২০১৩ সিইসিএএফএ কাপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৩ সিইসিএএফএ কাপ
গোটিভি সিইসিএএফএ কাপ
টুর্নামেন্টের বিবরণ
স্বাগতিক দেশকেনিয়া
তারিখসমূহ২৭ নভেম্বর - ১২ ডিসেম্বর
দলসমূহ১২ (২ টি উপ-কনফেডারেশন থেকে)
ভেন্যু(সমূহ)৬ (৪টি আয়োজক শহরে)
শীর্ষস্থানীয় অবস্থান
চ্যাম্পিয়ন কেনিয়া (৬ষ্ঠ শিরোপা)
রানার-আপ সুদান
তৃতীয় স্থান জাম্বিয়া
চতুর্থ স্থান তানজানিয়া
প্রতিযোগিতার পরিসংখ্যান
ম্যাচ খেলেছে২৬
গোল সংখ্যা৫১ (ম্যাচ প্রতি ১.৯৬টি)
শীর্ষ গোলদাতাসুদান সালাহ ইব্রাহিম
(৫ গোল)

২০১৩ সিইসিএএফএ কাপ (স্পন্সরশীপের কারণে গোটিভি সিইসিএএফএ কাপ নামেও পরিচিত[১]) ছিল সিইসিএএফএ কাপের ৩৭তম বাৎসরিক আয়োজন। একটি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা হিসাবে এ প্রতিযোগিতায় কাউন্সিল ফর ইস্ট এ্যান্ড সেন্ট্রাল আফ্রিকা ফুটবল এসোসিয়েশনের সদস্য দেশসমূহের জাতীয় দলসমূহের অংশগ্রহণ করে থাকে। প্রতিযোগিতাটি ২০১৩ সালের ২৭ নভেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বরে তারিখে কেনিয়ায় অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিযোগিতায় ১২টি জাতীয় দল অংশগ্রহণ করে, যার মধ্যে জাম্বিয়া আমন্ত্রিত দল হিসাবে অংশগ্রণ করেছিল। জিবুতি দ্বিতীয়বারের মত এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে ব্যাথ হওয়ায়, তার স্থানে জাম্বিয়াকে নেওয়া হয়েছিল। প্রতিযোগিতার ঐতিহ্যগত নিয়ম অনুসারে, অংশগ্রহণের জন্য আফ্রিকার অন্য জাতীয় দলকে আমন্ত্রণ জানানো যাবে, যদি সিইসিএএফএ সদস্যদের মধ্যে কেউ অংশগ্রহণ না করে। মালাবি উগান্ডায় অনুষ্ঠিত গত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছিল[২] এবং ২০১১ সালের প্রতিযোগিতায় মালাবি ও জিম্বাবুয়ে অংশ নিয়েছিল। ইরিত্রিয়া টুনার্মেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করার পরে তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়।[৩][৪]

কেনিয়া স্বাগতিক দেশ হিসাবে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন সুদানকে ২-০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করে শিরোপা অর্জন করে। কেনিয়ার পক্ষে এলান ওয়ানগা তিনটি গোল করেন।[৫][৬] প্লে-অফ পদ্ধতিতে জাম্বিয়া তৃতীয় স্থান অর্জন করে। জাম্বিয়া তাঞ্জানিয়াকে ৬-৫ প্লান্টি গোলের ব্যবধানে পরাজিত করে, তার আগে ৯০ মিনিটের খেলায় ১-১ গোলে ড্র হয়।[৭]

পটভূমি ও স্পন্সরশীপ[সম্পাদনা]

২০১২ সালের ২৫ নভেম্বর নিলামের পর স্বাগতিক দেশ হিসাবে কেনিয়ার নাম ঘোষণা করা হয়, যেখানে কেনিয়ার পরই রুয়ান্ডার অবস্থান করছিল।[৮] যাহোক, মরক্কোর মারাক্কেশে কনফেডারেশন অব আফ্রিকান ফুটবল এর কংগ্রেস সম্মেলনের আগ পর্যন্ত স্বাগতিক দেশের নাম নিশ্চিত হয়নি। অবশেষে এ সম্মেলনের পর ২০১৩ সালে ১১ মার্চ ঘোষণা করা হয় যে, কেনিয়া ফুটবল ফেডারেশন সিইসিএএফএ কাপ আয়োজনে প্রস্তুত এবং তাতে কেনিয়া সরকারেরও সমর্থন রয়েছে।[৯] কেনিয়ার রাজধানী শহর নাইরোবি সহ মোম্বাসা, কিসুমু, মাচাকোস এবং নাকুরু পাচঁটি শহরে ছয়টি ভেন্যু নির্বাচন করা হয়।[১০]

