স্বাস্থ্যের উপর তামাকের প্রভাব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ধূমপান শরীরের অধিকাংশ অঙ্গের ক্ষতি করে।

স্বাস্থ্যের উপর তামাকের প্রভাব (ইংরেজি: Health effects of tobacco) বলতে তামাকের নিয়মিত ব্যবহারের ফলে মানব স্বাস্থ্যের উপর এর যে ক্ষতিকর কাজ রয়েছে সেগুলোকে বুঝায়। প্রাথমিকভাবে গবেষণা মূলত তামাক ধূমপান বিষয়ের উপর করা হয়েছে।[১][২] ১৯৫০ সালে Richard Doll নামক বিজ্ঞানী ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালে একটি গবেষণা প্রকাশ করেন যেখানে তিনি ধূমপান ও ফুসফুস ক্যান্সারের একটি সম্পর্কের কথা উল্লেখ করেন।[৩] এর ঠিক চার বছর পর ১৯৫৪ সালে ব্রিটিশ ডক্টরস স্টাডি নামক আরেকটি গবেষণা প্রকাশ করা হয় যেটি চল্লিশ হাজার ডাক্তারের কুড়ি বছর ধরে করা গবেষণার ফলাফল। সেখানে ধূমপানের সাথে ফুসফুসের সম্পর্কের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয় যার উপর ভিত্তি করে সরকার ঘোষণা করে যে ধূমপানের ফলে ফুসফুস ক্যান্সারের হার বৃদ্ধি পায়।[৪][৫]

যেসমস্ত বস্তুর ব্যবহার বাদ দিলে অকাল মৃত্যু ঝুঁকি হ্রাস করা যায় তামাক এর মধ্যে শীর্ষে। [৬] যত লোক তামাক ব্যবহার করে তার প্রায় অর্ধেক এর ক্ষতিকর প্রভাবে মৃত্যুবরণ করে।[৭] বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসাব মতে প্রতিবছর সারাবিশ্বে প্রায় ৬০ লাখ লোক তামাকের ক্ষতিকর প্রভাবে মারা যায় (সর্বমোট মৃত্যুর প্রায় ১০%) যার প্রায় ৬ লাখ পরোক্ষ ধূমপানের স্বীকার।[৭][৮] বিংশ শতাব্দীতে তামাক প্রায় দশ কোটি ব্যক্তির মৃত্যু ঘটিয়েছে।[৭] একইভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (CDC) সেন্টারও এটাকে সারাবিশ্বব্যাপী অকাল মৃত্যুর অন্যতম প্রধান কারণ হিসেবে বর্ণনা করেছে।[৯]

তামাক মূলত হৃৎপিণ্ড, লিভারফুসফুসকে আক্রান্ত করে। ধূমপানের ফলে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক, ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ (COPD) (এমফাইসিমা ও ক্রনিক ব্রংকাইটিস সহ), ও ক্যান্সার (বিশেষত ফুসফুসের ক্যান্সার, প্যানক্রিয়াসের ক্যান্সার, ল্যারিংস ও মুখগহ্বরের ক্যান্সার) এর ঝুঁকি বহুগুণ বাড়ায়। তামাক উচ্চ রক্তচাপ ও প্রান্তীয় রক্তনালীর রোগ করতে পারে। এর প্রভাব নির্ভর করে একজন ব্যক্তি দৈনিক কতটি ও কয় বছর ধরে ধূমপান করে তার উপর। অল্পবয়স থেকে এবং অধিক তামাকের ঘনত্বসম্পন্ন সিগারেট খাওয়ার ফলে ঝুঁকি আরো বাড়তে পারে। পরিবেশ থেকে প্রাপ্ত তামাকজাত ধোঁয়া ও পরোক্ষ ধূমপানও সকল বয়সী ব্যক্তির ক্ষেত্রে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে।[১০] গর্ভবতী নারীদের উপর তামাকের ব্যাপক ক্ষতিকর প্রভাব রয়েছে। ধূমপায়ী নারীদের ক্ষেত্রে গর্ভপাত ঘটার হার বেশি। এছাড়া গর্ভস্থ ভ্রূণেরও অনেক ক্ষতি করে যেমন অকালে শিশুর জন্ম হওয়া (প্রিম্যাচুর বার্থ), জন্মের সময় নবজাতকের ওজন আদর্শ ওজনের তুলনায় কম হওয়া (LBW) ও সাডেন ইনফ্যান্ট ডেথ সিন্ড্রোম (SIDS) এর হার ১.৪-৩% বেড়ে যায়। [১১] অধূমপায়ীদের তুলনায় ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে যৌনমিলনের সময় লিঙ্গ উত্থানে অক্ষমতার সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার হার ৮৫% বেশি।[১২][১৩]

কিছুকিছু দেশ তামাকের ব্যবহার ও বিক্রয় কমানোর জন্য পদক্ষেপ নিচ্ছে। এছাড়া তামাকজাত পণ্যের মোড়কে সতর্কীকরণ বার্তা লেখার নিয়ম বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। অধিকন্তু তামাকের উপর অতিরিক্ত কর আরোপ করে এর মূল্য বৃদ্ধির প্রয়াস চালানো হচ্ছে যা উন্নয়নশীল দেশগুলোতে কাজে আসবে বলে মনে করা হয়।[৭] সিগারেটে প্রায় পঞ্চাশটিরও বেশি রাসায়নিক পদার্থ রয়েছে যারা মানব শরীরে ক্যান্সার সৃষ্টি করতে পারে।[৭] তামাকে নিকোটিন নামে আরেকটি উপাদান আছে যা আসক্তি সৃষ্টির জন্য দায়ী। ধূমপান করলে নিকোটিন শারীরিক ও মানসিক নির্ভরশীলতা তৈরি করে। অনুন্নত দেশগুলোতে যে সিগারেট বিক্রয় করা হয় তাতে তামাকজাত উপাদান অনেক বেশি থাকে ফলে ঐসব অঞ্চলে ধূমপানজনিত ক্ষতি বা রোগসমূহ অনেক বেশি।[১৪]

পরিচ্ছেদসমূহ

স্বাস্থ্যের উপর ধূমপানের প্রভাব[সম্পাদনা]

বিভিন্ন গবেষণার মাধ্যমে বিশেষজ্ঞগন তামাককে নির্ভরশীলতার দিক থেকে ৩য়, শারীরিক ক্ষতির দিক থেকে ১৪তম ও সামাজিক ক্ষতির দিক থেকে ১২তম হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।[১৫]

ধূমপানের ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় হৃৎপিণ্ড ও ফুসফুস। এতে হার্ট অ্যাটাক, ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারি ডিজিজ, এমফাইসিমা, ও ক্যান্সার বিশেষত ফুসফুস, ল্যারিংস, মুখগহ্বর ও অগ্ন্যাশয়ের ক্যান্সারের ঝুঁকি অনেক বৃদ্ধি পায়। [১৬] দীর্ঘকাল ধূমপানের ফলে সার্বিক গড়ায়ু অধূমপায়ীদের তুলনায় ১০ বছর থেকে [৫] ১৭.৯ বছর পর্যন্ত হ্রাস পায়।[১৭][১৮] দীর্ঘকালব্যাপী ধূমপায়ী পুরুষদের প্রায় অর্ধাংশ ধূমপানজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করে।[১৯] ধূমপানের সাথে ফুসফুস ক্যান্সারের একটি বড় ধরণের সম্পর্ক রয়েছে। পুরুষ ধূমপায়ীর ক্ষেত্রে সারাজীবনে এই ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি ১৭.২% যেখানে মহিলাদের ক্ষেত্রে এটি ১১.৬%। অধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে এই ঝুঁকি অনেক কম যেমন পুরুষের ক্ষেত্রে ১.৩% মহিলার ক্ষেত্রে ১.৪%[২০] ঐতিহাসিকভাবে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পূর্বে ফুসফুস ক্যান্সারকে বিরল একটি রোগ হিসেবে মনে করা হত এবং এমনও বলা হত যে কোনো কোনো চিকিৎসক তার পেশাগত জীবনে হয়ত এই রোগীর দেখায় পাবেন না।যুদ্ধপরবর্তী সময়ে সিগারেট ধূমপানের জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে এবং ফুসফুস ক্যান্সার ধীরে ধীরে মহামারী রূপ নিতে শুরু করে।[২১][২২]

একজন ব্যক্তির রোগে আক্রান্ত ঝুঁকি সেই ব্যক্তি কতদিন ধরে ও দৈনিক কতটি ধূমপান করে তার সাথে সরাসরি সমানুপাতিক। তবে কেউ যদি ধূমপান পরিত্যাগ করে তবে ঝুঁকি ক্রমশ কমে আসে কারণ মানব শরীর ধূমপানজনিত ক্ষতি ধীরে ধীরে মেরামত করে নিতে পারে। ধূমপান ত্যাগ করার একবছর পরে হার্টের রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা যারা ধূমপান চালিয়ে যায় তাদের তুলনায় প্রায় অর্ধেক কমে যায়। [২৩]

সকল ধূমপায়ীর ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যঝুঁকি সমান নয়। ঝুঁকি নির্ভর করে কতটুকু তামাক সেবন করা হচ্ছে তার উপর। যারা বেশি ধূমপান করবে তারা বেশি ঝুঁকিতে থাকবে। তথাকথিত লাইট সিগারেট ঝুঁকি কমাতে সহায়ক নয়।[২৪]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

প্রতিবছর শুধু ধূমপানের কারণে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ মৃত্যুবরণ করে।[২৫] এটি প্রতিরোধ যোগ্য অকাল মৃত্যুর প্রধান কারণ।[২৬] এক গবেষণায় দেখা গেছে পুরুষ ও মহিলা ধূমপায়ী গড়ে তাদের জীবনের যথাক্রমে ১৩.২ ও ১৪.৫ বছর হারান।[২৭] অপর এক গবেষণায় ৬.৮ বছরের কথা বলা হচ্ছে।[২৮] বলা হয়ে থাকে একটি সিগারেট গড়ে প্রায় এগারো মিনিট আয়ু কমিয়ে দেয়।[২৯][৩০][৩১] সারাজীবন ধরে ধূমপানকারীর মধ্যে কমপক্ষে অর্ধেকজন ধূমপানের ক্ষতির কারণে মারা যায়।[৫] অধূমপায়ীর তুলনায় একজন ধূমপায়ীর ৬০ বা ৭০ বছর বয়সের পূর্বে মারা যাওয়ার সম্ভাবনা প্রায় তিনগুণ।[৫][৩২][৩৩] আমেরিকাতে প্রতি পাঁচ জনে একজন ধূমপানের স্বীকার।[৩৪] এবং প্রতিবছর প্রায় ৪,৪৩,০০০ জন অকালে প্রাণ হারান।[৩৫][৩৬]

২০১৫ সালে একটি গবেষণায় দেখা যায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সিগারেট সেবনের ফলে মোট মৃত্যুর ১৭% ক্ষেত্রে ধূমপান দ্বারা সৃষ্ট প্রতিষ্ঠিত রোগসমূহ ছাড়াও এর অন্যান্য ক্ষতির প্রভাবে মারা যায়।[৩৭]

ক্যান্সার[সম্পাদনা]

তামাক ব্যবহারের প্রাথমিক ঝুঁকি হলো বিভিন্নরকম ক্যান্সার, বিশেষত ফুসফুস ক্যান্সার।[৩৮] কিডনির ক্যান্সার[৩৯] ল্যারিংসের ক্যান্সার,[৪০][৪১] মূত্রথলির ক্যান্সার,[৪২] খাদ্যনালীর ক্যান্সার,[৪৩] অগ্ন্যাশয়ের ক্যান্সার,[৪৪]পাকস্থলী ক্যান্সার[৪৫] নারীর জরায়ু ক্যান্সারের সাথে তামাক ও পরোক্ষ ধূমপানের একটা সম্পর্ক গবেষণার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।[৪৬] মায়েলয়েড লিউকেমিয়ার সাথে ধূমপানের অল্পবিস্তর সম্পর্কের প্রমাণ পাওয়া যায়।[৪৭] এছাড়া এর সাথে আরো অনেক ক্যান্সারের সম্পর্ক রয়েছে যেমন স্কোয়ামাস সেল সাইনোন্যাজাল ক্যান্সার, লিভার ক্যান্সার, কলোরেক্টাল ক্যান্সার, পিত্তাশয় ক্যান্সার, অ্যাড্রেনাল গ্রন্থির ক্যান্সার, ক্ষুদ্রান্ত্রের ক্যান্সার ও শিশুদের বিভিন্ন ক্যান্সার।[৪৫] তামাকের সাথে স্তন ক্যান্সারের কোনো সম্পর্ক আছে কি না এ ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায় নি।[৪৮]

একজন পুরুষ ধূমপায়ীর ক্ষেত্রে ৮৫ বছরের পূর্বে ফুসফুস ক্যান্সারে মৃত্যুর সম্ভাবনা ২২.১% একজন নারী ধূমপায়ীর ক্ষেত্রে তা ১১.৯%। অধূমপায়ীর ক্ষেত্রে এর সম্ভাবনা যথাক্রমে ১.১% ও ০.৮% প্রায়।[৪৯]

