স্পেস এক্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
SpaceX
ব্যাক্তিগত
শিল্প মহাকাশ
প্রকার ব্যাক্তিগত
প্রতিষ্ঠাকাল , ২০০২; ১৪ বছর পূর্বে
প্রতিষ্ঠাতা এলন মাস্ক
সদরদপ্তর Hawthorne, California, U.S.
৩৩°৫৫′১৫″ উত্তর ১১৮°১৯′৪০″ পশ্চিম / ৩৩.৯২০৭° উত্তর ১১৮.৩২৭৮° পশ্চিম / 33.9207; -118.3278স্থানাঙ্ক: ৩৩°৫৫′১৫″ উত্তর ১১৮°১৯′৪০″ পশ্চিম / ৩৩.৯২০৭° উত্তর ১১৮.৩২৭৮° পশ্চিম / 33.9207; -118.3278
প্রধান ব্যক্তি
পণ্যসমূহ
  • ফ্যালকন উৎক্ষেপন যানবহন * Dragon capsules
উৎপাদনের আউটপুট
ব্যাক্তিগত
পরিষেবাসমূহ Orbital rocket launch
মালিক Elon Musk Trust
(54% equity; 78% voting control)[১]
কর্মীসংখ্যা
Nearly 5,000[২][৩]</ref>
(February 2016)
ওয়েবসাইট www.spacex.com
পাদটিকা / তথ্যসূত্র
[৪][৫][৬][৭]

স্পেস এক্সপ্লোরেশন টেকনোলজিস কর্পোরেশন, যাকে মানুষ ভালোভাবে স্পেস এক্স নামে চেনে,একটি আমেরিকান মহাকাশযান প্রস্তুতকারক এবং মহাকাশ যাতায়াত সেবা কোম্পানি।এর সদর দফতর Hawthorne, ক্যালিফর্নিয়া।মহাকাশ ভ্রমন সহজলভ্য করার এবং মঙ্গল গ্রহে মানুষের বসবাসের স্বপ্ন নিয়ে ইলন এটি ২০০২ সালে স্থাপিত করেন।.[৮] সেই থেকে স্পেস এক্স ফ্যালকন  এবং ড্রাগন মহাকাশযান বানিয়ে যাচ্ছে,যা উভয় বর্তমানে  পৃথিবীর কক্ষপথে পেলোড ডেলিভার করছে।

References[সম্পাদনা]

  1. Fred Lambert (নভেম্বর ১৭, ২০১৬)। "Elon Musk’s stake in SpaceX is actually worth more than his Tesla shares"। সংগৃহীত মার্চ ১, ২০১৭ 
  2. "SpaceX’s Redmond effort ‘very speculative’"। Seattle Times। নভেম্বর ৭, ২০১৫। সংগৃহীত মার্চ ১, ২০১৭ 
  3. Gwynne Shotwell (ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৬)। Gwynne Shotwell comments at Commercial Space Transportation Conference। Commercial Spaceflight। event occurs at 2:43:15–3:10:05। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৬ 
  4. "Gwynne Shotwell: Executive Profile & Biography"। Bloomberg। সংগৃহীত মার্চ ১, ২০১৭ 
  5. W.J. Hennigan (২০১৩-০৬-০৭)। "How I Made It: SpaceX exec Gwynne Shotwell"। Los Angeles Times। সংগৃহীত মার্চ ১, ২০১৭ 
  6. SpaceX Tour – Texas Test Site। spacexchannel। নভেম্বর ১১, ২০১০। সংগৃহীত মে ২৩, ২০১২ 
  7. "SpaceX NASA CRS-6 PressKit Site"। এপ্রিল ১২, ২০১৫। সংগৃহীত এপ্রিল ১৩, ২০১৫ 
  8. Kenneth Chang (সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৬)। "Elon Musk’s Plan: Get Humans to Mars, and Beyond"। New York Times। সংগৃহীত সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৬