হাসান শাহরিয়ার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হাসান শাহরিয়ার
হাসান শাহরিয়ার.jpeg
হাসান শাহরিয়ার
জন্ম(১৯৪৬-০৪-২৫)২৫ এপ্রিল ১৯৪৬
মৃত্যু১০ এপ্রিল ২০২১(2021-04-10) (বয়স ৭৪)
জাতীয়তাবাংলাদেশি

হাসান শাহরিয়ার (২৫ এপ্রিল ১৯৪৬ - ১০ এপ্রিল ২০২১[১]) একজন বাংলাদেশী সাংবাদিক, কলামিস্ট এবং রাজনৈতিক বিশ্লেষক। [২] এই বিশিষ্ট সাংবাদিক। তিনি বাংলাদেশের জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ছিলেন। সাংবাদিকতায় তিনি কোনও নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দল বা মতামতের প্রতি ঝুঁকি না দিয়ে নিজের লেখায় সর্বদা ভারসাম্য বজায় রেখেছেন।

জীবনী[সম্পাদনা]

প্রাথমিক ও শিক্ষা জীবন[সম্পাদনা]

শাহরিয়ার বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের একটি জেলা সুনামগঞ্জে ১৯৪৬ সালের ২৫ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

শাহরিয়ার দীর্ঘদিন দৈনিক ইত্তেফাককে নির্বাহী সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। [২] তিনি ডেইলি সানের প্রথম সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম ভিত্তিক ডেইলি পিপলস ভিউয়ের প্রধান সম্পাদক ছিলেন। তিনি আন্তর্জাতিক নিউজ ম্যাগাজিন নিউজউইক, দুবাইয়ের খালিজ টাইমস, ভারতের ডেইলি ডেকান হেরাল্ড, দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এবং দ্য এশিয়ান এজ, পাকিস্তানের মর্নিং নিউজ, ডন এবং ইভনিং স্টারের বাংলাদেশ সংবাদদাতা ছিলেন।

বাংলাদেশের একাত্তরের স্বাধীনতার আগে তিনি পাকিস্তানের করাচিতে স্টাফ রিপোর্টার হিসাবে কাজ করেছিলেন।

১৯৭৮ সালে তিনি কমনওয়েলথ প্রেস ইউনিয়ন (সিপিইউ) দ্বারা মর্যাদাপূর্ণ হ্যারি ব্রিটান ফেলোশিপ লাভ করেছিলেন। পাঁচ মাসের এই কোর্সে অগ্রিম সাংবাদিকতা, ব্রিটিশ সংবাদপত্র টেলিগ্রাফের সংযুক্তি এবং ব্র্যাডফোর্ডের আরগাস এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এলিজাবেথ হাউজের প্রশিক্ষণ অন্তর্ভুক্ত ছিল।

দক্ষিণ এশিয়ার বিষয় বিশ্লেষক হিসেবে পরিচিত শাহরিয়ার ভারত, পাকিস্তান, নেপাল এবং শ্রীলঙ্কার রাজনীতি নিয়ে অগণিত সংখ্যক গভীর এবং বিশ্লেষণমূলক প্রতিবেদন লিখেছেন। তার প্রতিবেদনসমূহে তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী, পিভি নরসিমহা রাও, এবং চন্দ্র শেখর সহ ব্যক্তিত্বদের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন; কাশ্মীরি নেতা শেখ আবদুল্লাহ ; পাকিস্তানি নেতা জুলফিকার আলী ভুট্টো, জিয়াউল হক, বেনজির ভুট্টো এবং নওয়াজ শরীফ ; কম্বোডিয়ান নেতা প্রিন্স নরডোম সিহানুক, জাপানের প্রধানমন্ত্রী তোশিকি কাইফু, নোবেল বিজয়ী মাদার তেরেসা এবং ক্রিকেটার ইমরান খান ছিলেন।

শাহরিয়ার টরন্টো ভিত্তিক কমনওয়েলথ জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশনের (সিজেএ) প্রেসিডেন্ট ইমেরিটাস ছিলেন। [৩] তিনি এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগর থেকে প্রথম সাংবাদিক যিনি ২০০৩সালে এই সংস্থার সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি ২০০৮ সালে পুনরায় নির্বাচিত হয়ে ২০১২ সালে অবসর গ্রহণ করেন। [৪] তিনি ১৯৯৭ থেকে ২০০৩ পর্যন্ত সিজেএর সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি বাংলাদেশের জাতীয় প্রেস ক্লাব, বিদেশী সংবাদদাতা সমিতি বাংলাদেশ (ওসিএবি) এবং সাউথ এশিয়া প্রেসক্লাব অ্যাসোসিয়েশন (এসএপিসিএ) এবং কমনওয়েলথ সাংবাদিক সমিতি অ্যাসোসিয়েশন অধ্যায়ের সভাপতি নির্বাচিত হন। [২]

শাহরিয়ার অনেক জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানকে কভার করেছেন এবং দেশ বিদেশে সেমিনারে অংশ নিয়েছেন। তিনি ইয়েমেনের সানায় অনুষ্ঠিত জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ (ইউএনজিএ) এবং ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলন সহ অনেক ফোরামে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন।

তিনি প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ (পিআইবি), নিউজ নেটওয়ার্ক ফিচার এজেন্সি, ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড রিসোর্সস ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ (এমআরডিআই), ঢাকা, পরিবেশ ও মানব উন্নয়ন (এসইএইচডি), ঢাকা নারী সংবাদিক কেন্দ্র এবং আরও অনেক সংস্থা।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের প্রশ্নপত্র প্রস্তুতকারক ও পরীক্ষক।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

লেখক[সম্পাদনা]

শাহরিয়ার তিনটি বই লিখেছেন:

  • অতীত অতীত হয়নি, তার কলামগুলির সংকলন,
  • নিউজউইক বাংলাদেশ: মুক্তিজুদ্ধ, বিজয় আবং তরপার (নিউজউইকের বাংলাদেশ: মুক্তিযুদ্ধ, বিজয় এবং এর বাইরে), নিউজউইক ম্যাগাজিনে তার রিপোর্ট
  • শেষ ভাল যার সব ভাল তার 'বিভিন্ন বাংলা পত্রিকায় প্রকাশিত নিবন্ধগুলির সংকলন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার আর নেই | বাংলাদেশ প্রতিদিন"Bangladesh Pratidin (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-১০ 
  2. "Past Presidents"। Commonwealth Journalists Association। সংগ্রহের তারিখ মে ১১, ২০১৬ 
  3. "Hassan Shahriar made CJA President Emeritus"The Daily Star। ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ মে ১১, ২০১৬ 
  4. "Hassan Shahriar re-elected CJA president"The Daily Star। অক্টোবর ১৮, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ মে ১১, ২০১৬