ফুসফুসীয়[সম্পাদনা]

ধূমপানের সাথে ফুসফুস ক্যান্সারের সম্পর্ক

ধূমপানের কারণে এর মধ্যস্থিত বিভিন্ন রাসায়নিক উপাদান যেমন কার্বন মনোক্সাইড, সাইয়ানাইড প্রভৃতির সংস্পর্শে দীর্ঘদিন থাকার ফলে ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং ফুসফুসের অ্যালভিওলাই এর স্থিতিস্থাপকতা নষ্ট হয়ে যায় যার ফলে এমফাইসিমা নামক রোগ হয়।[৫০] অ্যাক্রলিন নামক ক্যান্সার সৃষ্টিকারী পদার্থও ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারি ডিজিজের দীর্ঘমেয়াদি প্রদাহে ভূমিকা রাখে।[৫১]

কার্ডিওভাস্কুলার রোগ[সম্পাদনা]

ধূমপানের ফলে অ্যাথেরোসক্লেরোসিস হয় যার ফলে করোনারি ও প্রান্তীয় ধমনির রোগ হয়।
অনেক বেশি ধূমপানকারীদের হাতের আঙুলে বিশেষ করে ২য় ও ৩য় আঙুলে তামাকের বা নিকোটিনের দাগ দেখা যায়।

ধূমপান হার্ট ও রক্তনালীতে তাৎক্ষণিক কিছু প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। সিগারেটের ধোঁয়ায় যে কার্বন মনোক্সাইড থাকে তা রক্তের অক্সিজেন বহন ক্ষমতা কমিয়ে দেয় ফলে ধূমপানের এক মিনিটের মধ্যে হার্টের স্পন্দন বাড়তে শুরু করে এবং প্রথম দশ মিনিটের মধ্যে হার্ট রেট প্রায় দশ শতাংশ বেড়ে যায়।[৫২]

এছাড়া ধূমপানের ফলে হার্ট ডিজিজ, স্ট্রোক,[৫৩] অ্যাথেরোসক্লেরোসিস ও প্রান্তীয় রক্তনালীর রোগের সম্ভাবনা বাড়ে।[৫৪] তামাকের কিছু কিছু উপাদান রক্তনালীকে সরু করে দেয় ফলে ব্লকেজ এর সম্ভাবনা বাড়ে যার ফলে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক হতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে চল্লিশ বছরের কম বয়সী ধূমপায়ীর ক্ষেত্রে হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা পাঁচগুণ বেড়ে যায়।[৫৫] আমেরিকান বায়োলজিস্টদের সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, সিগারেটের ধোঁয়া কার্ডিয়াক পেশির কোষ বিভাজনকে প্রভাবিত করে এবং হার্টের আকৃতির পরিবর্তন ঘটায়।[৫৬] ধূমপানের ফলে বার্জার'স ডিজিজ হতে পারে। এই রোগে হাত ও পায়ের ধমনি ও শিরায় প্রদাহ হয় এবং থ্রম্বোসিস বা রক্ত জমাট বেধে যায় ফলে রক্ত চলাচল ব্যাহত হয়ে ঘা বা ক্ষত তৈরি হতে পারে।[৫৭]

বৃক্কীয়[সম্পাদনা]

ধূমপান কিডনি ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ানো ছাড়াও আরো অনেক ক্ষতি করে থাকে। অধূমপায়ীদের তুলনায় ধূমপায়ীদের ক্রনিক ডিজিজে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।[৫৮] ধূমপায়ীরা দ্রুত ডায়াবেটিক নেফ্রপ্যাথিতে আক্রান্ত হয়।[৫৯]

ইনফ্লুয়েঞ্জা[সম্পাদনা]

বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে যে অধূমপায়ীদের তুলনায় ধূমপায়ীরা ইনফ্লুয়েঞ্জাতে আক্রান্ত হয় বেশি এবং রোগের তীব্রতাও অনেক বেশি হয়।[৬০][৬১][৬২] বিশেষ করে বৃদ্ধদের ক্ষেত্রে এই হার অনেক বেশি।[৬৩]

মুখগহ্বর[সম্পাদনা]

মুখগহ্বরের ক্যান্সারের প্রধান কারণ হলো তামাক। এছাড়াও মুখের আরো অনেক রোগ রয়েছে যা কেবল তামাক সেবীদেরই হয়। ফুসফুস ক্যান্সার, ল্যারিঞ্জিয়াল ক্যান্সার, খাদ্যনালীয় ক্যান্সার প্রভৃতির প্রধান কারণ তামাক।[৬৪][৬৫][৬৬][৬৭][৬৮] ধূমপায়ীদের পেরিওডন্টাইটিস বা দাঁতের চতুষ্পার্শ্বস্থ প্রদাহ বেশি হয়।[৬৯] দাঁতের রং পরিবর্তনের ক্ষেত্রে তামাকের বড় ভূমিকা রয়েছে।[৭০][৭১] তামাক সেবীদের হ্যালিটোসিস বা মুখে দুর্গন্ধ হয়।[৭২] দাঁত ক্ষয়ে যাওয়ার হার ২[৭৩] থেকে তিনগুণ বৃদ্ধি পায়।[৭৪][৭৫] এছাড়া লিউকোপ্লাকিয়া নামক আরেক ধরণের জটিলতা হতে পারে যাতে মুখগহ্বরের মিউকাস ঝিল্লিতে সাদা প্লাক দেখা দেয়[৭৬]

সংক্রমণ[সম্পাদনা]

দৈনিক বিশ বা এর অধিক সিগারেট সেবনে সংক্রমণের সম্ভাবনা দুই থেকে চারগুণ বেড়ে যায়, বিশেষত ফুসফুস সংক্রমণ।[৭৭][৭৮] চলতি ধূমপায়ীর ক্ষেত্রে নিউমোকক্কাল সংক্রমেণর সম্ভাবনা চারগুণ বাড়ে।[৭৯]

ধূমপানের ফলে শ্বসনতন্ত্রের গাঠনিক পরিবর্তন ও ইমিউন সিস্টেমের পরিবর্তন ঘটে ফলে সংক্রমণের প্রকোপ বৃদ্ধি পায়।[৮০]

এইডস রোগীদের ক্ষেত্রে ধূমপান করলে কাপসি সারকোমার ঝুঁকি বাড়ে।[৮১][৮২]

যৌন অক্ষমতা[সম্পাদনা]

অধূমপায়ীর তুলনায় ধূমপায়ীরা যৌন অক্ষমতায় ভুগার হার ৮৫ শতাংশ বেশি।[৮৩] এবং এটি লিঙ্গ উত্থান অক্ষমতার (Erectile dysfunction) প্রধান কারণ।[১২][৮৩] ধূমপানের ফলে অ্যাথেরোসক্লেরোসিস হয়ে রক্তনালী সরু হয়ে যাওয়ার ফলে এরকম হয়।[৮৪]

বন্ধ্যত্ব[সম্পাদনা]

ধূমপান ডিম্বাশয়ের জন্য ক্ষতিকর এবং বন্ধ্যত্বের অন্যতম কারণ। সিগারেটের নিকোটিনসহ অন্যান্য রাসায়নিক উপাদান ইস্ট্রোজেন হরমোন তৈরিতে বিঘ্ন ঘটায়। এই হরমোনটি ডিম্বাশয়ে ফলিকল উৎপাদন ও ডিম্বপাত নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়া ধূমপান জরায়ুভ্রূণের আরো অনেক ক্ষতি করে। এই ক্ষতির পরিমাণ নির্ভর করে ধূমপানের সময়কাল ও পরিমাণের উপর।[৮৫] কিছু ক্ষতি অপূরণীয় তবে ধূমপান ত্যাগ করলে অনেক ক্ষতি প্রতিরোধ করা সম্ভব।[৮৬][৮৭] ধূমপায়িনী নারীর বন্ধ্যা হওয়ার সম্ভাবনা ৬০% বেশি।[৮৮]

তাৎক্ষণিক প্রভাব[সম্পাদনা]

ধূমপানকারীদের মতে ধূমপানের ফলে মানসিক প্রশান্তি, ক্ষিপ্রতা, ও তৎপরতা বৃদ্ধি পায়। তবে গবেষণায় দেখা গেছে অধূমপায়ীর তুলনায় একজন ধূমপায়ী বেশি মানসিক চাপে ভুগে থাকেন। একদম নতুন ধূমপায়ীর ক্ষেত্রে প্রথমে বমিভাব, মাথা ঝিমঝিম, রক্তচাপ ও হার্টবিট বেড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটতে পারে।[৮৯]

মানসিক চাপ[সম্পাদনা]

ধূমপায়ীরা অপেক্ষাকৃত বেশি মানসিক চাপে ভুগেন।[৯০] কয়েকটি গবেষণায় দেখা গেছে ধূমপায়ীর মানসিক চাপ আস্তে আস্তে বাড়ে এবং ধূমপান পরিত্যাগ করার পর তা ক্রমশ হ্রাস পায়।[৯১][৯২][৯৩]

সামাজিক ও আচরণগত[সম্পাদনা]

মেডিকেল গবেষকগণ দেখতে পেয়েছেন যে ধূমপান বিবাহ বিচ্ছেদের একটি নিয়ামক।[৯৪] অধূমপায়ীদের তুলনায় ধূমপায়ীদের বিবাহ বিচ্ছেদের সম্ভাবনা প্রায় ৫৩% বেশি।[৯৫]

মস্তিষ্কের উপর প্রভাব[সম্পাদনা]

তামাক মানুষের মস্তিষ্কের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। মানুষের স্মৃতিশক্তি ও বোধশক্তি দুটিই কমে যেতে পারে। তামাক আলঝাইমার্স রোগের ঝুঁকি বাড়ায় বলে অনেকে মনে করে যদিও এ ব্যাপারে বেশ বিতর্ক আছে। [৯৬] তামাককে ডিমেনশিয়া রোগের জন্যও দায়ী করা হয়।[৯৭] কিশোর বয়সীদের স্মৃতিশক্তি ও বোধশক্তি কমিয়ে দেয়।[৯৮] এমনকি মস্তিষ্ক ছোট হয়েও যেতে পারে(cerebral atrophy).[৯৯][১০০] যারা কখনওই ধূমপান করে নি তাদের তুলনায় সাবেক ও বর্তমান ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে পারকিনসন'স ডিজিজে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম লক্ষ করা যায়।[১০১][১০২] তবে এ ব্যাপারে বিজ্ঞানীগণ নিশ্চিত নন। তবে একদল গবেষক বিষয়টি এভাবে ব্যাখ্যা করেন যে, নিকোটিন মস্তিষ্কের ডোপামিনার্জিক সিস্টেমকে উদ্দীপ্ত করে যা এই রোগে ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং তামাকের অন্যান্য উপাদানগুলো মনোঅ্যামাইন অক্সিডেজ নামক এনজাইমকে নিবৃত করে যা ডোপামিনের ভাঙনের জন্য দায়ী।[১০৩] অনেক ক্ষেত্রে নিকোটিন মস্তিষ্কে ক্যাফেইনের মতো কাজ করে। ধূমপান মনোযোগ বাড়াতে পারে বলে অনেকে দাবি করেন।[১০৪] অধিকাংশ ধূমপায়ীকে হঠাৎ ধূমপান থেকে বিরত রাখলে কিছু উপসর্গ দেখা দেয় যেমন: অস্থিরতা, স্নায়ুবিক দৌর্বল্য, মুখ শুকিয়ে যাওয়া, হার্টবিট দ্রুত হয়ে যাওয়া ইত্যাদি।[১০৫]

গর্ভাবস্থা[সম্পাদনা]

বেশকিছু গবেষণায় দেখা যায় যে তামাকের সাথে গর্ভপাতের গভীর সম্পর্ক রয়েছে এবং ভ্রূণের স্বাস্থ্য সমস্যা সৃষ্টি করে। এটি নিউরাল টিউব ডিফেক্টের ঝুঁকি কিছুটা বাড়ায়।[১০৬] গর্ভবতী মা ধূমপান করলে বা পরোক্ষ ধূমপানের স্বীকার হলে কম ওজনবিশিষ্ট শিশুর জন্ম হতে পারে।[১০৭] শিশু গর্ভাবস্থায় বা জন্মের পরে তামাকের সংস্পর্শে আসলে তার আচরণগত সমস্যা দেখা দিতে পারে।[১০৮]

ঔষধ[সম্পাদনা]

ধূমপান কিছু লিভার এনজাইম লেভেল বাড়ায় যেগুলো ওষুধ বিপাকের জন্য দায়ী। এর ফলে উক্ত এনজাইমগুলো দ্রুত ওষুধের বিপাক ঘটায় যার ফলে ওষুধের কার্যকারিতা কমে আসে। [১০৯][১১০]

