হাফস বিন সুলাইমান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Abu ‘Amr

Ḥafṣ ibn Sulayman

al-Asadi al-Kufi
حفص بن سليمان
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্মAD 706
মৃত্যুAD ৭৯৬(796-00-00) (বয়স ৮৯–৯০)
ধর্মIslam
আদি নিবাসMakkah
পিতামাতা
  • Sulayman ibn al-Mughirah ibn Abi Dawud (পিতা)
আখ্যাSunni
যে জন্য পরিচিতQiraat (Quran Recitation)
ঊর্ধ্বতন পদ
শিক্ষকAasim ibn Abi al-Najud

আবু আমর হাফস ইবনে সুলায়মান ইবনে আল-মুগীরা ইবনে আবি দাউদ আল-আসাদি আল-কুফি (আরবি: أبو عمرو حفص بن سليمان بن المغيرة الأسدي الكوفي) যিনি হাফস (706-796 CE; ইসলামী ক্যালেন্ডার অনুসারে 90-180 হিজরি) নামে বেশি পরিচিত ছিলেন।[১][২] তিনি কুরআনের ক্বেরাতের সাতটি প্রামাণিক পদ্ধতির মধ্যে একটির একটি প্রাথমিক উদ্ভাবক ছিলেন। তার শিক্ষক আসিম ইবনে আবি আল-নাজুদের মাধ্যমে তার পদ্ধতিটি মুসলিম বিশ্বের সংখ্যাগরিষ্ঠ জুড়ে সবচেয়ে জনপ্রিয় পদ্ধতি হয়ে উঠেছে।[৩]

আসিমের ছাত্র হওয়ার পাশাপাশি হাফস তার জামাইও ছিলেন। বাগদাদে জন্মগ্রহণ করার পর, হাফস অবশেষে মক্কায় চলে আসেন যেখানে তিনি তার শ্বশুরের আবৃত্তি পদ্ধতিকে জনপ্রিয় করেন।[৪]

অবশেষে, আসিমের পদ্ধতির হাফসের তেলাওয়াতকে মিশরের সরকারী পদ্ধতিতে পরিণত করা হয়, ১৯২৩ সালে মিশরের প্রথম ফুয়াদের পৃষ্ঠপোষকতায় কুরআনের মানসম্মত মিশরীয় মুদ্রণ হিসাবে আনুষ্ঠানিকভাবে গৃহীত হয়। কুরআনের অধিকাংশ কপি আজ হাফসের পাঠ অনুসরণ করে। উত্তরপশ্চিম আফ্রিকায় ওয়ার্শ পড়ার প্রবণতা বেশি।[৫]

হাফস তেলাওয়াত[সম্পাদনা]

কুফার গ্রেট মসজিদ, ১৯১৫ সাল

সমস্ত প্রামাণিক তেলাওয়াত ঐতিহ্যের মধ্যে, শুধুমাত্র হাফসের কুফান ঐতিহ্যের অধ্যায় প্রথম সূরা এ বাসমালাকে একটি পৃথক আয়াত হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।[৬]

১০ম খ্রিস্টাব্দে, তার কিতাব আল-সাব'আ ফিল-কিরাআত-এ, ইবনে মুজাহিদ কুরআনের সাতটি পাঠ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন যা পরবর্তীতে প্রামাণিক 'সাত' নামে পরিচিত হবে। তাদের তিনজন পাঠক কুফা থেকে এসেছিল, তখন কুফা ছিলো ইসলামিক শিক্ষার প্রাথমিক কেন্দ্র।[৭] তিনজন কুফান পাঠক ছিলেন আল-কিসাই, কুফান; হামজাহ আজ-জাইয়্যাত; এবং আসিম ইবনে আবি আল-নাজুদ

এটি হাফস 'আসিম ঐতিহ্যের পাশাপাশি যা কুফার তেলাওয়াত ঐতিহ্যকে প্রতিনিধিত্ব করে, মুসলিম বিশ্বে কুরআনের দুটি প্রধান মৌখিক সংক্রমণের একটি।[৮] কায়রোর প্রভাবশালী আদর্শ কুরআন যা ১৯২৪ সালে প্রকাশিত হয়েছিল হাফস ও আসিমের তেলাওয়াতের উপর ভিত্তি করে।

ট্রান্সমিশনের শৃঙ্খল[সম্পাদনা]

ইমাম হাফস কুরআন পড়া শিখেছেন আসেম থেকে। আসিম ইবনে আবি আল-নাজুদ কুরআন শরীফ পাঠ করেছেন যথাক্রমে- আবু আব্দুর রহমান আসসুলামী, যির ইবনে হুবাইশ এবং আবু আমর আশশায়বানী থেকে। উল্লেখিত তিনজন হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. থেকে এবং তিনি হযরত মুহাম্মাদ ﷺ এর নিকট থেকে। আবু আবদুর রহমান আসসুলামী এবং যির ইবনে হুবাইশ দু’জনই হযরত উসমান রা. এবং হযরত আলী রা. থেকেও পাঠ গ্রহণ করেন।

আবু আবদুর রহমান আসসুলামী হযরত উবাই ইবনে কাব রা. এবং যায়েদ ইবনে সাবিত রা.-এর নিকটও কুরআন পড়েছেন। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. আলী রা. উবাই ইবনে কাব রা. এবং যায়েদ ইবনে সাবিত রা. সকলে হযরত মুহাম্মাদ ﷺ এর নিকট কুরআন পড়েছেন। [৯]

হাফসের তিলাওয়াত চেইন অফ ট্রান্সমিশন
স্তর তিলাওয়াতকারী
1 মুহাম্মদ
2 উসমান ইবনে আফফান রা:, আলী রা:, উবাই ইবনে কাব রা:, আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা: এবং যায়েদ ইবনে সাবিত
3 আবু আব্দুর রহমান আসসুলামী
4 আসিম ইবনে আবি আল-নাজুদ
5 ইমাম হাফস রহ:

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Muhammad Ghoniem and MSM Saifullah (৮ জানু ২০০২)। "The Ten Readers & Their Transmitters"Islamic Awareness। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৬ 
  2. Shady Hekmat Nasser (২০১২)। "Ibn Mujahid and the Canonization of the Seven Readings"The Transmission of the Variant Readings of the Qur'an: The Problem of Tawaatur and the Emergence of ShawaadhdhBrill Publishers। পৃষ্ঠা 129। আইএসবিএন 9789004240810 
  3. Bewley, Aishah. "The Seven Qira'at of the Qur'an" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০০৬-০৫-০১ তারিখে, Aisha Bewley's Islamic Home Page
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; malay নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. Aisha Geissinger, Gender and Muslim Constructions of Exegetical Authority: A Rereading of the Classical Genre of Qurʾān Commentary, pg. 79. Leiden: Brill Publishers, 2015. আইএসবিএন ৯৭৮৯০০৪২৯৪৪৪৮
  6. Stefan Wild, Al-Baydawi. Quran: an Encyclopedia
  7. Dutton, Yasin (২০১২)। "Orality, Literacy and the 'Seven Aḥruf' Ḥadīth": 1–49। আইএসএসএন 0955-2340জেস্টোর 26201011ডিওআই:10.1093/jis/etr092 
  8. Ibn Warraq, Which Koran? Variants, Manuscript, Linguistics, pg. 45. Prometheus Books, 2011. আইএসবিএন ১৫৯১০২৪৩০৭
  9. আন্নাশরু ফিল কিরাআতিল আশর ১/১১৫