২০১২ সালে ২১ নভেম্বর সিইসিএএফএ স্পঞ্জর হিসাবে গোটিভির নাম ঘোষণা করে, কেনীয় শিলিংয়ে অঙ্গীকারাবদ্ধ ছিল। ইভেন্ট পরিচালনা করার জন্য তারা ১১.২৫ মিলিয়ন কেনীয় শিলিং বরাদ্ধ করে। ২৫ মিলিয়ন বরাদ্ধ ছিল ইভেন্টের ২৬টি ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচারের জন্য। এছাড়াও কোকা-কোলা সহযোগী স্পঞ্জর হিসাবে ৬.৫ মিলিয়ন এবং ইউ.এ.পি. ইন্সুরেন্স ৫.৫ মিলিয়ন কেনীয় শিলিং দেওয়া অঙ্গীকার করে।[১][১১][১২]

ইভেন্টে পুরস্কারের জন্য ৮.৭ মিলিয়ন কেনীয় শিলিং (প্রায় ইউএস $ ১০০,০০০ ডলার) বরাদ্ধ ছিল। তার মধ্যে চ্যাম্পিয়ন পুরস্কার ছিল ৬.৫ মিলিয়ন কেনীয় শিলিং, রানার্স আপের জন্য ২.৫ মিলিয়ন এবং তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দলের জন্য ৬০০,০০০ লক্ষ কেনীয় শিলিং দেওয়া হয়।[১২]

অংশগ্রহণকারী দলসমূহ[সম্পাদনা]

১৫ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী দলসমূহের জন্য ড্র অনুষ্ঠিত হয়।[১৩][১৪][১৫] সিইসিএএফএ-এর ১২ সদস্যের পাশাপাশি আইভরিকোস্ট, মালাবিজাম্বিয়াকে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়।[১৬] যাহোক, সিইসিএএফএ আইভরিকোস্টকে আমন্ত্রণ না জানানো সিদ্ধান্ত নেয়।[১৭] মালাবিকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও মালাবি ফুটবল এসোসিয়েশন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ না করা সিদ্ধান্ত জানায়। অবশেষে একমাত্র জাম্বিয়া অংশগ্রহণ করে।[১৮]

নিম্নলিখিত ১২টি দল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য নিশ্চিত করা হয়েছিল[১৪][১৫]:

অফিসিয়াল স্টাফ[সম্পাদনা]

প্রতিযোগিতায় সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য কাউন্সিল ফর ইস্ট এ্যান্ড সেন্ট্রাল আফ্রিকা ফুটবল এসোসিয়েশন ১৮জন অসিফিয়াল কর্মকর্তা নিয়োগ করেন।[১৯][২০][২১]

রেফারি
সহকারি রেফারি

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

গ্রুপ পর্ব ২৭ নভেম্বর শুরু হয়ে ৫ ডিসেম্বর শেষ হয়। ম্যাচগুলি তিন পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হয়; যথাক্রমে ২৭-২৯ নভেম্বর, ৩০-২ ডিসেম্বর এবং ৩-৫ ডিসেম্বর।

যদি দুই বা ততোধিক দলের গ্রুপ ম্যাচ শেষ হওয়ার পরে পয়েন্ট সমান হয়, তবে র‌্যাঙ্কিংয়ে নিম্ন লিখিত মানদণ্ড প্রযোজ্য হবে। (ক্রমিকভাবে সাজানো):

গ্রুপ এ[সম্পাদনা]

এ গ্রুপের খেলা শেষে কেনিয়াইথিওপিয়া একই সমান পয়েন্ট অর্জন করে। ফলে বিজয়ী নির্ধারনের জন্য কয়েন টসের সিদ্ধান্ত হয়, যাতে কেনিয়া এ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়।[২২]