অন্যান্য ক্ষতি[সম্পাদনা]

প্রোটিন AZGP1

ধূমপানের ফলে ক্ষুধা কমে যায়[১১১] তামাক AZGP1 এর উপর কাজ করে যা লিপিডের ভাঙন ত্বরান্বিত করে এবং ওজন কমায়।[১১২] সারাবিশ্বে আগুনজনিত মৃত্যুর ১০% ধূমপান থেকে হয়।[১১৩] ধূমপানের ফলে ক্রন'স ডিজিজের উপসর্গ বৃদ্ধি পায়।[১১৪][১১৫][১১৬][১১৭] ধূমপায়ীরা রেডনঅ্যাসবেসটস এর সংস্পর্শে এলে ফুসফুসের ক্যান্সারের সম্ভাবনা অধূমপায়ীর তুলনায় অনেক বৃদ্ধি পায়। [১১৮][১১৯] ধূমপানের ফলে অস্থি ভেঙে যাওয়ার ঝুঁকি বাড়ে[১২০] এবং অস্ত্রোপচারের পর ক্ষত নিরাময়ে বিলম্ব হয় ও নানান জটিলতা দেখা দেয়।[১২১]

উপকারিতা[সম্পাদনা]

স্বাস্থ্যের উপর অসংখ্য ক্ষতিকর প্রভাবের পাশাপাশি তামাকের কিছু উপকারী প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে।[১২২] যেমন ধূমপান পারকিনসন'স ডিজিজ প্রতিরোধ করতে পারে।[১২৩]

কার্যপদ্ধতি[সম্পাদনা]

রাসায়নিক ক্যান্সার সৃষ্টকারী পদার্থ[সম্পাদনা]

Benzopyrene diol epoxide, an extremely carcinogenic (cancer-causing) metabolite of benzopyrene, a polycyclic aromatic hydrocarbon produced by burning tobacco.
Benzopyrene, a major mutagen in tobacco smoke, in an adduct to DNA.[১২৪]

ধোঁয়া বা যেকোনো আংশিক পোড়া জৈবযৌগতে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী পদার্থ (কার্সিনোজেন) থাকে।

ধূমপানের সম্ভাব্য পরিণতি যেমন ফুসফুস ক্যান্সারের লক্ষণ প্রকাশিত হতে প্রায় কুড়ি বছর সময় লাগে। ঐতিহাসিকভাবে নারীকুল ব্যাপকহারে ধূমপান করা আরম্ভ করে পুরুষদের অনেক পরে, এজন্য তাদের ক্ষেত্রে ধূমপানজনিত মৃত্যুহার বৃদ্ধি পেতে অনেক সময় নেয়। পুরুষদের ক্ষেত্রে ফুসফুস ক্যান্সারজনিত মৃত্যুহার হ্রাস পাওয়া শুরু করে ১৯৭৫ সালের দিকে যা কিনা গড়ে ধূমপান করা  কমিয়ে ফেলার কুড়ি বছর পর। নারীদের ক্ষেত্রেও গড় ধূমপানের হার কমতে শুরু করে ১৯৭৫ সালের দিকে[১২৫] কিন্তু ১৯৯১ সালের আগ পর্যন্ত তাদের ক্ষেত্রে ফুসফস ক্যান্সারজনিত মৃত্যুহার হ্রাস পায়নি।[১২৬] ধূমপানে কিছু ক্যান্সার সৃষ্টিকারী পাইরোলাইটিক যৌগ থাকে যা ডিএনএ(DNA) এর সাথে যুক্ত হয়ে জেনেটিক মিউটেশন করে। বিশেষত শক্তিশালী কার্সিনোজেন যেমন পলিসাইক্লিক অ্যারোমাটিক হাইড্রোকার্বন যা মিউটাজেনিক ইপক্সাইডে পরিণত হয়ে আরো বিষাক্ত হয়ে উঠে। বেনজোপাইরিন হলো প্রথম পলিসাইক্লিক অ্যারোমাটিক হাইড্রোকার্বন যা ধূমপানে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী হিসাবে চিহ্নিত হয়। এটি ইপক্সাইডে পরিণত হয়ে কোষের নিউক্লিয়ার ডিএনএ এর সাথে স্থায়ীভাবে বন্ধন তৈরি করে ফলে কোষটি হয় মৃত্যুবরণ করে অথবা মিউটেশন হয়। যদি মিউটেশন হওয়া কোষটি অ্যাপোপটোসিস বা প্রোগ্রামড সেল ডেথ এর মাধ্যমে ধ্বংস না হয় তাহলে সেটি ক্যান্সার কোষে পরিণত হয়। একইভাবে অ্যাক্রোলিন নামক আরেকটি যৌগ একই পদ্ধতিতে ক্যান্সার করতে পারে, তবে এটি সরাসরি কাজ করতে পারে।[১২৭] সিগারেটে ১৯টির বেশি রাসায়নিক পদার্থ আছে যারা ক্যান্সারের জন্য দায়ী।[১২৮] নিম্নে কিছু শক্তিশালী কার্সিনোজেন নিয়ে আলোচনা করা হলো:

  • পলিসাইক্লিক অ্যারোমাটিক হাইড্রোকার্বন হলো আলকাতরা যৌগ যা পাইরোলাইসি প্রক্রিয়ায় তৈরি হয়। এদের কিছুকিছু যৌগ স্বাভাবিক অবস্থাতেই বিষাক্ত, আবার কিছু যৌগ লিভারের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। এরা পানিবিদ্বেষী হওয়ায় পানিতে দ্রবীভূত হয় না তাই সহজে শরীর থেকে নির্গত হয় না। এটাকে পানিতে দ্রবণীয় করার জন্য লিভার সাইটোক্রোম পি-৪৫০ নামক একধরণের এনজাইম তৈরি করে যা উক্ত যৌগে একটি অতিরিক্ত অক্সিজেন যোগ করে মিউটাজেনিক ইপক্সাইডে পরিণত করে যা কিছুটা বেশি দ্রবণীয় আবার বেশি সক্রিয়।

[১২৯] বেনজোপাইরিন দ্বারা সৃষ্ট কার্সিনোজেনেসিটি অনেকটা তেজস্ক্রিয়তার মত।[১৩০] 

  • অ্যাক্রোলিন হলো একটি পাইরোলাইসিস উৎপাদ যা সিগারেটে প্রচুর থাকে।

 এটি সিগারেটের ধোঁয়াকে ঝাঁঝাল করে, এর জ্বালা সৃষ্টিকারী ও ল্যাক্রিমেটরি বা অশ্রু উৎপাদক প্রভাব রয়েছে।PAH এর উৎপাদের মতো অ্যাক্রোলিন ইলেক্ট্রোফিলিক অ্যালকাইলেটিং এজেন্ট এবং স্থায়ীভাবে DNA বেজ গুয়ানিন এর সাথে বন্ধন তৈরি করে। অ্যাক্রোলিন-গুয়ানিন অ্যাডাক্ট DNA কপিং এর সময় মিউটেশনকে প্রভাবিত করে এবং ক্যান্সার সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে, তবে এর কোনো মেটাবলিক অ্যাক্টিভেশন এর প্রয়োজন নাই। সিগারেটে PAH এর তুলনায় অ্যাক্রোলিন ১০০০ গুণ বেশি থাকে যা একই সাথে মিউটাজেন ও কার্সিনোজেন হিসাবে কাজ করে। 

  • নাইট্রোস্যামাইন  হলো কতক ক্যান্সার সৃষ্টিকারী পদার্থ যা সিগারেটের ধোঁয়ায় পাওয়া যায় তবে স্বাভাবিক কাঁচা তামাক পাতায় পাওয়া যায় না। এই যৌগগুলো ফ্লু-কিওরড তামাক পাতায় পাওয়া যায় যা কিউরিং প্রক্রিয়ার সময় আনকিওরড তামাক পাতায় প্রাপ্ত নিকোটিন ও অন্যান্য যৌগ এবং সকল দহন গ্যাসে প্রাপ্ত বিভিন্ন নাইট্রোজেন অক্সাইডসমূহের মধ্যে রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে তৈরি হয়।[১৩১][১৩২]

রেডিওঅ্যাকটিভ কার্সিনোজেন[সম্পাদনা]

রাসায়নিক ও অতেজস্ক্রিয় কার্সিনোজেনের পাশাপাশি তামাকে কিছু তেজস্ক্রিয় পদার্থ থাকে যা ক্যান্সারের জন্য দায়ী। উদাহরণস্বরূপ বলা যায় সীসা-২১০(210Pb) ও পলোনিয়াম-২১০(210Po) দুটি আইসোটোপ সিগারেট ধোঁয়াতে বিদ্যমান। সিগারেটে পলোনিয়াম-২১০ এর পরিমান হলো ০.০২৬৩-০.০৩৬ pCi (০.৯৭–১.৩৩mBq),[১৩৩][১৩৪] ন্যাশনাল সেন্টার ফর অ্যাটমস্ফেরিক রিসার্চ(NCAR)  এর এক গবেষণায় দেখা যায় তেজস্ক্রিয় পদার্থগুলো ব্রংকিয়াল শাখার হটস্পটে জমা হয় যেখানে তামাকে অবস্থিত আলকাতরা জমা হয়। আলকাতরা সহজে দ্রবীভূত না হওয়ার কারণে তেজস্ক্রিয় যৌগসমূহের প্রাকৃতিকভাবে পরিষ্কার হওয়ার পূর্বে তেজস্ক্রিয় ক্ষয় হওয়ার জন্য পর্যাপ্ত সময় থাকে। ঘরের ভিতরে এইগুলো পরোক্ষভাবে অধূমপায়ীদের ক্ষতি করতে পারে। আরেকটি লক্ষণীয় ব্যাপার হলো সিগারেটে টান  দেওয়ার চেয়ে বরং স্বাভাবিক নিঃশ্বাসের মাধ্যমে এর ধোঁয়া ফুসফুসে গেলে ক্ষতি বেশি হয় কারণ স্বাভাবিক নিঃশ্বাসে যত গভীরভাবে বাতাস টেনে নেয়া হয় সিগারেট খাওয়ার সময় এত গভীরভাবে নিঃশ্বাস নেওয়া হয় না, ফলে স্বাভাবিক নিঃশ্বাসে ক্ষতিকর পদার্থ ফুসফুসের গভীর পর্যন্ত যেতে পারে এবং বেশি ক্ষতি করতে পারে। এইজন্য প্রত্যক্ষ ধূমপায়ীর তুলনায় পরোক্ষ ধূমপায়ীর ক্ষতি বেশি হয়। গবেষণায় আরো দেখা যায় যারা ফুসফুস ক্যান্সারে আক্রান্ত হয় তাদের ক্ষেত্রে তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা প্রায় ৮০-১০০ rads হয়।[১৩৫][১৩৬][১৩৭]

দৈনিক গড়ে ১.৫ প্যাক ধূমপান বছরে প্রায় ৬০-১৬০ mSv মাত্রার তেজস্ক্রিয়তার সমান।[১৩৮][১৩৯]

যেটাকে একটি পারমাণবিক চুল্লির কাছাকাছি এলাকায় বসবাসের সাথে তুলনা করা যেতে পারে।(প্রতিবছর ০.০০০১mSv)[১৪০][১৪১] অথবা প্রতিবছর ৩.০ mSv যা আমেরিকানদের গড় মাত্রা।[১৪১][১৪২][১৪৩][১৪৪]

অপরপক্ষে ১৯৯৯ সালে জার্নাল অব ক্যান্সার ইন্সটিটিউট   একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করে, সেখানে দাবি করা হয় যে, সিগারেটের ধোঁয়ায় যে পরিমান তেজস্ক্রিয় পলোনিয়াম থাকে তা ফুসফুস ক্যান্সার সৃষ্টির জন্য পর্যাপ্ত না।[১৪৫]

২০১১ সালে Hecht দাবি করেন যে, সিগারেটের ধোঁয়ায় 201Po এর পরিমাণ এতই কম যে তা ক্যান্সার সৃষ্টির জন্য যথেষ্ট না।[১৪৬]

নিকোটিন[সম্পাদনা]

