স্পাৎজাকামিনি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(স্পাজ্জাকামিনি থেকে পুনর্নির্দেশিত)
১৯-শতকের শেষ দিকে একজন স্পাৎজাকামিনো(এক বচনে)'র চিত্র। উৎসঃ সনোগনো জাদুঘর।
স্পাৎজাকামিনি এবং তার পাদ্রোন
১৯-শতকের শেষ দিকে মিলানোতে স্পাৎজাকামিনি। উৎসঃ সনোগনো জাদুঘর।

স্পাৎজাকামিনি (ইতালীয়: Spazzacamini, জার্মান: Kaminfegerkinder) একটি ইতালিয় ভাষার সাধারণ বিশেষ্য পদ। ১৯শ ও ২০শ শতাব্দীর গোড়ার দিকে ইতালিসুইজারল্যান্ডে চিমনি পরিষ্কারের কাজে নিয়োজিত শিশু শ্রমিকদের এ নামে ডাকা হতো। জার্মান ভাষী অঞ্চলসমূহে এদের কামিনফেগেরকিন্ডার নামে ডাকা হতো।[১]

ইতিহাস এবং উৎপত্তি[সম্পাদনা]

চিমনি পরিষ্কারের কাজে যুক্ত বেশিরভাগ ছেলে শিশুদের বয়স সাধারণত ৮ থেকে ১২ বছরের মধ্যে হতো। এরা ইতালির সীমান্তবর্তী সুইজারল্যান্ডের টিসিনো ক্যান্টনের বাসিন্দা ছিল। যে সকল প্রাপ্তবয়স্ক চিমনি পরিষ্কারক একাজের ঠিকাদার হতো, ইতালিয় ভাষায় তারা পাদ্রনি নামে পরিচিত। এই শিশুরা আকৃতিতে ছোট ও কৃশকায় হওয়ায় সরু চিমনি বেয়ে ওঠা ও পরিষ্কার করার জন্য পাদ্রোনিদের পছন্দের পাত্র ছিল। পরিস্কার করতে করতে যখন এই শিশুরা চিমনির চূড়ায় পৌছে যেত, তখন "স্পাৎজাকামিনি" বলে চিৎকার করে জানান দিতো যে প্রকৃতই তারা অন্ধকার, সরু চিমনি পরিস্কার সম্পন্ন করেছে। এদের কাজের পরিবেশ ছিল ভয়াবাহ। প্রায়ই এই শিশুদের দুপুরে খাবার জুটতো না, ফলে খাবারের জন্য তাদের ভিক্ষা করতে হতো, এবং প্রায়ই আস্তাবলে ঘুমাতে হতো। টিসিনো উপত্যকার গরীব পরিবারের ছেলে শিশুদের সাধারণত শীতকালে এই কাজে নিয়োগের জন্য পাঠানো হতো, যেন চরম দরিদ্র ও ক্ষুধার্ত পরিবারগুলিকে একজন কম সদস্যের আহার যোগাড় করতে হয়।[২] টিসিনো ক্যান্টনের টিসিনো উপত্যকা ছাড়াও অনেক শিশু ভার্জাস্কা, সেন্টো উপত্যকা এবং ইতালীর ভিজেজ্জো উপত্যকা থেকে আসতো এবং প্রায়শই উত্তর ইতালিতে কাজ করত।[৩]

জনসংস্কৃতিতে[সম্পাদনা]

প্রতিবছর শরতে সারা বিশ্ব থেকে চিমনি ঝাড়ুদাররা স্পাৎজাকামিনি'র স্মরণে ইতালির ভিজেজ্জোতে মিলিত হয়। ১৯৪০-৪১ সালে লিসা টেট্জনার ও তার স্বামী কার্ট ক্লাবার এই শিশুদের স্মরণে প্রথমবার দুই খন্ডের শিশুতোষ সাহিত্য ডেই শোয়ারজেন ব্রুডার (অনু. কৃষ্ণ ভাইয়েরা) রচনা করেছিলেন।কামিনফেগেরজুনজে-তে ভারজাস্কা উপত্যকার সোনোগনো'র একটি ছোট ছেলে জর্জিওর গল্প বলা হয়েছিল, যা ছিল সত্য ঘটনা অবলম্বনে রচিত। লিজা টেটজনার ভার্জাস্কা উপত্যকা এবং টিসিনোর অন্যান্য উপত্যকা থেকে স্পাৎজাকামিনিদের ভাগ্য সম্পর্কে পুরনো ইতিহাস তুলে ধরেছিলেন। বইটি খুব জনপ্রিয় এবং একটি চলচ্চিত্র, একটি টেলিভিশন ধারাবাহিক, একটি সংগীতালেখ্য এবং একটি রেডিও নাটক এই উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে। এছাড়াও স্পাৎজাকামিনি'র স্মরণে ভারজাস্কা উপত্যকার সোনোগনোতে শুরু হওয়া একটি পাহাড়ি মেঠোপথের নামকরণ করা হয়েছে।[৪]

সম্পর্কিত সাহিত্য[সম্পাদনা]

  • এলিজাবেথ ওয়েঙ্গার: আলস লেবেন্ডার বেসেন ইম কামিন (জার্মান ভাষায়): এলিনার ভেরগেসেনেন ভারগেনজেনহেইট আউফ ডার স্পার। ২০১০।[৫]
  • লিসা টেট্জনার ও কার্ট ক্লাবার: ডেই শোয়ারজেন ব্রুডার। আর্লেবনিসে আন্ড আবেন্টুয়ের এইনেস ক্লিনেন টেসিনারস। ১৯৪০-৪১-এ প্রথম প্রকাশিত, সোয়ারল্যান্ডার, আরাউ/ম্যানহেইম ২০১০, আইএসবিএন ৯৭৮-৩-৭৯৪১-৮১০৪-৯
  • লিসা টেট্জনার ও হ্যানেস বাইন্ডার (চিত্রকর): ডেই শোয়ারজেন ব্রুডার – রোমান ইন বিল্ডার্ন। পাটমোস ভারলাগশাউস, ডুসেলডর্ফ ২০০২, আইএসবিএন ৯৭৮-৩-৭৯৪১-৪৯০০-১

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mutter der Kaminfegerkinder" (German ভাষায়)। Neue Zürcher Zeitung। ২০০৯-০৯-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১১-১৬ 
  2. Thomas Gull (২০০৮-১০-১৩)। "Kinderabeit" (German ভাষায়)। HDS। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১১-১৬ 
  3. "Spazzacamini - die Kaminfeger - Kindersklaven aus dem Tessin" (German ভাষায়)। Doppelpunkt, Radio DRS 1। ২০১৩-১১-০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১১-১৬ 
  4. Daniel Benz (২০১২-০৯-২৭)। "Ausflug ins Verzascatal: Der Weg der Spazzacamini" (German ভাষায়)। Beobachter 20/2012। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১১-১৭ 
  5. Elisabeth Wenger (২০১০)। Als lebender Besen im Kamin: Einer vergessenen Vergangenheit auf der Spur (German ভাষায়)। Books on Demand। আইএসবিএন 9783833471704। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১১-১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]