দল খেলা
জয়
ড্র
পরাজয়
স্বগো
বিগো
গোপা
পয়েন্ট
 কেনিয়া +৪
 ইথিওপিয়া +৪
 জাঞ্জিবার −৩
 দক্ষিণ সুদান −৫
২৭ নভেম্বর ২০১৩
জাঞ্জিবার  ২–১  দক্ষিণ সুদান নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম
কেনিয়া  ০–০  ইথিওপিয়া নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম
৩০ নভেম্বর ২০১৩
ইথিওপিয়া  ৩–১  জাঞ্জিবার নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম
দক্ষিণ সুদান  ১–৩  কেনিয়া নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম
৩ ডিসেম্বর ২০১৩
দক্ষিণ সুদান  ০–২  ইথিওপিয়া আফরাহা স্টেডিয়াম
কেনিয়া  ২–০  জাঞ্জিবার আফরাহা স্টেডিয়াম

গ্রুপ বি[সম্পাদনা]

দল খেলা
জয়
ড্র
পরাজয়
স্বগো
বিগো
গোপা
পয়েন্ট
 জাম্বিয়া +৫
 তানজানিয়া +২
 বুরুন্ডি
 সোমালিয়া −৭
২৮ নভেম্বর ২০১৩
বুরুন্ডি  ২–০  সোমালিয়া কেনিয়াতা স্টেডিয়াম
তানজানিয়া  ১–১  জাম্বিয়া কেনিয়াতা স্টেডিয়াম
১ ডিসেম্বর ২০১৩
সোমালিয়া  ০–১  তানজানিয়া নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম
জাম্বিয়া  ১–০  বুরুন্ডি নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম
৪ ডিসেম্বর ২০১৩
তানজানিয়া  ১–০  বুরুন্ডি আফরাহা স্টেডিয়াম
সোমালিয়া  ০–৪  জাম্বিয়া আফরাহা স্টেডিয়াম

গ্রুপ সি[সম্পাদনা]

দল খেলা
জয়
ড্র
পরাজয়
স্বগো
বিগো
গোপা
পয়েন্ট
 উগান্ডা +৫
 সুদান +৩
 রুয়ান্ডা −১
 ইরিত্রিয়া −৭
২৯ নভেম্বর ২০১৩
সুদান  ৩–০  ইরিত্রিয়া কেনিয়াতা স্টেডিয়াম
উগান্ডা  ১–০  রুয়ান্ডা নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম
২ ডিসেম্বর ২০১৩
সুদান  ১–০  রুয়ান্ডা নাইরোবি সিটি স্টেডিয়াম
ইরিত্রিয়া  ০–৩  উগান্ডা নাইরোবি সিটি স্টেডিয়াম
৫ ডিসেম্বর ২০১৩
রুয়ান্ডা  ১–০  ইরিত্রিয়া কেনিয়াতা স্টেডিয়াম
উগান্ডা  ১–০  সুদান নিয়ায়ো জাতীয় স্টেডিয়াম

তৃতীয় স্থান বাছাই পর্ব[সম্পাদনা]

গ্রুপ পর্বে বিজয়ী ও রানার্স আপ ছাড়াও দুটি সেরা তৃতীয় স্থানের দল নকআউট পর্বের জন্য নির্বাচন করা হয়।

দল খেলা
জয়
ড্র
পরাজয়
স্বগো
বিগো
গোপা
পয়েন্ট
 বুরুন্ডি
 রুয়ান্ডা −১
 জাঞ্জিবার −৩

নকআউট পর্ব[সম্পাদনা]

কোয়াটার ফাইনাল দিয়ে নকআউট পর্ব শুরু হয় ৭ ডিসেম্বর এবং ফাইনালের মাধ্যমে শেষ হয় ১২ ডিসেম্বর। এ পর্বে এক গ্রুপের বিজয়ী অন্য গ্রুপের দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারীর সাথে লড়াই করে। সেমি-ফাইনালে পরাজিত দুই দল তৃতীয় স্থানের জন্য আরেকটি প্লে-অফ ম্যাচ খেলে।

ব্রাকেট[সম্পাদনা]