নিকোটিন অণু

নিকোটিন সিগারেট ও অন্যান্য তামাকজাত পণ্যে পাওয়া যায় যা উদ্দীপক হিসাবে কাজ করে এবং তামাকের প্রতি আসক্তি তৈরিতে ভুমিকা রাখে। তামাক সেবনের পর অধিকাংশ নিকোটিন পাইরোলাইজড হয় এবং অল্প পরিমাণ থেকে যায় যা মৃদু দৈহিক নির্ভরশীলতা ও মৃদু থেকে শক্তিশালী মানসিক নির্ভরশীলতা তৈরির জন্য যথেষ্ট। শরীরে ঠিক কী পরিমাণ নিকোটিন শোষিত হবে তা অনেক বিষয়ের উপর নির্ভর করে যেমন, তামাকের ধরণ, তামাক নিঃশ্বাসের সাথে গ্রহণ করা হচ্ছে কি না বা ফিল্টার ব্যবহার করা হচ্ছে কি না। এছাড়া সিগারেটের ধোঁয়ার অ্যাসিটালডিহাইড থেকে হারমেন(একটি মনো-অ্যামায়িন অক্সিডেজ ইনহিবিটর) তৈরি হয় যা আসক্তিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।[১৪৭] নিকোটিনের উদ্দীপনার ফলে মস্তিষ্কের নিউক্লিয়াস অ্যাকামবেন্স থেকে ডোপামিন ক্ষরণ হয় যা আসক্তি তৈরিতে ভূমিকা রাখে।Henningfield ও Benowitz গবেষণা করে বলেন, নিকোটিন গাঁজা, ক্যাফেইন, ইথানল, কোকেনহেরোইনের চাইতে বেশি আসক্তিকর। তবে নিকোটিনের তুলনায় উপরোক্ত পদার্থগুলোর উইথড্রয়াল ইফেক্ট অনেক বেশি।[১৪৮][১৪৯] বর্তমানে যতজন ক্যানাডিয়ান ধূমপান করেন তার অর্ধেকই ধূমপান ছাড়ার চেষ্টা করেছেন।[১৫০] ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জেনিফার ও'লাফলিনের মতে ধূমপান শুরুর পর আসক্তি সৃষ্টি হতে কমপক্ষে পাঁচ মাস সময় লাগে।[১৫১] ইনজেকশনের পর নিঃশ্বাসের সাথে ধোঁয়া গ্রহণ দ্বিতীয় একটি সহজ মাধ্যম যার দ্বারা খুব দ্রুত ও সহজে কোন যৌগকে রক্তে পৌঁছানো যায়। এর মাধ্যমে কোনোপদার্থকে দশ সেকেন্ডের মধ্যে মস্তিষ্কে প্রেরণ করা যায়। এইজন্য অধিকাংশ ধূমপায়ী মনে করে যে তারা ধূমপান ত্যাগ করতে পারবে না। তবে যারা ধূমপান ত্যাগের চেষ্টা করে এবং একটানা তিন মাস নিকোটিন ছাড়া থাকতে পারে তারা বাকি জীবন ধূমপান ছাড়া থাকতে পারবে বলে মনে করা হয়।[১৫২] যারা ধূমপান ছাড়ার চেষ্টা করে তাদের ডিপ্রেশনে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বিশেষত অল্পবয়সী তরুণদের এই প্রবণতা বেশি থাকে।[১৫৩] সাম্প্রতিক গবেষণায় প্রতীয়মান যে, নিকোটিন অন্যান্য আসক্তিকর ড্রাগস যেমন কোকেন, হেরোইন ইত্যাদির মতো মস্তিষ্কের মেজোলিম্বিক পাথওয়েতে ডোপামিন লেভেল বাড়িয়ে দেয় ফলে নিকোটিন গ্রহণ একটি আনন্দময় প্রভাব ফেলে যা পুনরায় নিকোটিন গ্রহণে আগ্রহ বাড়িয়ে দেয়।[১৫৪] আরেকটি গবেষণায় দেখা যায়, ডোপামিন রিসেপ্টরের সক্রিয়তা বৃদ্ধির কারণে ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত বেশি রিয়াকশন টাইম ও স্মৃতিশক্তির সক্রিয়তা লক্ষ্য করা যায়।[১৫৫] উল্ল্যেখ্য, যদিও তামাক আসক্তির জন্য নিকোটিনকে দায়ী করা হয় তথাপি দেখা গেছে নিকোটিন এককভাবে প্রয়োগ করা হলে ততটা আসক্তিকর নয়।[১৫৬]

ধূমপানের ধরণ[সম্পাদনা]

পরোক্ষ ধূমপান[সম্পাদনা]

পরোক্ষ ধূমপান বলতে সিগারেট, পাইপ বা চুরুটের পুড়ন্ত প্রান্ত থেকে নির্গত ধোঁয়া ও ধূমপায়ীর ফুসফুস থেকে নির্গত ধোঁয়াকে বুঝায়। এটি অনিচ্ছাকৃতভাবে নিঃশ্বাসের সাথে ফুসফুসে চলে যায়, বাতাসে অনেকক্ষণ ভেসে বেড়ায় ও নানাবিধ স্বাস্থ্য সমস্যা তৈরি করে যেমন ক্যান্সার, শ্বসনতন্ত্রের সংক্রমণ, ও হাঁপানি[১৫৭] যেসকল ব্যক্তি গৃহে ও কর্মক্ষেত্রে পরোক্ষ ধূমপানের স্বীকার তাদের হৃদরোগের সম্ভাবনা ২৫-৩০% ও ফুসফুস ক্যান্সারের সম্ভাবনা ২০-৩০% বাড়ে। পরোক্ষ ধূমপানের জন্য প্রতিবছর প্রায় ৩৮,০০০ লোক মারা যায় যার মধ্যে ৩,৪০০ জন ফুসফুস ক্যান্সারে মারা যান।[১৫৮]

চর্বণযোগ্য তামাক[সম্পাদনা]

চর্বণযোগ্য তামাক ক্যান্সার করতে পারে বিশেষত মুখ ও কণ্ঠনালির ক্যান্সার।[১৫৯]

ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার-এর কিছু বিজ্ঞানীদের মতে ধূমপান বন্ধ করার প্রোগ্রাম হিসাবে ধোঁয়াহীন তামাক ব্যবহার করা যেতে পারে এবং এতে ক্যান্সারের ঝুঁকি কিছুটা কম হবে বলে মনে করা হয় যদিও তাদের এই দাবির পক্ষে পর্যাপ্ত তথ্যপ্রমাণ পাওয়া যায় নি।"[১৫৯] ওরাল ও স্পিট টোবাকো লিউকোপ্লাকিয়ার ঝুঁকি বাড়ায় যা মুখের ক্যান্সারের পূর্বাবস্থা। [১৬০]

চুরুট[সম্পাদনা]

অন্যান্য ধূমপানের মতো চুরুটের ক্ষেত্রেও অনেক স্বাস্থ্যসমস্যা দেখা দিতে পারে যা এর মাত্রার উপর নির্ভর করে।[১৬১] যারা দৈনিক ১-২ চুরুট সেবন করে তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকির মাত্রা কম।[১৬২] যারা অনিয়মিতভাবে চুরুট ব্যবহার করে তাদের ঝুঁকির মাত্রা অজানা[১৬৩] এবং পরিমাপ করাও কঠিন।তবে নির্ভরযোগ্য মত হলো স্বাস্থ্যঝুঁকি চুরুট সেবনের পরিমাণের সমানুপাতিক। [১৬৪] চুরুট সেবন ফুসফুস ক্যান্সারের ঝুঁকিও বাড়াতে পারে।[১৬৫]

হুঁকা[সম্পাদনা]

তামাক ব্যবহারকারীদের একটি সাধারণ বিশ্বাস হলো সিগারেটের তুলনায় হুঁকায় ক্ষতি কম।[১৬৬] হুঁকায় থাকা অতিরিক্ত আদ্রতা থাকায় ধোঁয়া অপেক্ষাকৃত কম জ্বালা সৃষ্টি করে যার ফলে এটি কম ক্ষতিকর বলে একটি ভ্রান্ত ধারণা তৈরি হয় এবং স্বাস্থ্যঝুঁকি বিষয়ক উদ্বেগ কমে যায়।[১৬৭] মায়োক্লিনিকসহ আরো কিছু প্রতিষ্ঠানের চিকিৎসকগণ দাবি করেন যে হুঁকাসিগারেটের মতোই ক্ষতিকর।[১৬৮][১৬৯] বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা পরিচালিত এক গবেষণাতেও এর প্রমাণ পাওয়া যায়।[১৭০] প্রত্যেকটি সেশনে গড়ে ৪০ মিনিট ধরে হুঁকা সেবন করা হয় এবং ৫০ থেকে ২০০ বার টানা হয় যাতে ০.১৫-০.৫০ লিটার ধোঁয়া ভিতরে প্রবেশ করে।[১৭১][১৭২] একঘণ্টার এক সেশনে যে পরিমাণ ধূমপান করা হয় তা একটি সিগারেটের তুলনায় ১০০-২০০ গুণ বেশি।[১৭১][১৭৩] জার্নাল অব পেরিওডন্টোলজি-তে প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা যায় সাধারণ ধূমপায়ীর তুলনায় হুঁকা ব্যবহারকারীর মাড়ির সমস্যা ৩.৮ গুণ এবং অধূমপায়ীর তুলনায় ৫ গুণবেশি হয়।[১৭৪] মার্কিন পত্রিকা ইউএসএ টুডেপ্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী হুঁকা ব্যবহারকারীর ফুসফুস ক্যান্সারের সম্ভাবনা অধূমপায়ীর তুলনায় পাঁচগুণ বেশি।[১৭৫]

গুল[সম্পাদনা]

এটি একটি সুগন্ধি পাউডার যা গাল ও মাড়ির মাঝখানে রাখা হয়। যারা প্রথম ব্যবহার করে তাদের মাথা ঘোরা ও বমিভাব হতে পারে। দীর্ঘমেয়াদি সমস্যার মধ্যে নিঃশ্বাসে দুর্ঘন্ধ, দাঁত হলুদ হয়ে যাওয়া ও মুখের ক্যান্সারের সম্ভাবনা অন্যতম। [১৭৬]

প্রতিরোধ[সম্পাদনা]

চিকিৎসকের দ্বারাশিশু ও কিশোরদেরকে শিক্ষা ও উপদেশ করে তামাকের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে।[১৭৭]

ব্যবহার[সম্পাদনা]

তামাকসেবী মহিলার শতকরা হার।
তামাকসেবী পুরুষের শতকরা হার। দ্রষ্টব্য:উভয়ক্ষেত্রে স্কেলের পার্থক্য রয়েছে।[৬]

যদিও তামাক ধূমপান ছাড়াও অন্যভাবে সেবন করা যায় যেমন চিবিয়ে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা শুধু ধূমপানকেই পরিসংখ্যানের ভিত্তি হিসেবে গ্রহণ করেছে।[১] তামাকের ব্যবহারের ক্ষেত্রে ধূমপানকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।[২]

২০০০ সালে ১২২ কোটি লোক ধূমপান করতো, ২০১০ সালে ১৪৫ কোটি ও ২০২৫ সালের মধ্যে ১৫০ থেকে ১৯০ কোটি ধূমপায়ী হবে বলে ভবিষ্যৎবাণী করা হয়েছিল।[১৭৮]

২০০২ সাল পর্যন্তসারাবিশ্বে ২০% অল্পবয়সী কিশোর-কিশোরী(১৩-১৫) ধূমপান করে। দৈনিক প্রায় আশি হাজার থেকে এক লাখ শিশু ধূমপান আসক্তির স্বীকার হচ্ছে যার প্রায় অর্ধেকই এশিয়াতে বাস করে।[১৭৯]

WHO এর মতে ধূমপানজনিত ক্ষতি ও অকাল মৃত্যু গরীবদেরই বেশি হয়। ১২২ কোটি লোকের মধ্যে ১০০ কোটিই উন্নয়নশীল দেশে বাস করে।[১৮০] ২০০২ সালের হিসাব মতে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে ধূমপায়ীর সংখ্যা প্রতিবছর ৩.৪% হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।[১৭৯] WHO ২০০৪ সালে হিসাব করেছিলো যে সারাবিশ্বে ৫৮.৮ মিলিওন লোক মারা যায়।[১৮১]: যার মধ্যে ৫৪ লাখ ধূমপানজনিত কারণে[১৮১]:২৩ এবং ২০০৭ সালে তা ৪৯ লাখে নেমে আসে।[১৮২] ২০০২ সালে ৭০% মৃত্যুই ঘটেছিল উন্নয়নশীল দেশে।[১৮২] অল্পবয়সী তরুণ-তরুণীদের মধ্যে ধূমপানের প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে এই প্রবণতা অনেক বেশি। এর জন্য অনেকে কোম্পানিগুলোর চটকদার বিজ্ঞাপনকে দায়ী করেন কারণ এই বয়সের ছেলেমেয়েরা এরকম বিজ্ঞাপন দ্বারা প্রভাবিত হয়। তাছাড়া ধূমপানের ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে তাদের সুস্পষ্ট ধারণা থাকে না।কোম্পানিগুলো বিজ্ঞাপন বাবদ ১২ বিলিওন ডলার খরচ করে থাকে।[১৪] জনগণকে ধূমপানের ক্ষতি থেকে রক্ষা করতে সরকার প্রকাশ্য ধূমপানের উপর অনেক কড়াকড়ি আরোপ করে। আমেরিকায় প্রো-চিল্ড্রেন অ্যাক্ট ২০০১ নামে এরকম একটি আইন পাশ হয়েছিল।[১৮৩] ২০১১ সালের ২৩শে মে নিউ ইয়র্ক শহরে সকল পার্ক, সৈকত ও রাস্তার পাশের মলগুলোতে ধূমপান নিষিদ্ধ করে।[১৮৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

