স্বর্গীয় বাহিনী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ব্লেসড বি দ্যা হোস্ট অব দ্যা কিং অব হেভেন, ১৫৫০ সালের দিকে অঙ্কিত এক রুশ শিল্পকর্ম

স্বর্গীয় বাহিনী (হিব্রু ভাষায়: צבאות‎ সাবাওথ, "বাহিনী") বলতে মূলত হিব্রু বাইবেলখ্রিস্টান বাইবেলে উল্লেখিত দেবদূতের বাহিনীকে (লুক ২:১৩) নির্দেশ করা হয়।

বাইবেল সামরিক দিক থেকে দেবদূতদের ব্যাপারে বেশকিছু বর্ণনা প্রদান করেছে, যেমন তাদের শিবিরস্থাপন সম্পর্কে (আদিপুস্তক ৩২:১-২), নির্দেশনা শৈলী (গীতসংহিতা ৯১:১১-১২; মথি ১৩:৪১; প্রত্যাদেশ ৭:২), ও যুদ্ধশৈলী সম্পর্কে (বিচারকর্ত্তৃগণের বিবরণ ৫:২০; ইয়োব ১৯:১২; প্রত্যাদেশ ১২:৭)। খ্রিস্ট ধর্মের কাহিনী অনুসারে স্বর্গীয় যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে স্বর্গীয় বাহিনী ।

বাইবেলের উদ্ধৃতি[সম্পাদনা]

যিহোশূয়ের পুস্তক ৫ এর স্বর্গীয় বাহিনীর নেতার শৈল্পিক চিত্র, ফারদিনান্দ বল, ১৬৪২।

হিব্রু বাইবেলে ঈশ্বরের যিহোভাএলোহিম নাম দুটি প্রায়শই সাবাওথ ("বাহিনী", হিব্রু: צבאות) শব্দটির সাথে পাওয়া যায় যেমন যিহোভা এলোহে সাবাওথ ("বাহিনীদের ঈশ্বর যিহোভা"), এলোহে সাবাওথ ("বাহিনীদের ঈশ্বর"), আদোনাই যিহোভা সাবাওথ ("বাহিনীদের প্রভু যিহোভা") কিংবা সবচেয়ে ব্যবহৃত, যিহোভা সাব্বাওথ ("বাহিনীদের যিহোভা")।[১]

যিহোশূয়ের পুস্তকের ৫:১৩-১৫ তে যিহোশূয় পবিত্র ভূমির যুদ্ধের প্রথম দিকে ঐশ্বরিক বাহিনীর অধিনায়কের দেখা পান যাকে ঈশ্বর পাঠিয়েছিলেন যিহোশূয়কে পবিত্র ভূমি দখল করতে উৎসাহিত করার জন্য:

যিরীহোর নিকটে অবস্থিতি-কালে যিহোশূয় চক্ষু তুলিয়া চাহিলেন, আর দেখ, এক পুরুষ তাঁহার সম্মুখে দণ্ডায়মান, তাঁহার হস্তে একখানা নিষ্কোষ খড়গ; যিহোশূয় তাঁহার কাছে গিয়া জিজ্ঞাসা করিলেন, আপনি আমাদের পক্ষ, কি আমাদের শত্রুদের পক্ষ? তিনি কহিলেন, না; কিন্তু আমি সদাপ্রভুর সৈন্যের অধ্যক্ষ, এখনই আসিলাম। তখন যিহোশূয় ভূমিতে উবুড় হইয়া পড়িয়া প্রণিপাত করিলেন, ও তাঁহাকে কহিলেন, হে আমার প্রভু, আপনার এ দাসকে কি আজ্ঞা করেন? সদাপ্রভুর সৈন্যের অধ্যক্ষ যিহোশূয়কে কহিলেন, তোমার পদ হইতে পাদুকা খুলিয়া ফেল, কেননা যে স্থানে তুমি দাঁড়াইয়া আছ, ঐ স্থান পবিত্র।

গুইডো রেনির দেবদূত মিকাইল

প্রত্যাদেশ পুস্তকে, সাতানের বিদ্রোহী বাহিনীকে মিকাইল নেতৃত্বাধীন স্বর্গীয় বাহিনী স্বর্গের যুদ্ধে পরাজিত করে (প্রত্যাদেশ ১২:৭-৯)।

ইসলাম ধর্মে[সম্পাদনা]

ইসলাম ধর্মে স্বর্গীয় বাহিনীর উল্লেখ রয়েছে। এটা বলা হয় যে বদরের যুদ্ধে আল্লাহ ফেরেশতাদের বাহিনী (দেবদূত শব্দের ইসলামিক প্রতিশব্দ) পাঠিয়ে সাহায্য করেছিলেন। কুরআনে রয়েছে,

"স্মরণ কর, যখন তোমরা তোমাদের প্রতিপালকের নিকট সাহায্য প্রার্থনা করেছিলে, তিনি তা কবুল করেছিলেন এবং বলেছিলেন, আমি তোমাদের সাহায্য করব এক হাজার ফেরেশতা দিয়ে, যারা একের পর এক আসবে। আল্লাহ তা করেন, কেবল সুসংবাদ দেওয়ার জন্য এবং এ উদ্দেশ্যে, যাতে তোমাদের চিত্ত প্রশান্তি লাভ করে এবং সাহায্য তো শুধু আল্লাহর নিকট থেকেই আসে, আল্লাহ পরাক্রমশালী, প্রজ্ঞাময়।"[২]

বাহাই ধর্মে[সম্পাদনা]

"বাহিনীদের ঈশ্বর" পরিভাষাটি বাহাই ধর্মে আল্লাহর উপাধি হিসেবে ব্যবহৃত হয়।[৩] বাহাউল্লাহ, যিনি নিজেকে ঈশ্বরের ইচ্ছার সম্পন্নকারী হিসেবে দাবি করেছিলেন, তিনি পৃথিবীর বিভিন্ন রাজা ও শাসকদের কাছে লিখিত ফলক পাঠিয়ে নিজেকে সমস্ত ধর্ম ও বিশ্বাসের মশীহ হিসেবে মেনে নিতে তাদেরকে আমন্ত্রণ জানান। পরবর্তীতে সেসব ফলকগুলোর লেখার ইংরেজি ভাষায় প্রকাশিত পুস্তকের নাম দেওয়া হয়েছে "বাহিনীদের ঈশ্বরের আমন্ত্রণ"।[৪]

সাহিত্যে[সম্পাদনা]

জন মিল্টন রচিত ইংরেজি মহাকাব্য প্যারাডাইস লস্টে দেবদূত মিকাইল স্বর্গীয় যুদ্ধে শয়তানের অভিশপ্ত দেবদূতদের বাহিনীর বিরুদ্ধে ঈশ্বরের বিশ্বস্ত সেনাদের নেতৃত্ব দেয়। ঈশ্বরের অস্ত্রাগার থেকে নেওয়া তরবারি দিয়ে সে শয়তানকে জখম করা সহ যুদ্ধে বিজয় অর্জন করে।[৫]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Jewish Encyclopedia: Host of Heaven New York, May 1, 1901
  2. মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন (২৩ জুন ২০১৬)। "মুসলমানদের ঐতিহাসিক বিজয়"রাইজিংবিডি.কম 
  3. The Summons of the Lord of Hosts Baháʼí Reference Library
  4. The Summons of the Lord of Hosts, Page 1 Baháʼí Reference Library
  5. John Milton, Paradise Lost 1674 Book VI line 320


টেমপ্লেট:ইব্রাহিমীয় ধর্মে দেবদূত