কোয়ার্টার-ফাইনাল সেমি-ফাইনাল ফাইনাল
                   
৭ ডিসেম্বর        
  উগান্ডা  ২ (২)
১০ ডিসেম্বর
  তানজানিয়া (pen.)  ২ (৩)  
  তানজানিয়া  ০
৭ ডিসেম্বর
    কেনিয়া    
  কেনিয়া  
১২ ডিসেম্বর
  রুয়ান্ডা  ০  
  কেনিয়া  
৮ ডিসেম্বর
    সুদান  ০
  জাম্বিয়া (pen.)  ০ (৪)
১০ ডিসেম্বর
  বুরুন্ডি  ০ (৩)  
  জাম্বিয়া  ১ তৃতীয় স্থান
৮ ডিসেম্বর
    সুদান    
  ইথিওপিয়া  ০   তানজানিয়া  ১ (৫)
  সুদান       জাম্বিয়া (pen.)  ১ (৬)
১২ ডিসেম্বর

কোয়াটার ফাইনাল[সম্পাদনা]

কোয়াটার ফাইনালের ম্যাচসমূহ ৭-৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়।

দল ১  স্কোর  দল ২
উগান্ডা  ২–২ (২–৩ p)  তানজানিয়া
কেনিয়া  ১–০  রুয়ান্ডা
জাম্বিয়া  ০–০ (৪–৩ p)  বুরুন্ডি
ইথিওপিয়া  ০–২  সুদান

সেমি-ফাইনাল[সম্পাদনা]

সেমি-ফাইনাল ১০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়।

দল ১  স্কোর  দল ২
তানজানিয়া  ০–১  কেনিয়া
জাম্বিয়া  ১–২ (a.e.t.)  সুদান

তৃতীয়স্থান নির্ধারনী ম্যাচ[সম্পাদনা]

ফাইনাল[সম্পাদনা]


 ২০১৩ সিইসিএএফএ কাপ চ্যাম্পিয়ন 
কেনিয়া-এর পতাকা
কেনিয়া
৬ষ্ঠ শিরোপা

গোলস্কোর[সম্পাদনা]

৫ গোল
৩ গোল
২ গোল
১ গোল
১ আত্মঘাতী গোল
  • ইথিওপিয়া সালাদিন বারগিচো (সুদানের বিপক্ষে খেলতে)

ফাইনাল র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

শীর্ষ চার দল ছাড়া, গ্রুপ পর্বের একই টাই-ব্রেকিং মানদণ্ড ব্যবহার দলসমূহের র‌্যাঙ্কিং বা অবস্থান দেয়া হয়।

