হিরো (১৯৮৭-এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হিরোঃ দ্য অফিসিয়াল ফিল্ম অব দ্য ১৯৮৬ ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ
চলচ্চিত্রের ডিভিডি প্রচ্ছদ
চলচ্চিত্রের ডিভিডি প্রচ্ছদ
পরিচালকটনি মেলাম
প্রযোজকড্রুমন্ড ক্যালিস
লি স্টার্ন
বর্ণনাকারীমাইকেল কেইন
সুরকাররিক ওয়েকম্যান
মুক্তি
  • ২ জুলাই ১৯৮৭ (1987-07-02)
দৈর্ঘ্য৮৬ মিনিট
দেশযুক্তরাজ্য
ভাষাইংরেজি

'হিরোঃ দ্য অফিসিয়াল ফিল্ম অব দ্য ১৯৮৬ ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ' ১৯৮৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ইংরেজি ভাষার ক্রীড়া বিষয়ক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র। প্রামাণ্যচিত্রটি ১৯৮৬ সালের ফিফা বিশ্বকাপ নিয়ে ফুটবল খেলার বিশ্ব নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা'র তত্ত্ববধায়নে নির্মিত আনুষ্ঠানিক তথ্যচিত্র। ওয়ার্ল্ডমার্ক সকার ইন্টারন্যাশনালের ব্যানারে ড্রুমন্ড ক্যালিস ও লি স্টার্ন প্রযোজিত চলচ্চিত্রটির পরিচালক ছিলেন টনি মেলাম। সম্পূর্ণ চলচ্চিত্রটি মাইকেল কেইন কর্তৃক বর্ণিত। চলচ্চিত্রটি মূলত ঐ প্রতিযোগিতায় দিয়েগো মারাদোনার নিপুণ ক্রীড়াকৌশল প্রদর্শনকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। দিয়েগো'র নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দল ১৯৮৬ সালের ফিফা বিশ্বকাপ জয় করেছিল। পরিপ্রেক্ষিতে, চলচ্চিত্রটি আর্জেন্টিনায় সবচেয়ে বেশি দর্শকপ্রিয় হয় এবং সাফল্য পায়।[১] চলচ্চিত্রটি ইংল্যান্ডের একশ্রেনীর ফুটবল প্রেমীদের কাছে 'সর্বসময়ের সেরা' মর্যাদা পেয়েছে।[১]

বিশেষত্ব[সম্পাদনা]

হিরো ১৯৮৬ সালে মেক্সিকোতে আয়োজিত ফিফা বিশ্বকাপের উল্লেখযোগ্য খেলাগুলির সরাসরি ধারণকৃত দৃশ্য নিয়ে মাইকেল কেইনের বর্ণনায় নির্মিত। ১৯৮৫ সালের ৮.৩ মাত্রার ভূমিক্মপের ক্ষয়-ক্ষতি কাটিয়ে আট মাসের মধ্যে একটি বিশ্বমানে ক্রীড়াপ্রতিযোগিতা আয়োজনে মেক্সিকো'র দক্ষতা বর্ণনার মাধ্যমে চলচ্চিত্রটি সূচনা করা হয়। চলচ্চিত্রে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনার অধিনায়ক দিয়েগো মারাদোনার রেফারির চোখ ফাঁকি দিয়ে হাত দিয়ে করা, 'হ্যান্ড অব গড' নামে পরিচিত বিতর্কিত গোল এবং 'শতাব্দীর সেরা গোল', সম্পূর্ণ বিশ্বকাপে দিয়োগো'র একক নেতৃত্ব ও নিপুণ ক্রীড়ার প্রদর্শন সর্বোপোরি আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতানোয় তার ভূমিকা দেখানো হয়েছে।[১] খেলার পাশাপাশি খেলা শেষে ড্রেসিং রুমে খেলোয়াড়দের আনন্দ প্রকাশ, দর্শকদের উম্মাদনা দেখানো হয়েছে। তথ্যমূলক ধারাভাষ্যের পাশাপাশি রিক ওয়েকম্যান রচিত ও সুরারোপিত, স্টেফানি লরেন্সের গাওয়া ঐ বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক সঙ্গীত এ স্পেশাল কাইন্ড অব হিরো চলচ্চিত্রটির সমাপনীতে দৃশ্যে সংযোজিত রয়েছে।[২]

মুক্তি[সম্পাদনা]

হিরো ১৯৮৭ সালের ২ জুলাই ইংল্যান্ডে মুক্তি পায়। চলচ্চিত্রটি পরবর্তীতে ভিডিও ক্যাসেট/ডিভিডিতে বাণিজ্যিকভাবে প্রকাশিত হয়। দিয়েগো মারাদোনার মৃত্যুর পর ফিফা তাদের আনুষ্ঠানিক ইউটিউব চ্যানলে চলচ্চিত্রটি উম্মুক্ত করে দেয়।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. FIFA World Cup Film Collection ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২১ জুন ২০১৮ তারিখে, FIFAFilms.com. Accessed 10 July 2008.
  2. "Worldcup Greatest Hits Collections [Offical + Bonus] » File Archive Download Free from RapidShare, Megaupload, HotFile. Music, Software, Application, Films, Movies, Video, Games, E-books, Crack, Keygen, Serials, Patch"web.archive.org। ২০১০-০৬-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-২৮ 
  3. "1986 FIFA World Cup | The Official Film"ফিফা। ২০২০-১১-২৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-২৮ইউটিউব-এর মাধ্যমে। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]