স্পেন্সার ড্রাইডেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্পেন্সার ড্রাইডেন
Spencer Dryden 1970s (cropped).JPG
Dryden, c. 1970s
প্রাথমিক তথ্য
স্থানীয় নামSpencer Dryden
জন্ম(১৯৩৮-০৪-০৭)৭ এপ্রিল ১৯৩৮
নিউ ইয়র্ক সিটি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যু১১ জানুয়ারি ২০০৫(2005-01-11) (বয়স ৬৬)
পেটালুমা, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ধরনসাইকেডেলিক রক, অ্যাসিড রক, কান্ট্রি রক, জ্যাজ
পেশাসঙ্গীতজ্ঞ
বাদ্যযন্ত্রসমূহড্রাম
কার্যকাল১৯৬৬–১৯৯৫
লেবেলআরসিএ, বিএমজি, কলাম্বিয়া
সহযোগী শিল্পীদ্য পিনাট বাটার কন্‌স্পির‍্যাসি, জেফারসন এয়ারপ্লেন, নিউ রাইডার্স অব দ্য পার্পল সেজ, দ্য ডাইনোসর্স

স্পেন্সার ড্রাইডেন (ইংরেজি: Spencer Dryden, ৭ই এপ্রিল, ১৯৩৮ - ১১ই জানুয়ারি, ২০০৫) ছিলেন একজন মার্কিন সঙ্গীতজ্ঞ। তিনি জেফারসন এয়ারপ্লেননিউ রাইডার্স অব দ্য পার্পল সেজ সঙ্গীতদলের ড্রামার হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। এছাড়া তিনি দ্য ডাইনোসর্স ও দ্য অ্যাশেজ (পরবর্তীতে দ্য পিনাট বাটার কন্‌স্পির‍্যাসি নামে পরিচিত) সঙ্গীতদলের হয়েও ড্রাম বাজাতেন। ১৯৯৬ সালে তিনি জেফারসন এয়ারপ্লেনের অন্যান্য সদস্যদের সাথে রক অ্যান্ড রোল হল অব ফেমে ভূষিত হন।[১]

জীবনী[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

স্পেন্সার ড্রাইডেন ১৯৩৮ সালের ৭ই এপ্রিল নিউ ইয়র্ক সিটিতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা হুইলার ড্রাইডেন (১৮৯২-১৯৫৭) ছিলেন একজন ইংরেজ বংশোদ্ভূত মার্কিন অভিনেতা ও পরিচালক এবং বিখ্যাত কৌতুকাভিনেতা, চলচ্চিত্র অভিনেতা ও পরিচালক চার্লি চ্যাপলিনের বৈমাত্রেয় ভাই। তার মাতা অ্যালিস চ্যাপেল (১৯১১-২০০৫) ছিলেন অ্যানা পাভলভাস ড্যান্স কোম্পানির বেলে নৃত্যশিল্পী ও রেডিও সিটি বেলে কোম্পানির সদস্য। ড্রাইডেন তার বিখ্যাত চাচার নাম গোপন রাখতেন, কারণ তিনি চাইতেন না কেউ যাতে তার চাচার সুখ্যাতির কথা বিবেচনা করে তাকে বিচার করেন।[২]

ড্রাইডেন যখন খুব ছোট, তার পিতা চ্যাপলিনের সহকারী হিসেবে কাজ করার জন্য সপরিবারে লস অ্যাঞ্জেলেসে চলে যান।[৩] ১৯৪৩ সালে তার পিতামাতার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। স্পেন্সার শিশু অবস্থাতেই তার চাচার হলিউড স্টুডিওতে ড্রাম বাজাতেন। ১৯৪০ এর দশকের শেষের দিকে জ্যাজ ভক্ত লয়েড মিলারের সাথে তার বন্ধুত্ব হয়। মিলারও ১৯৩৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন। মিলার গ্লেনডেলের রসমোয়েনের রয়্যাল বলেভার্ড স্ট্রিটে বসবাস করতেন।

চ্যাপলিন সুইজারল্যান্ডে চলে গেলে, ১৯৫৪ সালে চ্যাপলিনের যুক্তরাষ্ট্রের স্টুডিওজ বিক্রি করে দেওয়ার পূর্ব পর্যন্ত ড্রাইডেনের পিতা তার ব্যবসায় দেখাশুনা করতেন। তার পিতা জ্যাজ ভক্ত ছিলেন এবং ১৯৫০ এর দশকের শুরুর দিকে তাকে লস অ্যাঞ্জেলেসের জ্যাজ ক্লাবগুলোতে নিয়ে যেতেন। এতে করে তার মধ্যে সঙ্গীতের প্রতি আগ্রহ জন্মে।[২][৪] ১৯৫৭ সালে তার পিতা মারা যান।

জেফারসন এয়ারপ্লেন[সম্পাদনা]