অব. দল খেলা ড্র হা পয়েন্ট স্বগো বিগো গোপা
 কেনিয়া ১৬ +৮
 সুদান ১২ +৪
 জাম্বিয়া +৪
 তানজানিয়া +১
গ্রুপ পর্যায়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী
 উগান্ডা ১০ +৫
 ইথিওপিয়া +২
 বুরুন্ডি
 রুয়ান্ডা -২
গ্রুপ পর্বে বিদায় হওয়া দল
 জাঞ্জিবার -৩
১০  দক্ষিণ সুদান -৫
=১১  ইরিত্রিয়া -৭
=১১  সোমালিয়া -৭
মোট ২৬(১) ২১ (২) ২০ ৭৩ ৪৯ ৪৯
১২ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখের খেলা শেষে হালনাগাদকৃত। বাঁকা অক্ষরে লেখা দল(গুলি) স্বাগতিক জাতি(গুলি) কে প্রতিনিধিত্ব করে।
(১) – মোট খেলেছে গণনায় মোট খেলা হার গণনা করা হয়নি (মোট খেলা হার = মোট খেলা জয়)
(২) – সব দলের ড্র (টাই) হওয়া খেলার মোট সংখ্যা = খেলা ড্র হওয়ার মোট সংখ্যা (টাই) ÷ ২ (উভয় দল জড়িত)
(৩) – ফুটবল পরিসংখ্যানের প্রচলিত রীতি অনুযায়ী, অতিরিক্ত সময়ে নিস্পত্তি হওয়া ম্যাচ জয় এবং হার হিসাবে গণনা করা হয়েছে, অন্যদিকে পেনাল্টি শুট-আউটে নিস্পত্তি হওয়া ম্যাচ ড্র হিসেবে ধরা হয়েছে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ismael Kiyonga (২১ নভেম্বর ২০১৩)। "GOtv unveiled as 2013 CECAFA Cup Official Sponsors"। Kawowo Sports। ২ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৩ 
  2. Elijah Phimbi (৬ নভেম্বর ২০১২)। "Malawi official invited to CECAFA Cup in Uganda"Nyasa Times। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১২ 
  3. Grace Chingoma (১৬ নভেম্বর ২০১১)। "Warriors get Cecafa invitation"The Herald। Zimbabwe। সংগ্রহের তারিখ ২০ নভেম্বর ২০১১ 
  4. "Zimbabwe replaces Namibia for CECAFA Cup"। Star Africa। ২৫ নভেম্বর ২০১১। ১ ডিসেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ নভেম্বর ২০১১ 
  5. Patrick Korir (১২ ডিসেম্বর ২০১৩)। "Kenya @50; Harambee Stars wins the 2013 CECAFA senior challenge Cup"। Futaa.com। ১২ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৩ 
  6. "Kenya victorious over Sudan 2:0 in CECAFA 2013"Radio Dabanga। ১২ ডিসেম্বর ২০১৩। ১২ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৩ 
  7. Brian Moseti (১২ ডিসেম্বর ২০১৩)। "GOtv CECAFA: Zambia beat Tanzania to emerge third"। Futaa.com। ১৭ আগস্ট ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ 
  8. Fred Maingi (২৫ নভেম্বর ২০১২)। "Kenya to host 2013 Cecafa Challenge Cup"StarAfrica (ইংরেজি ভাষায়)। ৭ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৫ 
  9. Dennis Mabuka (১১ মার্চ ২০১৩)। "Kenya wins bid to host 2013 Cecafa tournament"Goal.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৫ 
  10. Ismael Kiyonga (১ অক্টোবর ২০১৩)। "2013 Cecafa Senior Challenge Cup Kicks Off November 27"Kawowo Sports (ইংরেজি ভাষায়)। Uganda। ৪ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ অক্টোবর ২০১৩ 
  11. Otieno Otieno (২১ নভেম্বর ২০১৩)। "Cecafa unveil GOtv as title sponsors for tournament" (ইংরেজি ভাষায়)। Goal.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৩ 
  12. Dennis Machio (২১ নভেম্বর ২০১৩)। "Gotv officially unveiled as CECAFA title Sponsors" (ইংরেজি ভাষায়)। MichezoAfrika.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৩ 
  13. Wilson Mathu (১২ নভেম্বর ২০১৩)। "CECAFA 2013 set for official launch" (ইংরেজি ভাষায়)। Futaa.com। ১৪ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  14. Wilson Mathu (১৫ নভেম্বর ২০১৩)। "CECAFA: Stars', Cranes land different groups" (ইংরেজি ভাষায়)। Futaa.com। ২৮ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  15. "Rivals Kenya, Uganda kept apart in Cecafa draw" (ইংরেজি ভাষায়)। KPL.co.ke। ১৫ নভেম্বর ২০১৩। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  16. "CECAFA to invite Malawi, Zambia and Ivory Coast for 2013 Senior Challenge Cup" (ইংরেজি ভাষায়)। CAF Online। ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৩। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  17. Dan Ngulu (১২ অক্টোবর ২০১৩)। "CECAFA 2013: No Ivory Coast show" (ইংরেজি ভাষায়)। Futaa.com। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  18. Agencies (১০ অক্টোবর ২০১৩)। "Malawi pulls out of Cecafa Senior Challenge Cup"Nyasa Times (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ নভেম্বর ২০১৩ 
  19. "CECAFA select referees for 2013 Challenge Cup"। MTNFootball.com। ১২ নভেম্বর ২০১৩। ৩ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৩ 
  20. Wilson Mathu (২৫ নভেম্বর ২০১৩)। "GOtv CECAFA list of referees released"। Futaa.com। ৩ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৩ 
  21. Dan Ngulu (২৭ নভেম্বর ২০১৩)। "Two referees sent packing"। Futaa.com। ৩০ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৩ 
  22. Dan Ngulu (৫ ডিসেম্বর ২০১৩)। "Kenya wins Group A toss"। Futaa.com। ১১ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ডিসেম্বর ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]