হরিলাল গান্ধী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হরিলাল গান্ধী
Harilal Mohandas Gandhi in 1910.jpg
হরিলাল গান্ধীর ১৯১০ সালের ছবি
জন্ম১৮৮৮
মৃত্যু১৮ সেপ্টেম্বর, ১৯৪৮ (বয়স ৬০)
মুম্বাই, বোম্বে প্রদেশ, ভারত
(এখন মহারাষ্ট্র, ভারত)
দাম্পত্য সঙ্গীগুলাব গান্ধী
সন্তান
পিতা-মাতামহাত্না গান্ধী
কস্তুরবা গান্ধী

হরিলাল মোহনদাশ গান্ধী (দেভাঙ্গারি: हरीलाल गांधी), ১৮৮৮ – ১৮ জুন ১৯৪৮) ছিলেন মহাত্না গান্ধীর বড় ছেলে। [১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

হরিলালের খুব ইচ্ছে ছিল যুক্তরাজ্যে গিয়ে উচ্চশিক্ষা লাভ করে একজন ব্যারিস্টার হওয়া ঠিক যেমনটা তার বাবা করেছিলেন। কিন্তু তার পরিবার তাকে বাঁধা দিয়েছিল। কারণ তারা মনে করেছিল তৎকালীন ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের সময় ব্যাপারটি খুব ভালো দেখাবে না।[২]

হরিলাল, গুলাব গান্ধীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। তাদের দুই মেয়ে ও তিন ছেলে ছিল। দুই মেয়ের নাম ছিল রাণি ও মানু। তিন ছেলের নাম কান্তি, রশিক ও শান্তি। রশিক ও শান্তি খুব কম বয়সেই মারা যায়। হরিলালের চারজন নাতি-নাত্নি ছিল (অনুশ্রা, প্রবোধ, নিলাম এবং নভমলিকা)। রাণির ছিল দুই সন্তান। কান্তি ও মানুর প্রত্যেকের একটি করে সন্তান ছিল।

রাণির (হরিলালের বড় মেয়ে) পুত্র নিলাম পরিখ তার দাদার (হরিলাল গান্ধী) একটি জীবনী লিখেছিলেন। যেটার শিরোনাম ছিল গান্ধীজীর হারিয়ে যাওয়া রত্ন: হরিলাল গান্ধী

হরিলাল তার বাবার শ্রাদ্ধে এতোটাই পরিত্যাক্ত অবস্থায় উপস্থিত হয়েছিলেন যে খুব কম মানুষই তাকে চিনতে পেরেছিল। ১৯৪৮ সালের ৮ জুন, যকৃৎের অসুখে মুম্বাই এর একটি হাসপাতালে হরিলাল শেষ নিঃশাস ত্যাগ করেন।[৩]

ধর্মান্তর[সম্পাদনা]

ইসলাম গ্রহণ[সম্পাদনা]

খুব অল্প সময়ের জন্য হরিলাল গান্ধী ইসলাম গ্রহণ করেছিলেন এবং নিজের নাম রেখেছিলেন আব্দুল্লা গান্ধী।

অর্ঘ সমাজের মাধ্যমে পুরনায় হিন্দু ধর্ম গ্রহণ[সম্পাদনা]

অবশেষে, তার মায়ের অনুরোধে, অর্ঘ সমাজের মাধ্যমে হরিলাল গান্ধী পুনরায় হিন্দুধর্ম গ্রহণ করেন।

গান্ধীর চিঠি[সম্পাদনা]

১৯৩৫ সালের জুনে, মহাত্না গান্ধী হরিলালকে চিঠি লিখেন ধর্ষন ও এলকোহলের অভিযোগে অভিযুক্ত করে। [৪] এই চিঠিতে,[৫] মহাত্না গান্ধী বলেছেন, হরিলালের সমস্যাগুলো তার কাছে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের চাইতেও কঠিন।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "গান্ধী পরিবারের ডায়াগ্রাম"। ১২ অক্টোবর ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  2. "মহাত্না গান্ধী ও তাঁর ছেলে"দ্যা হিন্দু। ২০০৭-০৭-২২। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৮-০৬ 
  3. হরিলাল গান্ধী:একটি জীবন 
  4. http://www.tribuneindia.com/2014/20140512/main8.htm
  5. "ছেলের প্রতি গান্ধীর চিঠি"মালকের নিলাম। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  6. https://www.vedamsbooks.com/no49306.htm
  7. "যে অপচয় কোনদিন ফিরবে না"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৮-০৬ 

টেমপ্লেট:Gandhi