স্যার খাঁড়ি

স্থানাঙ্ক: ২৩°৫৮′ উত্তর ৬৮°৪৮′ পূর্ব / ২৩.৯৬৭° উত্তর ৬৮.৮০০° পূর্ব / 23.967; 68.800
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
স্যার ক্রিক
Sir-Creek-map.svg
অববাহিকার বৈশিষ্ট্য
মোহনাভারত মহাসাগর
২৩°৫৮′ উত্তর ৬৮°৪৮′ পূর্ব / ২৩.৯৬৭° উত্তর ৬৮.৮০০° পূর্ব / 23.967; 68.800
নদী ব্যবস্থাসিন্ধু নদীর ব-দ্বীপ

স্যার ক্রিক (স্যার খাঁড়ি), মূলত বান গঙ্গা,[১] ভারত ও পাকিস্তানের সীমান্তে সিন্ধু নদী বদ্বীপের জনশূন্য জলাভূমিতে একটি ৯৬ কিলোমিটার (৬০ মাইল) দীর্ঘ জোয়ারভাটাযুক্ত মোহনা বা খাঁড়ি। খাঁড়িটি আরব সাগরে প্রবাহিত হয় এবং ভারতের গুজরাট রাজ্যকে পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশ থেকে পৃথক করে।[২] দীর্ঘদিনের ভারত-পাকিস্তান স্যার খাঁড়ি সীমান্ত বিরোধ স্যার ক্রিকের মোহনা থেকে স্যার ক্রিকের শীর্ষ এবং স্যার ক্রিকের শীর্ষে পূর্ব দিক থেকে পশ্চিমাংশ প্রান্ত চিহ্নিত রেখার একটি বিন্দু পর্যন্ত সীমা নির্ধারণ থেকে উৎপন্ন হয়।[২][৩] ১৯৬৮ সালের ট্রাইব্যুনাল অ্যাওয়ার্ড অনুসারে এই সীমাটি নির্বিঘ্নে নির্ধারণ করা হয়।[৪]

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

স্যার ক্রিক মূলত বান গঙ্গা নামে পরিচিত ছিল। এটি ব্রিটিশ রাজের প্রতিনিধি স্যার ক্রিক এর নামে নামকরণ করা হয়।[১]

ভূগোল[সম্পাদনা]

এই জলাভূমিটি রাসেলের ভাইপার এবং কাঁকড়াবিছেদের আবাসস্থল, যা সীমান্ত সৈন্যদের জীবনকে কঠিন করে তোলে। জুন থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে বর্ষা মৌসুমে, খাঁড়িটি তার তীরে প্লাবিত হয় এবং তার চারপাশে নীচু লবণাক্ত সমতল ভূমিকে আবদ্ধ করে। শীত মৌসুমে, এই অঞ্চলে ফ্ল্যামিংগো এবং অন্যান্য পরিযায়ী পাখির আবাস হয়ে ওঠে। চব্বিশতম সমান্তরাল স্যার ক্রিকের উত্তর দিয়ে যায়। এলবিওডি, একটি খাল, যা স্যার ক্রিকের জলের প্রবাহে মিলিত হয়।

পাকিস্তানের পাশে স্যার ক্রিকের পশ্চিমে আরও কয়েকটি খাঁড়ি রয়েছে, যার বেশিরভাগ অংশ কেটি বন্দর দক্ষিণ বন্যজীবন অভয়ারণ্যের অংশ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Everything You Need To Know About The Dispute Over Sir Creek Between India And Pakistan, India Times, 16 August 2016.
  2. "The troubled waters of Sir Creek: Gujarat CM's demand for a freeze on the disputed creek complicates issue, dated 16 December 2012"India Today। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসে ২০১৯ 
  3. "Pakistan security experts declare Sir Creek dispute 'technically resolved'"dna। ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩। 
  4. "Kargilisation of Sir Creek"The Tribune, Chandigarh। সংগ্রহের তারিখ মে ২১, ২০০৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]