স্কার্লেট জোহ্যানসন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(স্কারলেট জোহানসন থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্কার্লেট জোহ্যানসন
Scarlett Johansson
The face of a smiling woman with blonde hair pulled back into a ponytail, wearing bright red lipstick, small gold hoop earrings, a heavy gold link chain around her neck, and a pink scoop necked shirt.
জানুয়ারি ২০০৮-এ স্কার্লেট জোহ্যানসন
জন্ম
স্কার্লেট ইনগ্রিড জোহ্যানসন

(1984-11-22) ২২ নভেম্বর ১৯৮৪ (বয়স ৩৫)
নাগরিকত্ব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
 ডেনমার্ক
পেশাঅভিনেত্রী, গায়িকা, গীতিকার
কার্যকাল১৯৯৪–বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীরায়ান রেনল্ডস (বি. ২০০৮; বিচ্ছেদ. ২০১১)
রোমান ডোরিয়াক (বি. ২০১৪; বিচ্ছেদ. ২০১৭)
সন্তান
স্বাক্ষর
Scarlett Johansson's signature.svg

স্কার্লেট ইনগ্রিড জোহ্যানসন (ইংরেজি: Scarlett Johansson /dʒoʊˈhænsən/; জন্ম: ২২ নভেম্বর, ১৯৮৪) একজন মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী ও গায়িকা। তিনি ২০১৪ থেকে ২০১৬ সালে বিশ্বের সর্বোচ্চ বেতনভোগী অভিনেত্রী ছিলেন, ফোর্বস সাময়িকীর সেরা ১০০ বিনোদনদাতার তালিকায় কয়েকবার অন্তর্ভুক্ত হন এবং তার নামে হলিউড ওয়াক অব ফেমে একটি তারকা রয়েছে। নিউ ইয়র্ক সিটির ম্যানহাটনে জন্ম ও বেড়ে ওঠা জোহ্যানসন শৈশব থেকে অভিনেত্রী হওয়ার আকাঙ্ক্ষা লালন করেন এবং অফ-ব্রডওয়ের একটি মঞ্চনাটকে শিশু অভিনেত্রী হিসেবে অভিনয় করেন। তার চলচ্চিত্র অভিষেক হয় ফ্যান্টাসিধর্মী হাস্যরসাত্মক নর্থ (১৯৯৪) চলচ্চিত্র দিয়ে। ১৯৯৬ সালে তিনি ম্যানি অ্যান্ড লো (১৯৯৬) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য একটি ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। জোহ্যানসন দ্য হর্স হুইস্পারার (১৯৯৮) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে প্রসিদ্ধি লাভ করেন এবং তার প্রথম সফল চলচ্চিত্র ভূমিকা ছিল ঘোস্ট ওয়ার্ল্ড (২০০১) চলচ্চিত্রের রেবেকা চরিত্র।

২০০৩ সালে তিনি প্রাপ্তবয়স্ক অভিনেত্রীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। এ বছর লস্ট ইন ট্রান্সলেশনগার্ল উইথ আ পার্ল ইয়ারিং ছবি দুটিতে বহুল-আলোচিত ও সমালোচক কর্তৃক সমাদৃত চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি দুটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন পান। এছাড়া আ লাভ সং ফর ববি লং (২০০৪) চলচ্চিত্রে কিশোরী চরিত্রে এবং মনস্তাত্বিক থ্রিলারধর্মী ম্যাচ পয়েন্ট (২০০৫) চলচ্চিত্রে যৌন আবেদনময়ী একটি চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি আরও দুটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। এই সময়ের তার আর কয়েকটি চলচ্চিত্র হন দ্য প্রেস্টিজ (২০০৬), হাস্যরসাত্মক নাট্যধর্মী ভিকি ক্রিস্টিনা বার্সেলোনা (২০০৮)। পাশাপাশি তিনি অ্যানিহোয়ার আই লে মাই হেড (২০০৮) ও ব্রেক আপ (২০০৯) শীর্ষক দুটি গানের অ্যালবাম প্রকাশ করেন। দুটি অ্যালবামই বিলবোর্ড ২০০ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়। তিনি মার্ভেল সিনেমাটিক ইউনিভার্সনাতাশা রোমানফ / ব্ল্যাক উইডো চরিত্রের অভিনয় করছেন ।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

