১৯৯৮ আইসিসি নক-আউট ট্রফি ফাইনাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
১৯৯৮ উইলস ইন্টারন্যাশনাল কাপ ফাইনাল
ওয়েস্ট ইন্ডিজ দক্ষিণ আফ্রিকা
ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ দক্ষিণ আফ্রিকা
২৪৫/১০ ২৪৮/৬
৪৯.৩ ওভার ৪৭.০ ওভার
তারিখ১ নভেম্বর ১৯৯৮
মাঠবঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, ঢাকা, বাংলাদেশ
আম্পায়ারস্টিভ ডান এবং ডেভিড শেফার্ড

১৯৯৮ আইসিসি নকআউট ট্রফি ফাইনাল (ইংরেজি: 1998_ICC_KnockOut_Trophy_Final) ১ নভেম্বর ১৯৯৮ সালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। ১ম সেমিফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকা ৯২ রানে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে উত্তীর্ণ হয়। অপরদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় সেমিফাইনালে ভারতকেউইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উত্তীর্ণ হয়।[১]

চূড়ান্ত খেলায় দক্ষিণ আফ্রিকা ১৮ বল বাকী রেখে ৪ উইকেটের ব্যবধানে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পরাভূত করে চ্যাম্পিয়ন হয়।[২]

বিবরণ[সম্পাদনা]

ওয়েস্ট ইন্ডিজ 
২৪৫/১০ (৪৯.৩ ওভার)
বনাম
 দক্ষিণ আফ্রিকা
২৪৮/৬ (৪৭.০ ওভার)
ফিলো ওয়ালেস ১০৩ (১০২)
জ্যাক ক্যালিস ৫/৩০ (৭.৩ ওভার)
হানসি ক্রনিয়ে ৬১* (৭৭)
ফিল সিমন্স ২/৪৫ (৮ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৪ উইকেটে বিজয়ী
বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, ঢাকা
আম্পায়ার: স্টিভ ডান (নিউজিল্যান্ড) এবং ডেভিড শেফার্ড (ইংল্যান্ড)
ম্যাচ সেরা খেলোয়াড়: জ্যাক ক্যালিস (দক্ষিণ আফ্রিকা)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা টসে জয়ী হয় এবং ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়।

পরবর্তী ঘটনা[সম্পাদনা]

দক্ষিণ আফ্রিকান দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য ১০০,০০০ ডলার এবং একটি ট্রফি পেয়েছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ট্রফি ও নগদ পুরস্কার তুলে দেন। ক্রোনিয়ে বলেছেন: "এই কঠিন টুর্নামেন্ট জিততে পেরে ভালো লাগছে। এই নক-আউট ফরম্যাটে দ্বিতীয়বার কোনো সুযোগ ছিল না, তাই আমি মনে করি আমরা তিনটি ভালো ম্যাচ খেলে ভালো করেছি। আমরা জানতাম যে আমরা সেখানে শীর্ষে ছিলাম, কিন্তু এটা নতুন করে হয়েছে।" আগামী বছরের বিশ্বকাপের জন্য আমাদের আত্মবিশ্বাস।" ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান দল রানার্স আপ হওয়ার জন্য ৬০,০০০ ডলার পেয়েছে। লারা বলেছেন: "অনেকেই আশা করেনি যে আমরা ফাইনালে পৌঁছব কিন্তু আমরা দেখিয়েছি যে আমরা এর জন্য যথেষ্ট ভালো ছিলাম। আমি খুশি ছেলেরা শেষ অবধি লড়াই করেছে, এটি একটি খুব ঘনিষ্ঠ খেলা ছিল। এটি আপনার সুযোগ নেওয়ার জন্য এবং দক্ষিণ আফ্রিকানরা গ্রহণ করেছিল। তারা ভালো এবং জয়ের যোগ্য।"

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]