স্বাস্থ্যের উপর তামাকের প্রভাব সংক্রান্ত উদ্বেগ নিয়ে সুদীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে। Gideon Lincecum নামক একজন আমেরিকান প্রকৃতিবিজ্ঞানী ও বোটানিক্যাল মেডিসিনের চিকিৎসক উনিশ শতকের প্রথমদিকে তামাক সম্পর্কে লিখেছিলেন, "অনেক প্রবীণ চিকিৎসক এই বিষাক্ত গাছকে ঔষধ হিসেবে ব্যাপকভাবে ব্যবহার করেছেন, এবং এর দ্বারা হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করা হয়েছে.... এটি অত্যন্ত ভয়ানক বস্তু এবং আপনি ইচ্ছা করলে ব্যবহার করুন, এটি সর্বদা মূল্যবান শক্তিকে কমিয়ে দিবে ঠিক ততটা পরিমাণে যতটা পরিমাণ ব্যবহৃত হবে- এটা হতে পারে খুব ধীরে ধীরে, কিন্তু হবেই তা একদম নিশ্চিত।"[১৮৫]

উনিশ শতকের শেষ দিকে সিগারেট তৈরির স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রপাতি উদ্ভাবিত হওয়ার পর স্বল্প খরচে ব্যাপকহারে সিগারেট উৎপাদন শুরু হয়।তারপর এটি সমাজের অভিজাত ও কেতাদুরস্ত লোকদের মাঝে জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করে। ১৯১২ সালে, আমেরিকান চিকিৎসক ড. আইজাক অ্যাডলার প্রথমবারের মতো ধূমপানের সাথে ফুসফুস ক্যান্সারের সম্পর্কের কথা বলেন।[১৮৬] ১৯২৪ সালে অর্থনীতিবিদ আরভিং ফিশার রিডার'স ডাইজেস্ট পত্রিকায় ধূমপান বিরোধী একটা প্রবন্ধ লিখেছিলেন, সেখানে তিনি তামাক সম্পর্কে একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা বলেছিলেন তা হলো.. "তামাক পুরাশরীরের স্থিতিস্থাপকতা কমিয়ে দেয়এবং এর মূল্যবান ক্ষমতা ও প্রতিরোধ শক্তিকে খর্ব করে... এটা নার্কোটিক পয়জন এর মতো কাজ করে, আফিমের মতো, এবং অ্যালকোহলের মতো, যদিও সাধারণত অল্প পরিমাণে।"[১৮৭] ১৯২৯ সালে, ড্রেসডেন, জার্মানিরবিজ্ঞানী ফ্রিৎস লিকিন্টএকটি পরিসংখ্যানিক প্রমাণপত্র প্রকাশ করেন যার মাধ্যমে তিনি ফুসফুস ক্যান্সার ও তামাকের সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করেন।[১৮৮] প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পূর্বে ফুসফুস ক্যান্সারকে বিরল একটি রোগ হিসেবে ভাবা হতো, এমনও হয়েছে যে অনেক চিকিৎসক তাঁর পেশাগত জীবনে একবারের জন্যেও এই রোগীর দেখা পাননি।[২১][১৮৯]

১৯৫০ সালে, রিচার্ড ডল ও অস্টিন ব্র্যাoডফোর্ড হিল ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালেএকটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেন এবং সেখানে ধূমপান ও ফুসফুস ক্যান্সারের সম্পর্ক দেখান।[৩] এর ঠিক চার বছর পর, ১৯৫৪ সালে ব্রিটিশ ডক্টরস স্টাডি নামে একটি গবেষণা প্রকাশ হয় যেখানে এর সত্যতার প্রমাণ পাওয়া যায়।[৪] ব্রিটিশ ডক্টরস স্টাডি ২০০১ সাল পর্যন্ত করা হয়। প্রতি দশ বছর পরপর ফলাফল প্রকাশ করা হতো, সর্বশেষ ফলাফল প্রকাশ করা ২০০৪ সালে।[৫]

গবেষণা[সম্পাদনা]