স্কার্লেট ইনগ্রিড জোহ্যানসন ১৯৮৪ সালের ২২শে নভেম্বর[১] নিউ ইয়র্ক সিটির ম্যানহাটন বরায় জন্মগ্রহণ করেন।[২][৩] তার পিতা কার্স্টেন ওলাফ জোহ্যানসন একজন স্থপতি, যিনি ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এবং তার পিতামহ এইনার জোহ্যানসন ছিলেন একজন শিল্পকলার ইতিহাসবেত্তা, চিত্রনাট্যকার এবং চলচ্চিত্র পরিচালক, তার পিতা ছিলেন সুয়েডীয়।[৪][৫] স্কার্লেটের মাতা মেলানি স্লোয়ান একজন প্রযোজক, তিনি পোল্যান্ডরাশিয়ার আশেকনাজি ইহুদি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন, যার নামের শেষাংশ ছিল মূলত শ্লামবের্গ।[৫] স্কার্লেট নিজেকে ইহুদি বলে দাবী করেন।[৬][৭][৮] তার বড় বোন ভানেসাও একজন অভিনেত্রী; তার বড় ভাই আদ্রিয়ান এবং তার যমজ ভাই হান্টার।[৯] স্কার্লেটের পিতার প্রথম বিবাহের পক্ষ থেকে তার ক্রিশ্চিয়ান নামে একজন বৈমাত্রেয় বড় ভাই রয়েছেন। তার মার্কিন ও ডেনীয় দ্বৈত নাগরিকত্ব রয়েছে।[১০][১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Scarlett Johansson" (ইংরেজি ভাষায়)। ব্রিটিশ ফিল্ম ইনস্টিটিউট। নভেম্বর ১৭, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  2. "Scarlett Johansson: 'La monogamia es antinatural'" (স্পেনীয় ভাষায়)। ইআইটিবি। মার্চ ২৮, ২০১৭। অক্টোবর ৬, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  3. "Season 4 Official Trailer"ফাইন্ডিং ইওর রুটস (ইংরেজি ভাষায়)। পিবিএস। সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  4. "'I'm not anything like her...'"দি আইরিশ টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। এপ্রিল ২৭, ২০১২। এপ্রিল ২৭, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  5. ২০১৭ সালের ১৩ই অক্টোবর পিবিএসের ফাইন্ডিং ইওর রুটস অনুষ্ঠানে বলেন।
  6. ফিশার, পল (২০০৮)। "Scarlett Johansson The Spirit Interview" (ইংরেজি ভাষায়)। ফিমেল.কম। মে ৭, ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  7. "Scarlett Johansson's a Jew, too" (ইংরেজি ভাষায়)। জিউইশ টেলিগ্রাফিক এজেন্সি। মার্চ ২৩, ২০০৮। জানুয়ারি ১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  8. হুইটিংটন, পল (এপ্রিল ২, ২০১৭)। "Scarlett Johansson: from starlet to sci-fi queen"আইরিশ ইন্ডিপেন্ডেন্ট (ইংরেজি ভাষায়)। মে ৬, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
    কাপলান, ক্যারেন (সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৪)। "DNA ties Ashkenazi Jews to group of just 330 people from Middle Ages"লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। মে ৬, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
    স্টোন, ন্যাটালি (অক্টোবর ২৭, ২০১৭)। "Scarlett Johansson Fights Back Tears as She Learns Members of Her Family Died in the Warsaw Ghetto"পিপল (ইংরেজি ভাষায়)। মে ৬, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
    হোগার্ড, লিজ (অক্টোবর ১৫, ২০০৬)। "Scarlett Johansson: Sex and the maiden"দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট (ইংরেজি ভাষায়)। ডিসেম্বর ৭, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
    "Scarlett Johansson has Belarusian roots" (ইংরেজি ভাষায়)। বেলস্ট্যাট টিভি। এপ্রিল ১৮, ২০১২। অক্টোবর ১০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  9. হেলার, করিন (নভেম্বর ১৯, ২০১৪)। "Scarlett Johansson Shows Post-Baby Body, Walks Red Carpet With Twin" (ইংরেজি ভাষায়)। ই! নিউজ। জুলাই ১৯, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  10. রেহলিন, গুনার (মার্চ ৪, ২০১৬)। "Scarlett Johansson: Scandinavia is part of my heritage"স্ক্যান্ডিনেভিয়ান ট্রাভেলার (ইংরেজি ভাষায়)। মার্চ ৩, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 
  11. কুইন, বেন (এপ্রিল ২৬, ২০০৮)। "Mary Stuart reigns again – in Ireland"দ্য গার্ডিয়ান (ইংরেজি ভাষায়)। অক্টোবর ৬, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জানুয়ারি ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]