হালাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হালাল আরবি শব্দ।এর অর্থ হচ্ছে পবিত্র।যার অর্থ হচ্ছে: বৈধ, উপকারী ও কল্যান ইত্যাদি।

হালাল (আরবি: حلال‎‎, 'অনুমোদনযোগ্য') মানে হল যে কোনো বস্তুর বা কর্ম যেটা ইসলামী আইন অনুযায়ী ব্যবহার বা নিয়োজিত করা যাবে। হালাল শব্দটি খাদ্য-পানীয়-র সাথে দৈনন্দিন জীবনের সব বিষয়টাও বোঝায় ও মনোনীত করে।[১] এটি ৫টি আহকাম-র মধ্যে ১টি — ফরজ (আবশ্যিক), মুস্তাহাব (প্রস্তাবিত), হালাল (অনুমোদনযোগ্য), মাকরুহ (অপছন্দ), হারাম (নিষিদ্ধ) — ইসলামে মানুষের কর্ম নৈতিকতা নির্ধারণ করে।[২] ইসলাম ধর্মে মুবাহ-ও "অনুমোদনযোগ্য" বা "অনুমোদিত" অর্থ বোঝায়। সাম্প্রতিক সময়ে, জনসাধারণকে একত্রিত করার চেষ্টা করা ইসলামী আন্দোলন এবং জনপ্রিয় দর্শকের পক্ষে লেখক হালাল ও হারামের সহজ পার্থক্যের উপর জোর দিয়েছেন।[৩]

চীনে রেস্টুরেন্টের বিজ্ঞাপনে হালাল মার্কা প্রচার

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

“হালাল” একটি আরবি শব্দ যার অর্থ বৈধ, উপকারী ও কল্যাণ ইত্যাদি। মানুষের জন্য যা কিছু উপকারী ও কল্যাণকর ওই সকল কাজ ও বস্তুকে আল্লাহতায়ালা মানুষের জন্য হালাল বা বৈধ করে দিয়েছেন। এর বিপরীত হলো হারাম। কোন উপার্জন, কোন খাদ্য এবং কোন কর্ম মুসলমানদের জন্য হালার তা কুরআন ও হাদীসে বর্ণিত রয়েছে। অর্থাৎ পবিত্র কোরআন ও সুন্নাহর ওপর ভিত্তি করে যে সব বিষয়কে ইসলামে বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে ইসলামি পরিভাষায় সেগুলো হালাল।[৪][স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

হালাল উপার্জন[সম্পাদনা]

হালাল খাদ্য ও পানীয়[সম্পাদনা]

মাংসে হালাল মার্কা করা

খাদ্যগুলো যেটি হালাল হতে পারে না (কুরআন অনুযায়ী):

কোনো হালাল উপলব্ধ না হলে অনুমতি[সম্পাদনা]

যখন হারাম খাবার খাওয়া ছাড়া বেঁচে থাকা সম্ভব নয়, তখন জীবিত থাকার জন্যে হালাল নয় এমন খাদ্য গ্রহণ করার অনুমতি আছে।[৫] [৮]

হালাল কার্যাবলী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. কোরআন ৭:১৫৭
  2. Nanji, Azim A. (২০০৯)। "Halal"। The Oxford Encyclopedia of the Islamic World (ইংরেজি ভাষায়)। Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-530513-5ডিওআই:10.1093/acref/9780195305135.001.0001/acref-9780195305135-e-0292 
  3. "Lawful and Unlawful" (ইংরেজি ভাষায়)। ডিওআই:10.1163/1875-3922_q3_eqcom_00107 
  4. [১]
  5. কুরআন ২:১৭৩
  6. কুরআন ৫:৩
  7. কুরআন ৬:১২১
  8. সহীহ বুখারী ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৩ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে, সহীহ বুখারী, অধ্যায়ঃ ০২, পর্বঃ ঈমান, হাদিস নাম্বারঃ ৫০

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]