হেমেন্দ্রকুমার রায়ের সাহিত্যকর্মের তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

সাহিত্যিক হেমেন্দ্রকুমার রায়-এর (১৮৮৮ - ১৯৬৩) সাহিত্যকর্মের একটি তালিকা নিচে প্রদত্ত হল।[১]

উপন্যাস[সম্পাদনা]

  • আলেয়ার আলো (১৯১৯)
  • জলের আল্পনা (১৯২০)
  • কালবৈশাখী (১৯২১)
  • পায়ের ধুলো (১৯২২)
  • রসকলি (১৯২৩)
  • ঝড়ের রাত্রি (১৯৩০)
  • পদ্ম-কাঁটা (১৯২৬)

অন্যান্য উপন্যাসগুলি হল: ফুলশয্যা, পরীর প্রেম, মণিকাঞ্চন, পথের মেয়ে, মণিমালিনীর গলি, পঞ্চশরের কীর্তি ইত্যাদি।

কিশোর উপন্যাস[সম্পাদনা]

নাম প্রকাশের বছর টীকা
মায়াকানন ১৯২৩
বিজয়া ১৯২৯
ময়নামতীর মায়াকানন ১৯৩০ ফ্যান্টাসি উপন্যাস, রোমাঞ্চকর উপন্যাস
যকের ধন ১৯৩০ রোমাঞ্চকর উপন্যাস (বিমল-কুমার সিরিজ)
যাদের নামে সবাই ভয় পায় ১৯৩২ ভৌতিক গল্পের সংকলন
মেঘদূতের মর্ত্যে আগমন ১৯৩৩ বিজ্ঞান কল্পকাহিনী, রোমাঞ্চকর উপন্যাস
আবার যকের ধন ১৯৩৩ রোমাঞ্চকর উপন্যাস (কুমার-বিমল সিরিজ)
আজব দেশে অমলা ১৯৩৪ লুইস ক্যারল-এর অ্যালিস'স অ্যাডভেনচার্স ইন ওয়ান্ডারল্যান্ড এর অনুবাদ
কিং কং ১৯৩৪ কিং কং গল্পের অনুপ্রেরণায়
মানুষের গন্ধ পাঁউ ১৯৩৪ ভৌতিক গল্পের সংকলন
সন্ধ্যার পরে সাবধান ১৯৩৪ ভৌতিক গল্পের সংকলন
অদৃশ্য মানুষ ১৯৩৫ এইচ. জি. ওয়েলস'এর দি ইনভিসিবল ম্যান এর অনুবাদ
হিমালয়ের ভয়ঙ্কর ১৯৩৫
রক্তবাদল ঝরে ১৯৩৬
জয়ন্তর কীর্তি ১৯৩৭
অসম্ভবের দেশ ১৯৩৭
পদ্মরাগ বুদ্ধ ১৯৩৮
অমাবস্যার রাত ১৯৩৯
ড্রাগনের দুঃস্বপ্ন ১৯৩৯
মড়ার মৃত্যু ১৯৩৯ ভৌতিক উপন্যাস
মানুষ-পিশাচ ১৯৩৯ ভৌতিক উপন্যাস
মানুষের প্রথম অ্যাডভেঞ্চার ১৯৩৯
অমৃত দ্বীপ ১৯৪০
ছায়াকায়ার মায়াপুরে ১৯৪০ পাঁচটি ছোটগল্পের সংকলন

সূচী:
১. "দীঘির মাঠে বাংলো" (ভৌতিক গল্প)
২. "পিশাচ" (গোয়েন্দা গল্প)
৩. "ভীমডাকাতের বট" (ভৌতিক গল্প)
৪. "ডালিয়ার অপমৃত্যু" (গোয়েন্দা গল্প)
৫. "অগাধ জলের রুই-কাতলা" (গোয়েন্দা গল্প)