১৯৩০ সালে জার্মান বিজ্ঞানীগণ দেখান যে সিগারেট ফুসফুস ক্যান্সার করতে পারে।[১৯০] ১৯৩৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীগণ মানুষের জীবনকাল ও ধূমপানের মধ্যে একটি নেতিবাচক সম্পর্ক খুঁজে পান। ১৯৫০ সালে পাঁচটি গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয় যার প্রত্যেকটিতে ফুসফুস ক্যান্সারের সাথে ধূমপানের শক্তিশালী সম্পর্ক দেখানো হয়।[১৯১] এই গবেষণার ফলগুলো ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালেস্মোকিং অ্যান্ড কার্সিনোমা অব লাংশিরোনামে প্রকাশিত হয়।। উক্ত প্রতিবেদনে দাবি করা হয় যে, যারা অত্যধিক পরিমাণে ধূমপান করে তাদের ফুসফুস ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা অধূমপায়ীদের তুলনায় পঞ্চাশগুণ বেশি।[১৯১] ধূমপায়ী বলতে যারা দৈনিক ধূমপান করে তাদের বুঝানো হয়েছে এবং ধূমপান সংক্রান্ত সকল গবেষণায় এই ক্যাটাগরিকে ভিত্তি হিসেবে ধরা হয়েছে। যারা দৈনিক ধূমপান করেনা তাদেরকে অকেশনাল স্মোকার হিসেবে ধরা হয়। ২০০৬ সালে ইউরোপীয় গবেষণায় দেখা যায় এই ধরণের ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে ক্যান্সারের সম্ভাবনা অধূমপায়ীদের তুলনায় ১.২৪ গুণ বেশি।[১৯২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Prevalence of current tobacco use among adults aged=15 years (percentage)"। World Health Organization। ২০০৮-১২-১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-০২ 
  2. "Mayo report on addressing the worldwide tobacco epidemic through effective, evidence-based treatment"। World Health Organization। পৃষ্ঠা 2। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-০২ 
  3. Doll R, Hill AB (সেপ্টে ১৯৫০)। "Smoking and carcinoma of the lung; preliminary report"British Medical Journal2 (4682): 739–748। doi:10.1136/bmj.2.4682.739PMID 14772469পিএমসি 2038856অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  4. Doll R, Hill AB (জুন ২০০৪)। "The mortality of doctors in relation to their smoking habits: a preliminary report. 1954"BMJ328 (7455): 1529–33; discussion 1533। doi:10.1136/bmj.328.7455.1529PMID 15217868পিএমসি 437141অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  5. Doll R, Peto R, Boreham J, Sutherland I (জুন ২০০৪)। "Mortality in relation to smoking: 50 years' observations on male British doctors"BMJ328 (7455): 1519। doi:10.1136/bmj.38142.554479.AEPMID 15213107পিএমসি 437139অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  6. World Health Organization (২০০৮)। WHO Report on the Global Tobacco Epidemic 2008: The MPOWER Package (PDF)। Geneva: World Health Organization। পৃষ্ঠা 8। আইএসবিএন 92-4-159628-7 
  7. "Tobacco Fact sheet N°339"। মে ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মে ২০১৫ 
  8. "The top 10 causes of death"। ৪ নভেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মে ২০১৫ 
  9. "Nicotine: A Powerful Addiction ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১ মে ২০০৯ তারিখে." Centers for Disease Control and Prevention.
  10. Vainio H (জুন ১৯৮৭)। "Is passive smoking increasing cancer risk?"। Scandinavian Journal of Work, Environment & Health13 (3): 193–6। doi:10.5271/sjweh.2066PMID 3303311 
  11. "The health consequences of involuntary exposure to tobacco smoke: a report of the Surgeon General" (PDF)। Atlanta, U.S., page 93: U.S. Department of Health and Human Services, Centers for Disease Control and Prevention, National Center for Chronic Disease Prevention and Health Promotion, Office on Smoking and Health। ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-১৫ 
  12. Peate I (২০০৫)। "The effects of smoking on the reproductive health of men"। British Journal of Nursing14 (7): 362–6। doi:10.12968/bjon.2005.14.7.17939PMID 15924009 
  13. Korenman, Stanley G. (২০০৪)। "Epidemiology of erectile dysfunction"Endocrine (ইংরেজি ভাষায়)। 23 (2-3): 87–91। doi:10.1385/ENDO:23:2-3:087PMID 15146084আইএসএসএন 1355-008X। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৬ 
  14. Nichter M, Cartwright E; Cartwright (১৯৯১)। "Saving the Children for the Tobacco Industry"। Medical Anthropology Quarterly5 (3): 236–56। doi:10.1525/maq.1991.5.3.02a00040জেস্টোর 648675 
  15. Nutt, D; King, LA; Saulsbury, W; Blakemore, C (২৪ মার্চ ২০০৭)। "Development of a rational scale to assess the harm of drugs of potential misuse."। Lancet (London, England)369 (9566): 1047–53। doi:10.1016/s0140-6736(07)60464-4PMID 17382831 
  16. ASPA। "Health Effects of Tobacco"। ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  17. "Life Expectancy at Age 30: Nonsmoking Versus Smoking Men"। Tobacco Documents Online। ২০১২-০৪-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  18. Ferrucci L, Izmirlian G, Leveille S, Phillips CL, Corti MC, Brock DB, Guralnik JM (এপ্রিল ১৯৯৯)। "Smoking, physical activity, and active life expectancy"। American Journal of Epidemiology149 (7): 645–653। doi:10.1093/oxfordjournals.aje.a009865PMID 10192312 
  19. Doll R, Peto R, Wheatley K, Gray R, Sutherland I (অক্টো ১৯৯৪)। "Mortality in relation to smoking: 40 years' observations on male British doctors"BMJ309 (6959): 901–11। doi:10.1136/bmj.309.6959.901PMID 7755693পিএমসি 2541142অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  20. Villeneuve PJ, Mao Y (১৯৯৪)। "Lifetime probability of developing lung cancer, by smoking status, Canada"। Canadian Journal of Public Health85 (6): 385–8। PMID 7895211 
  21. Witschi H (নভে ২০০১)। "A short history of lung cancer"। Toxicological Sciences64 (1): 4–6। doi:10.1093/toxsci/64.1.4PMID 11606795 
  22. Adler I. Primary malignant growths of the lungs and bronchi. New York: Longmans, Green, and Company; 1912., cited in Spiro SG, Silvestri GA (সেপ্টে ২০০৫)। "One hundred years of lung cancer"। American Journal of Respiratory and Critical Care Medicine172 (5): 523–9। doi:10.1164/rccm.200504-531OEPMID 15961694 
  23. "Benefits of Quitting - American Lung Association"Stop SmokingAmerican Lung Association। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  24. "Light Cigarettes and Cancer Risk"National Cancer Institute। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  25. Rizzuto, D; Fratiglioni, L (২০১৪)। "Lifestyle factors related to mortality and survival: a mini-review."। Gerontology60 (4): 327–35। doi:10.1159/000356771PMID 24557026 
  26. Samet, JM (মে ২০১৩)। "Tobacco smoking: the leading cause of preventable disease worldwide."। Thoracic surgery clinics23 (2): 103–12। doi:10.1016/j.thorsurg.2013.01.009PMID 23566962 
  27. Centers for Disease Control and Prevention (CDC) (এপ্রিল ২০০২)। "Annual smoking-attributable mortality, years of potential life lost, and economic costs--United States, 1995-1999"। MMWR. Morbidity and Mortality Weekly Report51 (14): 300–3। PMID 12002168 
  28. Streppel MT, Boshuizen HC, Ocké MC, Kok FJ, Kromhout D (২০০৭)। "Mortality and life expectancy in relation to long-term cigarette, cigar and pipe smoking: the Zutphen Study"Tob Control16: 107–13। doi:10.1136/tc.2006.017715PMID 17400948পিএমসি 2598467অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  29. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি" (PDF)। ২৯ ডিসেম্বর ২০০৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  30. "HEALTH | Cigarettes 'cut life by 11 minutes'"। BBC News। ১৯৯৯-১২-৩১। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৩-২৫ 
  31. "Time for a smoke? One cigarette reduces your life by 11 minutes"। BMJ। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৩-২৫ 
  32. Mamun AA, Peeters A, Barendregt J, Willekens F, Nusselder W, Bonneux L (মার্চ ২০০৪)। "Smoking decreases the duration of life lived with and without cardiovascular disease: a life course analysis of the Framingham Heart Study"। European Heart Journal25 (5): 409–415। doi:10.1016/j.ehj.2003.12.015PMID 15033253 
  33. Thun MJ, Day-Lally CA, Calle EE, Flanders WD, Heath CW (সেপ্টে ১৯৯৫)। "Excess mortality among cigarette smokers: changes in a 20-year interval"American Journal of Public Health85 (9): 1223–30। doi:10.2105/AJPH.85.9.1223PMID 7661229পিএমসি 1615570অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  34. "America's Health Rankings - 2011" (PDF)। United Health Foundation। ডিসেম্বর ২০১১। পৃষ্ঠা 12। 
  35. Centers for Disease Control and Prevention (CDC) (নভে ২০০৮)। "Smoking-attributable mortality, years of potential life lost, and productivity losses--United States, 2000-2004"। MMWR. Morbidity and Mortality Weekly Report57 (45): 1226–8। PMID 19008791 
  36. "21st Century Could See a Billion Tobacco Victims" (PDF)Tobacco News Flash। Tobacco-Free Missouri Coalition। 3 (12): 1। ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  37. Carter BD, Abnet CC, Feskanich D, Freedman ND, Hartge P, Lewis CE, Ockene JK, Prentice RL, Speizer FE, Thun MJ, Jacobs EJ (ফেব্রু ২০১৫)। "Smoking and mortality--beyond established causes"The New England Journal of Medicine372 (7): 631–640। doi:10.1056/NEJMsa1407211PMID 25671255 
  38. "Lung Cancer and Smoking" (PDF)Fact Sheet। www.LegacyForHealth.org। ২০১০-১১-২৩। ২০১৩-০৩-১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  39. Lipworth L, Tarone RE, McLaughlin JK (ডিসে ২০০৬)। "The epidemiology of renal cell carcinoma"। The Journal of Urology176 (6 Pt 1): 2353–2358। doi:10.1016/j.juro.2006.07.130PMID 17085101 
  40. "Risks and causes of laryngeal cancer"Cancer Research UK। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৫ 
  41. "Head and Neck Cancer: Risk Factors and Prevention"। ASCO। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৫ 
  42. Boffetta P (সেপ্টে ২০০৮)। "Tobacco smoking and risk of bladder cancer"। Scandinavian Journal of Urology and Nephrology. Supplementum42 (218): 45–54। doi:10.1080/03008880802283664PMID 18815916 
  43. "Esophagus Cancer"। American Cancer Society। ২০১১-০৮-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  44. Iodice S, Gandini S, Maisonneuve P, Lowenfels AB (জুলাই ২০০৮)। "Tobacco and the risk of pancreatic cancer: a review and meta-analysis"। Langenbeck's Archives of Surgery / Deutsche Gesellschaft Für Chirurgie393 (4): 535–545। doi:10.1007/s00423-007-0266-2PMID 18193270 
  45. Kuper H, Boffetta P, Adami HO (সেপ্টে ২০০২)। "Tobacco use and cancer causation: association by tumour type"। Journal of Internal Medicine252 (3): 206–224। doi:10.1046/j.1365-2796.2002.01022.xPMID 12270001 
  46. Vineis, P; Alavanja, M; Buffler, P; Fontham, E; Franceschi, S; Gao, YT; Gupta, PC; Hackshaw, A; Matos, E; Samet, J; Sitas, F; Smith, J; Stayner, L; Straif, K; Thun, MJ; Wichmann, HE; Wu, AH; Zaridze, D; Peto, R; Doll, R (২১ জানুয়ারি ২০০৪)। "Tobacco and cancer: recent epidemiological evidence."। Journal of the National Cancer Institute96 (2): 99–106। doi:10.1093/jnci/djh014PMID 14734699 
  47. Sasco, A.J.; Secretan, M.B.; Straif, K. (আগস্ট ২০০৪)। "Tobacco smoking and cancer: a brief review of recent epidemiological evidence"। Lung Cancer45: S3–S9। doi:10.1016/j.lungcan.2004.07.998PMID 15552776 
  48. "What are the risk factors for breast cancer?"American Cancer Society। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০১৫ 
  49. Thun MJ, Hannan LM, Adams-Campbell LL, Boffetta P, Buring JE, Feskanich D, Flanders WD, Jee SH, Katanoda K, Kolonel LN, Lee IM, Marugame T, Palmer JR, Riboli E, Sobue T, Avila-Tang E, Wilkens LR, Samet JM (সেপ্টে ২০০৮)। "Lung cancer occurrence in never-smokers: an analysis of 13 cohorts and 22 cancer registry studies"PLoS Medicine5 (9): e185। doi:10.1371/journal.pmed.0050185PMID 18788891পিএমসি 2531137অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  50. Devereux G (মে ২০০৬)। "ABC of chronic obstructive pulmonary disease. Definition, epidemiology, and risk factors"BMJ332 (7550): 1142–1144। doi:10.1136/bmj.332.7550.1142PMID 16690673পিএমসি 1459603অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  51. Facchinetti F, Amadei F, Geppetti P, Tarantini F, Di Serio C, Dragotto A, Gigli PM, Catinella S, Civelli M, Patacchini R (নভে ২০০৭)। "Alpha,beta-unsaturated aldehydes in cigarette smoke release inflammatory mediators from human macrophages"। American Journal of Respiratory Cell and Molecular Biology37 (5): 617–623। doi:10.1165/rcmb.2007-0130OCPMID 17600310 
  52. Glantz, SA; Parmley, WW (৫ এপ্রিল ১৯৯৫)। "Passive smoking and heart disease. Mechanisms and risk."। JAMA273 (13): 1047–53। doi:10.1001/jama.1995.03520370089043PMID 7897790 
  53. Shah, Reena S; Cole, John W (জুলাই ২০১০)। "Smoking and stroke: the more you smoke the more you stroke"। Expert Review of Cardiovascular Therapy8 (7): 917–932। doi:10.1586/erc.10.56 
  54. "How Does Smoking Affect the Heart and Blood Vessels?"। NHLBI। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  55. "Health : Young smokers' heart attack risk"। BBC। ২০০৪-০৮-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০০৫-১২-১৮ 
  56. "Cigarette Smoke Changes Heart's Shape"। InfoNIAC.com। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১০ 
  57. Joyce JW (মে ১৯৯০)। "Buerger's disease (thromboangiitis obliterans)"। Rheumatic Diseases Clinics of North America16 (2): 463–70। PMID 2189162 
  58. Yacoub R, Habib H, Lahdo A, Al Ali R, Varjabedian L, Atalla G, Kassis Akl N, Aldakheel S, Alahdab S, Albitar S (২০১০)। "Association between smoking and chronic kidney disease: a case control study"BMC Public Health10: 731। doi:10.1186/1471-2458-10-731PMID 21108832পিএমসি 3004836অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  59. Sawicki PT, Didjurgeit U, Mühlhauser I, Bender R, Heinemann L, Berger M (ফেব্রু ১৯৯৪)। "Smoking is associated with progression of diabetic nephropathy"। Diabetes Care17 (2): 126–31। doi:10.2337/diacare.17.2.126PMID 8137682 
  60. Kark JD, Lebiush M, Rannon L (অক্টো ১৯৮২)। "Cigarette smoking as a risk factor for epidemic a(h1n1) influenza in young men"। The New England Journal of Medicine307 (17): 1042–6। doi:10.1056/NEJM198210213071702PMID 7121513 
  61. Finklea JF, Sandifer SH, Smith DD (নভে ১৯৬৯)। "Cigarette smoking and epidemic influenza"। American Journal of Epidemiology90 (5): 390–9। PMID 5356947 
