হেমায়েত বাহিনী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

হেমায়েত বাহিনী ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে স্বাধীনতার স্বপক্ষে গঠিত একটি সশস্ত্র গেরিলা দল।[১] এই সশস্ত্র গেরিলা বাহিনীটির নেতা ছিলেন হেমায়েত উদ্দিন, বীর বিক্রম[২] মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে এই বাহিনীটির সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কর্মের জন্য পাকিস্তানী বাহিনী সর্বদা ভীত-সন্ত্রস্ত থাকতো; এবং সাধারণ্যে এটি পরিচিতি লাভ করে নেতার নামানুসারে “হেমায়েত বাহিনী” হিসাবে।[৩]

গঠন[সম্পাদনা]

এই বাহিনীটি ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের সৈনিক হেমায়েত উদ্দিনের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ শুরুর পর পরই নানা বাহিনীর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কজনকে নিয়ে গঠিত হয় ছোট্ট পরিসরে।[৩]

যুদ্ধসমূহ[সম্পাদনা]

২৮ মার্চ, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের একদম শুরুতেই হেমায়েত উদ্দিনের নেতৃত্বে ১৭ জন গেরিলা জয়দেবপুর ক্যান্টনমেন্ট আক্রমন করে অস্ত্র ও গোলাবারুদ সংগ্রহ করে গোপালগঞ্জের টুপুরিয়া গ্রামে ফিরে যান।[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "মুক্তিযোদ্ধা হেমায়েত উদ্দিন বীর বিক্রম আর নেই"জাগোনিউজ২৪.কম অনলাইন। ২২ অক্টোবর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  2. "হেমায়েত বাহিনীর সাহসিকতায় মুক্ত হয়েছিল কোটালীপাড়া"বাংলা ট্রিবিউন অনলাইন। ৩ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "পাকিস্তানি সেনা ছাউনিতে মূর্তিমান আতঙ্কের নাম ছিল হেমায়েত বাহিনী"বিডি টুডে অনলাইন। ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]