স্ট্রেচ মার্কস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

স্ট্রেচ মাকর্স অথবা প্রসারণজনিত দাগ বলতে ত্বক বিজ্ঞানে বলা হয়, ত্বকের এক ধরনের দাগ যা সাধারণত রংহীন দেখত হয়। এসব দাগ অন্তঃত্বকের প্রসারনের কারণে ত্বকের উপরিভাগে সৃষ্টি হয়, সময়ের সাথে সাথে যা মিলিয়ে যেতে থাকে, কিন্তু একেবারে মুছে যায় না কখনই। স্ট্রেচ মাকর্স বা সম্প্রসারনজনিত দাগসমূহ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে হয় ত্বকের আশেপাশের এলাকার দ্রুত সম্প্রসারন ঘটলে অথবা বৃদ্ধি ঘটলে। কেউ যদি খুব দ্রুত লম্বা হয়ে যায় অথবা খুব দ্রুত মোটা হয়ে যায় সেক্ষেত্রে এমনটি হতে পারে। সম্প্রসারন জনিত দাগ সাধারনত বয়ঃসন্ধিকাল, গর্ভবস্থা, শরীর গঠন, হরমোনের পরিবর্তন জনিত থেরাপি প্রদান ইত্যাদি ক্ষেত্রে দেখা যেতে পারে।[১] চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় এই ধরনের দাগ সমূহের মধ্যে আছে স্ট্যায়ার এট্রোফিকে, ভার্জেটিয়ার্স, স্ট্রেয়া ডিস্টেন্সি, স্ট্যায়ার কিউটিস ডিসটেন্স, লিনিই এট্রোফেকি, লিনিয়া আলবিকান্তে, বা সাধারণ স্ট্রেয়ার স্ট্রেচ দাগ যা কিনা গর্ভাকালীন সময়ে দেখা দেয়, বিশেষ করে গর্ভবস্থার সর্বশেষ তিন মাসের ভেতর এবং এই সময়ে গর্ভবতির পেটে দেখা যায় কিন্তু এছাড়াও স্তনে, উরুতে, পশ্চাদে, পিঠের নিচে এবং পাছায় এসব দাগ দেখা যায় যা স্ট্রেয়ার গ্রাভিডেরাম নামে পরিচিত।[২]

চিহ্ন এবং লক্ষন[সম্পাদনা]

স্ট্রেই বা “স্ট্রেচ দাগ” সাধারণত শুরু হয় এক ধরনের লাল বা গোলাপী ক্ষত সৃষ্টির মাধ্যমে, যা কিনা শরীরের যে কোন স্থানেই দেখা দিতে পারে, তবে শরীরের যেসব স্থানে বেশি পরিমাণ চর্বি থাকে বা জমে সেসব স্থানে বেশী পরিমাণে হয়; বেশির ভাগ ক্ষেত্রে নাভির আশেপাশের পেটে, স্তনে, উর্দ্ধ বাহুতে, নিম্নবাহুতে, পিছনে, উরুতে, পাছায় এগুলি দেখা যায়। যেস স্থানে এগুলি দেখা যায় সেসব স্থানকে কিছুটা খালি খালি লাগে এবং সেসব স্থান স্পর্শ করলে নরম নরম বলে মনে হয়।[৩]

স্ট্রেচ মার্কস দেখা যায় ত্বকে, তবে মধ্য ত্বকের দৃঢ়তার কারণে ত্বক তার আকৃতি ধরে রাখে। কোন সম্প্রসারন সংগঠিত হয় না যতোক্ষন ত্বকের অভ্যন্তরে সহায়ক শক্তি ক্রিয়া করে। স্ট্র্যাচিং সেসব স্থানে গুরুত্বপূর্ণ ক্রিয়া সম্পাদিত করতে সক্ষম হয় যেখান একটি দাগ হয়ে যায় এবং ক্রিয়াটি বেশি বেগবান হয় দাগটি যে দিকে প্রবাহিত হতে থাকে, যদিও এজন্য বেশ কয়েকটি সহায়ক শক্তি আছে এগুলি সৃষ্টির জন্য। এসব দাগ ত্বকের ভেতর পুড়ে গেলে যেমন অনুভূতি হয় সেমন অনুভূতি প্রদান করে এবং চুলকানোর প্রয়োজন উদ্ভব হয়, সাথে সাথে মানসিক পত্রিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। এগুলি শরীরে কোন ক্ষতিসাধন করে না বা শরীরের স্বাভাবিক ক্রিয়ায় কোন ব্যঘাত সৃষ্টি করে না। সাধারণত কিশোরী মেয়েরা এই সমস্যায় বেশী ভোগেন এবং একজন ত্বক বিশেষজ্ঞের[৪] দারস্থ হোন এবং এছাড়া মহিলারা গর্ভাবস্থার পর চিকিৎসকের নিকট যান।[৫][৬]

কারণসমূহ[সম্পাদনা]

মেয়ো ক্লিনিক বলছে “স্ট্যাচ দাগ সমূহ দেখা যেতে পারে, আসলে, ত্বকের প্রসারন সংগঠিত হলে” এবং আরো বলেন “স্ট্র্যাপ দাগ সমূহ কার্টিসনের বৃদ্ধি এবং এডেরেনাল গ্ল্যান্ড থেকে হরমোন বেশী প্রস্তুত কাজ দুটি একত্রে সংগঠিত হলে। কর্টিসোন ত্বকের সম্প্রসারনমীল তন্তুকে দুর্ব করে দেয়।[৭]

চিকিৎসা[সম্পাদনা]

বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা রয়েছে ত্বকের এই সমস্য থেকে উত্তোরনের জন্য যার ভেতর আছে লেজার চিকিৎসা, ডার্মাব্রেসন এবং রেটিনোয়েডস প্রেসক্রিপশন

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bernstein, Eric. What Causes Stretch Marks?. 15 December 2008. The Patient's Guide to Stretch Marks. 10 Feb 2009
  2. "Are Pregnancy Stretch Marks Different?"। American Pregnancy Association। 
  3. "Stretch Mark"Encyclopædia Britannica। সংগৃহীত ১ নভেম্বর ২০০৯ 
  4. Chang, AL; Agredano, YZ; Kimball, AB (২০০৪)। "Risk factors associated with striae gravidarum"। J Am Acad Dermatol 51: 881–5। ডিওআই:10.1016/j.jaad.2004.05.030 
  5. James, William D.; Berger, Timothy G. (২০০৬)। Andrews' Diseases of the Skin: clinical Dermatology। Saunders Elsevier। আইএসবিএন 0-7216-2921-0 
  6. "Stretch Marks"। drbatul.com। সংগৃহীত ১৯th জানুয়ারি ২০১৬ 
  7. http://www.mayoclinic.org/diseases-conditions/stretch-marks/basics/causes/con-20032624