  62. Kark JD, Lebiush M (মে ১৯৮১)। "Smoking and epidemic influenza-like illness in female military recruits: a brief survey"American Journal of Public Health71 (5): 530–2। doi:10.2105/AJPH.71.5.530PMID 7212144পিএমসি 1619723অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  63. Nicholson KG, Kent J, Hammersley V (আগস্ট ১৯৯৯)। "Influenza A among community-dwelling elderly persons in Leicestershire during winter 1993-4; cigarette smoking as a risk factor and the efficacy of influenza vaccination"Epidemiology and Infection123 (1): 103–8। doi:10.1017/S095026889900271XPMID 10487646পিএমসি 2810733অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  64. National Institutes of Health (১৯৯৮-০৪-১০)। "Background on Cigar Monograph: Cigars: Health Effects and Trends"। ২০০৮-০৫-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-০৪ 
  65. American Cancer Society"Questions About Smoking, Tobacco, and Health"। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-০৪ 
  66. Henley SJ, Thun MJ, Chao A, Calle EE (জুন ২০০৪)। "Association between exclusive pipe smoking and mortality from cancer and other diseases"। Journal of the National Cancer Institute96 (11): 853–861। doi:10.1093/jnci/djh144PMID 15173269 
  67. Loren Stein। "Pipe Smoking"। A Healthy Me!। ২০০৭-১২-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-০৪ 
  68. Commission on Life Sciences। "Environmental Tobacco Smoke: Measuring Exposures and Assessing Health Effects (1986)"। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-০৪ 
  69. Johnson GK, Slach NA (এপ্রিল ২০০১)। "Impact of tobacco use on periodontal status"। Journal of Dental Education65 (4): 313–21। PMID 11336116 
  70. Reibel J (২০০৩)। "Tobacco and oral diseases. Update on the evidence, with recommendations"। Medical Principles and Practice। 12 Suppl 1: 22–32। doi:10.1159/000069845PMID 12707498 
  71. Ness L, Rosekrans Dde L, Welford JF (জানু ১৯৭৭)। "An epidemiologic study of factors affecting extrinsic staining of teeth in an English population"। Community Dentistry and Oral Epidemiology5 (1): 55–60। doi:10.1111/j.1600-0528.1977.tb01617.xPMID 264419 
  72. "Helping you to Stop Smoking!"। ২০০৮-০৮-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-০৪ 
  73. Züllich G, Damm KH, Braun W, Lisboa BP (মে ১৯৭৫)। "Studies on biliary excreted metabolites of [G-3H]digitoxin in rats"। Archives Internationales de Pharmacodynamie et de Thérapie215 (1): 160–7। PMID 1156044 
  74. Dietrich T, Maserejian NN, Joshipura KJ, Krall EA, Garcia RI (এপ্রিল ২০০৭)। "Tobacco use and incidence of tooth loss among US male health professionals"Journal of Dental Research86 (4): 373–377। doi:10.1177/154405910708600414PMID 17384035পিএমসি 2582143অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  75. Al-Bayaty FH, Wahid NA, Bulgiba AM (ফেব্রু ২০০৮)। "Tooth mortality in smokers and nonsmokers in a selected population in Sana'a, Yemen"। Journal of Periodontal Research43 (1): 9–13। doi:10.1111/j.1600-0765.2007.00988.xPMID 18230101 
  76. "Leukoplakia Causes"Mayo Clinic। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০১৫ 
  77. Davies PD, Yew WW, Ganguly D, Davidow AL, Reichman LB, Dheda K, Rook GA (এপ্রিল ২০০৬)। "Smoking and tuberculosis: the epidemiological association and immunopathogenesis"। Transactions of the Royal Society of Tropical Medicine and Hygiene100 (4): 291–298। doi:10.1016/j.trstmh.2005.06.034PMID 16325875 
  78. Jha P, Jacob B, Gajalakshmi V, Gupta PC, Dhingra N, Kumar R, Sinha DN, Dikshit RP, Parida DK, Kamadod R, Boreham J, Peto R (মার্চ ২০০৮)। "A nationally representative case-control study of smoking and death in India"। The New England Journal of Medicine358 (11): 1137–1147। doi:10.1056/NEJMsa0707719PMID 18272886 
  79. Nuorti JP, Butler JC, Farley MM, Harrison LH, McGeer A, Kolczak MS, Breiman RF (মার্চ ২০০০)। "Cigarette smoking and invasive pneumococcal disease. Active Bacterial Core Surveillance Team"। The New England Journal of Medicine342 (10): 681–9। doi:10.1056/NEJM200003093421002PMID 10706897 
  80. Arcavi L, Benowitz NL (নভে ২০০৪)। "Cigarette smoking and infection"। Archives of Internal Medicine164 (20): 2206–16। doi:10.1001/archinte.164.20.2206PMID 15534156 
  81. Goedert JJ, Vitale F, Lauria C, Serraino D, Tamburini M, Montella M, Messina A, Brown EE, Rezza G, Gafà L, Romano N (নভে ২০০২)। "Risk factors for classical Kaposi's sarcoma"। Journal of the National Cancer Institute94 (22): 1712–8। doi:10.1093/jnci/94.22.1712PMID 12441327 
  82. "MEDLINEplus: Smoking Cuts Risk of Rare Cancer"। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  83. "The Tobacco Reference Guide"। ২০০৬-০৭-১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৬-০৭-১৫ 
  84. Kendirci M, Nowfar S, Hellstrom WJ (জানু ২০০৫)। "The impact of vascular risk factors on erectile function"। Drugs of Today41 (1): 65–74। doi:10.1358/dot.2005.41.1.875779PMID 15753970 
  85. Dechanet C, Anahory T, Mathieu Daude JC, Quantin X, Reyftmann L, Hamamah S, Hedon B, Dechaud H (২০১১)। "Effects of cigarette smoking on reproduction"। Human Reproduction Update17 (1): 76–95। doi:10.1093/humupd/dmq033PMID 20685716 
  86. FERTILITY FACT > Female Risks ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২২ সেপ্টেম্বর ২০০৭ তারিখে By the American Society for Reproductive Medicine (ASRM). Retrieved on Jan 4, 2009
  87. "protectyourfertility.com" (PDF)। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  88. fertility services: a commissioning aid - June 2009, from the Department of Health UK
  89. Lagrue G, Lebargy F, Cormier A (২০০১)। "Des récepteurs nicotiniques à la dépendance tabagique : perspectives thérapeutiques" [From nicotinic receptors to smoking dependence: Therapeutic prospects]। Alcoologie et Addictologie (French ভাষায়)। 23 (2 Suppl): 39S–42S। 
  90. Parrott AC (জানু ১৯৯৮)। "Nesbitt's Paradox resolved? Stress and arousal modulation during cigarette smoking"। Addiction93 (1): 27–39। doi:10.1046/j.1360-0443.1998.931274.xPMID 9624709 
  91. Hughes JR (অক্টো ১৯৯২)। "Tobacco withdrawal in self-quitters"। Journal of Consulting and Clinical Psychology60 (5): 689–97। doi:10.1037/0022-006X.60.5.689PMID 1401384 
  92. Cohen S, Lichtenstein E (১৯৯০)। "Perceived stress, quitting smoking, and smoking relapse"। Health Psychology9 (4): 466–78। doi:10.1037/0278-6133.9.4.466PMID 2373070 
  93. Hamer M, Stamatakis E, Batty GD (আগস্ট ২০১০)। "Objectively assessed secondhand smoke exposure and mental health in adults: cross-sectional and prospective evidence from the Scottish Health Survey"। Archives of General Psychiatry67 (8): 850–5। doi:10.1001/archgenpsychiatry.2010.76PMID 20529994 
  94. Bachman JG, Wadsworth KN, O'Malley PM, Johnston LD, Schulenberg JE (১৯৯৭)। Smoking, drinking, and drug use in young adulthood: the impacts of new freedoms and new responsibilities। Hillsdale, N.J: L. Erlbaum Associates। পৃষ্ঠা 70। আইএসবিএন 0-8058-2547-9 
  95. Doherty EW, Doherty WJ (১৯৯৮)। "Smoke gets in your eyes: Cigarette smoking and divorce in a national sample of American adults"। Families, Systems, & Health16 (4): 393–400। doi:10.1037/h0089864 
  96. Almeida OP, Hulse GK, Lawrence D, Flicker L (জানু ২০০২)। "Smoking as a risk factor for Alzheimer's disease: contrasting evidence from a systematic review of case-control and cohort studies"। Addiction97 (1): 15–28। doi:10.1046/j.1360-0443.2002.00016.xPMID 11895267 
  97. Anstey KJ, von Sanden C, Salim A, O'Kearney R (আগস্ট ২০০৭)। "Smoking as a risk factor for dementia and cognitive decline: a meta-analysis of prospective studies"। American Journal of Epidemiology166 (4): 367–378। doi:10.1093/aje/kwm116PMID 17573335 
  98. Jacobsen LK, Krystal JH, Mencl WE, Westerveld M, Frost SJ, Pugh KR (জানু ২০০৫)। "Effects of smoking and smoking abstinence on cognition in adolescent tobacco smokers"। Biological Psychiatry57 (1): 56–66। doi:10.1016/j.biopsych.2004.10.022PMID 15607301 
  99. Brody AL, Mandelkern MA, Jarvik ME, Lee GS, Smith EC, Huang JC, Bota RG, Bartzokis G, London ED (জানু ২০০৪)। "Differences between smokers and nonsmokers in regional gray matter volumes and densities"। Biological Psychiatry55 (1): 77–84। doi:10.1016/S0006-3223(03)00610-3PMID 14706428 
  100. Akiyama H, Meyer JS, Mortel KF, Terayama Y, Thornby JI, Konno S (নভে ১৯৯৭)। "Normal human aging: factors contributing to cerebral atrophy"। Journal of the Neurological Sciences152 (1): 39–49। doi:10.1016/S0022-510X(97)00141-XPMID 9395125 
  101. Allam MF, Campbell MJ, Hofman A, Del Castillo AS, Fernández-Crehuet Navajas R (জুন ২০০৪)। "Smoking and Parkinson's disease: systematic review of prospective studies"। Movement Disorders19 (6): 614–621। doi:10.1002/mds.20029PMID 15197698 
  102. Allam MF, Campbell MJ, Del Castillo AS, Fernández-Crehuet Navajas R (২০০৪)। "Parkinson's disease protects against smoking?"। Behavioural Neurology15 (3-4): 65–71। doi:10.1155/2004/516302PMID 15706049 
  103. Quik M (সেপ্টে ২০০৪)। "Smoking, nicotine and Parkinson's disease"। Trends in Neurosciences27 (9): 561–568। doi:10.1016/j.tins.2004.06.008PMID 15331239 
  104. Stough C, Mangan G, Bates T, Pellett O (নভে ১৯৯৪)। "Smoking and Raven IQ"। Psychopharmacology116 (3): 382–4। doi:10.1007/BF02245346PMID 7892431 
  105. Jarvis MJ (জানু ২০০৪)। "Why people smoke"BMJ328 (7434): 277–279। doi:10.1136/bmj.328.7434.277PMID 14751901পিএমসি 324461অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  106. Wang, M; Wang, ZP; Gong, R; Zhao, ZT (জানুয়ারি ২০১৪)। "Maternal smoking during pregnancy and neural tube defects in offspring: a meta-analysis."। Child's Nervous System30 (1): 83–9। doi:10.1007/s00381-013-2194-5PMID 23760473 
  107. Ward C, Lewis S, Coleman T (২০০৭)। "Prevalence of maternal smoking and environmental tobacco smoke exposure during pregnancy and impact on birth weight: retrospective study using Millennium Cohort"BMC Public Health7: 81। doi:10.1186/1471-2458-7-81PMID 17506887পিএমসি 1884144অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  108. Maytin EV, Levin EN, Anderson RR (মে ১৯৯১)। "A laser densitometer for selective spot analysis on dot blots and two-dimensional gel autoradiograms"। Analytical Biochemistry194 (2): 284–94। doi:10.1016/0003-2697(91)90231-HPMID 1862932 
  109. Kroon LA (২০০৭)। "Drug interactions with smoking"। Am J Health Syst Pharm64 (18): 1917–1921। doi:10.2146/ajhp060414PMID 17823102 
  110. Ande A, McArthur C, Ayuk L ও অন্যান্য (২০১৫)। "Effect of mild-to-moderate smoking on viral load, cytokines, oxidative stress, and cytochrome P450 enzymes in HIV-infected individuals."PLOS ONE10: e0122402। doi:10.1371/journal.pone.0122402PMID 25879453পিএমসি 4399877অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  111. Chen H, Vlahos R, Bozinovski S, Jones J, Anderson GP, Morris MJ (এপ্রিল ২০০৫)। "Effect of short-term cigarette smoke exposure on body weight, appetite and brain neuropeptide Y in mice"। Neuropsychopharmacology30 (4): 713–9। doi:10.1038/sj.npp.1300597PMID 15508020lay summaryNews-Medical.Net 
  112. Vanni H, Kazeros A, Wang R, Harvey BG, Ferris B, De BP, Carolan BJ, Hübner RH, O'Connor TP, Crystal RG (মে ২০০৯)। "Cigarette smoking induces overexpression of a fat-depleting gene AZGP1 in the human"Chest135 (5): 1197–1208। doi:10.1378/chest.08-1024PMID 19188554পিএমসি 2679098অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  113. Leistikow BN, Martin DC, Milano CE (আগস্ট ২০০০)। "Fire injuries, disasters, and costs from cigarettes and cigarette lights: a global overview"। Preventive Medicine31 (2 Pt 1): 91–9। doi:10.1006/pmed.2000.0680PMID 10938207 
  114. Cosnes J, Carbonnel F, Carrat F, Beaugerie L, Cattan S, Gendre J (নভে ১৯৯৯)। "Effects of current and former cigarette smoking on the clinical course of Crohn's disease"। Alimentary Pharmacology & Therapeutics13 (11): 1403–11। doi:10.1046/j.1365-2036.1999.00630.xPMID 10571595 
  115. Calkins BM (ডিসে ১৯৮৯)। "A meta-analysis of the role of smoking in inflammatory bowel disease"। Digestive Diseases and Sciences34 (12): 1841–54। doi:10.1007/BF01536701PMID 2598752 
  116. Lakatos PL, Szamosi T, Lakatos L (ডিসে ২০০৭)। "Smoking in inflammatory bowel diseases: good, bad or ugly?"World Journal of Gastroenterology13 (46): 6134–9। doi:10.3748/wjg.13.6134PMID 18069751পিএমসি 4171221অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  117. Mahid SS, Minor KS, Soto RE, Hornung CA, Galandiuk S (নভে ২০০৬)। "Smoking and inflammatory bowel disease: a meta-analysis"। Mayo Clinic Proceedings81 (11): 1462–1471। doi:10.4065/81.11.1462PMID 17120402 
  118. Lubin JH, Steindorf K (জানু ১৯৯৫)। "Cigarette use and the estimation of lung cancer attributable to radon in the United States"। Radiation Research141 (1): 79–85। doi:10.2307/3579093PMID 7997518 
  119. Reid A, de Klerk NH, Ambrosini GL, Berry G, Musk AW (আগস্ট ২০০৬)। "The risk of lung cancer with increasing time since ceasing exposure to asbestos and quitting smoking"Occupational and Environmental Medicine63 (8): 509–12। doi:10.1136/oem.2005.025379PMID 16849527পিএমসি 2078130অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  120. Kanis JA, Johnell O, Oden A, Johansson H, De Laet C, Eisman JA, Fujiwara S, Kroger H, McCloskey EV, Mellstrom D, Melton LJ, Pols H, Reeve J, Silman A, Tenenhouse A (ফেব্রু ২০০৫)। "Smoking and fracture risk: a meta-analysis"। Osteoporosis International16 (2): 155–62। doi:10.1007/s00198-004-1640-3PMID 15175845 
  121. Sørensen LT (এপ্রিল ২০১২)। "Wound healing and infection in surgery. The clinical impact of smoking and smoking cessation: a systematic review and meta-analysis"। Archives of Surgery147 (4): 373–83। doi:10.1001/archsurg.2012.5PMID 22508785 
  122. Cohen DJ, Doucet M, Cutlip DE, Ho KK, Popma JJ, Kuntz RE (আগস্ট ২০০১)। "Impact of smoking on clinical and angiographic restenosis after percutaneous coronary intervention: another smoker's paradox?"। Circulation104 (7): 773–8। doi:10.1161/hc3201.094225PMID 11502701 
