহমান (ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব) পুরো মৌসুমে ৬ গোল করেছেন

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. "জীবনের রং বদলে গেছে মতিনের"প্রথম আলো। ২০১৭-০১-১২। ২৩ মে ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২৬ 
  2. "বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগের টাইটেল স্পন্সর 'মার্সেল'"দৈনিক জনকন্ঠ। ২০১৬-১০-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ"বাংলা ট্রিবিউন। ২০১৬-১০-২৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  4. "চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ ফুটবলে দল বাড়ছে"দৈনিক জনকন্ঠ। ২০১৭-০২-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  5. "Marcel Bangladesh Championship League 2015/2016 - Results, fixtures, tables and stats - Global Sports Archive"গ্লোবাল স্পোর্টস আরকাইভ। ২০২০-০২-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  6. "ইয়ংমেন্সের পুনর্জীবনে আলোর বন্যা"প্রথম আলো। ২০১৭-০১-১১। ২০২০-০২-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২৩ 
  7. "ইয়ংমেন্স ক্লাব চ্যাম্পিয়ন"দৈনিক ইত্তেফাক। ২০১৭-০১-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  8. "বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ ফুটবল লিগ মাঠে গড়াচ্ছে আজ"দৈনিক সংগ্রাম। ২০১৬-১০-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  9. "Fakirerpool champions"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০১-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৭ 
  10. "মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের পুরস্কার বিতরণী শনিবার"রাইজিংবিডি.কম। ২০১৭-০২-০৭। ২০২০-০২-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  11. "অগ্রণী ব্যাংকের বড় জয়"রাইজিংবিডি.কম। ২০১৬-১১-০৮। ২০২০-০২-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  12. "প্রিমিয়ারে খেলতে চায় না ফকিরেরপুল"কালের কন্ঠ। ২০১৭-০৪-১৬। ২০১৯-০৫-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  13. "আর্থিক জটিলতায় বিপিএল খেলছে না ফকিরাপুল ইয়ংমেন্স"সময় টিভি। ২০১৯-০৪-২৫। ২০২০-০২-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  14. "মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ শুরু"মানবজমিন। ২০১৭-০৮-০৬। ২০২০-০৫-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  15. "আট দলের বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ"দৈনিক যুগান্তর। ২০১৬-১০-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  16. "বিসিএলে সাইফ স্পোর্টিংয়ের সঙ্গে ফিরেছে চট্টগ্রাম মোহামেডান"ঢাকা টাইমস। ২০১৯-১০-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  17. "শুরু হলো বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ"দৈনিক ইত্তেফাক। ২০১৬-১০-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮ 
  18. "চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ মাঠে গড়াচ্ছে শনিবার"জাগো নিউজ। ২০১৬-১০-২৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৮