স্টিভ পলফ্রাম্যান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্টিভ পলফ্রাম্যান
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনউইকেট-রক্ষক
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা -
রানের সংখ্যা - ৫৫
ব্যাটিং গড় - ১৩.৭৫
১০০/৫০ -/- ০/০
সর্বোচ্চ রান - ২৮
বল করেছে - -
উইকেট - -
বোলিং গড় ' -
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ৯/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮

স্টিভেন জন পলফ্রাম্যান (ইংরেজি: Steve Palframan; জন্ম: ১২ মে, ১৯৭০) কেপ প্রদেশের পূর্ব লন্ডনে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা দক্ষিণ আফ্রিকান সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১][২][৩] দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে ইস্টার্ন প্রভিন্স, বর্ডার ও বোল্যান্ডের প্রতিনিধিত্ব করেছেন স্টিভ পলফ্রাম্যান। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষক ও ব্যাটসম্যানের যৌথ দায়িত্ব পালন করতেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

উদীয়মান খেলোয়াড় হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে স্টিভ পলফ্রাম্যানের আত্মপ্রকাশ ঘটে। ডেভ রিচার্ডসনের পরই তাকে দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় স্থানে রাখা হতো। তীক্ষ্ণ দৃষ্টিশক্তির অধিকারী ছিলেন তিনি। তবে ব্যাটিংয়ে ধারাবাহিকতা ছিল না। ফলে এক ক্রিকেটবোদ্ধা তাকে নিতান্তই আনাড়ীরূপে আখ্যায়িত করেছেন। তার উইকেট-রক্ষণের ভঙ্গীমা তেমন দর্শনীয় ছিল না তবে বেশ স্থির ছিল।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে সাতটি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণের সুযোগ ঘটে স্টিভ পলফ্রাম্যানের। তবে কোন টেস্ট খেলার জন্যে তাকে জাতীয় দলে রাখা হয়নি। ১৯৯৬ সালে ওডিআই অভিষেক ঘটে তার।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

১৯৯৬ সালে ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কায় যৌথভাবে অনুষ্ঠিত ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছেন তিনি। নিয়মিত উইকেট-রক্ষক ডেভ রিচার্ডসন বিশ্বকাপের পূর্বক্ষণে বামহাতের কনিষ্ঠা ভেঙ্গে গেলে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্যে তাকে ওডিআই দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল ও তার দক্ষতা প্রদর্শনের সুযোগ আসে। গ্রুপ-পর্বে অপরাজিত থেকে কোয়ার্টার ফাইনালে অবতীর্ণ হয় তার দল। কিন্তু ১১ মার্চ করাচীতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে পরাজিত হয়ে বিদায় নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা দল। সবগুলো খেলায় অংশ নিলেও রিচার্ডসন সুস্থ হয়ে দলে ফিরে আসেন ও বিকল্প উইকেট-রক্ষক হিসেবে মার্ক বাউচারকে দলে রাখা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Players / South Africa / ODI caps"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০২-০১ 
  2. "South Africa ODI Batting Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০২-০১ 
  3. "South Africa ODI Bowling Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০২-০১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]