  123. Goldman SM (২০১৪)। "Environmental toxins and Parkinson's disease"। Annu. Rev. Pharmacol. Toxicol.54: 141–64। doi:10.1146/annurev-pharmtox-011613-135937PMID 24050700 
  124. Pradhan P, Tirumala S, Liu X, Sayer JM, Jerina DM, Yeh HJ (মে ২০০১)। "Solution structure of a trans-opened (10S)-dA adduct of (+)-(7S,8R,9S,10R)-7,8-dihydroxy-9,10-epoxy-7,8,9,10-tetrahydrobenzo[a]pyrene in a fully complementary DNA duplex: evidence for a major syn conformation"। Biochemistry40 (20): 5870–81। doi:10.1021/bi002896qPMID 11352722 
  125. Bray F.; Tyczynski JE.; Parkin DM. (২০০৪)। "Going up or coming down? The changing phases of the lung cancer epidemic from 1967 to 1999 in the 15 European Union countries."। Eur. J. Cancer40: 96–125। doi:10.1016/j.ejca.2003.08.005PMID 14687795 
  126. Jones M, Fosbery R, Taylor D (২০০০)। "Answers to self-assessment questions"। Biology 1। Cambridge Advanced Sciences। পৃষ্ঠা 250। আইএসবিএন 0-521-78719-X 
  127. Feng Z, Hu W, Hu Y, Tang MS (অক্টো ২০০৬)। "Acrolein is a major cigarette-related lung cancer agent: Preferential binding at p53 mutational hotspots and inhibition of DNA repair"Proceedings of the National Academy of Sciences of the United States of America103 (42): 15404–15409। doi:10.1073/pnas.0607031103PMID 17030796পিএমসি 1592536অবাধে প্রবেশযোগ্যবিবকোড:2006PNAS..10315404F 
  128. Dr. C. Everett Koop"Smoking and smokeless tobacco"। ২৩ জুলাই ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৫, ২০০৬ 
  129. "Tobacco Smoke Carcinogens and Lung Cancer"। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  130. "DNA interaction with Benzopyrene"DNA। ডিসেম্বর ২৩, ২০০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৫, ২০০৫ 
  131. Sumner PE, Moore JM, Boyette MD। "Retrofitting Tobacco Curing Barns" (PDF)Extension Engineering Publications। The University of Georgia College of Agricultural and Environmental Sciences। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  132. NOVA"Search for a Safer Cigarette" 
  133. "Smoking, Health And Personality"। REBEK। মে ১৩, ২০১৫। ১৮ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৭ 
  134. U.S. Army Center for Health Promotion and Preventive Medicine। "Radiological Sources of Potential Exposure and/or Contamination" (PDF)। ডিসেম্বর ১২, ২০০৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  135. Martell EA (মার্চ ১৯৮৩)। "alpha-Radiation dose at bronchial bifurcations of smokers from indoor exposure to radon progeny"Proceedings of the National Academy of Sciences of the United States of America80 (5): 1285–9। doi:10.1073/pnas.80.5.1285PMID 6572389পিএমসি 393580অবাধে প্রবেশযোগ্যবিবকোড:1983PNAS...80.1285M 
  136. Muggli ME, Ebbert JO, Robertson C, Hurt RD (সেপ্টে ২০০৮)। "Waking a sleeping giant: the tobacco industry's response to the polonium-210 issue"American Journal of Public Health98 (9): 1643–50। doi:10.2105/AJPH.2007.130963PMID 18633078পিএমসি 2509609অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  137. Rego B (সেপ্টে ২০০৯)। "The Polonium brief: a hidden history of cancer, radiation, and the tobacco industry" (PDF)Isis; An International Review Devoted to the History of Science and Its Cultural Influences100 (3): 453–484। doi:10.1086/644613PMID 19960838 
  138. Office of Research Services, Division of Radiation Safety। "F. Typical Sources of Radiation Exposure"। United States National Institutes of Health। ২০১৩-০৬-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  139. "Radiation Risk for Xray and CT exams -"dosage chart। Associated Radiologists। এপ্রিল ২৬, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  140. "Radiation Risks and Realities" (PDF)। United States Environmental Protection Agency। 
  141. "Everyday exposures to radiation"Front Line। Public Broadcasting System। 
  142. "Radiation fears after Japan blast"BBC। ২০১১-০৭-২১। 
  143. Proctor RN (২০০৬-১২-০১)। "Puffing on Polonium"। The New York Times। 
  144. "Tobacco Smoke | Radiation Protection"। United States Environmental Protection Agency। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  145. Hecht SS (জুলাই ১৯৯৯)। "Tobacco smoke carcinogens and lung cancer"Journal of the National Cancer Institute91 (14): 1194–1210। doi:10.1093/jnci/91.14.1194PMID 10413421 
  146. Hecht, S. S. (২০১১)। "Tobacco smoke carcinogens and lung cancer"। Penning, T. M.। Chemical Carcinogenesis। Totowa, NJ: Springer। পৃষ্ঠা 67। আইএসবিএন 9781617379949 
  147. Talhout R, Opperhuizen A, van Amsterdam JG (অক্টো ২০০৭)। "Role of acetaldehyde in tobacco smoke addiction"। European Neuropsychopharmacology17 (10): 627–636। doi:10.1016/j.euroneuro.2007.02.013PMID 17382522 
  148. Hilts PJ (১৯৯৪-০৮-০২)। "Relative Addictiveness of Drugs"। New York Times। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  149. "The Henningfield-Benowitz substance comparison charts"। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  150. "AADAC|Truth About Tobacco – Addiction"। Alberta Health Services। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  151. Gervais A, O'Loughlin J, Meshefedjian G, Bancej C, Tremblay M (আগস্ট ২০০৬)। "Milestones in the natural course of onset of cigarette use among adolescents"Cmaj175 (3): 255–61। doi:10.1503/cmaj.051235PMID 16880445পিএমসি 1513423অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  152. National Cancer Institute। "Harms of Smoking and Health Benefits of Quitting"Fact Sheet। United States National Institutes of Health। সংগ্রহের তারিখ 2-12-05-06  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  153. Smith D (২০০০)। "Smoking increases teen depression"Monitor on Psychology। American Psychological Association। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  154. National Institute on Drug Abuse। "Mind Over Matter: Tobacco Addiction"। United States National Institutes of Health। ২০১২-০৫-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  155. Parkin C, Fairweather DB, Shamsi Z, Stanley N, Hindmarch I (মার্চ ১৯৯৮)। "The effects of cigarette smoking on overnight performance"। Psychopharmacology136 (2): 172–8। doi:10.1007/s002130050553PMID 9551774 
  156. Guillem K, Vouillac C, Azar MR, Parsons LH, Koob GF, Cador M, Stinus L (সেপ্টে ২০০৫)। "Monoamine oxidase inhibition dramatically increases the motivation to self-administer nicotine in rats"। The Journal of Neuroscience25 (38): 8593–8600। doi:10.1523/JNEUROSCI.2139-05.2005PMID 16177026 
  157. "Secondhand Smoke"। American Lung Association। জুন ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-০৬ 
  158. ""Tobacco-Free Florida", Centers for Disease Control & Prevention Fact Sheets"। সংগ্রহের তারিখ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  159. IARC Working Group on the Evaluation of Carcinogenic Risks to Humans (২০০৭)। "Smokeless tobacco and some tobacco-specific N-nitrosamines" (PDF)IARC Monographs on the Evaluation of Carcinogenic Risks to Humans / World Health Organization, International Agency for Research on Cancer89: 1–592। PMID 18335640 
  160. "What is cancer?"Detailed Guide। American Cancer Society। ২০১১-০৪-১১। 
  161. Dollar KM, Mix JM, Kozlowski LT (মে ২০০৮)। "Little cigars, big cigars: omissions and commissions of harm and harm reduction information on the Internet"। Nicotine & Tobacco Research10 (5): 819–26। doi:10.1080/14622200802027214PMID 18569755 
  162. Shanks TG, Burns DM (ফেব্রুয়ারি ১৯৮৮)। "Disease Consequences of Cigar Smoking" (PDF)। Shopland DR, Burns DM, Hoffmann D, Cummings KM, Amacher RH। Cigars: Health Effects and Trends। Smoking and Tobacco Control Monograph No. 9। National Cancer Institute। পৃষ্ঠা 105–60। 
  163. "Questions and answers about cigar smoking and cancer"। National Cancer Institute। ২০০০-০৩-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-১০-২১ 
  164. Burns DM (১৯৯৮)। "Cigar smoking: overview and current state of the science" (PDF)। Shopland DR, Burns DM, Hoffmann D, Cummings KM, Amacher RH। Cigars: Health Effects and Trends। Smoking and Tobacco Control Monograph No. 9। National Cancer Institute। পৃষ্ঠা 1–20। 
  165. Symm B, Morgan MV, Blackshear Y, Tinsley S (জুলাই ২০০৫)। "Cigar smoking: an ignored public health threat"। The Journal of Primary Prevention26 (4): 363–75। doi:10.1007/s10935-005-5389-zPMID 15995804 
  166. Misner, Jared (নভেম্বর ১৮, ২০০৯)। "UF study finds more teens smoke hookah"The Independent Florida Alligator 
  167. Knishkowy B, Amitai Y (জুলাই ২০০৫)। "Water-pipe (narghile) smoking: an emerging health risk behavior"। Pediatrics116 (1): e113–9। doi:10.1542/peds.2004-2173PMID 15995011 
  168. Hurt RD (২০১০-০২-২০)। "Hookah smoking: Is it safer than cigarettes?"। Mayo Clinic। 
  169. "EGYPT: Water pipe smoking a significant TB risk"IRIN। মার্চ ২৪, ২০০৮। 
  170. Reuters (মার্চ ১৭, ২০০৭)। "Egyptians warned on pipe smoking"। The Australian 
  171. Shihadeh A, Azar S, Antonios C, Haddad A (সেপ্টে ২০০৪)। "Towards a topographical model of narghile water-pipe café smoking: a pilot study in a high socioeconomic status neighborhood of Beirut, Lebanon"। Pharmacology, Biochemistry, and Behavior79 (1): 75–82। doi:10.1016/j.pbb.2004.06.005PMID 15388286 
  172. Djordjevic MV, Stellman SD, Zang E (জানু ২০০০)। "Doses of nicotine and lung carcinogens delivered to cigarette smokers"। Journal of the National Cancer Institute92 (2): 106–11। doi:10.1093/jnci/92.2.106PMID 10639511 
  173. Associated Press (মে ২৯, ২০০৭)। "WHO warns the hookah may pose same risk as cigarettes"USA Today 
  174. Natto, SB (২০০৫)। "Tobacco smoking and periodontal health in a Saudi Arabian population."। Swedish dental journal. Supplement (176)। PMID 16223098 
  175. Koch W (২০০৫-১২-২৮)। "Hookah trend is puffing along"USA Today। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৫-০৪ 
  176. Boffetta P, Hecht S, Gray N, Gupta P, Straif K (জুলাই ২০০৮)। "Smokeless tobacco and cancer"। The Lancet. Oncology9 (7): 667–75। doi:10.1016/S1470-2045(08)70173-6PMID 18598931 
  177. "Summaries for patients. Primary care interventions to prevent tobacco use in children and adolescents: U.S. Preventive Services Task Force recommendation statement"। Annals of Internal Medicine159 (8): I–36। অক্টো ২০১৩। doi:10.7326/0003-4819-159-8-201310150-00699PMID 23974179 
  178. Guindon GE, Boisclair D (২০০৩)। Past, current and future trends in tobacco use (PDF)। Washington DC: The International Bank for Reconstruction and Development / The World Bank। পৃষ্ঠা 13–16। আইএসবিএন 1-932126-66-X। ২০০৬-১২-৩১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৩-২২ 
  179. "WHO/WPRO-Smoking Statistics"। World Health Organization Regional Office for the Western Pacific। ২০০২-০৫-২৮। ২০০৯-১১-০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-০১ 
  180. Centers for Disease Control and Prevention (CDC) (নভে ২০০৭)। "Cigarette smoking among adults--United States, 2006"MMWR. Morbidity and Mortality Weekly Report56 (44): 1157–61। PMID 17989644 
  181. "The Global Burden of Disease 2004 Update" (PDF)। World Health Organization। ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-০১ 
  182. "WHO/WPRO-Tobacco Fact sheet"। World Health Organization Regional Office for the Western Pacific। ২০০৭-০৫-২৯। ২০০৯-০২-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-০১ 
  183. Elementary and Secondary Education | Environmental Tobacco Smoke | Pro-Children Act of 2001 | Non-Smoking Policy for Children’s Services | Section 4303
  184. Colgrove J, Bayer R, Bachynski KE (জুন ২০১১)। "Nowhere left to hide? The banishment of smoking from public spaces"। The New England Journal of Medicine364 (25): 2375–7। doi:10.1056/NEJMp1104637PMID 21612464 
  185. Lincecum, Gideon। "Nicotiana tabacum"Giden Lincecum Herbarium। University of Texas। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০১২ 
  186. Adler IA (১৯৮০)। "Classics in oncology. Primary malignant growths of the lung. Isaac A. Adler, A.M., M.D"। CA: A Cancer Journal for Clinicians30 (5): 295–301। doi:10.3322/canjclin.30.5.295PMID 6773624 
  187. Irving Fisher (১৯২৪)। "Does tobacco injure the human body?"Readers Digest। ১৮ এপ্রিল ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৭ 
  188. Proctor RN (ফেব্রু ২০০১)। "Commentary: Schairer and Schöniger's forgotten tobacco epidemiology and the Nazi quest for racial purity"। International Journal of Epidemiology30 (1): 31–4। doi:10.1093/ije/30.1.31PMID 11171846 
  189. Adler I (১৯১২)। Primary malignant growths of the lungs and bronchi: a pathological and clinical study। New York: Longmans, Green। ওসিএলসি 14783544 [পৃষ্ঠা নম্বর প্রয়োজন], cited in Spiro SG, Silvestri GA (সেপ্টে ২০০৫)। "One hundred years of lung cancer"। American Journal of Respiratory and Critical Care Medicine172 (5): 523–9। doi:10.1164/rccm.200504-531OEPMID 15961694 
  190. Oreskes N Conway EM (২০১০)। Merchants of Doubt: How a Handful of Scientists Obscured the Truth on Issues from Tobacco Smoke to Global Warming। San Francisco, CA: Bloomsbury Press। পৃষ্ঠা 15। আইএসবিএন 1-59691-610-9 
  191. Michaels, David (২০০৮)। Doubt is their product: how industry's assault on science threatens your health। Oxford [Oxfordshire]: Oxford University Press। পৃষ্ঠা 4–5। আইএসবিএন 0-19-530067-X 
  192. Bjerregaard BK, Raaschou-Nielsen O, Sørensen M, Frederiksen K, Tjønneland A, Rohrmann S, Linseisen J, Bergman MM, Boeing H, Sieri S, Palli D, Tumino R, Sacerdote C, Bueno-de-Mesquita HB, Büchner FL, Gram IT, Braaten T, Lund E, Hallmans G, Agren A, Riboli E (ডিসে ২০০৬)। "The effect of occasional smoking on smoking-related cancers: in the European Prospective Investigation into Cancer and Nutrition (EPIC)"। Cancer Causes & Control17 (10): 1305–9। doi:10.1007/s10552-006-0068-9PMID 17111263 

গ্রন্থতালিকা[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]