১৯৬৬ সালে মাঝামাঝিতে ড্রাইডেন ড্রামার হিসেবে স্কিপ স্পেন্সের স্থলে সান ফ্রান্সিস্কোর প্রথম সারির সাইকেডেলিক সঙ্গীতদল জেফারসন এয়ারপ্লেনে যোগদান করেন। পূর্বে জ্যাজ সঙ্গীত করা দলটি ব্যাজিস্ট জ্যাক কেস্যাডিকে নিয়ে ভিন্নধর্মী সুর বিভাগ চালু করে। এই সময়ে ড্রাইডেন গ্রেস স্লিকের সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান।[৫]

ড্রাইডেন ১৯৭০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে কুখ্যাত আল্টামন্ট উৎসবে এই দলের সাথে হয়ে যাওয়া দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার জন্য তিনি জেফারসন এয়ারপ্লেন ত্যাগ করেন। এই উৎসবে তাদের প্রধান গায়ক মার্টি বালিন হার্লি ডেভিডসন মোটর বাইক চালক হেল্‌স অ্যাঞ্জেল্‌স ক্লাবের সদস্যদের আঘাতে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন এবং উৎসবে পৃষ্ঠপোষক মেরেডিথ কার্লি হান্টার জুনিয়রকে ছুরি দিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করা হয়।[৬][৭]

দ্য নিউ রাইডার্স অব পার্পল সেজ ও দ্য ডাইনোসর্স[সম্পাদনা]

ড্রাইডেন স্বল্প সময়ের জন্য সঙ্গীত জীবন ত্যাগ করেন, কিন্তু অল্প দিন আবার নিউ রাইডার্স অব দ্য পার্পল সেজ দলে ড্রামার হিসেবে যোগ দেন। ১৯৭০ থেকে ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত তিনি তাদের সাথে ড্রাম বাজাতেন ও গান রেকর্ড করতেন। ১৯৭৭ সালে তিনি দলের ম্যানেজার হন। নিউ রাইডার্স ছাড়ার পর ১৯৯৫ সালে ড্রাম বাজানো থেকে অবসর নেওয়ার পূর্ব পর্যন্ত দ্য ডাইনোসর্স ও ব্যারি মেল্টন দলের হয়ে ড্রাম বাজাতেন।[২][৪][৬]

শেষ জীবন ও মৃত্যু[সম্পাদনা]

ড্রাইডেন ১৯৮৯ সালে জেফারসন এয়ারপ্লেনের পুনর্মিলনীতে যোগদান করেন নি। ১৯৯৬ সালে তাকে জেফারসন এয়ারপ্লেনের অন্যান্য সদস্যদের সাথে রক অ্যান্ড রোল হল অব ফেমে ভূষিত করা হয়।[৮] ২০০৩ সালে তিনি শেষবারের মত মঞ্চে এই সঙ্গীতদলের হয়ে জেফারসন স্টারশিপ গ্যালাকটিক পুনর্মিলনীতে ড্রাম বাজান[৯]

ড্রাইডেন কলোন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন, যা তার যকৃতে ছড়িয়ে পরে।[১০] তিনি ২০০৫ সালের ১১ই জানুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন।[৩][৪] ড্রাইডেন তিনবার বিয়ে করেন। তার তিন পুত্র - জেফ্রি, জেসি ও জ্যাকসন ড্রাইডেন।[৩][৫] তার মাতা অ্যালিস চ্যাপেল জুড ২০০৫ সালের ২৫শে ডিসেম্বর ৯৪ বছর বয়সে মারা যান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Jefferson Airplane" (ইংরেজি ভাষায়)। Rock and Roll Hall of Fame। ১৯৯৬। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. "Spencer Dryden" (ইংরেজি ভাষায়)। Jefferson Airplane। ১৯ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  3. "Spencer Dryden, Drummer For Jefferson Airplane, Dies" (ইংরেজি ভাষায়)। WPBF-TV। জানুয়ারি ১৫, ২০০৫। ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  4. "Spencer Dryden Dies at 66" (ইংরেজি ভাষায়)। Soulshine। জানুয়ারি ১৭, ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  5. Silverman, Stephen M. (জানুয়ারি ১৩, ২০০৫)। "Queen Latifah to Host Grammy Awards" (ইংরেজি ভাষায়)। পিপল। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  6. Baileyand, Peter (জানুয়ারি ১৬, ২০০৫)। "Milestones: Jan 24, 2005" (ইংরেজি ভাষায়)। টাইম। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  7. "Spencer Dryden Dies of Cancer Aged 66" (ইংরেজি ভাষায়)। Gigwise। জানুয়ারি ১৫, ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  8. "The 1996 Induction Ceremonies" (ইংরেজি ভাষায়)। Rock and Roll Hall of Fame। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  9. "Jefferson Starship Live on the West Coast (Galactic Reunion 2003)" (ইংরেজি ভাষায়)। Holding Together (HT) Issue #28। ২০০৩। ১২ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 
  10. "Jefferson Airplane drummer loses battle with cancer" (ইংরেজি ভাষায়)। দ্য সানডে আওয়ার। জানুয়ারি ১৪, ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]