আধুনিক রবিনহুড ১৯৪০ ছোটগল্পের সংকলন
অন্ধকারের বন্ধু ১৯৪১ গোয়েন্দা উপন্যাস (হেমন্ত-রবিন সিরিজ)
ভয় দেখানো ভয়ংকর ১৯৪১
জেরিনার কণ্ঠহার ১৯৪১
ভারতের দ্বিতীয় প্রভাতে ১৯৪১ ঐতিহাসিক উপন্যাস
মুখ ও মুখোশ ১৯৪২ গোয়েন্দা উপন্যাস (হেমন্ত-রবিন সিরিজ)
ভুত আর অদ্ভুত ১৯৪৩
যশপতির রত্নপুরী ১৯৪৩
সূর্যনগরীর গুপ্তধন ১৯৪৪
মধুচ্ছত্র ১৯৪৪
মানুষের গড়া দৈত্য ১৯৪৪ মেরি শেলির ফ্রাঙ্কেনস্টাইনের আধারিত অনুবাদ
রহস্যের আলোছায়া ১৯৪৪
তারা তিন বন্ধু ১৯৪৫
  • বজ্রভৈরবের গল্প (১৯৪৬)
  • দেড়শো খোকার কাণ্ড (১৯৪৭)
  • মোহন মেলা (১৯৪৭)
  • ভগবানের চাবুক (১৯৪৭)
  • সুন্দরবনের রক্তপাগল (১৯৪৭)
  • হত্যা এবং তারপর (১৯৪৭)
  • মৃত্যুমল্লার (১৯৪৮)
  • সুলু-সাগরের ভুতুড়ে দেশ (১৯৪৮)
  • অজানা দ্বীপের রাণী (১৯৪৮)
  • মোহনপুরের শ্মশান (১৯৪৯)

শেরিডন লে ফানুর একটি গল্প থেকে অনুবাদ

  • কুমারের বাঘা গোয়েন্দা (১৯৪৯)
  • বিশালগড়ের দুঃস্বপ্ন (১৯৪৯)

ব্রাক স্টোকারের ড্রাকুলার অনুবাদ

  • ছোট্ট পমির অভিযান (১৯৪৯)
  • সুন্দরবনের রক্তপাগল (১৯৫০)
  • অমানুষিক মানুষ (১৯৫০)
  • কাউন্ট অব মন্টে ক্রিস্টো (১৯৫১)

আলেকজান্ডার ডুমাস'এর একই নামের একটি গল্প থেকে অনুবাদ

  • আলো দিয়ে গেল যারা (১৯৫২)
  • নবযুগের মহাদানব (১৯৫২)
  • পবন (১৯৫২)
  • গুপ্তধনের দুঃস্বপ্ন (১৯৫২)
  • তপোবন (১৯৫২)
  • হিমাচলের স্বপ্ন (১৯৫২)
  • সত্যিকার শার্লক হোমস্ (১৯৫৩)
  • বাঘরাজার অভিযান (১৯৫৪)
  • দিগ্বিজয়ী নেপোলিয়ন (১৯৫৬)
  • চতুর্ভুজের স্বাক্ষর (১৯৫৬)
  • ছত্রপতির ছোরা (১৯৫৭)
  • নিশাচরী বিভীষিকা (১৯৫৭)

লেজলি চার্টারিস'এর পুরো সেন্ট থেকে অনুবাদ

  • আলেকজান্ডার দি গ্রেট (১৯৫৭)
  • ছোটদের শ্রেষ্ঠ গল্প (১৯৫৮)
  • শাজাহানের ময়ূর (১৯৫৮)
  • বিভীষণের জাগরণ (১৯৫৯)
  • জয়ন্তর অ্যাডভেন্চার (১৯৫৯)
  • গোয়েন্দা, ভূত ও মানুষ (১৯৫৯)
  • চলো গল্প নিকেতনে (১৯৬০)


  • রুনু-তুনুর অ্যাডভেন্চার (১৯৬০)
  • ইতিহাসের রক্তাক্ত প্রান্তরে (১৯৬১)
  • হে ইতিহাস গল্প বলো (১৯৬১)
  • কুবেরপুরীর রহস্য (১৯৬১)
  • ছোটদের ভালো ভালো গল্প (১৯৬১)
  • রাত্রির যাত্রী (১৯৬১)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ভট্টাচার্য গোস্বামী, মহুয়া (২০১১)। বাংলা শিশু-কিশোর সাহিত্যের ইতিহাস ও বিবর্তন: ১৯৫০-২০০০ (১ম সংস্করণ)। কলকাতা: পত্রলেখা। পৃষ্ঠা ৭৬–৭৭।