হিলদুর গুদনাদোত্তির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হিলদুর গুদনাদোত্তির
Hildur Guðnadóttir (cropped).jpg
২০০৭ সালে হিলদুর গুদনাদোত্তির
প্রাথমিক তথ্য
স্থানীয় নামHildur Guðnadóttir
জন্ম (1982-09-04) ৪ সেপ্টেম্বর ১৯৮২ (বয়স ৩৯)
রেইকিয়াভিক, আইসল্যান্ড
ধরনচলচ্চিত্রের সঙ্গীত
পেশা
  • সুরকার
  • সঙ্গীতজ্ঞ
বাদ্যযন্ত্রসমূহ
  • চেলো
  • সিম্বাল
লেবেলটাচ
সহযোগী শিল্পীইয়োহান ইয়োহানসন
সুন ও)))
ওয়েবসাইটhildurness.com

হিলদুর ইংভেলদারদোত্তির গুদনাদোত্তির (আইসল্যান্ডীয়: Hildur Guðnadóttir, হিলদ্যুর গ্যুদনাদৌত্তির; জন্ম ৪ সেপ্টেম্বর ১৯৮২) একজন আইসল্যান্ডীয় সঙ্গীতজ্ঞ ও সুরকার। ধ্রুপদী চেলোবাদক হিসেবে প্রশিক্ষিত গুদনাদোত্তির প্যান সোনিক, থ্রোবিং গ্রিস্টল, মাম ও স্ত্রোর্সভেইত নিক্স নল্টেস সঙ্গীত দলের সাথে চেলো বাজিয়ে থাকেন ও গান রেকর্ড করে থাকেন। তিনি অ্যানিমেল কালেক্টিভ এবং সুন ও সঙ্গীত দলের সাথে সঙ্গীত সফর করেছেন। তিনি এককভাবেও সুর সৃষ্টি করেছেন।

হিলদুর চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনে সুরারোপ করে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পরিচিতি অর্জন করেন। তার উল্লেখযোগ্য কাজগুলো হল মারপিটধর্মী উত্তেজনাপূর্ণ চলচ্চিত্র সিকারিও: ডে অব দ্য সোলদাদো (২০১৮) এবং এইচবিওর মিনি ধারাবাহিক চেরনোবিল (২০১৯)। চেরনোবিল-এ তার কাজের জন্য তিনি একটি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার, একটি বাফটা পুরস্কার ও একটি গ্র্যামি পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১৯ সালে তিনি মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলার চলচ্চিত্র জোকার-এর সুরারোপের জন্য শ্রেষ্ঠ মৌলিক সুর বিভাগে একাডেমি পুরস্কার অর্জন করেন।[১] এছাড়া তিনি এই কাজের জন্য শ্রেষ্ঠ মৌলিক সুর বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার[২]শ্রেষ্ঠ মৌলিক সঙ্গীত বিভাগে বাফটা পুরস্কার অর্জন করেন, যার ফলে তিনি এই দুটি পুরস্কার বিজয়ী প্রথম একক নারী সুরকার।[৩][৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "অস্কার ২০২০: একনজরে পুরো বিজয়ী তালিকা"বাংলা ট্রিবিউন। ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  2. "'জোকার' জ্বরে গোল্ডেন গ্লোব ২০২০"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ৬ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  3. কৌর, হারমিত। "The 'Joker' composer is the first solo woman to win a Golden Globe for best original score"সিএনএন। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  4. "'Joker' composer Hildur Guðnadóttir is first solo female to win Best Original Music BAFTA"ক্লাসিক এফএম (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]